দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বোতল ঢুকিয়ে দিল স্বামী
দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বোতল ঢুকিয়ে দিল স্বামী

দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বোতল ঢুকিয়ে দিল স্বামী

অনলাইন ডেস্ক

দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বোতল ভরিয়ে দিয়েছে স্বামী। ভারতের ওড়িশার চন্দ্রশেখরপুর থানা এলাকার এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

চন্দন আচার্য নামে অভিযুক্ত ব্যক্তি পেশায় অটোচালক।

আনন্দবাজারের খবরে প্রকাশ পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, ওই নারীর সঙ্গে অভিযুক্তের বিয়ে হয় ১০ বছর আগে।

তাদের ৫ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে।

নির্যাতিতার ভাষ্য, দেহ ব্যবসায় নামানোর জন্য অনেক বছর ধরে অত্যাচার করছেন তাঁর স্বামী। আবারও দেহ ব্যবসা করতে স্ত্রীকে চাপ দেন অভিযুক্ত। কিন্তু নির্যাতিতা নারী রাজি না হওয়ায় সন্ধ্যায় স্ত্রীকে লোহার রড দিয়ে মারে ওই ব্যক্তি।


‘বিয়ের আশ্বাস পেয়ে’ স্বামীকে তালাক, চার বছর ধরে চলে ধর্ষণ

বড় বোনকে বিয়ে না দেওয়ায় ছোট বোনকে ধর্ষণ

ওই ছাত্রীকে প্রথমে ‌‘রেস্তোরাঁর ওয়াশরুমে পরে বাসায় নিয়ে ধর্ষণ’

ফাঁকা অফিসে নারী কর্মীকে ধর্ষণ করল পরিচালক

এরপর স্ত্রীর গোপনাঙ্গে বোতল ঢুকিয়ে দেয়। এতে অচেতন হয়ে পড়ে থাকেন নির্যাতিতা। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

পরে পুলিশ গিয়ে নির্যাতিতা ও তাঁর মেয়েকে একটি বন্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করে।

অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বেশ কয়েকটি ধারায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশকে নির্যাতিতা জানিয়েছেন, বিয়ের ৩ বছর পর থেকেই তাঁকে দেহ ব্যবসার জন্য চাপ দিতেন অভিযুক্ত স্বামী। রাজি না হওয়ায় মারধরও করতেন।

তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সূত্র- আনন্দবাজার

news24bd.tv তৌহিদ