অচলাবস্থা ভাঙ্গতে চাইলে ইরানের শর্ত মানতে হবে: প্রেস টিভি

অনলাইন ডেস্ক

অচলাবস্থা ভাঙ্গতে চাইলে ইরানের শর্ত মানতে হবে: প্রেস টিভি

যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদেশগুলোর সাথে ইরানের পরমানু সমঝোতাকে পুনরায় উজ্জীবিত করার জন্য আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক তোড়জোড় চলছে। তবে ইরান এব্যাপারে আগের অবস্থানেই আছে। ইরানের ন্যায়সঙ্গত দাবিগুলো মেনে নেওয়ার আগে তেহরান পরমানু সমঝোতায় যাবে না। ইংরেজি নিউজ চ্যানেল প্রেস টিভি জানিয়েছে পরমাণু সমঝোতা নিয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থার ব্যাপারে ইউরোপীয়দের সঙ্গে নয়া মার্কিন প্রশাসনের কোনো পার্থক্য খুঁজে পায়নি ইরান।

সম্প্রতি তিন ইউরোপীয় দেশ আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থায় ইরানবিরোধী প্রস্তাব পাসের চেষ্টা করলে তেহরান হুমকি দিয়ে জানায়, ওই প্রস্তাব পাস হলে সংস্থার মহাপরিচালকের সঙ্গে ইরানের তিনমাসের যে অস্থায়ী চুক্তি হয়েছে তা বাতিল করা হবে। ইরানের ওই হুমকির মুখে ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানি আইএইএ’তে ইরানবিরোধী প্রস্তাব উত্থাপন থেকে সরে আসে।

প্রেসটিভির প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, মার্কিন সরকারও ইরানের ওপর থেকে ধাপে ধাপে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে নিজের অনাপত্তির কথা তুলে ধরেছে। বিশেষ করে বিদেশে আটকে পড়া ইরানের অর্থ ক্রমান্বয়ে ছাড়িয়ে আনতে দিতে সম্মত হয়েছে আমেরিকা। কিন্তু জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন প্রশাসন ইরানের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক কিংবা গোপন কোনো বৈঠকে না বসে এই ছাড় দিতে রাজি নয়।

২০১৫ সালে পাশ্চাত্যের সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতা সই হয়। প্রেসটিভি আরো জানায়, ইউরোপীয়রা এবার পরমাণু সমঝোতাকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে ‘ধাপে ধাপে’ নামক পরিকল্পনা উত্থাপন করেছে। তারা প্রকৃতপক্ষে ইরানের হুমকির মুখে আইএইএ’তে ইরানবিরোধী প্রস্তাব উত্থাপন না করলেও এখন দাবি করছে, নিজেদের সদিচ্ছার প্রমাণ দিতে তারা ওই কাজ থেকে সরে গিয়েছিল। কাজেই এবার তারা ‘ধাপে ধাপে’ পরমাণু সমঝোতাকে পুনরুজ্জীবিত করার যে পরিকল্পনা উত্থাপন করেছে তা ইরানকে মেনে নিতে হবে।

ইউরোপীয় দেশগুলো অতিমাত্রায় আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে একথা বলতেও দ্বিধা করছে না যে, তারা পরমাণু সমঝোতাকে রক্ষা করার চেষ্টা করছে। তারা এখন বলছে, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেআইনিভাবে বেরিয়ে গিয়ে ইরানের তেল বিক্রির ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিলেন তা প্রত্যাহার করার জন্য তেহরানকে অবশ্যই ওয়াশিংটনের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে।


কোথায় মধুবালা কোথায় সেই রাজনীতি

‘বাণিজ্যিক জাহাজে হামলায় জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে’

ছয় বিভাগে ঝড়-বৃষ্টির আভাস

রোববার ঢাকার যেসব বন্ধ ও খোলা


ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতা থেকে বের করে নিলে চলমান অচলাবস্থার সূচনা হয়। প্রেস টিভি আরো লিখেছে, দক্ষিণ কোরিয়ায় ইরানের তেল বিক্রির আটকে পড়া ৭০০ কোটি ডলার থেকে ১০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে আনার বিষয়টিতেও প্রথমে সম্মত হয়েছিল আমেরিকা। কিন্তু ইরান যখন তার ওপর থেকে সব নিষেধাজ্ঞা একবারে প্রত্যাহারের দাবিতে অটল থাকে তখন ওই ১০০ কোটি ডলারের ব্যাপারেও ছাড় দিতে অস্বীকৃতি জানায় মার্কিন সরকার।

প্রতিবেদনে ইরানের কঠোর অবস্থানের কথা তুলে ধরে বলা হয়, ইরানের ঘোষিত নীতির সঙ্গে অসামঞ্জস্যপূর্ণ কোনো পরিকল্পনা নিয়ে তেহরানের সঙ্গে আলোচনায় বসা যাবে না। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা গত ৮ জানুয়ারির ভাষণে যেসব শর্ত দিয়েছেন পাশ্চাত্য সেগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কোনো পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হলেই কেবল তেহরানের সহযোগিতা পাবে।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, তার দেশ পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের মাত্রা আগে কমাতে শুরু করেনি বরং আমেরিকা আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে এই সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পরই সামগ্রিক অচলাবস্থার সূচনা হয়েছে। কাজেই পাশ্চাত্য যদি পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবিত করতে চায় তবে আমেরিকাকে সবার আগে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে।ৎ

আর সেটা শুধু মুখে বললে হবে না বরং কাজে প্রমাণ করতে হবে।  কার্যকরভাবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের বিষয়টি উপলব্ধি করার পরই ইরান পরমাণু সমঝোতায় দেয়া নিজের প্রতিশ্রুতিতে পুরোপুরি ফিরে যাবে।

news24bd.tv আয়শা

পরবর্তী খবর

ফিলিস্তিনের পাশে আর্জেন্টাইনরা, ইসরাইলকে বয়কটের ডাক

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনের পাশে আর্জেন্টাইনরা, ইসরাইলকে বয়কটের ডাক

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনের সমর্থনে ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। গাজায় ইসরায়েলের বর্বোরোচিত এই হামলার প্রতিবাদে আর্জেন্টিনায় বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয় বলে জানিয়েছে আল-জাজিরা।

কাতারভিত্তিক এই গণমাধ্যম জানায়, সোমবার (১৭ মে) ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে কয়েক'শ বিক্ষোভকারী রাজধানী বুয়েনেস আইরেসে ইসরায়েলি দূতাবাসের কাছে জড়ো হয়। এরপর পুলিশি বাধা অতিক্রম করে বিক্ষোভকারীরা দূতাবাসের কাছে পৌঁছায়।

এ সময় বিক্ষোভকারীদের হাতে ছিল ‘ফিলিস্তিনে গণহত্যা বন্ধ করুন’ এবং ‘আমরা হৃদয় থেকে ফিলিস্তিনিদের পক্ষে’ লেখা প্ল্যাকার্ড। এদের মধ্যে এক বিক্ষোভকারীর হাতে স্প্যানিশ ভাষায় লেখাছিল ‘বয়কট ইসরায়েল’।


আরও পড়ুনঃ


ধ্বংসস্তূপে ওপর দাঁড়িয়ে র‍্যাপ গাইল ফিলিস্তিনি শিশু (ভিডিও)

হাঙ্গর পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রকে জিপিএস হিসেবে ব্যবহার করে

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ


এ সময় বিক্ষোভকারীরা আর্জেন্টিনার সরকারের প্রতি ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার আহ্বান জানান। এছাড়া অবিলম্বে ফিলিস্তিনে হামলা বন্ধে জাতিসংঘে আর্জেন্টিনাসহ দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তারা।

উল্লেখ্য, গত ৮ দিন ধরে চলা ইসরায়েলি বিমান হামলায় এখন পর্যন্ত অর্ধশতাধিক শিশুসহ অন্তত ২০০ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ফিলিস্তিনিদের নিখুঁতভাবে হত্যার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: জারিফ

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনিদের নিখুঁতভাবে হত্যার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র: জারিফ

ইসরাইলের কাছে আরো বেশি নিখুঁত সমরাস্ত্র বিক্রি বিষয়ক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে দেয়া এক পোস্টে গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলার কিছু ধ্বংসলীলার ছবি প্রকাশ করে নিজের প্রতিক্রিয়া জানান।

জারিফ বলেন, ‘এরইমধ্যে যখন যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র ও বোমা নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের উপর বৃষ্টির মতো বর্ষিত হচ্ছে তখন মার্কিন সরকার আরো ৭৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার মূল্যের ‘নিখুঁত’ ক্ষেপণাস্ত্র তাদেরকে দিচ্ছে যাতে ইসরাইল আরো বেশি ফিলিস্তিনি শিশুকে আরো বেশি নিখুঁতভাবে হত্যা করতে পারে।’

জারিফ আরো লিখেছেন, ‘একই সময়ে মার্কিন সরকার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ থেকে ইসরাইলের বিরুদ্ধে নরমতম সুরের নিন্দা প্রস্তাবটিও পাস হতে দিচ্ছে না।’


আরও পড়ুনঃ


ধ্বংসস্তূপে ওপর দাঁড়িয়ে র‍্যাপ গাইল ফিলিস্তিনি শিশু (ভিডিও)

হাঙ্গর পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রকে জিপিএস হিসেবে ব্যবহার করে

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ


বিশ্ববাসী ইসরাইল ও তার সমর্থকদের কদার্য চেহারা চিনে রাখছে বলেও এসময়ে উল্লেখ করেন তিনি।

মার্কিন কংগ্রেসের একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে ওয়াশিংটন পোস্ট ইসরাইলের কাছে আমেরিকার নতুন করে অস্ত্র বিক্রি করার খবর দেয়ার পর জারিফ এ প্রতিক্রিয়া জানান।

গত সোমবার ওয়াশিংটন পোষ্ট জানায়, গাজা উপত্যকায় নারকীয় তাণ্ডবের মধ্যেই ইসরাইলের কাছে নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালাতে পারে এমন ৭৩ কোটি ৫০ লাখ ডলারের অস্ত্র বিক্রির বিষয়টি অনুমোদন করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

এবার ফিলিস্তিনের পাশের দেশ লেবাননে ইসরায়েলের বোমা হামলা

অনলাইন ডেস্ক

এবার ফিলিস্তিনের পাশের দেশ লেবাননে ইসরায়েলের বোমা হামলা

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার পর সীমান্তবর্তী দেশ লেবাননেও হামলা চালালো ইসরায়েল। সোমাবার লেবাননে ইসরায়েলি বাহিনী ২২টি বোমা ছোড়ে।

লেবানন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার জবাবে পাল্টা আক্রমণ করা হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানায় ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। তবে লেবানন থেকে সোমবার ছোড়া ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্রের একটিও লক্ষ্যে আঘাত হানার আগেই সেগুলো ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে বলেও জানায় তারা।

সেনাবাহিনী আরও জানায়, যেখান থেকে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছোড়া হয়, কেবল সেখানেই হামলা চালায় ইসরায়েল। তবে লেবানন সেনাবাহিনীর একটি সূত্র জানিয়েছে, ছয়টি নয়, দেশটির দক্ষিণাঞ্চল থেকে সোমবার ইসরায়েলের দিকে তিনটি রকেট ছোড়া হয়।


আরও পড়ুনঃ


ধ্বংসস্তূপে ওপর দাঁড়িয়ে র‍্যাপ গাইল ফিলিস্তিনি শিশু (ভিডিও)

হাঙ্গর পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রকে জিপিএস হিসেবে ব্যবহার করে

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ


গত সপ্তাহে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় হামলা শুরুর পর এ নিয়ে দ্বিতীয়বার লেবাননের ভূখণ্ড থেকে ইসরায়েলের দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার ঘটনা ঘটল।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

করোনায় ভারতে একদিনে ৫০ চিকিৎসকের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় ভারতে একদিনে ৫০ চিকিৎসকের মৃত্যু

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে দিশেহারা ভারত। সংক্রমণের হার অনেক বেড়ে যাওয়ায় দেশটির স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা নাজুক অবস্থায় পৌঁছে গেছে। এই যখন অবস্থা তখন সামনে এলো আরও ভয়াবহ খবর।

ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ) জানিয়েছে, ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৫০ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে।

আইএমএ আরও জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাতে ২৪৪ জন চিকিৎসক প্রাণ হারিয়েছেন দেশে। 

আইএমএ-র সাধারণ সচিব জয়েশ লেলে জানিয়েছেন, ‘‘এইভাবে একদিনে ৫০ জন চিকিৎসক-স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ থেকে এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রকোপে ২৪৪ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ৩ শতাংশ চিকিৎসকের সম্পূর্ণ টিকাকরণ হয়েছিল।’’ 


স্বাস্থ্য বিভাগের পিয়ন থেকে শুরু করে ওপরের সবাই কোটি কোটি টাকার মালিক

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ

আরশের ছায়াতলে আশ্রয় পাবেন যে সাত ব্যক্তি


আইএমএ জানাচ্ছে, গত বছর করোনার প্রকোপে প্রাণ হারিয়েছিলেন দেশের ৭৩৬ জন চিকিৎসক। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত মারণ ভাইরাসের সংক্রমণের শিকার প্রায় ১০০০ জন চিকিৎসক। যদিও আসল সংখ্যাটা আরও বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। কেননা আইএমএ-র পরিসংখ্যানে কেবল সাড়ে তিন লক্ষ চিকিৎসকের হিসেব রয়েছে। সেখানে গোটা দেশে চিকিৎসকদের সংখ্যাটা ১২ লক্ষেরও বেশি।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ফিলিস্তিনে সেনা পাঠাতে প্রস্তুত মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনে সেনা পাঠাতে প্রস্তুত মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী

ফিলিস্তিনে ইসরাইলি হামলাকে সামনে রেখে গাজায় শান্তিরক্ষী পাঠাতে প্রস্তুত আছে বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়া। খবর মালয়মেইলের।

মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব বলেছেন, যদি জাতিসংঘ অনুরোধ জানায় তাহলে গাজায় শান্তিরক্ষী পাঠাতে প্রস্তুত আছে তার দেশ। যেহেতু এখানে আন্তর্জাতিক আইনের বিষয় আছে তাই মধ্যপ্রাচ্যে শান্তিরক্ষী টিম পাঠানোর ব্যাপারে মালয়েশিয়া কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারে না।

ইয়াকুব বলেন, এটার সিদ্ধান্ত নেবে জাতিসংঘ। আমরা নিজেরা সেনাবাহিনী পাঠাতে পারবো না। এর আগে জাতিসংঘের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশে শান্তিরক্ষী টিম পাঠিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে লেবানন, ফিলিপাইন, সুদান, সিয়েরা লিওন এবং কঙ্গো।


আরও পড়ুনঃ


ধ্বংসস্তূপে ওপর দাঁড়িয়ে র‍্যাপ গাইল ফিলিস্তিনি শিশু (ভিডিও)

হাঙ্গর পৃথিবীর চৌম্বক ক্ষেত্রকে জিপিএস হিসেবে ব্যবহার করে

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

রোজিনার মুক্তির দাবিতে শাহবাগ থানার সামনে সাংবাদিকদের বিক্ষোভ


গত ১৫ মে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন ফিলিস্তিন বিষয়ে জাতিসংঘের অক্ষমতায় দুঃখ ও হতাশা প্রকাশ করেন। তিনি ইসরাইলের এই হামলা ১৯৪৯ সালের চতুর্থ জেনেভা সম্মেলনের লঙ্ঘন বলেও উল্লেখ করেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর