সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য
সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য

সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য

Other

"আমি যা বিশ্বাস করি, তা-ই বলি। চিন্তা করলে বড় চিন্তা করি। আমি যা বলেছি, তাতে কি আমার নিজের কোনো লাভ আছে? নিজের লাভ তো গাধাও বোঝে। আমি ক্রিকেটের বৃহত্তর স্বার্থে কথাগুলো বলেছি।

কারও যখন বলার সাহস নাই, আমিই না হয় বললাম। আমার ব্যক্তিগত লাভের জন্য তো বলি নাই। কেউ যদি এটা ভালোভাবে নিতে চায়, তা ক্রিকেটের জন্য ভালো হবে। আমরা যদি ভালো করতে চাই, বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতি চাই, তাহলে তো আমি আমার কথায় কোনো সমস্যা দেখি না। "

কথাগুলো বলেছেন বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। আমি মনে করি সাকিবের কথাগুলো খুবই সাহসী এবং যৌক্তিক।

২৩ ফেব্রুয়ার সাকিব আর বিসিবিকে নিয়ে লিখতে গিয়ে আমিও প্রশ্ন কলেছিলাম, বিসিবি করেটা কী? কেন এই দেশ থেকে সাকিব-তামিম-মাশরাফির মতো ক্রিকেটাররা নিয়মিতভাবে তৈরি হয় না!

তরুণ মেধাবী ক্রিকেটার পাওয়ার জন্য বিসিবি গত এক দশকে ঠিক কী করেছে? বাংলাদেশের ক্রিকেটের উন্নতিতে কী করেছে বিসিবি?

এই প্রশ্নগুলোর উত্তর বিসিবিকে দিতেই হবে।


আরও পড়ুনঃ


নেত্রকোনায় বেগুনের বাম্পার ফলন

এয়ারফোর্স ওয়ানে হোঁচট: ওবামার পথে বাইডেন

সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের পেছনে ভারত, তালিকার বাইরে পাকিস্তান

পত্রিকার সাংবাদিকগুলো বিসিএস ক্যাডার চাকরিটাকে বিশাল কিছু বানিয়ে ফেলেছেন


আমি মনে করি বিসিবির উচিত সাকিবের চ্যালেঞ্জ নেওয়া। কিছু হলেই শুধু ঢালাওভাবে প্লেয়ারদের দোষ দেবে সবাই, বোর্ডের ভূমিকা কী? বছরের পর বছর ধরে তারা কী করছে?

আমি মনে করি আগামী বিশ্বকাপের পরেই সাকিব-মাশরাফিদের হাতে বিসিবির দায়িত্ব দেওয়া উচিত। দেখা যাক তারা কী করে।

সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য। দেশের স্বার্থে ক্রিকেটের স্বার্থেই এসব নিয়ে স্পষ্ট আলাপ হওয়া উচিত।

news24bd.tv / নকিব

;