পাহাড়ে তরমুজের বাম্পার ফলন

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

পাহাড়ে তরমুজের বাম্পার ফলন

পাহাড়ে তরমুজের বাম্পার ফলন হয়েছে। উপযুক্ত আবহাওয়া এবং উন্নত চাষাবাদের কারণে রাঙামাটির কয়েকটি উপজেলায় এবছর ঈর্ষণীয় ফলন হয়েছে তরমুজের। হাসি ফুটেছে কৃষকদের মুখে।

এখন টসটসে, মিষ্টি ও রসালো তরমুজে সয়লাব রাঙামাটির হাট-বাজারগুলো। রাঙামাটির উৎপাদিত তরমুজ স্থানীয় বাজার ছাড়িয়ে বাজারজাত হচ্ছে জেলার বাইরে।  

স্থানীয় চাষি সজিব চাকমা জানান, চলতি মৌসুমে রাঙামাটির প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকায় তরমুজের প্রচুর উৎপাদন হয়েছে।

পাহাড়ে তরমুজের অভাবনীয় উৎপাদনে ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে অনেক চাষির। বেশ লাভবানও হয়েছেন তারা। তরমুজ বিক্রতা মিন্টা চাকমা বলেন, বর্তমানে স্থানীয় বাজারে বড় তরমুজ বিক্রি হচ্ছে ৪০০ থেকে ৩০০ পর্যন্ত। আর মাঝারি আকারের প্রতি তরমুজ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ১০০ টাকায়।

চাষী সুমন চাকমা জানান, চলতি মৌসূমে রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলায় পাহাড়ে ২ একর জমি বর্গা নিয়ে তরমুজের চাষ শুরু করে তিনি। পাহাড়ের পাদদেশে মাত্র ৩০০ মাদা (গর্ত) মধ্যে তরমুজ চাষ করা হয়। প্রতিটি মাদায় ৩ থেকে ৪টি করে তরমুজ হয়েছে। সময়মত পানি সারসহ ও সঠিক পরিচর্যার কারণে ফলনও হয়েছে বাম্পার। শুধু এ মৌসুমে লক্ষাধিক টাকার তরমুজ বিক্রি করেছেন তিনি। সম্প্রতি প্রায় ৪ লাখ টাকার তরমুজ বিক্রি করেছেন তিনি।

রাঙামাটি বিভাগের তথ্য মতে, চলতি বছর রাঙামাটি জেলায় তরমুজ চাষ হয়েছে প্রায় ২৪০ হেক্টর জমিতে। লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী উৎপাদন ছিল ৯ হাজার ৬০০। যা সাফল্যজনক। এ বছর আবহাওয়া ভালো থাকায় তরমুজ আকারে যেমন বড় হয়েছে, তেমনি মিষ্টিও হয়েছে। চলতি বছর সবচেয়ে বেশি তরমুজের চাষ হয়েছে রাঙামাটি পার্বত্য জেলার বিভিন্ন উপজেলায়। এছাড়া সদর উপজেলাসহ বরকল, নানিয়ারচর, বাঘাইছড়ি, জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি ও কাউখালীতে তরমুজের আবাদ হয়েছে। ফলন ভাল হওয়ায় চাষিদের মাঝে চাষাবাদের ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে। এসব জেলায় টোফেল ও চ্যাম্পিয়ন জাতের তরমুজের বীজ আবাদ হয়ে থাকে।


আরও পড়ুনঃ


'শিশু বক্তা' দীর্ঘদিন ধরেই গ্রেপ্তার হওয়ার চেষ্টা করছিলেন

সাকিবকে ধন্যবাদ আলোচনাটা শুরু করার জন্য

৫ বছরের শিশুর মা হওয়ার অমীমাংসিত রহস্য

পত্রিকার সাংবাদিকগুলো বিসিএস ক্যাডার চাকরিটাকে বিশাল কিছু বানিয়ে ফেলেছেন


রাঙামাটি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক কৃষ্ণ প্রসাদ মল্লিক বলেন, এবার মৌসুমেও রাঙামাটিতে তরমুজের বাম্পার ফলনের খবর পাওয়া যাচ্ছে। লাভের মুখ দেখছেন চাষিরা। পাশাপাশি বিশেষ মুনাফা লাভের সুবিধা পাচ্ছেন মধ্যস্বত্বভোগীরা। উপযুক্ত আবহাওয়া, জমির উর্বরতা এবং উন্নত চাষাবাদের কারণে রাঙামাটিতে প্রতি বছর তরমুজের বাম্পার ফলন হয়। এ বছর জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি তরমুজের আবাদ হয়েছে লংগদু উপজেলায়। এসব উপজেলার উৎপাদিত তরমুজ এখন রাঙামাটির বিভিন্ন বাজারে সয়লাব করেছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এই পর্যন্ত ১০৯ সাংসদ করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু চার

নিজস্ব প্রতিবেদক

এই পর্যন্ত ১০৯ সাংসদ করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু চার

করোনা সংক্রমণ রোধে সারাদেশে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। কিন্তু এই লকডাউনের মধ্যে সারা দেশে করোনায় মৃত্যুর সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা।এদিকে এ পর্যন্ত অন্তত ১০৯ জন সাংসদ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে করোনয় মৃত্যু হয়েছে চার জনের। আর মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ সদস্য, এর মধ্যে একজন মারা গেছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ ১২ জন(সংরক্ষিত ৫০ জনসহ সংসদের সদস্য মোট ৩৫০ জন)।  সংসদ সচিবালয় ও দলীয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত বছরের ১৩ জুন মারা যান আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও সিরাজগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ মোহাম্মদ নাসিম। একই দিনে মারা যান টেকনোক্র্যাট কোটায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ। আর জুলাইয়ে মারা যান নওগাঁ-৬ আসনের সাংসদ ইসরাফিল আলম। সর্বশেষ ১৪ এপ্রিল মারা গেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কুমিল্লা-৫ আসনের সাংসদ আবদুল মতিন খসরু। এর আগে গত মাসে মারা যান সিলেট-৩ আসনের সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী।

দেশে করোনায় ২০ এপ্রিল পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ৫৮৮ জনের আর মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ২৭ হাজার ৭৮০ জনে। 

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে যা বললেন খালেদা জিয়া

অনলাইন ডেস্ক

দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে যা বললেন খালেদা জিয়া

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন। 

তিনি আরও জানান, খালেদা জিয়া দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলারও আহ্বান জানিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার রাত পৌনে দশটায় অধ্যাপক জাহিদের নেতৃত্বে দুই সদস্যের চিকিৎসক দলটি প্রবেশ করেন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজায়। এরপর তিনি খালেদার জিয়ার সবশেষ শারীরিক অবস্থা নিয়ে এসব কথা বলেন।

ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন আরও বলেন, খালেদা জিয়ার ব্লাড প্রেসার, অক্সিজেন স্যাচুরেশন, ব্লাড সুগার ও স্বাভাবিক আছে।

গত  শনিবার খালেদা জিয়ার নমুনা পরীক্ষা শেষে রোববার তার করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। চিকিৎসক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিম বিএনপি চেয়ারপারসনের চিকিৎসা শুরু করে।  লন্ডন থেকে চিকিৎসক পূত্রবধূ জোবাইদা রহমানও চিকিৎসার বিষয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন।

লন্ডনে থেকেই পুত্রবধূ ডা. জোবায়দা রহমান দেশে-বিদেশে বিভিন্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বেগম জিয়ার সুচিকিৎসার তদারকি করছেন। এছাড়া তার চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সমন্বয়ও করছেন ডা. জোবায়দা রহমান।

৭৫ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত। দণ্ড নিয়ে তিন বছর আগে তাকে কারাগারে যেতে হয়। 

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর পরিবারের আবেদনে সরকার গত বছরের ২৫ মার্চ ‘মানবিক বিবেচনায়; শর্তসাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। তখন থেকে তিনি গুলশানে নিজের ভাড়া বাসা ফিরোজায় থেকে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধায়নে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার সঙ্গে বাইরের কারও যোগাযোগ সীমিত।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

গোয়েন্দা সংস্থা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে হেফাজত নেতাদের বৈঠক

অনলাইন ডেস্ক

গোয়েন্দা সংস্থা ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে হেফাজত নেতাদের বৈঠক

গত এক সপ্তাহে হেফাজতে ইসলামের ১০ কেন্দ্রীয় নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ছাড়া আরও ২৪ শীর্ষ নেতাসহ হেফাজতের ৩৫ জন বর্তমানে সরকারের নজরদারিতে আছেন বলে জানা গেছে। গত রোববার গ্রফতার হন হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক।

সূত্র বলছে, সপ্তাহব্যাপী একের পর এক নেতাকর্মী গ্রেপ্তারে এখন গ্রেফতার আতঙ্কও বিরাজ করছে সংগঠনটির শীর্ষ নেতাদের মাঝে। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নেতারা। সেই বৈঠকের সময় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কয়েকজন কর্মকর্তাও উপস্থিত ছিলেন। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের ধানমণ্ডির বাসায় সোমবার রাত ১০টার দিকে বৈঠক করেন হেফাজতের অন্তত ১০ জন শীর্ষ পর্যায়ের নেতা। তবে বৈঠকে কী আলোচনা হয়েছে  দুই পক্ষ থেকেও এখনও কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গতকাল বৈঠক শেষে বেরিয়ে যাওয়ার সময়ে হেফাজতের মহাসচিব নূরুল ইসলাম জিহাদি বলেন, ‘আমি অসুস্থ। কথা বলতে পারছি না'। এরপরই তারা দ্রুতগতিতে গাড়িতে উঠে চলে যান। একইরকম কথা বলেন মামুনুল হকের ভাই মাওলানা মাহফুজুল হক।

এর আগে সোমবার দুপুরে সরকারের একটি গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে হেফাজতের পাঁচ শীর্ষ নেতা বৈঠক করেন। হেফাজতের পক্ষ থেকে বৈঠকে নেতৃত্ব দেন সংগঠনটির মহাসচিব মাওলানা নূরুল ইসলাম জেহাদী। সেই বৈঠকের বিষয়েও এখনও কিছু জানায়নি হেফাজতের সংশ্লিষ্ট কেও।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় বৈঠকে অংশ নেওয়া হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে ছিলেন দলটির নায়েবে আমির মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজী, মহাসচিব নূরুল ইসলাম জেহাদী, মামুনুল হকের ভাই বেফাকের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক, অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান (দেওনার পীর) ও মাওলানা হাবিবুল্লাহ সিরাজী প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশের আরও অবনতি

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে বাংলাদেশের আরও অবনতি

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে গত বছরের তুলনায় আরও এক ধাপ পিছিয়ে ১৫২ তম বাংলাদেশ। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) ২০২১ সালের এই সূচক প্রকাশ করেছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস (আরএসএফ)। সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ১৮০টি দেশের মধ্যে ১৫২তম।

বাংলাদেশের অবস্থান ২০২০ সালের সূচকে ছিল ১৫১তম। এর আগে  ২০১৯ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫০তম। অর্থাৎ, গতবারের সূচকেও বাংলাদেশের এক ধাপ অবনতি হয়েছিল।

সূচকে বাংলাদেশ প্রসঙ্গে আরএসএফ বলে, ২০২০ সালে করোনাকালীন সংকটে সাংবাদিকদের ওপর পুলিশ ও বেসামরিক সহিংসতা উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। মহামারি ও সমাজে তার প্রভাব নিয়ে প্রতিবেদনের জন্য সাংবাদিক, ব্লগার, কার্টুনিস্টরা গ্রেফতার ও বিচারের মুখোমুখি হয়েছেন বলেও উল্লেখ করে সংস্থাটি।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে কাজ করছে তার ভিত্তিতে ২০০২ সাল থেকে আরএসএফ এই সূচক প্রকাশ করে আসছে। ২০১৩ সাল থেকে এই সূচকে বাংলাদেশের নাম যুক্ত হয়।

এছাড়া প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান সবার নিচে। সূচকে বাংলাদেশের চেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান (১৪৫), ভারত (১৪২), মিয়ানমার (১৪০), শ্রীলঙ্কা (১২৭), আফগানিস্তান (১২২), নেপাল (১০৬), মালদ্বীপ (৭৯), ভুটান (৬৫)।

এই সূচকের শীর্ষ ১০ দেশ হলো- নরওয়ে, ফিনল্যান্ড, সুইডেন, ডেনমার্ক, কোস্টারিকা, নেদারল্যান্ডস, জ্যামাইকা, নিউজিল্যান্ড, পর্তুগাল এবং সুইজারল্যান্ড।

এদিকে, চলতি বছরের সূচকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে আছে সৌদি আরব, কিউবা, লাওস, সিরিয়া, ইরান, ভিয়েতনাম, জিবুতি, চীন, তুর্কমেনিস্তান, উত্তর কোরিয়া এবং এরিত্রিয়া। তালিকার ১৭০ থেকে যথাক্রমে ১৮০তম অবস্থানে রয়েছে এই দেশগুলো। অর্থাৎ এসব দেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই বললেই চলে।

গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজ করতে পারছে, তার ভিত্তিতে আরএসএফ ২০০২ সাল থেকে এই সূচক প্রকাশ করে আসছে।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বুধবার থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলবে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুধবার থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলবে

দেশের অভ্যন্তরীণ সব রুটে আগামীকাল বুধবার (২১ এপ্রিল) থেকে ফ্লাইট চলাচল শুরু হচ্ছে। বিশেষ বিবেচনায় অনুমোদিত ফ্লাইট দেশের সকল গন্তব্যে যাত্রী পরিবহন করতে পারবে। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে।

বিস্তারিত আসছে..

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর