গেরিলা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের দেখভাল করতেন আবদুল্লাহ আল নোমান

আরেফিন শাকিল

গেরিলা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের দেখভাল করতেন আবদুল্লাহ আল নোমান

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের প্রশ্নে ঐক্যবদ্ধ করেছিলো বলে জানান বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান। শতাব্দির সেরা বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ঐতিহাসিক মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, জিয়াউর রহমানের ২৬ মার্চের বক্তব্য মুক্তিযোদ্ধাদের উজ্জ্বিবিত করে। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে দেশে ও দলে গণতন্ত্র চর্চার আহ্বান জানান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল্লাহ আল নোমান। 

একাত্তরে যখন মুক্তি সংগ্রাম শুরু হয়, আবদুল্লাহ আল নোমানের কাঁধে দায়িত্ব পড়ে যুদ্ধের অস্ত্র বহনের। ঐতিহ্যবাহী চট্রগ্রাম কলেজে থেকে অস্ত্র আর গোলাবারুদ নিয়ে পাড়ি দেন রাউজানে। ১২ এপ্রিল ১৯৭১। মুক্তিকামী বীর জনতাদের সংগঘঠিত করে পাড়ি দেন সীমান্তে।

আগরতলায় গেরিলা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের দেখভাল করেন আবদুল্লাহ আল নোমান। সেনা কর্মকর্তা মাহবুবের নেতৃত্বে সরাসরি অংশ নেন পাক বাহিনীর ক্যাম্প উড়িয়ে দেয়ার কাজে। 

আবদুল্লাহ আল নোমানের যুদ্ধে যাবার পিছনে নিয়ামক শক্তি হিসাবে কাজ করেছে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ। উজ্জ্ববিত করেছে জিয়াউর রহমানের বক্তব্য। 

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম এই সংগঠকের কন্ঠে দল আর দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাপনা নিয়ে আক্ষেপের সুর।

শারীরিকভাবে ভীষণ অসুস্থ আবদুল্লাহ আল নোমান এখনো চান, তার প্রিয় দল বিএনপির জন্য আরও কাজ করবার। আবদুল্লাহ আল নোমান কয়েক দফা সাংসদ ও মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

 news24bd.tv আয়শা

পরবর্তী খবর

জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানালেন মোদী

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানালেন মোদী

সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।  
শুক্রবার (২৬ মার্চ) সকালে নরেন্দ্র মোদী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এসময় শহীদদের স্মৃতির প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন তিনি।


শাপলাচত্বর থেকে প্রিজনভ্যানে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম

ছোট ভাইয়ের মৃত্যুর পর তার স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করলো ভাসুর!

উত্তাপের মধ্যে শাহরুখের পাশাপাশি সাকিব!

এবার পুলিশভ্যানে বসেই লাইভে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল (ভিডিও)


এর আগে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শুক্রবার দুই দিনের সফরে ঢাকায় আসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন প্রধানমন্ত্রী। পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।


শাপলাচত্বর থেকে প্রিজনভ্যানে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম

ছোট ভাইয়ের মৃত্যুর পর তার স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করলো ভাসুর!

উত্তাপের মধ্যে শাহরুখের পাশাপাশি সাকিব!

এবার পুলিশভ্যানে বসেই লাইভে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল (ভিডিও)


এ সময় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ত্রিশ লাখ শহীদ, দুই লাখ সম্ভ্রম হারানো মা-বোন, জাতীয় চার নেতা ও ১৯৭৫-এর ১৫ আগস্ট নির্মম হত্যাকাণ্ডে নিহত বঙ্গবন্ধু পরিবারের শহীদদের গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে স্পিকার কিছুক্ষণ নীরবতা পালন করেন।

news24bd.tv/আলী

 

পরবর্তী খবর

২৫শে মার্চ রাতে পাকিস্তানী নয় বাঙালী সৈন্যরা দখল করে চট্টগ্রাম শহর

অন্তরা বিশ্বাস


২৫শে মার্চ রাতে পাকিস্তানী নয় বাঙালী সৈন্যরা দখল করে চট্টগ্রাম শহর

২৫শে মার্চ রাতে পাকিস্তানী নয় বাঙালী সৈন্যরা দখল করে চট্টগ্রাম শহর। চট্টগ্রামের অস্ত্রাগার আনে নিজেদের দখলে। ক্যাপ্টেন রফিকুল ইসলাম সেই মিশনের নেতৃত্ব দেন। এক নম্বর সেক্টরের এই কমান্ডার আরও অগনিত যুদ্ধের নেতৃত্ব দেন মুক্তিযুদ্ধের সময়। 

২৪শে মার্চ, ১৯৭১। রাত্রিবেলা। চট্টগ্রামে বিদ্রোহ করেন বাঙালী সেনারা। তাদের নেতৃত্ব দেন ক্যাপ্টেন রফিকুল ইসলাম। তিনি নিশ্চিত ছিলেন যে পাকিস্তানীরা আক্রমণ করবে। তাই তিনিই আগে পাকিস্তানীদের ওপর আক্রমণ করতে চাইলেন। কিস্তু সেনাবাহিনীর কিছু বাঙালী অফিসার তখনই আক্রমণে রাজি হলেন না। ক্যাপ্টেন রফিকুল ইসলাম তখন তার সৈন্যদের অপেক্ষা করতে বললেন। তখন ইস্ট পাকিস্তান রাইফেলস এ অ্যাডজুট্যান্ট হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।


‘স্ফুলিঙ্গ’ ভালো লাগলে অন্যদের দেখতে বলুন: তৌকীর আহমেদ

নারী পুলিশকে কুপ্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ ওসির বিরুদ্ধে

দৃষ্টিনন্দন ১৬ পরীর পালং খাট, দাম হেঁকেছেন কোটি টাকা

প্রেমিকা ছেড়ে যাওয়ায় ফেসবুকে স্টাট্যাস দিয়ে জাবি ছাত্রের আত্মহত্যা


পরের দিন ২৫শে মার্চ। রাত আটটার পরে খবর পেলেন যে পাকিস্তানীরা ঢাকায় আক্রমণের প্রস্ততি নিচ্ছে। সাথে সাথে তিনি চট্টগ্রামের অস্ত্রাগার দখল করেন।

২৬শে মার্চ ভোর বেলা। তাদের ওপর হেলিকপ্টার দিয়ে আক্রমণ করে পাকিস্তানী সৈন্যরা। বিকেলে কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রামে আসতে থাকে অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত পাকিস্তানী সৈন্য। খবর পেয়ে ক্যাপ্টেন রফিকুল ইসলাম দলবল নিয়ে পথেই অ্যামবুশ করেন। পিছু হটে পাকিস্তানী সৈন্যরা। ২রা এপ্রিলের পর পাকিস্তানীরা আবার চট্টগ্রাম দখল করে নেয়।

তখন রফিকুল ইসলাম ভারতের ত্রিপুরায় যান। সেখানে ভারতের কাছ থেকে আরও অস্ত্রশস্ত্রের ব্যবস্থা করে ফিরে আসেন চট্টগ্রামে। মুক্তিযুদ্ধের ১ নম্বর সেক্টরের কমান্ডার হিসেবে অগনিত যুদ্ধ পরিচালনা করেন ক্যাপ্টেন তিনি। 

news24bd.tv আয়শা 

পরবর্তী খবর

পাকিস্তান দিবসের পরিবর্তে প্রতিরোধ দিবস

অন্তরা বিশ্বাস

একাত্তরের ২৩ শে মার্চ পাকিস্তান দিবসের পরিবর্তে পালিত হয় প্রতিরোধ দিবস। দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাকিস্তানের পরিবর্তে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়। রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জনস্রোত যায় বঙ্গবন্ধুর বাড়ির সামনে। সেদিনের সেই ঘটনাপ্রবাহের কথা নিউজ টোয়েন্টিফোরকে জানান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক নূরে আলম সিদ্দিকী।

২৩ শে মার্চ ১৯৭১। ঢাকার পল্টন ময়দানে এক কুচকাওয়াজের আয়োজন করে তখনকার ছাত্রলীগ। পল্টন ময়দানে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি বাজানো হয়। সঙ্গে উত্তোলন করা হয় সবুজ লালের মাঝে হলুদ মানচিত্র খচিত বাংলাদেশের পতাকা। এরপর ব্রিগেডের একেকটি দল এসে মঞ্চে উপবিষ্টদের অভিবাদন জানাতে থাকে। সেদিন মঞ্চে ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের সময় চার খলিফা নামে খ্যাতদের অন্যতম ছাত্রলীগের তখনকার সভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী।


আরও পড়ুনঃ


নেত্রকোনায় বেগুনের বাম্পার ফলন

সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য

‘নেত্রী দ্য লিডার’ এর জন্য গোফ ফেলেও ভাইরাল অনন্ত জলিল

পত্রিকার সাংবাদিকগুলো বিসিএস ক্যাডার চাকরিটাকে বিশাল কিছু বানিয়ে ফেলেছেন


নূরে আলম সিদ্দিকী দলবলসহ পতাকা নিয়ে যান বঙ্গবন্ধুর ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরের বাসার সামনে। সেখানে বঙ্গবন্ধুকে অভিবাদন জানাতে উপস্থিত হয় অগনিত মানুষ। রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তারা আসেন। ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে স্বাধীন বাংলা কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের পক্ষ থেকে নূরে আলম সিদ্দিকী বঙ্গবন্ধুর হাতে পতাকা তুলে দেন।

পাকিস্তান দিবসের পরিবর্তে সেদিন প্রতিরোধ দিবস পালন করা হয়। সেদিন বিমানবন্দর ভবন, প্রেসিডেন্ট ভবন ও লাটভবন ছাড়া আর কোথাও ছিল না পাকিস্তানের পতাকা। রাজধানীর সরকারি-বেসরকারি ভবনসমূহে, বাড়িতে, গাড়িতে কালো পতাকার পাশাপাশি বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করা হয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

বৈষম্যহীন সমাজ এখনও হয়নি বাংলাদেশে: কামাল হোসেন

তৌহিদ শান্ত

বৈষম্যহীন সমাজ এখনও হয়নি বাংলাদেশে: কামাল হোসেন

“আজ এবং ঠিক এই মুহুর্ত থেকেই আমরা স্বাধীন, আমরা বাঙালি এখন ঐক্যবদ্ধ, তারা যুদ্ধ করবে- জয় সুনিশ্চিত”। একাত্তরের ২৫শে মার্চ রাত ৯টায় কামাল হোসেনকে বলেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ঐ দিন শেষবারের মতো ৩২ নম্বরের বাড়িতে যান তিনি। 

ইয়াহিয়া আর ভুট্টো ঢাকা ছাড়লেন সেনা পাহাড়ায়- কামাল হোসেন তখনই বুঝেছিলেন ভয়ঙ্কর কোন ‘ষড়যন্ত্র’ প্রস্তুত হচ্ছে বাঙালীর জন্য।

এখন অনেক বয়স মুক্তিকামী এই বাঙালীর। অনেক কিছুই স্মৃতিতে ঝাপসা। ইতিহাসের স্বাক্ষী নিজেই, ভুল যেনো না হয় টেনে নিলেন নিজের বই। বললেন, ব্যারিস্টার আমিরুল ইসলাম আর ব্যবসায়ী মূসাকে নিয়ে ২৫শে মার্চ রাত সাড়ে আটটার দিকে রওনা হন তাজউদ্দিন আহমেদকে তুলে নিতে।পথেই ৩২ নম্বর, বাঙালীর মুক্তির স্বপ্ন যে বাড়ি। শেষবারে মতো গেলেন বঙ্গবন্ধুর কাছে।


 

কঠোর নিয়ন্ত্রণ কৌশলে সরকার, হবে না ছুটি বা লকডাউন

ইতিহাস গড়ার ম্যাচে আলো ছড়ালেন মেসি

১২ দেশ থেকে ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল পাকিস্তান

‘বিয়ের আশ্বাস পেয়ে’ স্বামীকে তালাক, চার বছর ধরে চলে ধর্ষণ


কামাল হোসেনের আর বুড়িগঙ্গা পাড়ি দেয়া হয়নি। দুই দিন পরেই ধরা পড়েন সেনাবাহিনীর কাছে। ধরে নিয়ে যাওয়া হয় পাকিস্তানে।

ষড়যন্ত্রকারী ভুট্টো শেষ মুহুর্তে বঙ্গবন্ধুর কাছে নতজানু হয়েছিল, প্রস্তাব দিয়েছিল কোনভাবে, কোন দিক দিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা যায় কি না?

পাকিস্তান টেকে নি কারণ শোষণ নির্যাতন নিষ্পেষণ আর বৈষম্যের কারণে। কিন্তু কামাল হোসেন মনে করেন হয়তো সেই নির্যাতন-শোষণ এখন নেই। তবে বৈষম্যহীন সমাজ এখনও হয়নি বাংলাদেশে।

news24bd.tv আয়শা 

 

পরবর্তী খবর