পানি বন্টন বিরোধ মেটাতে সম্মত হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক

পানি বন্টন বিরোধ মেটাতে সম্মত হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান

অবশেষে ভারত ও পাকিস্তান একটি বিষেয়ে সম্মত হল। সিন্ধু নদীর পানি বণ্টন নিয়ে বিরোধ আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে একমত হয়েছে দুই দেশ।  ইসলামাবাদ থেকে আইআরআইবি'র সংবাদদাতা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে গত ২৩ ও ২৪ মার্চ পাক-ভারত যৌথ পানি কমিশনের ১১৬তম বৈঠক নয়া দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দুই দেশের প্রতিনিধিদলের সদস্যরা পানি বণ্টন নিয়ে বিরোধ নিরসনে আলোচনা করেছেন।

এ সময় পাকিস্তানি প্রতিনিধিরা ১৯৬০ সালে স্বাক্ষরিত পানি বণ্টন বিষয়ক চুক্তি মেনে চলতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানায়।  সিন্ধু নদীর পানি বণ্টন নিয়ে দীর্ঘ আড়াই বছর পর বৈঠক করল ভারত ও পাকিস্তান। ১৯৬০ সালে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে সিন্ধু নদীর পানি বণ্টন বিষয়ক চুক্তি স্বাক্ষর হয়। দুই দেশের অভিন্ন নদীগুলোর পানি বণ্টন নিয়ে দ্বন্দ্বের অবসানে ১৯৬০ সালেই গঠন করা হয় পিআইসি।


দশ বছর আগে যা ঘটেছে তার জন্য আমি দায়ী নই : প্রভা

‘চুম্বন বা অন্তরঙ্গ দৃশ্যয়নের আগে একান্তে সময় কাটাই’

ছোট ভাইয়ের মৃত্যুর পর তার স্ত্রীকে অন্তঃসত্ত্বা করলো ভাসুর!

চুম্বনের দৃশ্যের আগে ফালতু কথা বলতো ইমরান : বিদ্যা


চুক্তি অনুসারে ভারত ও পাকিস্তানের প্রতিনিধিদের পানি বণ্টন নিয়ে বছরে অন্তত একবার বৈঠকে বসার কথা। তবে গত মঙ্গলবারের বৈঠকটি শুরু হয় প্রায় আড়াই বছরের ব্যবধানে। 

জানা গেছে, পাকিস্তান থেকে প্রতিনিধিদল নয়াদিল্লিতে আসে গত সোমবার। তারা মূলত ১৯৬০ সালে করা চুক্তির আওতায় পানি বণ্টন নিয়ে ভারতে বৈঠক করতে এসেছেন।

প্রতি বছর এ ব্যাপারে বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও মাঝখানে আড়াই বছরের ব্যবধান তৈরি হওয়ার পেছনে রয়েছে করোনাভাইরাস মহামারি। গত বছর নয়াদিল্লিতে বৈঠকের সময় নির্ধারণ থাকলেও করোনার কারণে তা বাতিল হয়ে যায়।

এর আগে ২০১৮ সালের আগস্টে সর্বশেষ স্থায়ী সিন্ধু কমিশনের বৈঠক হয়েছিল। ২০১৯ সালে দ্বি-পাক্ষিক উত্তেজনার মধ্যে বৈঠক বাতিল হয়েছিল।

news24bd.tv আয়শা 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শাউভিন দোষী সাব্যস্ত

অনলাইন ডেস্ক

জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শাউভিন দোষী সাব্যস্ত

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের মিনেয়াপলিসে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার দায়ে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শভিনকে দোষী সাব্যস্ত করেছে জুরি।

মঙ্গলবার ১২ সদস্যের জুরির একটি প্যানেল মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) মামলাটির রায় ঘোষণা করে। 

বিশ্বে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের ইতিহাসে এই রায় একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মনে করছেন অনেকে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ফ্লয়েডকে হত্যায় পুলিশ কর্মকর্তা চৌভিনের বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগই আদালতে প্রমাণ হয়েছে। ফলে ৪০ বছর কারাদণ্ডাদেশ পেতে পারেন চৌভিন।  তাঁর বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগ হলো-সেকেন্ড ডিগ্রি অনিচ্ছাকৃত হত্যা, থার্ড ডিগ্রি হত্যা ও সেকেন্ড ডিগ্রি নরহত্যা। 

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সেকেন্ড ডিগ্রি অনিচ্ছাকৃত হত্যার জন্য সর্বাধিক ৪০ বছর, থার্ড ডিগ্রি হত্যার জন্য সর্বাধিক ২৫ বছর ও সেকেন্ড ডিগ্রি নরহত্যার জন্য সর্বাধিক ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ হতে পারে শাউভিনের। শাস্তি দেওয়ার আগ পর্যন্ত শাউভিন কারাগারে থাকবেন। আদালত জানিয়েছেন, পরবর্তী আট সপ্তাহের মধ্যে শাউভিনের কারাদণ্ডাদেশ ঘোষণা করা হবে।

মার্কিন গণমাধ্যমটি আরও বলছে, শাউভিন এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

দেশটির মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনেয়াপলিসের সড়কে গত বছর মে মাসে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে গ্রেফতার ফ্লয়েডের ঘাড়ে চৌভিন (৪৫) হাঁটু গেড়ে বসলে তার মৃত্যু হয়। ৯ মিনিটের ওই ভিডিও সাড়া বিশ্বে সমালোচনার ঝড় তুলে।

 ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে।


করোনা সচেতনতা: যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ স্টাইল

জিততে এসেছি, ইনশাআল্লাহ জয় পাব: মুমিনুল

বৈঠকতো দূরের কথা, বাবুনগরী কখনোই খালেদা জিয়াকে সামনাসামনি দেখেননি: হেফাজতে ইসলাম

কানাডার শীর্ষ নেতাদের সবাই অস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন


নিরস্ত্র এ কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যুর মাসখানেক পর তার পরিবার শহর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করে।

অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর এ মামলায় তিন সপ্তাহের বিচার শেষে মঙ্গলবার রায় আসে।

একদিনেরও কম সময় নিয়ে এ মামলার রায় প্রকাশকে যুক্তরাষ্ট্র তথা বিশ্বের বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের ইতিহাসে মাইলফলক বলে মন্তব্য করেছেন অনেকে।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রয়োজন ছাড়া বের না হলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না: মোদি

অনলাইন ডেস্ক

প্রয়োজন ছাড়া বের না হলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না: মোদি

আবারও কি লকডাউনের ঘোষণা করা হবে? প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার খবরটা ছড়ানোর পর থেকেই সেই জল্পনাই ঘুরপাক খাচ্ছিল।

তবে ১৯ মিনিটের ভাষণে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, এখনই লকডাউনের পথে হাঁটছে না দেশ। বরং ছোটো ছোটো কনটেনমেন্ট জোন, করোনাভাইরাস বিধি পালনের উপর জোর দেওয়া হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও দ্য ওয়াল এ খবর জানিয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে দেওয়া ভাষণে নরেন্দ্র মোদি বলেন, লকডাউন এখন কোনও বিকল্প নয়। মানুষের জীবন ও জীবিকা দুটি বিষয়ের কথাই মাথায় রাখতে হবে। লকডাউন থেকে দেশকে বাঁচাতেই হবে। রাজ্য সরকারগুলোকে বলব লকডাউনকে তারা যেন শেষ পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচনা করেন। বরং অগ্রাধিকার দিতে হবে মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জোন তৈরি করে কোভিড মোকাবিলায়।

তিনি বলেন, প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না। তাহলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না, নাইট কারফিউও জারি করতে হবে না, যদি আমরা সকলে মিলে করোনা বিধি মেনে চলি। 

জনগণকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে টিকাদান কর্মসূচি জোরদার করার পক্ষে জোর দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, বিশ্বে সবচেয়ে সস্তায় ভ্যাকসিন পাওয়া যায় ভারতেই। তাই ভারতের ভ্যাকসিনের চাহিদা বিশ্বজুড়ে। সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে টিকাদান চলবে। রাজ্যগুলোতে দ্রুততার সঙ্গে ভ্যাকসিন পাঠাতে হবে। এক্ষেত্রে কেন্দ্র-রাজ্য সমন্বয় অত্যন্ত জরুরি।


জিততে এসেছি, ইনশাআল্লাহ জয় পাব: মুমিনুল

বৈঠকতো দূরের কথা, বাবুনগরী কখনোই খালেদা জিয়াকে সামনাসামনি দেখেননি: হেফাজতে ইসলাম

কানাডার শীর্ষ নেতাদের সবাই অস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন

ফজিলতপূর্ণ ইবাদত তাহাজ্জুদের নামাজ


এছাড়া তিনি দেশের অক্সিজেনের ঘাটতি মেটানো, হাসপাতালের বেড বাড়ানো ও ওষুধ উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দেন। 

প্রসঙ্গত, আগামী ১ মে থেকে ভারতে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে। পাশাপাশি খোলা বাজারেও করোনার টিকা পাওয়া যাবে। 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচক

পাকিস্তান-আফগানিস্তান-মিয়ানমারের চেয়েও পিছিয়ে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তান-আফগানিস্তান-মিয়ানমারের চেয়েও পিছিয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে আরও এক ধাপ পিছিয়ে ১৫২-তে দাঁড়িয়েছে। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ২০২১ সালের এই সূচক প্রকাশ করে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস (আরএসএফ)।

এর আগে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮০টি দেশের মধ্যে ছিল (২০২০ সালের) ১৫১তম।

২০১৯ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫০তম।


মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটুনির ১মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ভিডিও ভাইরাল

ডাক্তার-পুলিশের এমন আচরণ অনাকাঙ্ক্ষিত: হাইকোর্ট

একদিনে করোনা শনাক্ত ৪৫৫৯

২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৯১ জন


এছাড়া প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান সবার নিচে। সূচকে বাংলাদেশের চেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান (১৪৫), ভারত (১৪২), মিয়ানমার (১৪০), শ্রীলঙ্কা (১২৭), আফগানিস্তান (১২২), নেপাল (১০৬), মালদ্বীপ (৭৯), ভুটান (৬৫)।

গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করতে পারছে, তার ভিত্তিতে আরএসএফ ২০০২ সাল থেকে এই সূচক প্রকাশ করে আসছে।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত ইসরাইলে

অনলাইন ডেস্ক

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত ইসরাইলে

ভারতীয় ধরনের ৮ করোনা রোগী শনাক্ত করেছে ইসরাইল। বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের মধ্যে গত সপ্তাহে করোনার ভারতীয় ধরনের সাত রোগী শনাক্ত করেছিল ইসরাইল। বর্তমানে তারা প্রাথমিক পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এমন তথ্য দিয়েছে।

ইসরাইলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিচালক হেজি লেভি বলেন, করোনার ভারতীয় ধরনের বিরুদ্ধে ফাইজারের টিকা কার্যকর। যদিও ফলপ্রসূতা কিছুটা কম। ইসরাইলে বর্তমানে এই ধরনের আট রোগী আছেন।

প্রাণঘাতী করোনা মহামারি মোকাবিলায় হার্ড ইমিউনিটির কাছাকাছি ইসরাইল। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হওয়া ও টিকাদানের মাধ্যমে হার্ড ইমিউনিটিতে পৌঁছানো যায়। বিবিসির খবরে বলা হয়, করোনাভাইরাসের ক্ষেত্রে হার্ড ইমিউনিটির সীমা অন্তত ৬৫ থেকে ৭০ শতাংশ হবে। অর্থাৎ এই সংখ্যক মানুষ ভাইরাস প্রতিরোধী হলেই কোভিড-১৯ রোগ থেকে হার্ড ইমিউনিটি অর্জন সম্ভব।

ইসরাইলে অর্ধেকের বেশি অধিবাসীকে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। সংখ্যার হিসাবে যেটি ৫৩ লাখ মানুষ। 

ইতিমধ্যে দেশটির কিন্ডারগার্টেন, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শ্রেণিকক্ষে ফিরতে শুরু করেছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্কুলগুলোতে ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধান মেনে চলতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। শ্রেণিকক্ষে বায়ু চলাচলের অবাধ ব্যবস্থা থাকতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় মারা গেলেন চাদের প্রেসিডেন্ট

অনলাইন ডেস্ক

 
দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় মারা গেলেন চাদের প্রেসিডেন্ট

আফ্রিকান দেশ চাদের পুনর্নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইদরিস দেবি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আহত হওয়ার পর মারা গেছেন। 

আজ মঙ্গলবার দেশটির সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জেনারেল আজিম বেরমান্দোয়া আগৌনা এ তথ্য জানান। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, যুদ্ধক্ষেত্রে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন ইদরিস দেবি।

৬৮ বছর বয়সী ইদ্রিস তিন দশক ক্ষমতা ছিলেন। তিনি সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতা থাকা আফ্রিকার নেতাদের মধ্যে একজন ছিলেন। ইদ্রিসের ৩৭ বছর বয়সী ছেলের নেতৃত্বাধীন একটি সামরিক পরিষদ আগামী দেড় বছর দেশটির শাসনভার সামলাবেন।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়, ১১ এপ্রিল দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিজয়ী ঘোষণার এক দিন পরই তার মৃত্যুর খবরটি জানানো হয়।

এদিকে এরই মধ্যে দেশটির সরকার ও পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়া হয়েছে। পরবর্তী ১৮ মাস সরকার পরিচালনা করবে প্রেসিডেন্ট ইদ্রিসের ৩৭ বছর বয়সী ছেলে কাকার নেতৃত্বে মিলিটারি কাউন্সিল।

প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর ফলে দেশজুড়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। এছাড়া দেশটির সীমানা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

আল জাজিরায় বলা হয়েছে, সামরিক কাউন্সিল প্রতিষ্ঠা করা শাদের সংবিধানে নেই। সংবিধানের যা বলা রয়েছে, তা হলো প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতিতে বা তিনি মারা গেলে সংসদের স্পিকার ৪০ দিনের জন্য দেশের দায়িত্ব নেবেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর