বি-বাড়িয়ায় রেললাইন উপরে ফেলেছে হেফাজত সমর্থকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

বি-বাড়িয়ায় রেললাইন উপরে ফেলেছে হেফাজত সমর্থকরা

ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের বি-বাড়িয়ায় রেললাইন উপরে ফেলেছে হেফাজত সমর্থকরা। তারা ডিসি, এসপি অফিসও ঘেরাও করে রেখেছে। 

এদিকে আজ বিকেল সোয়া চারটা থেকে ঢাকা চট্টগ্রাম ট্রেন চলাচলও বন্ধ রয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

পা ভাঙ্গা প্রেমিককে ক্লিনিকেই বিয়ে করলেন প্রেমিকা, কেবিনেই বাসর

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

পা ভাঙ্গা প্রেমিককে ক্লিনিকেই বিয়ে করলেন প্রেমিকা, কেবিনেই বাসর

ঝিনাইদহের মহেশপুর এক ক্লিনিকে পা ভাঙ্গা প্রেমিকের সঙ্গে প্রেমিকার বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এরপর তারা দুইজনে ওই ক্লিনিকেই বাসর রাত পালন করে। ঘটনাটি নিয়ে শুক্রবার এলাকার সাধারন মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার চরপাড়া গ্রামের আব্দুস সোবহানের ছেলে হুসাইন আহমেদ (২৩) প্রেমিক। সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় তার ডান পা ভেঙে যায়। ভাঙা পা নিয়ে কয়েক দিন ধরে আলমডাঙ্গার ফাতেমা ক্লিনিকের ৪ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুয়ে আছেন। প্রেমিকের পা ভাঙার খবর শুনে প্রেমিকা তাসফিয়া সুলতানা মেঘা (১৯) বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে দেখতে ছুটে আসে ক্লিনিকে। এ সময় সৃষ্টি হয় এক আবেগঘন পরিবেশ।

আরও পড়ুন:


ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু

ময়মনসিংহে ছাত্রদলের সভা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া


এদিকে ছেলের অভিভাবকরা মেয়ের বাবার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তাদের সম্পর্কের ঘটনা জানায। ঘটনা জানার পর মেয়েকে আর বাড়িতে তুলবেন না বলে জানিয়ে দেয় তার বাবা। সেই সাথে দুইজনকে বিয়ে দেওয়ার পরামর্শ দেয় তার বাবা। তার কথা অনুযায়ী মেয়েও বিয়ের দাবিতে অনড় থাকে। এক পর্যায়ে তাদের দুইজনের বিয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

গভীর রাতে ক্লিনিকের কেবিনেই কাজী ডেকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে দেওয়া হয়। বিয়ের পর ওই কেবিনেই তাদের বাসর হয়। বিয়ের খবর ছড়িয়ে পড়লে সবাই এক নজর দেখতে ভিড় জমায় ক্লিনিকে।

ফাতেমা ক্লিনিকের মালিক বিলকিচ পারভিনের স্বামী মুনজুর আলী জানান, এমন ঘটনা বিরল। আমাদেরও ভালো লাগছে। ছেলে-মেয়ে দুজনই প্রাপ্ত বয়স্ক। রাতেই ক্লিনিকের অনুমতিক্রমে বিয়ের সব আয়োজন করা হয়, সেখানেই নবদম্পতির বাসর হয়।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

বড়শিতে ধরা পড়ল ৪৮ কেজির বাঘাইড়

নিজস্ব প্রতিবেদক

বড়শিতে ধরা পড়ল ৪৮ কেজির বাঘাইড়

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার যমুনা নদী থেকে সিকান্দার আলী নামের একব্যক্তি বড়শি দিয়ে ৪৮ কেজি ওজনের একটি বাঘাইড় মাছ ধরেছেন। 

আজ সকালে উপজেলার চিতুলিয়া গ্রামের যমুনা নদীতে মাছটি ধরা পড়ে।

স্থানীয় লোকজন জানান, সিকান্দার আলী বড়শি দিয়ে যমুনা নদীতে নিয়মিত মাছ ধরেন। আজ সকালেও ধরতে যান। তার বড়শিতে বিশাল আকারের একটি বাঘাইড় মাছ ধরা পড়ে। প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় তিনি মাছটি পাড়ে তোলেন।

আরও পড়ুন:


বাঁচবো কিনা জানি না, সবাই ক্ষমা করে দিয়েন

দুদককে পরীমণির সম্পদের হিসাব চাওয়ার আহ্বান হেলেনা জাহাঙ্গীরের

গণপরিবহনে অবাধে যাতায়াত করায় করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপেনে ছিলেন আবু ত্ব-হা: পুলিশ


স্থানীয় ভুট্টা ব্যবসায়ী মো. মনসুর আলী মাছটি ৪৪ হাজার টাকায় কিনে নেন। 

মনসুর আলী জানান, ঢাকায় ভুট্টা পাইকারি মহাজনের কাছে মাছটি পাঠানো হবে। সম্প্রতি বাহাদুরাবাদে ১২০ কেজি ওজনের বাঘাইড় মাছ জেলের জালে ধরা পড়েছিল। ওই মাছটি প্রতি কেজি ১১০০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

সিলেটে ৩ মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিখোঁজ

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেটে ৩ মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিখোঁজ

সিলেট থেকে তিন মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) সকাল থেকে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় গতকাল সন্ধ্যায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

নিখোঁজ মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা হলো:- দক্ষিণ সুরমার আহমদপুরের মৃত সামছুল ইসলামের জমজ ছেলে হাসান ও হোসেন (১৩) এবং জালালাবাদ থানাধীন জাঙ্গাইল এলাকার রিপন মিয়ার ছেলে অপু (১০)।

নিখোঁজ অপুর মা সামছুল ইসলামের বাড়িতে থেকে গৃহকর্মীর কাজ করতেন। অপু আহমদপুর এলাকার একটি মাদ্রাসায় হিফজ বিভাগে পড়ালেখা করতো। এছাড়া হাসান ও হোসেন সিলেটের কুদরত উল্লাহ মাদ্রাসায় হিফজ বিভাগে অধ্যয়নরত ছিল। তিন শিশুর 

থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন মৃত সামছুল ইসলামের ভাতিজা সালাহ উদ্দিন। 

আরও পড়ুন:


বাঁচবো কিনা জানি না, সবাই ক্ষমা করে দিয়েন

দুদককে পরীমণির সম্পদের হিসাব চাওয়ার আহ্বান হেলেনা জাহাঙ্গীরের

গণপরিবহনে অবাধে যাতায়াত করায় করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপেনে ছিলেন আবু ত্ব-হা: পুলিশ


সাধারণ ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়, মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় হাসান, হোসেন ও অপু বাড়িতে পড়ালেখা করতো। বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে পরিবারের কাউকে না বলে তিনজন বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। এরপর আর তাদের কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। 

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

যশোরে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক

যশোরে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড

যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরো ২৯১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৯ জন ভারত ফেরত। এটি জেলায় একদিনের সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। 

স্বাস্থ্যবিভাগের তথ্য মতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৬০৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৯১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৪৭ শতাংশ। এছাড়া করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। এদের মধ্যে দু'জন করোনা রোগী এবং অপর দু'জন করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১০৮ জন।

এদিকে, উচ্চ ঝুঁকির কারণে যশোরের পাঁচ পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নে লকডাউন সম্প্রসারণ করা হয়েছে। তবে লকডাউন কার্যকরভাবে মানছে না সাধারণ মানুষ।

অবশ্য প্রশাসন বলছে, লকডাউন কার্যকরে সব উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। লকডাউন কার্যকর করতে আরো কঠোরতা আরোপ করা হবে। সেইসাথে জনগণকেও সচেতন হওয়ার পরামর্শ তাদের।

আরও পড়ুন:


বাঁচবো কিনা জানি না, সবাই ক্ষমা করে দিয়েন

দুদককে পরীমণির সম্পদের হিসাব চাওয়ার আহ্বান হেলেনা জাহাঙ্গীরের

গণপরিবহনে অবাধে যাতায়াত করায় করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপেনে ছিলেন আবু ত্ব-হা: পুলিশ


 

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজেস্ট্রেট কাজী মো. সায়েমুজ্জামান বলেন, 'করোনার শনাক্তের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় আরও একটি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল প্রস্তুত করা হয়েছে। সদর হাসপাতালে করোনা রোগীর চাপ বৃদ্ধি পেলে নতুন করোনা হাসপাতালে রোগী স্থানান্তর শুরু হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় করোনা পরিস্থিতি রেকর্ড, মৃত্যু ৪ আক্রান্ত ১৫৬

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়ায় করোনা পরিস্থিতি রেকর্ড, মৃত্যু ৪ আক্রান্ত ১৫৬

কুষ্টিয়ায় ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৮৮ নমুনায় রেকর্ডসংখ্যক ১৫৬ জনে করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনার বিপরীতে শনাক্তের হার ৪০ শতাংশ। এই ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের। হাসপাতালে বেড়েছে রোগীর চাপ।

করোনা নিয়ন্ত্রণে লকডাউনের আদলে কুষ্টিয়া ও মিরপুর পৌর এলাকায় বিধি নিষেধ আরোপ করা আছে। কিন্তু মানুষের মধ্যে তাম মানার প্রবণতা নেই, প্রশাসেনর মাণ্য করানোর মতো কঠোর তৎপরতা চোখে পড়েনি। 

কুষ্টিয়া সদরের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলাম হানিফ বলেছেন, শনিবার থেকে ‘কা্রফিউ এর মতো’ কঠোর বিধি নিষেধ আরোপ করা কবে। তা মাণ্য করানোরও উদ্যোগ নেয়া হবে। 

আরও পড়ুন:


শনিবার থেকে সিনোফার্মের টিকাদান কার্যক্রম শুরু

ব্রাজিলের কাছে পাত্তাই পেল না পেরু

আবারও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী

নন্দীগ্রামের ভোটের ফলাফল নিয়ে হাইকোর্টে মমতা


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর