ফের সৌদির আবহা বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা ইয়েমেনের

অনলাইন ডেস্ক

ফের সৌদির আবহা বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা ইয়েমেনের

ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলন সমর্থিত সামরিক বাহিনী সৌদি আরবের আবহা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নতুন করে আবার হামলা চালিয়েছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট দারিদ্র্যপীড়িত ইয়েমেনের ওপর যে সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে তার জবাবে এই ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে।

ইয়েমেনে সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র  ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিয়ি গতকাল মঙ্গলবার এক টুইটার পোস্টে  জানান, গতকালের হামলায় কাসেফ-২কে ড্রোন ব্যবহার করা হয়েছে যা সফল ও নিখুঁতভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে। তিনি বলেন, সৌদি আরবের অব্যাহত সামরিক আগ্রাসন এবং সর্বাত্মক অর্থনৈতিক অবরোধের বিরুদ্ধে এ ধরনের হামলা চালানোর বৈধ অধিকার  ইয়েমেনের রয়েছে।

আরও পড়ুন


শুভ জন্মদিন সাকিব আল হাসান

যাদুকাটা নদীতে বাংলাদেশির মরদেহ, ৩৯ ঘণ্টা পর ফেরত দিল বিএসএফ

হামলার সঙ্গে ছাত্রলীগ জড়িত নয়, মিথ্যাচার করা হচ্ছে দাবি লেখকের

চাকরি লাভের জন্য যে দোয়া পড়বেন


এদিকে মা’রিব প্রদেশে সৌদি ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রচণ্ড লড়াইয়ের মধ্যে মার্কিন নির্মিত সৌদি আরবের একটি এমকিউ-৯ ভূপাতিত করা হয়েছে।  জেনারেল সারিয়ি বলেন, যে ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে এই ড্রোন ভূপাতিত করা হয়েছে তা এখনো উন্মোচন করা হয় নি।

২০১৫ সালের মার্চ মাস থেকে সৌদি আরব এবং তার মিত্ররা ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সামরিক আগ্রাসন চালিয়ে আসছে। তবে  যেসব লক্ষ্য নিয়ে সৌদি আরব ইয়েমেনে আগ্রাসন চালিয়েছিল তার একটিও অর্জন করতে পারে নি, বরং ইয়েমেনের হুথি আন্দোলন ও তাদের সহযোগী সামরিক বাহিনী সৌদি আরবের বিরুদ্ধে প্রবলভাবে রুখে দাঁড়িয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় শিশুসহ নিহত ২০

অনলাইন ডেস্ক

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় শিশুসহ নিহত ২০

জেরুজালেমে রকেট হামলার পরপর ফিলিস্তিনের গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। হামাস পরিচালিত প্যালেস্টাইনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ হামলায় শিশুসহ অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে সোমবার (১০ মে) স্থানীয় সময় সন্ধ্যার পরপরই হামলার এ ঘটনাটি ঘটে। 

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানায়, সোমবার (১০ মে) স্থানীয় সময় বিকেলে গাজার হামাস অধ্যুষিত উপকূলবর্তী এলাকা থেকে ইসরায়েলের দিকে রকেট হামলা চালানো হয়। এরপর সন্ধ্যার দিকে ইসরায়েলের বিমানবাহিনী গাজার উত্তরাঞ্চলে সিরিজ বিমান হামলা চালায়। এতে ২০ জন নিহত এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানায় মন্ত্রণালয়।

ইসরায়েলের সামরিক মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল জোনাথন কনরিকাস বিবিসিকে বলেছেন, তারা (ইসরায়েলি বাহিনী) গাজায় সামরিক লক্ষ্যবস্তুতে আক্রমণ শুরু করেছে। তিনি জোর দিয়ে বলেছেন, এটা শুরু হয়েছে এবং এরই মধ্যে তিন হামাস জঙ্গিকে ইসরায়েলি বাহিনী হত্যা করেছে।

ইসরায়েলের এই হামলায় ইজ্ আদ-দীন আল-কাসসাম ব্রিগেডের কমান্ডার মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ফায়াদ নিহত হয়েছেন বলে হামাস সূত্র বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে।

হামলার পর প্রতিক্রিয়ায় ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, হামাস সহ্যের সীমা অতিক্রম করেছে। তারা রেডলাইন অতিক্রম করায় ইসরায়েল পাল্টা জবাব দিতে শুরু করেছে। ইসরায়েল সর্বোচ্চ শক্তি নিয়ে পাল্টা জবাব দেবে। যারা ইসরায়েলে আক্রমণ করবে, তাদের অবশ্যই চড়া মূল্য দিতে হবে।

প্রসঙ্গত, জেরুজালেমে পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় টানা তিনদিন ধরে নিরপরাধ ফিলিস্তিনি মুসল্লিদের ওপর হামলা চালাচ্ছে ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনারা। 

সোমবার সকালেও একদল ইসরাইলি সেনা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আল-আকসায় ঢুকে পড়ে।এসময় ফিলিস্তিনিরা তাদের বাধা দিলে তাদের ওপর গুলিবর্ষণ করে ইসরাইলি বাহিনী।


ফিতরা দেয়ার গুরুত্ব ও ফজিলত

ঝুম বৃষ্টিতে ভিজলো রাজধানী

নদীতে ভেসে এল ৪০টির বেশি লাশ


এ ঘটনায় জেরুজালেমে প্রতিবাদ করছে ফিলিস্তিনিরা। এ সময় প্রতিবাদকারীদের ওপর চলন্ত একটি প্রাইভেট কার উঠিয়ে দিয়েছে এক ইসরাইলি। ভিডিওতে দেখা যায়, এক ইসরাইলি সজোরে গাড়ি চালিয়ে এক ফিলিস্তিনি প্রতিবাদকারীর ওপর উঠিয়ে দেয়। পরে সেখানে থাকা অন্যরা প্রতিবাদ করে। পরে এক ইসরাইলি পুলিশ এসে হামলাকারীকে রক্ষা করতে ফিলিস্তিনিদের ওপর অস্ত্র তাক করে। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলের বিমান হামলায় হামাসের কমান্ডার নিহত

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলের বিমান হামলায় হামাসের কমান্ডার নিহত

আল আকসায় মুসলিমদের সঙ্গে ইসরায়েলি বাহিনীর তাণ্ডবের ঘটনায় রকেট হামলা চালায় হামাস। এর পরই গাজা উপত্যকা লক্ষ্য করে ইসরায়েল বিমান হামলা চালায়। এতে হামাসের এক সিনিয়র কমান্ডার নিহত হয়েছেন।

সোমবার (১০ মে) স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সেনার মুখপাত্র জনাথন কংরিকাস বলেন, আমরা গাজার সেনাদের লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছি। আমরা তাদের সেনা পরিচালকদের টার্গেট করেছি। 

হামাস বাহিনী সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছে, তাদের একজন কমান্ডার ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলে হামাসের ৭ রকেট হামলা

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলে হামাসের ৭ রকেট হামলা

গাজার সশস্ত্র গ্রুপ আল্টিমেটাম দেওয়ার পর জেরুজালেমে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার সন্ধ্যার পর ৬টার দিকে এই রকেট হামলার ঘটনা ঘটে।

গাজার কাছ থেকেও রকেট হামলার ঘটনা ঘটে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ছবিতে ইসরায়েলের সঙ্গে সীমান্তের আকাশে সাদা ধোঁয়া উড়তে দেখা যায়। তবে ওই ফুটেজ তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করা সম্ভব হয়নি।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলি অঞ্চলের বেইত শিমেশ এবং জেরুজালেম শহরে সাতটি রকেট ছোঁড়া হয়। এরপর সাইরেন বাজানো হয়। আয়রন ডোম এরিয়াল ডিফেন্স সিস্টেম একটি রকেটকে প্রতিহত করে।

এগুলো ছাড়াও অ্যান্টি-ট্যাংক মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। এদিকে প্যালেস্টিনিয়ান ইসলামিক জিহাদও ইসরায়েলে একাধিক রকেট হামলা চালানোর দাবি করেছে। ইসরায়েলি সেনাবাহিনী কয়েকটি শহরে ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করার পর এই দাবি করে গ্রুপটি।

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৯ ফিলিস্তিনি নিহত

গাজার উত্তরাঞ্চলে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত নয়জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। খবর ডেইলি সাবাহ ও আল জাজিরার।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার বিষয়ে মন্তব্য করেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনজন শিশু।

এর আগে হামলার পর পর ফিলিস্তিনের মেডিকেল কর্মীরা জানিয়েছিল, অন্তত একজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ ও এর আশপাশের এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ চলছে। ইসরায়েলি বাহিনী শান্তিপূর্ণ মুসল্লিদের ওপর বিনা উস্কানিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি মেডিকেল সূত্র আনাদোলু এজেন্সিকে জানিয়েছে, ৫০ জনকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে ১৯৬৭ সালের ৬ দিনের যুদ্ধের স্মরণে ‘জেরুজালেম দিবস’ পালনের একটি র‌্যালিকে সামনে রেখে ফিলিস্তিনিদের ওপর ব্যাপক হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। রাবার বুলেট, টিয়ার গ্যাস ও স্টান গ্রেনেডের হামলায় শত শত ফিলিস্তিনি আহত হয়।

দখলদার বাহিনী হামলার জবাবে পাথর ও অন্যান্য বস্তু ছুঁড়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছে ফিলিস্তিনিরা। কিন্তু ইসরায়েলি বাহিনী আল-আকসা মসজিদের ভেতর ঢুকে স্টান গ্রেনেড ছুঁড়েছে।

শুক্রবার থেকে ইসরায়েলি পুলিশ আল-আকসা মসিজদে ফিলিস্তিনে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব হামলার ঘটনায় অন্তত ৩০০ জন আহত হয়েছে। ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, আহতদের অধিকাংশের শরীরেই ইসরায়েলি পুলিশের ছোঁড়া রাবার বুলেটের আঘাত রয়েছে।
গাজার উত্তরাঞ্চলে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত নয়জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সোমবার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে। খবর ডেইলি সাবাহ ও আল জাজিরার।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে এই হামলার বিষয়ে মন্তব্য করেনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে তিনজন শিশু।

এর আগে হামলার পর পর ফিলিস্তিনের মেডিকেল কর্মীরা জানিয়েছিল, অন্তত একজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই জেরুজালেমে আল-আকসা মসজিদ ও এর আশপাশের এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ চলছে। ইসরায়েলি বাহিনী শান্তিপূর্ণ মুসল্লিদের ওপর বিনা উস্কানিতে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি মেডিকেল সূত্র আনাদোলু এজেন্সিকে জানিয়েছে, ৫০ জনকে আহতাবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এদিকে ১৯৬৭ সালের ৬ দিনের যুদ্ধের স্মরণে ‘জেরুজালেম দিবস’ পালনের একটি র‌্যালিকে সামনে রেখে ফিলিস্তিনিদের ওপর ব্যাপক হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। রাবার বুলেট, টিয়ার গ্যাস ও স্টান গ্রেনেডের হামলায় শত শত ফিলিস্তিনি আহত হয়।

দখলদার বাহিনী হামলার জবাবে পাথর ও অন্যান্য বস্তু ছুঁড়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছে ফিলিস্তিনিরা। কিন্তু ইসরায়েলি বাহিনী আল-আকসা মসজিদের ভেতর ঢুকে স্টান গ্রেনেড ছুঁড়েছে।

শুক্রবার থেকে ইসরায়েলি পুলিশ আল-আকসা মসিজদে ফিলিস্তিনে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব হামলার ঘটনায় অন্তত ৩০০ জন আহত হয়েছে। ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, আহতদের অধিকাংশের শরীরেই ইসরায়েলি পুলিশের ছোঁড়া রাবার বুলেটের আঘাত রয়েছে।

পরবর্তী খবর

নদীতে ভেসে এল ৪০টির বেশি লাশ

অনলাইন ডেস্ক

নদীতে ভেসে এল ৪০টির বেশি লাশ

ভারতের বিহার রাজ্যে গঙ্গায় ভেসে এসেছে ৪০টির বেশি লাশ। এসব লাশ করোনায় মৃত ব্যক্তিদের বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার এই খবর জানিয়ে এনডিটিভি বলছে, করোনাভাইরাস ভারতে কী প্রভাব ফেলেছে, তারই যেন প্রকাশ ঘটল নদীতে লাশের এই বহরে।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, বিহার রাজ্যের বক্সারে সোমবার সকালে গঙ্গা নদীতে লাশগুলো পাওয়া গেছে। ভোরে ঘুম থেকে উঠে স্থানীয় ব্যক্তিরা নদীতে এসব লাশ দেখতে পান। লাশগুলো পচেগলে ফুলে গেছে। সেখানে তখন ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়।

স্থানীয় প্রশাসনের ধারণা, লাশগুলো উত্তর প্রদেশ থেকে ভেসে এসেছে। মৃত করোনা রোগীদের মরদেহ দাহ বা দাফনের জন্য জায়গা না পেয়ে সেগুলো নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে থাকতে পারেন স্বজনেরা।

বিহারের চৌসা জেলা কর্মকর্তা অশোক কুমার বলেন, ‘৪০ থেকে ৪৫টি লাশ ভাসতে দেখা গেছে।’ চৌসার মহাদেবা ঘাট থেকে লাশগুলো উদ্ধার করা হয়। সেখানে দাঁড়িয়েই কথা বলছিলেন অশোক কুমার। তিনি বলেন, লাশগুলো নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে মনে হচ্ছে।

কারও কারও মতে, লাশের সংখ্যা ১০০–এর কাছাকাছি। 

স্থানীয় প্রশাসনের আরেক কর্মকর্তা কে কে উপাধ্যায় বলেন, ‘লাশগুলো ফুলে গেছে। অন্তত পাঁচ থেকে সাত দিন ধরে সেগুলো পানিতে ছিল। আমরা লাশগুলোর সৎকারের ব্যবস্থা করছি। আমাদের দেখতে হবে এগুলো কোথা থেকে এসেছে। উত্তর প্রদেশের বাহরাইচ, বারানসি নাকি এলাহাবাদ থেকে।’

কে কে উপাধ্যায় আরও বলেন, ‘এসব লাশ বিহারের কোথাও থেকে আসেনি। কারণ, এখানে নদীতে ভাসিয়ে দিয়ে লাশ সৎকার করা হয় না।’

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর