প্রধানমন্ত্রীকে হত্যাচেষ্টা

ফায়ারিং স্কোয়াডে ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক

ফায়ারিং স্কোয়াডে ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের নির্দেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কোটালীপাড়ায় সমাবেশস্থলে বোমা রাখার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ১৪ আসামির সবাইকে প্রকাশ্যে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালত আসামিদের মৃত্যুদণ্ড দেন। এ সময় বিচারক তাদের ফায়ারিং স্কোয়াডে দণ্ড কার্যকর করার কথা জানান। তবে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে কোনো বিধিনিষেধ থাকলে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে প্রত্যেকের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে হবে বলেও জানান বিচারক।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি আবু আব্দুল্লাহ ভুইয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কোটালিপাড়ায় হেলিকপ্টার অবতরণের স্থানে বোমা পুঁতে রাখার অভিযোগে দুটি মামলা হয়, যার মধ্যে একটি হামলার পরিকল্পনাকারী হিসেবে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা। এই মামলার রায়টি ঘোষণা হলো। আর অন্য মামলায় আগেই রায় হয়েছে। এর আগে গত ১১ মার্চ রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য ২৩ মার্চ দিন ধার্য করেন আদালত।

মামলার অভিযোগ বলা হয়, ২০০০ সালের ২১ জুলাই গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়ায় শেখ লুৎফর রহমান আদর্শ কলেজের মাঠে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশস্থলের পাশ থেকে ৭৬ কেজি ওজনের একটি বোমা উদ্ধার করা হয়। বোমা উদ্ধার হওয়ার পরদিন ওই স্থানেই শেখ হাসিনার বক্তব্য দেয়ার কথা ছিল। এ ঘটনায় কোটালিপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক নূর হোসেন বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা করেন।


বিসিএস পরীক্ষা দেয়ার অনুমতি না দেয়ায় এসআই হাসানের আত্মহত্যা!

জাতীয় স্মৃতিসৌধে ভুটানের প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

সৎ মেয়ের সঙ্গে যৌন কেলেঙ্কারী, স্বামীর ‘বিশেষ অঙ্গ’ কাটলেন স্ত্রী

নিন্দুকদের যন্ত্রণা বাড়িয়ে দিলেন কঙ্গনা (ভিডিও)


২০০১ সালের ১৫ নভেম্বর তৎকালীন সিআইডির এএসপি আব্দুল কাহার আকন্দ মুফতি হান্নানসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর ২০০৪ সালের ২১ নভেম্বর আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। বিচার চলার বিভিন্ন সময়ে আদালত মোট ৫০ সাক্ষীর মধ্যে ৩৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

হরকাতুল জিহাদের শীর্ষনেতা মুফতি আবদুল হান্নান এই মামলায় মূল আসামি ছিলেন। কিন্তু অন্য মামলায় তার ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় এই মামলার রায়ে তার নাম বাদ দেয়া হয়েছে। মামলার ১৪ আসামির মধ্যে মফিজুর রহমান, মাহমুদ আজহার, রাশেদুজ্জামান, তারেক হোসেন, আবদুল ওয়াদুদ মোল্লা, সারোয়ার হোসেন মোল্লা ও আনিসুল ইসলাম কারাগারে রয়েছেন।

পলাতক রয়েছেন আজিজুল হক, লোকমান, ইউসুফ শেখ মো. এনামুল হক, মোছাহেব হাসান। আর জামিনে রয়েছেন মাওলানা আমিরুল ইসলাম ও মাওলানা রফিকুল ইসলাম। উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় বোমা পুঁতে রেখে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় বিচারিক আদালতে মৃত্যুদণ্ড পাওয়া ১০ আসামির সাজা বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। রায়ে যাবজ্জীবন দণ্ডিত এক আসামি ও ১৪ বছর করে কারাদণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামির মধ্যে একজনকে খালাস দিয়েছেন হাইকোর্ট। ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক মমতাজ বেগম ১০ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় দেন। এছাড়া চার আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

দুই মামলায় নিপুণ রায়ের জামিন

অনলাইন ডেস্ক

দুই মামলায় নিপুণ রায়ের জামিন

নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে করা দুই মামলায় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরীকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি মুহাম্মদ আবদুল হাফিজ ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে নিপুণ রায়ের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি জয়নুল আবেদীন ও আইনজীবী নিতাই রায় চৌধুরী।

অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হারুন অর রশিদ।

রাজধানীর দুটি থানায় নিপুণ রায়ের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন:


বিপদটা এখানেই

ফ্রান্সের কাছে জার্মানির হার

ওমানের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ


হেফাজতে ইসলামের ডাকা হরতালে গাড়িতে অগ্নিসংযোগের নির্দেশনা দেওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বিএনপি নেত্রী নিপুণ রায় চৌধুরীকে গত ২৮ মার্চ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

ওই দিন রায়েরবাজারের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে দাবি করেছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এবং নিপুণের শ্বশুর গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মাদক মামলায় নাসির ও অমি ৭ দিনের রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

মাদক মামলায় নাসির ও অমি ৭ দিনের রিমান্ডে

মাদক মামলায় উত্তরা ক্লাব লিমিটেডের সাবেক সভাপতি নাসির ইউ মাহমুদ ও তার সহযোগী তুহিন সিদ্দিক অমির সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। 

আজ বিকেলে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসি এ আদেশ দেন। এছাড়াও আদালত একই মামলায় অন্য তিন আসামি লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধাকে (২৪) তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আদালত সূত্র জানায়, আজ আসামিদের আদালতে হাজির করে ১০ দিন রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। উভয় পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত এই আদেশ দেন।

এর আগে পুলিশ নাসির ইউ মাহমুদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে রাজধানীর বিমানবন্দর থানায় মামলা করে। এই মামলায় লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধাকে (২৪) গ্রেপ্তার দেখানো হয়। 

আরও পড়ুন:


গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ভয়াবহ যানজট, প্রভাব রাজধানীতেও

স্নাতক পাসে ঢাকায় নিয়োগ দেবে কেয়ার নিউট্রিশন

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

সিলেটের জকিগঞ্জে দেশের ২৮তম গ্যাসক্ষেত্রের সন্ধান!


উল্লেখ্য, পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় গতকাল সাভার থানায় মামলা দায়ের হয়। মামলায় নাসির ইউ মাহমুদ ও অমির নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও চার জনকে আসামি করা হয়েছে। এরপর দুপুরে উত্তরার ১ নম্বরের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে নাসির ইউ মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমিসহ পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় ১ হাজার ইয়াবা বড়ি ও বিদেশি মদ উদ্ধার করা হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

টাঙ্গাইলে আদিবাসী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর নারীকে গণধর্ষণ: দুই আসামি গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলে আদিবাসী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর নারীকে গণধর্ষণ: দুই আসামি গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইলের সখীপুরে আদিবাসী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর নারীকে গণধর্ষণের মামলায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেসব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন এসপি সঞ্জিত কুমার রায়।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার বলেন, মামলাটি লোমহর্ষক এবং চাঞ্চল্য হওয়ায় আমরা দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করি। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ডিবি ওসি (দক্ষিণ) মো. সাজ্জাদ হোসেন, মামলা হওয়ার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে মির্জাপুর ও নাগরপুর থেকে বাজাইল গ্রামের প্রকাশ সরকারের ছেলে আসামি দীনা সরকার (৩৩) এবং একই এলাকার মৃত নারায়ণ সরকারের ছেলে মন্টু সরকারকে (৩০) গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। পলাতক অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আটক দুজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবদের পর আদালতে পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন:


মোংলা হাসপাতালে ১৫টি বেডসহ করোনা সুরক্ষা সামগ্রী দিল ভারতীয় কোম্পানি

লোকালয়ে হাঁস খেতে গিয়ে ধরা ৮ ফুট অজগর

মাত্র ৫ হাজার টাকা পেয়েই হত্যার মিশনে নামে খুনিরা

ময়মনসিংহে বাসচাপায় নিহত ২


উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে সখিপুর উপজেলার হাতিবান্ধা ইউনিয়নের বাজাইল বড়চালা গ্রামে আদিবাসী কোচ সম্প্রদায়ের এক নারী (৪০) গণধর্ষণের শিকার হন। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই  নারীকে প্রথমে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখনও তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বাবাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যাকারী ছেলে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

বাবাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যাকারী ছেলে গ্রেপ্তার

রংপুরের মিঠাপুকুরে পারিবারিক বিরোধের জেরে বাবাকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যাকারী ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।গতকাল সোমবার গভীর রাতে মিঠাপুকুর উপজেলার শঠিবাড়ি এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

অভিযুক্ত ছেলের নাম জীবন কুজুর (৩৮)।

পরে তার দেওয়া তথ্যমতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত কুড়ালটি বসতবাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন:


মোংলা হাসপাতালে ১৫টি বেডসহ করোনা সুরক্ষা সামগ্রী দিল ভারতীয় কোম্পানি

লোকালয়ে হাঁস খেতে গিয়ে ধরা ৮ ফুট অজগর

মাত্র ৫ হাজার টাকা পেয়েই হত্যার মিশনে নামে খুনিরা

ময়মনসিংহে বাসচাপায় নিহত ২


মিঠাপুকুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান বলেন, গত শুক্রবার ঘুমন্ত বাবা ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মোংলা কুজুরকে (৬০) কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন ছেলে জীবন কুজুর। এ ঘটনায় নিহতের চাচাতো ভাই আতুল কুজুর মাস্টার বাদি হয়ে জীবন কুজুরের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যাকাণ্ডের পর থেকে জীবন কুজুর পলাতক ছিলেন।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জীবন কুজুর হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সুনামগঞ্জে দম্পতিকে খুন করা সেই চাচাত ভাই গ্রেপ্তার

মো. বুরহান উদ্দিন, সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জে দম্পতিকে খুন করা সেই চাচাত ভাই গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে বিদ্যুতের খুঁটি বসানো নিয়ে ঝগড়া বিবাদের জের ধরে ছুরিকাঘাতে দম্পতি খুন হওয়ার ঘটনার প্রধান আসামি রাসেল মিয়াকে (৩০) ও তার ভাই বিপলুকে (২২) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

সোমবার (১৪ জুন) রাতে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার একমাস ছয় দিন পর নারায়নগঞ্জ জেলা থেকে র‌্যাবের সদস্যরা প্রধান আসামি রাসেল ও তার ভাই বিপলুকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন:


মোংলা হাসপাতালে ১৫টি বেডসহ করোনা সুরক্ষা সামগ্রী দিল ভারতীয় কোম্পানি

লোকালয়ে হাঁস খেতে গিয়ে ধরা ৮ ফুট অজগর

মাত্র ৫ হাজার টাকা পেয়েই হত্যার মিশনে নামে খুনিরা

ময়মনসিংহে বাসচাপায় নিহত ২


 

আটকের বিষয়টি মঙ্গলবার (১৫ জুন) দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের মল্লিকপুর র‌্যাব কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে নিশ্চিত করেন র‌্যাব-৯ সুনামগঞ্জ ক্যাম্পের অধিনায়ক লে.কমান্ডার সিঞ্চন আহমেদ।

তিনি বলেন, আসামিরা র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে মূলত বিদ্যুতের খুঁটি বসানো ও শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে দম্পতি খুনের ঘটনার ঘটেছে বলে জানায় প্রধান আসামি রাসেল।

উল্লেখ্য, গত ৯ মে রাতে জামালগঞ্জের বেহেলী ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামে আলমগীর ও মোর্শেদা বেগম দম্পতিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে মামলার প্রধান আসামি রাসেল ও বিপুলসহ ৫ সহযোগী। এ ঘটনার পর থেকে তারা পলাতক ছিল। এ ঘটনায় ১১ মে নিহতের ভাই বাদী হয়ে রাসেল তার ভাই বিপুলসহ ৬ জনকে আসামি করে জামালগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার ৪ আসামি এখনো পলাতক রয়েছে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর