মিয়ানমারে নিহত ৭০, সতর্ক করলো জাতিসংঘের মানবাধিকার তদন্ত কর্মকর্তা

নাহিদ জিহান

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পর এখন পর্যন্ত ৭০ জন নিহত হয়েছেন। বিক্ষোভ দমনে সামরিক বাহিনীর এই খুন, নির্যাতন ও হয়রানিমূলক কর্মকাণ্ড মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে গণ্য হতে পারে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার তদন্ত কর্মকর্তা।

এছাড়া অং সান সু চি ক্ষমতায় থাকাকালে স্বর্ণসহ ৬ লাখ ডলার ঘুষ নিয়েছিলেন বলে জান্তা সরকার যে অভিযোগ এনেছে, তা উড়িয়ে দিয়েছেন তার আইনজীবী। 

পহেলা ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের সপ্তাহ খানেক পর থেকেই দেশজুড়ে ব্যাপকভাবে বিক্ষোভ শুরু হয়। সেই সাথে শুরু হয় জান্তা সরকারের দমন-পীড়ন। এখন পর্যন্ত সামরিক সরকারের নির্দেশে বিক্ষোভকারীদের ওপর চালানো নির্বিচার গুলিতে মারা গেছেন অন্তত ৭০ জন। জান্তা সরকারের নিপীড়ণমূলক কর্মকাণ্ড মানবতাবিরোধী অপরাধ হিসেবে গণ্য হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন মিয়ানমারে জাতিসংঘের মানবাধিকার তদন্ত কর্মকর্তা টমাস অ্যান্ড্রু।

মিয়ানমার নামের দেশটি খুনি ও অবৈধ শাসকগোষ্ঠীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারী, চিকিৎসাকর্মী ও পথচারীদের নির্মমভাবে মারধর করেছে- এমন ঘটনার বিস্তৃত ভিডিওচিত্র প্রমাণ হিসেবে রয়েছে।


দেশে করোনায় মৃত্যু আবারও বাড়ল

স্ত্রীকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ, সন্ত্রাসীদের হাতে স্বামী খুন

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই গণতন্ত্র হরণ করে: ফখরুল

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা মহামারীর এক বছর পূর্তিতে কী বলছেন বাইডেন


মিয়ানমারের নোবেলজয়ী নেত্রী ক্ষমতায় থাকাকালে স্বর্ণসহ ৬ লাখ ডলার ঘুষ নিয়েছিলেন বলে দেশটির সামরিক জান্তা অভিযোগ তুলেছে। বৃহস্পতিবার সামরিক জান্তার মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জাও মিন তুন সংবাদ সম্মেলনে অং সান সু চির বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগের তোলেন। তবে এ অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছেন সু চির আইনজীবী খিন মং জ।

সামরিক জান্তার দমনপীড়নে ভীত না হয়ে দিনভর কর্মসূচির পাশাপাশি শুক্রবার রাতেও দেশজুড়ে অভ্যুত্থানবিরোধী ধর্মঘট করতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান আন্দোলনকারীরা। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোয় প্রায়ই রাত্রিকালীন কারফিউ অগ্রাহ্য করে আলোক প্রজ্জলন কর্মসূচি করছেন বিক্ষোভকারীদের।  

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচক

পাকিস্তান-আফগানিস্তান-মিয়ানমারের চেয়েও পিছিয়ে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তান-আফগানিস্তান-মিয়ানমারের চেয়েও পিছিয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে আরও এক ধাপ পিছিয়ে ১৫২-তে দাঁড়িয়েছে। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ২০২১ সালের এই সূচক প্রকাশ করে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস (আরএসএফ)।

এর আগে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮০টি দেশের মধ্যে ছিল (২০২০ সালের) ১৫১তম।

২০১৯ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫০তম।


মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটুনির ১মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ভিডিও ভাইরাল

ডাক্তার-পুলিশের এমন আচরণ অনাকাঙ্ক্ষিত: হাইকোর্ট

একদিনে করোনা শনাক্ত ৪৫৫৯

২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৯১ জন


এছাড়া প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান সবার নিচে। সূচকে বাংলাদেশের চেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান (১৪৫), ভারত (১৪২), মিয়ানমার (১৪০), শ্রীলঙ্কা (১২৭), আফগানিস্তান (১২২), নেপাল (১০৬), মালদ্বীপ (৭৯), ভুটান (৬৫)।

গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করতে পারছে, তার ভিত্তিতে আরএসএফ ২০০২ সাল থেকে এই সূচক প্রকাশ করে আসছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত ইসরাইলে

অনলাইন ডেস্ক

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত ইসরাইলে

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত করেছে ইসরাইল। বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের মধ্যে গত সপ্তাহে করোনার ভারতীয় ধরনের সাত রোগী শনাক্ত করেছিল ইসরাইল। বর্তমানে তারা প্রাথমিক পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এমন তথ্য দিয়েছে।

ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিচালক হেজি লেভি বলেন, করোনার ভারতীয় ধরনের বিরুদ্ধে ফাইজারের টিকা কার্যকর। যদিও ফলপ্রসূতা কিছুটা কম। ইসরাইলে বর্তমানে এই ধরনের আট রোগী আছেন।

প্রাণঘাতী করোনা মহামারি মোকাবিলায় হার্ড ইমিউনিটির কাছাকাছি ইসরাইল। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়া ও টিকাদানের মাধ্যমে হার্ড ইমিউনিটিতে পৌঁছানো যায়। বিবিসির খবরে বলা হয়, করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে হার্ড ইমিউনিটির সীমা অন্তত ৬৫ থেকে ৭০ শতাংশ হবে। অর্থাৎ এই সংখ্যক মানুষ ভাইরাস প্রতিরোধী হলেই কোভিড-১৯ রোগ থেকে হার্ড ইমিউনিটি অর্জন সম্ভব।

ইসরাইলে অর্ধেকের বেশি অধিবাসীকে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। সংখ্যার হিসাবে যেটি ৫৩ লাখ মানুষ। 

ইতিমধ্যে দেশটির কিন্ডারগার্টেন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষে ফিরতে শুরু করেছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্কুলগুলোতে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধান মেনে চলতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। শ্রেণিকক্ষে বায়ু চলাচলের অবাধ ব্যবস্থা থাকতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় মারা গেলেন চাদের প্রেসিডেন্ট

অনলাইন ডেস্ক

 
দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় মারা গেলেন চাদের প্রেসিডেন্ট

আফ্রিকান দেশ চাদের পুনর্নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইদরিস দেবি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আহত হওয়ার পর মারা গেছেন। 

আজ মঙ্গলবার দেশটির সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জেনারেল আজিম বেরমান্দোয়া আগৌনা এ তথ্য জানান। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, যুদ্ধক্ষেত্রে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন ইদরিস দেবি।

৬৮ বছর বয়সী ইদ্রিস তিন দশক ক্ষমতা ছিলেন। তিনি সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতা থাকা আফ্রিকার নেতাদের মধ্যে একজন ছিলেন। ইদ্রিসের ৩৭ বছর বয়সী ছেলের নেতৃত্বাধীন একটি সামরিক পরিষদ আগামী দেড় বছর দেশটির শাসনভার সামলাবেন।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়, ১১ এপ্রিল দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণার এক দিন পরই তার মৃত্যুর খবরটি জানানো হয়।

এদিকে এরই মধ্যে দেশটির সরকার ও পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়া হয়েছে। পরবর্তী ১৮ মাস সরকার পরিচালনা করবে প্রেসিডেন্ট ইদ্রিসের ৩৭ বছর বয়সী ছেলে কাকার নেতৃত্বে মিলিটারি কাউন্সিল।

প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর ফলে দেশজুড়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। এছাড়া দেশটির সীমানা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

আল জাজিরায় বলা হয়েছে, সামরিক কাউন্সিল প্রতিষ্ঠা করা শাদের সংবিধানে নেই। সংবিধানের যা বলা রয়েছে, তা হলো প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতিতে বা তিনি মারা গেলে সংসদের স্পিকার ৪০ দিনের জন্য দেশের দায়িত্ব নেবেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এবার মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে নারী গার্ড

অনলাইন ডেস্ক

এবার মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে নারী গার্ড

ইতিহাসে প্রথবমারের মত সৌদি আরবের পবিত্র নগরী মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে নারী গার্ডকে দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে। সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সোমবার নারী নিরাপত্তা অফিসারদের ডিউটিরত ছবি প্রকাশ করেছে। 

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, নারী গার্ডরা নিরাপত্তা বাহিনীর পোশাক পরে রয়েছেন। তারা ইবাদতকারী ও হাজিদের নিরাপত্তার বিষয়টি দেখভাল করছেন। তবে এসব কিছু করার সময় প্রয়োজনীয় সুরক্ষা সব ব্যবস্থা নিয়েই দায়িত্ব পালন করছেন তারা।

ওই ছবি পোস্ট করে টুইটারে এক টুইটে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় লেখে, হজ ও ওমরাহ’র নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকাদের ছবি। সৌদি আরবে নারীর অধিকার আরও বেশি নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এরই অংশ হিসেবে আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বাহিনীতে নারীদের পদোন্নতি দেয়া হচ্ছে।

যুবরাজ মোহাম্মদের ২০৩০ ভিশন অনুযায়ী, সৌদি নারীদের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেয়া হবে। যেসব কর্মকাণ্ড আগে কেবলমাত্র ‍পুরুষদের জন্যই সীমিত ছিল।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রেড লিস্টে ভারত, ব্রিটেনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

রেড লিস্টে ভারত, ব্রিটেনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ভারতীয়দের ব্রিটেনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ব্রিটেন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ভারত সফর বাতিলের পরপরই সেদেশের ভারতীয়দের পা রাখায় নিষেধাজ্ঞা জারি করল ব্রিটেন।

ব্রিটেনের স্বাস্থ্যসচিব ম্যাট হ্যানকক সোমবার ব্রিটেনের পার্লামেন্টে এই ঘোষণা করেন। আগামী ২৪ এপ্রিল থেকে এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

করোনার ভারতীয় প্রজাতি ভাইরাস নিয়ে চিন্তায় ব্রিটেন। যেভাবে ভারতে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, তাতে এই আবহে এ দেশ থেকে কোনও ভারতীয় ব্রিটেনে ঢুকতে পারবেন না।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

রাস্তা-ঘাট থেকে শুরু করে শ্বশুড় বাড়িতেও পদ-পদবীর দাপট


অবশ্য ভারত থেকে কোনও আইরিশ বা ব্রিটিশ নাগরিকেরা দেশে ফিরলে, তাদের এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়তে হবে না বলে জানিয়েছে ব্রিটেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তবে তাদের জন্য নিজ খরচে ১০ দিনের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করেছে ব্রিটিশ সরকার।

সম্প্রতি ব্রিটেনে করোনার ভারতীয় প্রজাতির ১০৩টি সংক্রমণের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। তাই ভারতীয়দের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল বলে মনে করা হচ্ছে। এ কারণেই ভারতকে ‘রেড লিস্ট’ বা, লাল তালিকাভুক্ত করেছে ব্রিটেন।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর