শপথ নিয়ে ফের কারাগারে কাউন্সিলর

অনলাইন ডেস্ক

শপথ নিয়ে ফের কারাগারে কাউন্সিলর

দেশের সবচেয়ে বড় বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে জয়ী কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম মঙ্গলবার প্যারোলে মুক্ত হয়ে শপথ নিয়ে আবার কারাগারে গেলেন।  গত ২৮ ফেব্রুয়ারি এ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

সেই নির্বাচনে বগুড়া পৌর এলাকার ১৫নং ওয়ার্ড থেকে উঠপাখি প্রতীকে নির্বাচনে করে জয়লাভ করেন।

১৫নং ওয়ার্ডে আমিনুল ইসলাম উটপাখি প্রতীকে ৫ হাজার ১৪৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হোন।

মঙ্গলবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভার্চুয়ালী শপথ নেন কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম। তাকে ভার্চুয়ালী রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. হুমায়ুন কবীর তাঁর কার্যালয় থেকে শপথবাক্য পাঠ করান।


ওরা খেলার আগে বলে এটা করবে, সেটা করবে: বিসিবি সভাপতি

বিরাটনগর – সৈয়দপুর সরাসরি ফ্লাইট চায় নেপাল

ধান ক্ষেতে ফেলে গৃহবধূকে পেটানোর ভিডিও ভাইরাল

কিশোরীকে গণধর্ষণের পর ৬০ টাকা ধরিয়ে দিল অভিযুক্তরা 


এদিকে গতকাল মঙ্গলবার রাজশাহীতে শপথ নিয়েছেন বগুড়া পৌরসভাসহ রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলররা। রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়।

উল্লেখ্য, গত ৯ ফেব্রুয়ারি বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে মোটর মালিক গ্রুপের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম গ্রুপ ও সাবেক আহ্বায়ক জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহন গ্রুপ জড়ায়। সেই ঘটনার দিন রাতে উভয়পক্ষ থানায় মামলা করে।

সেই মামলায় বগুড়ায় হাইকোর্টের নথি জালিয়াতি করে ‘ভুয়া আগাম জামিন’ আদেশ তৈরির মামলায় কাউন্সিলর আমিনুল ইসলামসহ ৩০ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১১

অনলাইন ডেস্ক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১১

গত ২৬, ২৭ ও ২৮ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের বিক্ষোভ চলাকালে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আরও ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। প্রেপ্তাররা হেফাজতে ইসলামের কর্মী ও সমর্থক।


ভিপি নুরের নামে আরও এক মামলা

নাটোরের বড়াইগ্রামে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত


পুলিশ জানায়, সহিংস ঘটনার প্রাপ্ত স্থিরচিত্র ও ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে অভিযুক্তদের শনাক্ত করা হয়। এসব ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৯টি, আশুগঞ্জ থানায় ৪টি ও সরাইল থানায় দুটি ও রেলওয়ে থানায় একটিসহ মোট ৫৬টি মামলা হয়েছে।

এসকল মামলায় ৪১৪ জন এজাহারনামীয় আসামিসহ অজ্ঞাতনামা ৩০-৩৫ হাজার জনকে আসামি করা হয়েছে। এ সকল মামলায় এখন পর্যন্ত নতুন ১১ জনসহ ৩২৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভিপি নুরের নামে আরও এক মামলা

অনলাইন ডেস্ক

ভিপি নুরের নামে আরও এক মামলা

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগ এনে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরের নামে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে রাজশাহীতে যুবলীগ নেতার মামলা।

বিস্তারিত আসছে...

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ঢাকা ও সিলেটের পর এবার চট্টগ্রামে নুরের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা ও সিলেটের পর এবার চট্টগ্রামে  নুরের বিরুদ্ধে  মামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)-এর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে ঢাকা ও সিলেটের পর এবার চট্রগ্রামেও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ফেসবুক লাইভে এসে  ধর্মীয় মূল্যবোধে আঘাত করে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে এই মামলা করা হয়।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নগরীর কোতোয়ালী থানায় মামলাটি দায়ের করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আজিজ মিসির। 

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নূরের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দেওয়া হয়েছে। আমরা তা গ্রহণ করেছি। অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

মামলার এজাহারে বাদি আজিজ মিসির নিজেকে চট্টগ্রাম মহানগর সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির অর্থ উপ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন।

বাদি আজিজ মিসির অভিযোগ করেছেন, নূর ব্যক্তিগত আইডি থেকে ফেইসবুক লাইভে এসে বাংলাদেশের অসংখ্য ধর্মপ্রাণ নেতাকর্মীদের ধর্মীয় মূল্যবোধ বা অনুভূতিতে উসকানি প্রদান, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোসহ মুসলমান নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মানহানিকর মন্তব্য প্রকাশ, আক্রমণাত্মক ও মিথ্যা তথ্য প্রদান করেন। বাদি কোতোয়ালী থানার কোর্ট হিলে আইনজীবী এনেক্স ভবনের-১ নিচতলায় অ্যাডভোকেট তসলিম উদ্দিনের চেম্বারে বসে নূরের এ বক্তব্য শোনেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

গত ১৪ এপ্রিল বিকেলে ফেইসবুক লাইভে এসে নূর বলেন, ‘কোনো মুসলমান আওয়ামী লীগ করতে পারে না। যারা এই আওয়ামী লীগ করে তারা চাঁদাবাজ, ধান্ধাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, চিটার-বাটপার এই ধরনের মুসলমান।’

উল্লেখ্য, গত ১৪ এপ্রিল নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে এসে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর ‘আওয়ামী লীগের কেউ প্রকৃত মুসলমান না’ বলে মন্তব্য করেন। একই ঘটনায় ঢাকা- সিলেটের পর এবার চট্রগ্রামে মামলা হয় নুরের বিরুদ্ধে। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

‘চুক্তিভিত্তিক’ দুজনকে বিয়ে করেন মাওলানা মামুনুল!

অনলাইন ডেস্ক

‘চুক্তিভিত্তিক’ দুজনকে বিয়ে করেন মাওলানা মামুনুল!

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরবিরোধী আন্দোলনের নামে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হক সরকার উৎখাত করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করতে চেয়েছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার এক ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. হারুন-অর-রশিদ। মামুনুল হককে সাত দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ। ডিবি কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

অন্যদিকে প্রথম বিয়ের পর দুই জান্নাতকেই কন্ট্রাকচ্যুয়াল (চুক্তিভিত্তিক) বিয়ে করেছিলেন মামুনুল। এসব বিয়ের সময় কারা সাক্ষী ছিলেন তাদেরও জিজ্ঞাসাবাদের পরিকল্পনা করছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম এই তথ‌্য নিশ্চিত করেছেন। 

অর্থনৈতিক নিশ্চয়তা দিতেই দুই ডিভোর্সি নারীকে বিয়ে করেছিলেন বলে তদন্ত সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি করেন মামুনুল। বলেছেন, রিসোর্টকাণ্ডে শুরুতেই স্বীকার করলে প্রথম স্ত্রী আমেনা তৈয়বা বড় ধরনের কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলতেন বলে তার ধারণা ছিল। এ কারণে তৎক্ষণাৎ স্বীকার করেননি। গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনই অন্য গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্যের সঙ্গে এসব কথা বলেছেন মামুনুল। 

এর আগে আজ দুপুর পৌনে ১২টায় সিআইডি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক ব্যারিস্টার মাহবুবুর রহমান জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জে নাশকতার ঘটনায় হেফাজত ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ড চাইবে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) মামুনুলকে আদালতে তোলা হয়। আগেই তার বিরুদ্ধে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

১৮ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদরাসা থেকে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রতারণার মামলায় সেই মডেল রোমানা স্বর্ণা রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক

প্রতারণার মামলায় সেই মডেল রোমানা স্বর্ণা রিমান্ডে

নিজের নামে অসংখ্য ফেসবুক আইডি খুলে প্রবাসীদের সঙ্গে মডেল পরিচয়ে প্রেম করতেন রোমানা ইসলাম স্বর্ণা। নানা অজুহাত দেখিয়ে বা বিয়ে করতে চেয়ে হাতিয়ে নিতেন বিপুল পরিমাণ টাকা।

প্রতারণার মাধ্যমে এক সৌদি প্রবাসীর কাছ থেকে দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগের মামলায় গ্রেপ্তার মডেল ও অভিনেত্রী রোমানা ইসলাম স্বর্ণার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদের আদালতে তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারক তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে গত ১১ মার্চ অভিনেত্রী স্বর্ণাসহ আরও ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন সৌদি প্রবাসী কামরুল ইসলাম। মামলার পরদিন স্বর্ণা, তার মা শেইলী, ছেলে আন্নাফিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বর্তমানে তারা কারাগারে রয়েছেন।

আরও পড়ুন


থানায় পুলিশ আমার গায়ে হাত তুলেছে: অভিযোগ কাদের মির্জার

দেশের নাজুক চিকিৎসা ব্যবস্থায় অসহায় মানুষ: জিএম কাদের

টিকা নিয়েও করোনা আক্রান্ত জিৎ, চিকিৎসা নিচ্ছেন বাড়িতেই

নরসিংদীর বেলাবতে সড়কের বেহাল দশা, ভোগান্তিতে এলাকাবাসী


মামলার অভিযোগে বাদী কামরুল উল্লেখ করেন, তিনি রোমানার বাসায় কয়েকদিন অবস্থান করতে বাধ্য হয়েছিলেন এবং ২০১৯ সালের ৬ এপ্রিল সৌদি আরবে চলে যান। সৌদি আরবে যাওয়ার পর প্রথম দিকে রোমানা বাদীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন এবং তিনি রোমানাকে নিয়মিত সাংসারিক খরচ দিতেন। চার-পাঁচ মাস পর বাদী কামরুল সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে এসে তার সঙ্গে দেখা করতে চাইলে, রোমানা তার সঙ্গে খারাপ আচরণ করতে থাকে এবং দেখা করতে অস্বীকৃতি জানাযন। এ বিষয়ে বাদী রোমানার পরিবারের সঙ্গে কথা বললে তারাও তাকে ভয়ভীতি ও হুমকি দেন। স্বর্ণার আচরণ সন্দেহজনক মনে হওয়ায় তাকে ফ্ল্যাট ও গাড়ি বুঝিয়ে দিতে বললে সেসব নেই বলে বাদীকে জানান।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর