প্রযুক্তির ব্যবহারে দুর্নীতি কমানো যাবে : পলক

অনলাইন ডেস্ক

প্রযুক্তির ব্যবহারে দুর্নীতি কমানো যাবে : পলক

প্রশাসনিকসহ সকল কার্যক্রমে প্রযুক্তিকে যত বেশি ব্যবহার করা যাবে, তত বেশি সময়, অর্থ ও দুর্নীতি কমিয়ে সেবার মান বৃদ্ধি করা যাবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী আজ আইসিটি বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়িত “সদ্য বিলুপ্ত ছিটমহলগুলোতে আইসিটি প্রশিক্ষণ এবং অবকাঠামো স্থাপন ” শীর্ষক কর্মসূচির আওতায় স্থাপিত ডিজিটাল সার্ভিস অ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট ট্রেনিং (ডি-সেট) সেন্টারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন আইসিটি বিভাগ ‘আমার গ্রাম, আমার শহর’, ‘তারুণ্যের শক্তি বাংলাদেশের সমৃদ্ধি’ ও ‘সমৃদ্ধি বাংলাদেশ’ তিনটি বাতিঘর নিয়ে কাজ করছে। এর লক্ষ্য হচ্ছে প্রত্যেকটি গ্রামেই শহরের নাগরিক সেবা পৌছানো, তরুণদের প্রযুক্তি শিক্ষায় শিক্ষিত করা এবং তরুণদের জন্য আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। 

তিনি বলেন সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে আইসিটি সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার লক্ষ্যে সবমিলিয়ে দেশে প্রায় ৮ হাজার কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। আরও ৫ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে।

তিনি আরও বলেন, ইডিসি প্রকল্পের অধীনে ইতোমধ্যেই দেশের ৬৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩৫ হাজার মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান ও সাড়ে ৩ হাজার ভূমি অফিসসহ প্রায় ৪০ হাজার সরকারি দফতর মিলিয়ে এক লাখ ৯ হাজার সকরারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে উচ্চ গতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের অধীনে আনার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন তরুণরা যেন প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসেই প্রযুক্তিশিক্ষা ও আধুনিক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আত্মকর্মসংস্থান ও বিশেষ করে প্রযুক্তি সক্ষম জাতি গড়ে তুলতে সারা দেশে উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে ৫৫৫টি ডিজিটাল সার্ভিস অ্যান্ড এমপ্লয়মেন্ট ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করা হবে। এছাড়াও ডেনমার্ক সরকারের সহায়তায় চর-বিল-হাওয়রাঞ্চলেও ডি-সেট স্থাপন করা হবে।


ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে সরকারি স্থাপনায় আগুন,প্রেসক্লাবে হামলা

পল্টন মোড়ে লাঠিসোটা নিয়ে হেফাজত নেতাকর্মীদের অবস্থান

হরতালকে ঘিরে কঠোর অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

সাইনবোর্ডে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে হরতাল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৩


 

পরে, প্রতিমন্ত্রী পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামের ছিটমহলে স্থাপিত থেকে ৪০ জন প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ প্রদান কার্যক্রম শুরুর মধ্য দিয়ে ডি-সেট সেন্টারের উদ্বোধন করেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ বি এম আরশাদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুড়িগ্রাম-২ আসনের সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ, কুড়িগ্রাম জেলার জেলা প্রশাসক মো: রেজাউল
করিম, প্রকল্প পরিচালক ফিরোজ সরকার।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

উদ্যোক্তারাই অর্থনীতির মেরুদন্ড : পলক

অনলাইন ডেস্ক

উদ্যোক্তারাই অর্থনীতির মেরুদন্ড : পলক

উদ্যোক্তারাই যে কোন দেশের অর্থনীতির মেরুদন্ড ও মূল চালিকাশক্তি উল্লেখ করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, বিশ্বের উন্নত ও উন্নয়নশীল প্রতিটি দেশের স্টার্টাপরাই অর্থনীতিকে পরিচালনা ও সমৃদ্ধ করছে।

মঙ্গলবার (২২ জুন) রাজধানীতে উদ্যোক্তাদের পাঠশালা লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের (এলএমএস) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন। ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ ইয়ুথ এন্টারপ্রাইজ অ্যাডভাইস অ্যান্ড হেল্প সেন্টার (বিআ)। 

পলক বলেন চাকুরিপ্রার্থী নাহয়ে  চাকরি দাতা হওয়ার জন্য তরুণদের অনুপ্রাণিত করতে হবে। 

তিনি বলেন, প্রতিবছর ২০-২৫ লক্ষ তরুণ ,তরুণী কর্মজীবনে প্রবেশের  উপযোগী হচ্ছে। তাদের প্রত্যেকের পক্ষে চাকরি পাওয়া সম্ভব নয় । কিন্তু নিজেরা চাকরিপ্রার্থী না হয়ে উদ্যোক্তা হয়ে যেন চাকরিদাতায় রূপান্তরিত হতে পারে সে লক্ষ্যে মাধ্যমিক পর্যায় থেকে উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণী পর্যন্ত আইসিটি বিষয়কে বাধ্যতামূলক করেছে আওয়ামী লীগ সরকার।

প্রতিমন্ত্রী বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি সেবাকে ডিজিটাল প্লাটফর্মে নিতে ই-গভারমেন্ট সার্ভিস চালু করা হয়েছে। প্রান্ত থেকে কেন্দ্র ( বটম আপ অ্যাপ্রচ) পদ্ধতিতে সেবা প্রদান শুরু করার লক্ষ্যে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেন।সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে  ২০১০ সালে ভোলার প্রত্যন্ত অঞ্চল চর কুকরি-মুকরিতে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) উদ্বোধন করা হয়। 

তিনি আরো বলেন, ডিজিটাল সার্ভিস জনগণের কাছে পৌঁছে দেয়ার মূল চালিকাশক্তি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তাগন। বর্তমানে ১৩ হাজারের বেশি নারী ও পুরুষ উদ্যোক্তা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে কাজ করছে। তাদের মাধ্যমে স্বল্প খরচে, স্বল্প সময়ে, দুর্নীতি মুক্ত উপায় প্রতি মাসে ৬০ লক্ষ মানুষ কম্পিউটার  ও ইন্টারনেট নির্ভর সকল সেবা পাচ্ছে বলে তিনি জানান।

পলক ইন্টারনেট জীবিকার মূল উপাদান উল্লেখ করে বলেন সকলের জন্য স্বল্প মূল্যে ইন্টারনেট সেবা প্রদানের ফলে জনগণ শিক্ষা-স্বাস্থ্য ,বাণিজ্য, বিনোদনসহ পৃথিবীর অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা হাতের মুঠোয় পাচ্ছেন।  দেশের সাড়ে ৬ লক্ষ ফ্রিল্যান্সার গ্রামে বসেই ব্যবসা এবং বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে পারছে।  ফ্রিল্যান্সাররা বর্তমানে বছরে  ৫ মিলিয়ন ডলার আয় করছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন উদ্যোগে সংস্কৃতি গড়ে তুলতে শুধু অর্থায়ন ও বিনিয়োগই যথাযথ নয় ।এক্ষেত্রে তাদের সফল উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি করতে পুরো ট্রেনিং, ফান্ডিং, মেন্টরিং ও কোচিং এর মাধ্যমে পুরো ইকোসিস্টেম গড়ে তুলতে হবে। এছাড়া ও ডিজিটাল মার্কেটিং এর সাথে সম্পৃক্ত করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রযুক্তি গুলোকে প্রাধান্য দিয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হলে তারা ভবিষ্যতে আরো সফলতা লাভ করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন:


লন্ডনে রানির বাড়ির সামনে থেকেও ফোন চুরি হয়: পরিকল্পনামন্ত্রী

ফরিদপুরে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে ৩ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত শতাধিক

ফোনালাপে আড়িপাতা রোধের পদক্ষেপের বিষয়ে জানতে বিটিআরসিকে নোটিশ

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিআ প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপারসন এবং বোর্ডের সদস্য আবদুল মুইদ চৌধুরী, প্রতিষ্ঠানের  নির্বাহী পরিচালক আশফাহ হক, এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডঃ মোঃ মফিজুর রহমান, যুব বিজনেস ইন্টারন্যাশনাল এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অনিতা টাইসেন। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

নির্বাচন, অ্যালকোহল ও জুয়ার বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ হচ্ছে ইউটিউবে

অনলাইন ডেস্ক

নির্বাচন, অ্যালকোহল ও জুয়ার বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ হচ্ছে ইউটিউবে

নিজেদের হোম পেজে প্রদর্শিত বিজ্ঞাপনে নির্বাচন, অ্যালকোহল, প্রেসক্রাইব করা ওষুধ ও জুয়ার বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করতে যাচ্ছে ইউটিউব।

অন্যান্য বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি এই বিজ্ঞাপনগুলোও ইউটিউবের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপের ওপরে মাস্ট হেড হিসেবে প্রদর্শিত হয়ে থাকে।

নিজেদের ঘোষণা অনুযায়ী, এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হলে ইউটিউবের মাস্ট হেডে নির্বাচন, অ্যালকোহল ও জুয়াসংক্রান্ত বিজ্ঞাপন আর দেখা যাবে না।


আরও পড়ুনঃ

ভাল থাকুক বিশ্বের সকল বাবা, যেভাবে দিবসটির শুরু

বিএনপি থেকে শফি আহমেদ চৌধুরীকে বহিষ্কার

ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট রায়িসিকে অভিনন্দন জানাল হামাস

বিশেষ ট্রেন চালু, মাত্র এক ঘণ্টাতেই ঢাকা-গাজীপুর


এক বছরেরও কম সময়ের মধ্যে মাস্ট হেড নীতিতে দ্বিতীয়বারের মতো পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে ইউটিউব।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট

অনলাইন ডেস্ক

বন্ধ হচ্ছে না অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট

ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্ট্রার (এনইআইআর) সিস্টেম ব্যবহার করে অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট শনাক্তের পাশাপাশি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে। আগামী ১ জুলাই থেকে এ কার্যক্রম শুরু করবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

ফলে ১ জুলাই থেকে কেউ নেটওয়ার্কের বাইরে থাকা ও অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্যবহার করতে পারবেন না। তবে বর্তমানে ব্যবহার হওয়া সব ধরনের মোবাইল হ্যান্ডসেট স্বয়ংক্রিয়ভাবে এনইআইআর পদ্ধতিতে নিবন্ধিত হবে। ফলে এসব মোবাইল হ্যান্ডসেট বন্ধ হবে না।

গতকাল বুধবার বিটিআরসির তরঙ্গ বিভাগের পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। সেখানে বলা হয়, এনইআইআর সম্পর্কে জনমনে বিভ্রান্তি দূর করার জন্য গ্রাহক কর্তৃক বর্তমানে মোবাইল ফোন নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হ্যান্ডসেটগুলো ৩০ জুন তারিখের মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধিত হবে। ফলে ১ জুলাই থেকে এসব মোবাইল সেটসমূহ বন্ধ করা হবে না।

বিটিআরসির তরঙ্গ বিভাগের পরিচালক ড. মো. সোহেল রানা স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোন গ্রাহক সংখ্যা ১৬ কোটির অধিক। মোবাইল ফোন গ্রাহকদের চাহিদা পূরণের জন্য প্রতি বছর বিদেশ থেকে প্রায় দেড় কোটি মোবাইল হ্যান্ডসেট আমদানি করা হয়। এছাড়া প্রায় দুই কোটি মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট দেশেই উৎপাদন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘বৈধভাবে আমদানির পাশাপাশি কর ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবেও হ্যান্ডসেট আমদানির অভিযোগ রয়েছে। মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে সার্বিকভাবে শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য আগামী ১ জুলাই থেকে অবৈধপথে আসা এবং নেটওয়ার্কের বাইরে থাকা মোবাইল ফোন দেশে চালু করা যাবে না। এসব মোবাইল হ্যান্ডসেটের সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে অবৈধপথে আসা কিন্তু বর্তমানে সচল থাকা মোবাইল হ্যান্ডসেট বন্ধ করা হবে না।’

বিটিআরসির মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শহিদুল আলম জানান, জুলাইয়ের আগে গ্রাহকরা যে সব অননুমোদিত বা অবৈধভাবে আসা হ্যান্ডসেট ব্যবহার শুরু করেছেন তাদের নিবন্ধন কার্যক্রমের অনুমোদনের আওতায় আনা হবে। অর্থাৎ সচল মোবাইল ফোন বন্ধ করা হবে না।

বিটিআরসি সূত্র জানায়, এসএমএসের মাধ্যমে ডাটাবেস ব্যবহার করে আমদানি করা হ্যান্ডসেটগুলোর বৈধতা পরীক্ষা করা যাবে। এনইআইআর পদ্ধতি ১৫ দিনের অস্থায়ী সময়ের জন্য কাজ করবে এবং এর ট্রায়াল রান জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে।

বিদেশ থেকে কেনা বা উপহার পাওয়া হ্যান্ডসেটগুলো বিটিআরসিতে বৈধ কাগজপত্র জমা দিয়ে নিবন্ধন করা যাবে। যদি কোনো ব্যবহারকারী তার হ্যান্ডসেটটি বিক্রি করতে চান, তবে তাকে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে হ্যান্ডসেটটি নিবন্ধনভুক্ত করে নতুন ব্যবহারকারীর নামের অধীনে ডাটাবেসে পুনরায় নিবন্ধন করাতে হবে।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

এক হচ্ছে অপো ও ওয়ানপ্লাস

অনলাইন ডেস্ক

এক হচ্ছে অপো ও ওয়ানপ্লাস

এক হচ্ছে জনপ্রিয় দুটি স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো ও ওয়ানপ্লাস। যদিও ওয়ানপ্লাস কোম্পানিটি ছিলো অপোর ‘সিস্টার কনসার্ন’।

ফ্ল্যাগশিপ কিলার হিসেবে পরিচিতি পাওয়া ব্র্যান্ড `ওয়ানপ্লাস' বিগত কয়েক বছরে তাদের কৌশলে ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে। এটি এখন প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশিপ মার্কেটের অংশ। এবার এই জাতীয় আরও প্রিমিয়াম অফার সরবরাহ করতে, ওয়ানপ্লাস একত্রিত হচ্ছে অপোর সঙ্গে।

এর আগে এই বছরের শুরুতে ওপ্পোর সঙ্গে তার হার্ডওয়্যার আর অ্যান্ড ডিকে একীভূত করেছিল ওয়ানপ্লাস। এমনকি সংস্থাটি তার নিজ দেশ চীনে ওয়ানপ্লাস-৯ সিরিজে ওপ্পোর কালার ওএস ১১ সফটওয়্যার স্ক্রিন ব্যবহার করা শুরু করেছে।

ওয়ানপ্লাস প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী পিট লাউ এক অফিশিয়াল ফোরাম নোটে বলেছেন, এ পদক্ষেপ তাদের ‘আরও কার্যকরী হতে’ সহায়তা করবে।


আরও পড়ুনঃ

আবু ত্ব-হা আদনানকে খুঁজে দিতে জাতীয় দলের ক্রিকেটার শুভর আহ্বান

গণপূর্ত ভবনে অস্ত্রের মহড়া: সেই আ.লীগ নেতাদের দল থেকে অব্যাহতি

আবারও মিয়ানমারের গ্রামে তাণ্ডব চালিয়েছে সেনাবাহিনী

সুইসদের হারিয়ে সবার আগে শেষ ষোল নিশ্চিত করল ইতালি


তিনি বলছেন, ‘আরও ভালো পরিচালনা এবং বাড়তি সুবিধা পাওয়ার লক্ষ্যে আমরা আমাদের কিছুসংখ্যক দলকে অপোর সঙ্গে কাজ করতে দিয়েছিলাম। আমরা ওই পরিবর্তনকে ইতিবাচক হতে দেখে আমাদের প্রতিষ্ঠানকে অপোর সঙ্গে জুড়ে নেওয়ার কথা ভেবেছি।’

লাউ গত বছরই জানিয়েছিলেন, তিনি অপো এবং ওয়ানপ্লাস দুটি প্রতিষ্ঠানের জন্যই পণ্য কৌশল তত্ত্বাবধানের বাড়তি কিছু দায়িত্ব হাতে তুলে নিয়েছিলেন তিনি। তারই ধারাবাহিকতায় এই সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

বন্ধ হতে যাচ্ছে অবৈধ হ্যান্ডসেট, বিপাকে পড়তে পারেন ব্যবহারকারীরা

অনলাইন ডেস্ক

বন্ধ হতে যাচ্ছে অবৈধ হ্যান্ডসেট, বিপাকে পড়তে পারেন ব্যবহারকারীরা

মোবাইল হ্যান্ডসেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে সার্বিকভাবে শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য ১ জুলাই থেকে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্ট্রার (এনইআইআর) চালু করবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এই তালিকায় যেসব ফোন থাকবে না তা অবৈধ হিসেবে গণ্য হবে।

গতকাল বুধবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) স্পেকট্রাম বিভাগের পরিচালক ড. মো. সোহেল রানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিটিআরসি জানিয়েছে, অবৈধ ফোনগুলো আর চালু করা যাবে না। তবে যাদের কাছে ইতোমধ্যে অবৈধ ফোন চালু আছে তাদের সময় দেবে তারা।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, ‘বর্তমানে মোবাইল ফোন নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত হ্যান্ডসেট আগামী ৩০ জুনের মধ্যে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিবন্ধিত হবে। ফলে ১ জুলাই থেকে সেটগুলো বন্ধ হবে না।’


আরও পড়ুনঃ

আবু ত্ব-হা আদনানকে খুঁজে দিতে জাতীয় দলের ক্রিকেটার শুভর আহ্বান

গণপূর্ত ভবনে অস্ত্রের মহড়া: সেই আ.লীগ নেতাদের দল থেকে অব্যাহতি

আবারও মিয়ানমারের গ্রামে তাণ্ডব চালিয়েছে সেনাবাহিনী

সুইসদের হারিয়ে সবার আগে শেষ ষোল নিশ্চিত করল ইতালি


উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে মোবাইল ফোন গ্রাহক সংখ্যা ১৬ কোটিরও বেশি। মোবাইল ফোন গ্রাহকদের চাহিদা পূরণের জন্য প্রতিবছর বিদেশ থেকে প্রায় ১.৫ কোটি মোবাইল হ্যান্ডসেট আমদানির পাশাপাশি কর ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবেও হ্যান্ডসেট আমদানির অভিযোগ রয়েছে। 

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর