কেক কেটে বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের সূচনা

অনলাইন ডেস্ক

কেক কেটে বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের সূচনা

রবিবার সন্ধ্যায় ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ প্রাঙ্গণে অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে কেক কেটে বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর।

আগামীকাল সোমবার এক যুগে পদাপর্ণ করবে দেশের সর্বাধিক প্রচারিত দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন। বর্ষপূর্তি উপলক্ষে রবিবার সন্ধ্যায় ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ প্রাঙ্গণে অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের সূচনা করেন বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। 

বাংলাদেশ প্রতিদিন সম্পাদক নঈম নিজাম ও প্রতিদিন পরিবারের সদস্য ছাড়াও কেক কাটা অনুষ্ঠানে অংশ নেন তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও ঢাকা দক্ষিণ সিটির সাবেক মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, সাবেক উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি, তাহজিব আলম সিদ্দিকী এমপি, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বিএনপি নেতা ও সাবেক এমপি জহির উদ্দিন স্বপন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী ও দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল নেন। 

শুভেচ্ছা বক্তব্যে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর বলেন,  ১২ বছরে পা রাখার জন্য আমি বাংলাদেশ প্রতিদিন পরিবারের পুরো টীমকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। দেশের সর্বাধিক প্রচারিত ও জনপ্রিয় এ পত্রিকাটি আরো ভালো করুক, সেই প্রত্যাশাই করছি। 

তথ্যপ্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, সারা পৃথিবীর কাছে বাংলাদেশ প্রতিদিনের যে সাফল্য আশা করি তা ধরে রাখবে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনে ভূমিকা পালন করবে। আজকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকীর এই সময়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশের ইতিহাস তুলে ধরবে সেই প্রত্যাশাই করছি। 

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন এক যুগে পদাপর্ণ করছে। বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিদিনই আছে। এটাই হচ্ছে আমাদের সবচেয়ে বেশি ভালো লাগা। বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতি শুভ কামনা সব সময়।

একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, সকাল বেলায় সব প্রত্যন্ত অঞ্চলে একটি প্রিয় পত্রিকার নাম বাংলাদেশ প্রতিদিন। আমার কাছেও সবচেয়ে প্রিয় পত্রিকা। আমি মনে করি, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু বা বাংলাদেশ প্রশ্নে এ পত্রিকাটি কোনো আপষ করবে না। 

মোহাম্মদ সাইদ খোকন বলেন, এক যুগে পা রাখা উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রতিদিন পরিবারের সবাইকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। 

আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি বলেন, অল্প সময়ে বাংলাদেশের মধ্যে বাংলাদেশের ১৭ কোটি মানুষের হৃদয় জয় করেছে বাংলাদেশ প্রতিদিন। বাংলাদেশের রাজনীতি, সংস্কৃতি, ব্যবসায়ীসহ সব সেক্টরকে একস্থানে আবদ্ধ করেছে দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় পত্রিকা বাংলাদেশ প্রতিদিন। 

তাহজীব আলম সিদ্দিকী এমপি বলেন, মানুষের প্রত্যাশার চেয়েও বেশি অবদান রাখছে বাংলাদেশ প্রতিদিন। বাঙ্গালী জাতীয়তাবাদ, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের প্রশ্নে বাংলাদেশ প্রতিদিন অবিচল থেকেছে। বাংলাদেশ প্রতিদিন এ আছে সৃষ্টিশীলতা-সৃজনশীলতা আছে। 

অ্যাডভোটেক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন আমার সবচেয়ে প্রিয় পত্রিকা। আজকে ঘুম থেকে উঠে যদি বাংলাদেশ প্রতিদিন না দেখি তাহলে অস্থির লাগে। শুধু আমিই নই সব শ্রেণী পেশার মানুষ বাংলাদেশ প্রতিদিন পড়েন। এমন কোনো এলাকা নেই গ্রাম নেই যেখানে বাংলাদেশ প্রতিদিন যায় না। 

তাবিথ আউয়াল বলেন, গত এক বছরে ভয়ঙ্কর ও খারাপ পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্ব। ওই সময় অনেক গণমাধ্যম বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। ঠিক সেই মুহূর্তে বাংলাদেশ প্রতিদিন শুধু টিকে নয় এই মহামারী মোকাবেলায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাও পালন করেছিল। এই ভূমিকার জন্য বাংলাদেশই বাংলাদেশ প্রতিদিনের কাছে কৃতজ্ঞ। 

কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন বলেন, বাংলাদেশ প্রতিদিন কোটি কোটি মানুষের হৃদয় জয় করে আলোড়িত করেছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকেও প্রকাশিত হচ্ছে বাংলাদেশ প্রতিদিন এটা একটা ইতিহাস। এর আগে বাংলাদেশের সংবাদপত্রের জগতে কখনোই ছিল না। আমাদের মাথার ওপরে আছেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে নঈম নিজাম বলেন, করোনাকালে সংবাদপত্র একটি কঠিন সময় পার করছে। এই কঠিন সময় বাংলাদেশ প্রতিদিন অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ প্রতিদিন এখন সেই আগের অবস্থানে ফিরে যাচ্ছে। 

এ ছাড়াও কর্ণেল (অব.)  ফিরোজ শাম্মী, বাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমান, ডেইলি সান সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের, নিউজ টোয়েন্টি ফোরের হেড অব নিউজ রাহুল রাহা, বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কমের সম্পাদক জুয়েল মাজহার, বাংলাদেশ প্রতিদিনের উপ সম্পাদক মাহমুদ হাসান,  বার্তা সম্পাদক কামাল মাহমুদ, প্রধান প্রতিবেদক মনজুরুল ইসলাম, সার্কুলেশন বিভাগের প্রধান বিল্লাল হোসেন মন্টু প্রমুখ। 


মোদিবিরোধী মিছিল হলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা: মনিরুল

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ইসলামী ব্যাংক

ঢাকার মশা নিয়ন্ত্রণে সাহায্যের আশ্বাস স্পেনের রাষ্ট্রদূতের

রাজনীতি ভুলে বিএনপি ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছে: ওবায়দুল কাদের


এদিকে, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আগামীকাল সোমবার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরার নবরাত্রী হলে দিনভর বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ১৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে ‘গুণিজন সম্মাননা ২০২১-২০২১’ দেওয়া হবে। 

উল্লেখ্য, ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের প্রকাশনা দেশের সর্বাধিক প্রকাশিত দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন ২০১০ সালের ১৫ মার্চ যাত্রা শুরু করে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি

অনলাইন ডেস্ক

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি

করোনা ভাইরাসের কারণে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে। চলতি মে মাসের ২৪ তারিখ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় তা বাড়িয়ে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছে। 

এরপরও ২৯ মে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা সম্ভব নয় বলে শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

সোমবার (১৭ মে) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের ভার্চুয়াল সভা শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

কবে নাগাদ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। তবে চূড়ান্ত কোনো তারিখ নিয়ে কথা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, দেশে ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হয়েছে। ভ্যাকসিন কার্যক্রম চলমান রাখতে বিভিন্ন দেশ থেকে নিয়ে আসার প্রক্রিয়া চলছে। ফলে শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন নিশ্চিত করার পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া সম্ভব হবে।

সচিব বলেন, স্কুল-কলেজ খোলার বিষয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে। সবারই একটা বক্তব্য- আগে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সংস্কারের কাজ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সংস্কারে সরকার নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছে। ৪৯টি ইউনিভার্সিটি বা কলেজগুলোর যে হোস্টেলগুলো আছে সেগুলো অলরেডি ৪০টির মতো সংস্কার হয়ে গেছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভ্যাকসিন আসছে। যদি ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দিয়ে দিতে পারি তারপরে ইনশাল্লাহ তাড়াতাড়ি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পারব।

সরকারের সর্বশেষ ঘোষণায় বলা হয়, মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ২৯ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ সময়ে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

দেশে করোনার যে চারটি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে

অনলাইন ডেস্ক

দেশে করোনার যে চারটি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে

বাংলাদেশে ২০০ জন কোভিড-১৯ রোগীর নমুনার জিনোম সিকোয়েন্সিং করে চারটি ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পাওয়া গেছে বলে নিশ্চিত করেছে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।

সোমবার (১৭ মে) আইইডিসিআরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দেশে এখন পর্যন্ত পাওয়া চারটি ভ্যারিয়েন্টগুলোর মধ্যে রয়েছে- বি.১.১.৭ (ইউকে ভ্যারিয়েন্ট), বি.১.৩৫১ (সাউথ আফ্রিকা ভ্যারিয়েন্ট), বি.১.৫২৫ (নাইজেরিয়া ভ্যারিয়েন্ট), এবং বি.১.৬১৭.২ (ইন্ডিয়া ভ্যারিয়েন্ট)।

সম্প্রতি জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর), আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) এবং ইনস্টিটিউট ফর ডেভেলপিং সায়েন্স অ্যান্ড হেলথ ইনিশিয়েটিভস (আইদেশি) যৌথভাবে গবেষণা করে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আক্রান্ত রোগীদের সবাই বিগত ১ থেকে ২৫ এপ্রিলের মধ্যে পাশের দেশ ভারতে চিকিৎসার জন্য ভ্রমণ করেছেন। এ ছয়জনের মধ্যে তিনজন একই পরিবারের সদস্য। ছয়জনের বয়স ৭ থেকে ৭৫ বছরের মধ্যে। 

এরা সবাই এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন এবং বিভিন্ন হাসপাতালে আইসোলেশনে ছিলেন। এদের মধ্যে একজন বয়স্ক ব্যক্তি ক্যানসারসহ অন্যান্য জটিল রোগে ভুগছিলেন এবং পরবর্তীতে তিনি মারা যান।

যে ছয়জনের শরীরের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে তারা ভারতের চেন্নাই, বেঙ্গালুরু, হরিয়ানা ও পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসার জন্য ভ্রমণ করেছিলেন বলে জানানো হয়।

দেশে শনাক্ত হওয়া এই ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের সিকোয়েন্স বৈশ্বিক ডাটাবেজ জিআইএসএআইডিতে জমা দেওয়া হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

আইইডিসিআর জানায়, বাংলাদেশে কোভিডের ইন্ডিয়া ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি শনাক্তে আইইডিসিআর কাজ করছে।

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ভ্যারিয়েন্ট অফ কনসার্ন (VOC) হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। এ ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৪৪টি দেশে শনাক্ত হয়েছে।

পরবর্তী খবর

দূরপাল্লার বাস-লঞ্চ-ট্রেন চলবে কিনা সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে

অনলাইন ডেস্ক

দূরপাল্লার বাস-লঞ্চ-ট্রেন চলবে কিনা সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে

বন্ধ থাকা দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ, ট্রেন চলাচলের অনুমতির বিষয়ে সিদ্ধান্ত সপ্তাহখানেক দেখে তারপর নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

সোমবার ভার্চ্যুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকের সভাপিত্ব করেন।

এদিন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে জানান, দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ, ট্রেন আরও কিছু দিন বন্ধ রাখার সুপারিশ করবেন।
এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, দেখা যাক, ৫-৬ দিন যাক তারপর কী অবস্থা হয়। ইন্ডিয়ার অবস্থাটা দেখতে হবে। আমাদের এখন মেইন কনসার্ন হলো ইন্ডিয়ার অবস্থা। একটা সুবিধা হয়ে গেছে যে ওয়েস্টবেঙ্গল বা ইস্টার্নে তারা লকডাউন দিয়ে দিয়েছে। তাতে আমাদের একটা ন্যাচারাল প্রটেকশন তৈরি হয়েছে। এখন বর্ডার কন্ট্রোল করতে পারছি। আগামী সাতদিন যাক, সাতদিন পর একটা সিনারিও আসবে তখন দেখা যাবে।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ১৭ থেকে ২৩ মে বিধিনিষেধ বাড়ানো হয়েছে। এই সমেয় দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ, ট্রেন বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে জেলার ভেতরে বাস চলাচল করছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

করোনায় মৃত্যু বাড়ল, শনাক্ত একদিনেই দ্বিগুণ

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় মৃত্যু বাড়ল, শনাক্ত একদিনেই দ্বিগুণ

বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালানো ভাইরাস করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা গত দিনের চেয়ে বেশি। একই সময়ে আরও ৬৯৮ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে।

আজ সোমবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, গতকাল ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল ২৫ জনের। শনাক্ত হন ৩৬৩ জন।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

‘দেশে ঢুকল’ করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট, প্রাণ গেল একজনের

অনলাইন ডেস্ক

‘দেশে ঢুকল’ করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট, প্রাণ গেল একজনের

বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব চালানো অতিমারি ভাইরাস করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্টে অবশেনে দেশে ঢুকে পড়ল। ইতিমধ্যে  ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। যা দেশে প্রথম।

সূত্র জানায়, ভারতে চিকিৎসা শেষে দেশ ফিরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা অবস্থায় মারা যাওয়া দুই ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর একজন করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্টে আক্রান্ত ছিলেন।

সোমবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে সংক্রমণের তুঙ্গে থাকা করোনাভাইরাসের ‘ভারতীয় ভেরিয়েন্ট’ গত ৮ মে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে শনাক্ত হয়।

ভারতফেরত ছয়জনের শরীরে এই ভেরিয়েন্ট শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছিল আইইডিসিআর।

বেশ কিছুদিন ধরে সরকার ও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা করোনার ভারতীয় ভেরিয়েন্ট সম্পর্কে সতর্ক করে আসছিল।

বলা হচ্ছিল, এই ভেরিয়েন্ট দেশে ঢুকলে বিপদ অনেক বেশি হবে। এরই মধ্যে দেশে ঢুকে পড়েছে এই ভেরিয়েন্ট। প্রথমবারের মতো মৃত্যুও ঘটল এই ভেরিয়েন্টে আক্রান্ত রোগীর। এতে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা আরও বেড়ে গেল।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর