মঙ্গলগ্রহের সাথে তুরস্কের হ্রদের আশ্চর্য মিল

অনলাইন ডেস্ক

মঙ্গলগ্রহের সাথে তুরস্কের হ্রদের আশ্চর্য মিল

মঙ্গল গ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব ছিল কিনা তা জানতে সেখানে অনুসন্ধান চালাচ্ছে নাসার আলোচিত মহাকাশযান পারসিভারেন্স। এরই মধ্যে গ্রহটি থেকে ছবি ও ভিডিও পাঠানো শুরু করেছে এটি। সেখান থেকে মাটি ও পাথরের যেসব ছবি পাঠানো হয়েছে, তা তুরস্কের একটি হ্রদের মাটি ও পাথরের সঙ্গে মিলেছে।

তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের একটি হ্রদের নাম সালদা। পানির রংয়ে মিল থাকায় এটি ‘তুরস্কের মালদ্বীপ’ নামেও পরিচিত। বিজ্ঞানীরা বলছেন, পারসিভারেন্স মঙ্গলের যে জায়গায় অবতরণ করেছে, সেই জেজেরো বেসিনের মাটি ও খনিজ আর তুরস্কের সালদা হ্রদের মাটি ও খনিজ একরকম।

বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, সালদা হ্রদের মাটি ও খনিজের সঙ্গে মঙ্গলের মাটি ও খনিজের মিলের বিষয়টি মঙ্গলে প্রাণের অস্তিত্বের একটা ইঙ্গিত হতে পারে। সালদার মাটি ও খনিজের নমুনা গবেষণায় খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।


আরও পড়ুনঃ


হাসপাতাল চত্বরে রেলিং ও গাছে উঠে মমতার কর্মীদের বিজেপি বিরোধী স্লোগান

প্রিয়াঙ্কাকে জীবনসঙ্গী করার গোপন রহস্য জানালেন নিক

নুসরাতের বুকে নতুন ট্যাটু, কী লেখা আছে জানতে ব্যাকুল ভক্তরা


২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্র এবং তুরস্কের বিজ্ঞানীদের একটি দল সালদা হ্রদ নিয়ে কাজ করেন। তখন সংগ্রহ করা তথ্যই হ্রদটির সঙ্গে মঙ্গলের মিলের কথা জানাচ্ছে।
দুই গ্রহের মাটি ও খনিজ পদার্থের মিল মঙ্গলে প্রাণের অস্তিত্ব সম্পর্কে আশাবাদী করলেও বিজ্ঞানীরা বলছেন, বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হতে এখনো অনেক বাকি।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

করোনায় নতুন করে দরিদ্র হয়েছে আড়াই কোটি: সমীক্ষা

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় নতুন করে দরিদ্র হয়েছে আড়াই কোটি: সমীক্ষা

করোনার প্রভাবে এবার নতুন করে আড়াই কোটি মানুষ দরিদ্র হয়েছে। বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (বিআইজিডি) এক যৌথ সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

সংক্রমণ এড়াতে লকডাউন দেওয়া হলেও এই লকডাউনে উপার্জনের পথ বন্ধ হয়েছে বহু নিম্ন আয়ের মানুষের।

করোনার প্রথম ঢেউয়ের প্রভাব কাটতে না কাটতেই শুরু হয়েছে দ্বিতীয় ঢেউ। গত বছরের ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটির ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত অনেকেই এখনও বিপর্যস্ত অবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারেননি।

ওই সময় দেশে দারিদ্র্যের হার দ্বিগুণ হয়েছিল। নিম্ন আয়ের মানুষ যখন সেই ধাক্কা সামলে উঠে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে, তখনই শুরু হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাব সামাল দিতে গত ৫ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। এরপরও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে সার্বিক কার্যাবলি ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। যাকে বলা হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

রাস্তা-ঘাট থেকে শুরু করে শ্বশুড় বাড়িতেও পদ-পদবীর দাপট


এই লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সরকারের নীতিনির্ধারকরা। এতে দৈনিক আয়ের ওপর নির্ভরশীল মানুষের টিকে থাকার সংগ্রাম আরও কঠিন হতে যাচ্ছে। এ অবস্থায় অনেকেই পরিবার-পরিজন নিয়ে দুর্ভাবনায় পড়েছেন নতুন করে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

দিল্লিতে লকডাউনে ঘোষণা; মদের দোকানে দীর্ঘ লাইন

অনলাইন ডেস্ক

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার 
মদেই হবে'

ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। প্রতিদিনই গড়ছে নতুন রেকর্ড। কয়েকদিন ধরেই দেশটির দৈনিক করোনা সংক্রমণ দুই লাখ ছাড়িয়ে যাচ্ছে। একইসঙ্গে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

এই পরিস্থিতি এড়াতে দিল্লিতে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। অন্যদিকে, ঘোষণার সাথে সাথেই দোকানে দোকানে বেড়েছে মদ কেনার জন্য দীর্ঘ লাইন!

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত ১০ থেকে পরের সোমবার সকাল ৫টা পর্যন্ত লকডাউন থাকবে দিল্লিতে। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে চিকিৎসা এবং খাদ্য সংক্রান্ত জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে।

কিন্তু দিল্লির খান মার্কেট, গোলে মার্কেটের মতো এলাকায় দেখা যায়, একের পর এক মদের দোকানের সামনে কয়েকশ ক্রেতার ভিড়। ক্রেতাদের করোনা বিধি ভেঙে মদ কেনার লম্বা লাইনের ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।


আরও পড়ুনঃ


বাইডেনের প্রস্তাবে রাজি পুতিন

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

একজন মিডিওকার যুবকের ১৮+ জীবনের গল্প এবং অন্যান্য

মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, মদ কিনতে আসা এক নারী সাংবাদিকদের বলেন, ‘৩৫ বছর ধরে মদ খাচ্ছি। ওষুধের প্রয়োজন হয় না। টিকায় কিছু লাভ হবে না। মদেই যা লাভ হওয়ার হবে।’

ক্যামেরার সামনে করা সেই মন্তব্য ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

২০ এপ্রিল, ইতিহাসে আজকের এই দিনে

অনলাইন ডেস্ক

২০ এপ্রিল, ইতিহাসে আজকের এই দিনে

২০ এপ্রিল, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১১০তম (অধিবর্ষে ১১১তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৫৫ দিন বাকি রয়েছে।

একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৫২৬ -  পানিপথের যুদ্ধে মোগলরা আফগানদের পরাভূত করে।
১৭৭০ -  ব্লাক নিউ সাউথ ওয়েলস আবিষ্কার করেন।
১৭৭০ -  আজকের এই দিনে ক্যাপ্টেন কুক অস্ট্রেলিয়া আবিস্কার করেন।
১৮৮৯ - ফরাসী বিপ্লবের শতবর্ষ পূর্তিতে স্মারকস্তম্ভ ৯৮৫ ফুট উঁচু আইফেল টাওয়ার নির্মাণের কাজ শেষ হয়।
১৯০২ -  কিউবা থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়।
১৯১৯ -  মন্টিনিগ্রোর রাজা নিকোলাস সিংহাসনচ্যুত।
১৯৪০ -  দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশ ব্রিগেডের ফ্রান্সে পদার্পণ।
১৯৪৫ -  ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর বার্লিনে প্রবেশ।
১৯৫৯ -  নদার্ন রোডেশিয়ায় নির্বাচনে ইউনাইটেড ফেডারেল পার্টির জয়।
১৯৬৪ -  লাওসে সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ।
১৯৭২ -  যুক্তরাষ্ট্রের এ্যাপোলো-১৬’র নভোচারীরা নিরাপদে চাঁদে অবতরণে সফল।
১৯৭৬ -  জেরুজালেমে ইসরাইল বিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে।
১৯৮৬ -  শ্রীলংকায় একটি বিশাল সেচ মজুদাগারে ফাটল ধরে বিরাট এলাকা জুড়ে প্লাবন । দুশতাধিক প্রাণহানি। ২০ হাজার পরিবার গৃহহীন।
১৯৯৮ -  ইকুয়েডরের যাত্রীবাহী বিমান কলম্বিয়ার পার্বত্যাঞ্চলে বিধ্বস্ত হয়ে ৫৩ আরোহীর সবাই নিহত।
২০১২ - পাকিস্তানের ইসলামাবাদের কাছে বেনজির ভুট্টো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর-এর সন্নিকটে আবাসিক এলাকায় বিমান বিদ্ধস্ত হয়ে ১২৭ জন নিহত হয়।
২০১৩ - চীনের সিচুয়ান প্রদেশে ৬.৬ মাত্রার ভূমিকম্পে ১৫০ জনেরও বেশি নিহত হয়।

জন্ম:
১৪৯২ -   পিয়েট্রো আরেটিনো, তিনি ছিলেন ইতালীয় লেখক, নাট্যকার ও কবি।
১৮০৮ -   তৃতীয় নেপোলিয়ন, তিনি ছিলেন ফরাসি রাজনীতিবিদ ও ১ম প্রেসিডেন্ট।
১৮৮৯ -   আডলফ হিটলার, তিনি ছিলেন জার্মান রাজনীতিবিদ ও চ্যান্সেলর।
১৮৯৩ -   হ্যারল্ড লয়েড, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা, কৌতুকাভিনেতা ও প্রযোজক।
১৮৯৩ -   জোয়ান মিরো, তিনি ছিলেন স্প্যানিশ চিত্রশিল্পী ও ভাস্কর।
১৯১৮ -   শওকত আলী, তিনি ছিলেন রাজনীতিবিদ ও বাংলা ভাষা আন্দোলনের একজন অন্যতম নেতা।
১৯১৮ -   কাই মানে বোরিয়ে জিগবান, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯২৭ -   কার্ল আলেকজান্ডার মুলার, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইস পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৩৭ -   জর্জ টাকেই, তিনি আমেরিকান অভিনেতা।
১৯৩৯ -   গ্রো হারলেম ব্রুন্ডটল্যান্ড, তিনি নরওয়েজিয়ান চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ ও ২২ তম প্রধানমন্ত্রী।
১৯৪৯ -   মাসিমো দালেমা, তিনি ইতালীয় সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও ৭৬ তম প্রধানমন্ত্রী।
১৯৪৯ -   জেসিকা ফিলিস ল্যাং, তিনি আমেরিকান অভিনেত্রী।
১৯৬৪ -   অ্যান্ডি সেরকিস, তিনি ইংরেজ অভিনেতা ও পরিচালক।
১৯৭২ -   কারমেন ইলেকট্রা, তিনি আমেরিকান মডেল ও অভিনেত্রী।
১৯৭২ -   যেলজক জক্সিমভিক, তিনি সার্বীয় গায়ক, গীতিকার ও প্রযোজক।
১৯৮৩ -   মিরান্ডা মে কের, তিনি অস্ট্রেলিয়ান মডেল।

মৃত্যু:
১৯১২ -  আব্রাহাম ব্রাম স্টোকার, তিনি ছিলেন আইরিশ বংশোদ্ভূত ইংরেজ লেখক ও ড্রাকুলারে স্রষ্টা।
১৯১৮ -  কার্ল ফার্দিনান্দ ব্রাউন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান বংশোদ্ভূত আমেরিকান পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৩২ -  গিউসেপে পেয়ানো, তিনি ছিলেন ইতালীয় গণিতবিদ ও দার্শনিক।
১৯৫২ -  সুধীরলাল চক্রবর্তী, তিনি ছিলেন বাংলা ভাষার সুরকার ও সঙ্গীতজ্ঞ ও সুগায়ক।
১৯৬০ -  পান্নালাল ঘোষ, ছিলেন একজন ভারতীয় বাঙালী বংশীবাদক।
১৯৯১ -  ডোনাল্ড সিজেল, তিনি ছিলেন আমেরিকান পরিচালক ও প্রযোজক।
১৯৯২ -  বেনি হিল, তিনি ছিলেন ইংরেজ কৌতুকাভিনেতা, অভিনেতা ও চিত্রনাট্যকার।
১৯৯৩ -  কান্টিনফ্লাস, তিনি ছিলেন মেক্সিক্যান অভিনেতা, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।
২০০৩ -  বার্ণার্ড কাটজ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান বংশোদ্ভূত ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ।
২০১১ -  জেরার্ড স্মিথ, তিনি ছিলেন আমেরিকান গিটারিস্ট।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

১৯ এপ্রিল, ইতিহাসের এই দিনে

অনলাইন ডেস্ক

১৯ এপ্রিল, ইতিহাসের এই দিনে

১৯ এপ্রিল, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১০৯তম (অধিবর্ষে ১১০তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৫৬ দিন বাকি রয়েছে। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৪৫১ - দিল্লির বাদশাহ আলম শাহ সিংহাসন ছাড়েন।
১৫৩৯ - জার্মান সম্রাট চার্লস ফ্রাঙ্কফুর্টের সঙ্গে শান্তিচুক্তি করেন।
১৭৭৫ - আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু।
১৭৮২ - নেদারল্যান্ডস যুক্তরাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দেয়।
১৮৩৯ - লন্ডন চুক্তির মাধ্যমে বেলজিয়ামের স্বাধীনতা লাভ।
১৯১৯ - আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা প্রতিষ্ঠা।
১৯৪৮ - মায়ানমার জাতিসংঘে যোগদান করে।
১৯৫৪ - পূর্ব পাকিস্তান সাহিত্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
১৯৫৪ - পাকিস্তান গণপরিষদ কর্তৃক বাংলা ও উর্দুকে পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা ঘোষণা।
১৯৭৫ - ভারতের প্রথম উপগ্রহ আর্যভট্ট মহাকাশে উ‍ৎক্ষেপণ করা হয়।
 
জন্ম:

১৩২০ - পর্তুগালের রাজা প্রথম পেদ্রো।
১৯৩১ - ফ্রেড ব্রুক্‌স, মার্কিন সফটওয়্যার প্রকৌশলী এবং কম্পিউটার বিজ্ঞানী।
১৯৩৩ - ডিকি বার্ড, ক্রিকেট বিশ্বের শ্রেষ্ঠ আম্পায়ার ছিলেন।
১৯৫১ - অভিনেতা জাফর ইকবাল।
১৯৮৭ - মারিয়া শারাপোভা, রুশ টেনিস খেলোয়াড়।


পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে যে ৩ প্রশ্নে নিশ্চুপ ছিলেন মাওলানা মামুনুল

মাওলানা মামুনুলকে আদালতে হাজির করা হবে আজ


মৃত্যু:
১৮২৪ - লর্ড বায়রন, এ্যাংলো-স্কটিশ কবি।
১৮৮২ - চার্ল্‌স্‌ ডারউইন, ইংরেজ জীববিজ্ঞানী। তিনিই প্রথম বিবর্তনবাদ এর ধারণা দেন।
১৯১৪ - চার্লস স্যান্ডার্স পেয়ার্স, মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী ও দার্শনিক।
১৯৫৮ - অনুরূপা দেবী, বাঙালি ঔপন্যাসিক।
১৯৫৮ - বিলি মেরেডিথ, ব্রিটিশ ফুটবলার।
১৯৭৪ - আইয়ুব খান, পাকিস্তানী সেনাপতি ও রাষ্ট্রপতি।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

৩০ বছর পর বিচ্ছেদ, ঘরের কাজের পারিশ্রমিক ৬০ লাখ টাকা!

অনলাইন ডেস্ক

৩০ বছর পর বিচ্ছেদ, ঘরের কাজের পারিশ্রমিক ৬০ লাখ টাকা!

ঘটনা পর্তুগালের। ৩০ বছর সংসার করার পর বিচ্ছেদ হয় এক দম্পতির। আর সেই বিচ্ছেদ নিষ্পত্তিতে আদালত স্বামীকে তার সাবেক স্ত্রীকে ৭২ হাজার ডলার বা ৬০ লাখ ৯৬ হাজার বাংলাদেশি টাকা পারিশ্রমিক দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

পর্তুগালের সুপ্রিম কোর্টের বিচারক এই আদেশ দেন।

বিবাহিত জীবনে সংসারের জন্য করা কাজের জন্য ওই স্ত্রী প্রায় আড়াই লাখ ইউরো দাবি করে মামলাটি করেছিলেন। কিন্তু সেই মামলা ব্রাসেলস এর আদালত খারিজ করে দেয়। এরপর আদালত বদল হতে হতে সুপ্রিম কোর্টে যেয়ে ঠেকে মামলাটি।


আরও পড়ুনঃ


বাইডেনের প্রস্তাবে রাজি পুতিন

২৮ হাজার লিটার দুধ নিয়ে নদীতে ট্যাঙ্কার!

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?


৩০ বছরের দাম্পত্যজীবন ভেঙে যাওয়ার পর এ বছরের জানুয়ারিতে মামলাটি করেন ওই নারী। দীর্ঘ আইনি লড়াই শেষে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত এ রায় দেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন অভিযুক্ত সাবেক স্বামী।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর