ব্যবসায়ীকে হাত-পা বেধে নির্যাতন, পরে মামলা দিয়ে থানায় সোপর্দ

পিরোজপুর প্রতিনিধি:

ব্যবসায়ীকে হাত-পা বেধে নির্যাতন, পরে মামলা দিয়ে থানায় সোপর্দ

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে স্থানীয় এক চৌকিদারের উপস্থিতিতে আল আমীন (৩১) নামে এক কাঠ ব্যবসায়ীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের পর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে । 

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের এর সাথে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে উপজেলার পত্তাশী গ্রামে রবিবার রাতে এ বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটনা হয়েছে বলে দাবি ভুক্তভোগীর। 

এ ঘটনার পরে ঐ কাঠ ব্যবসায়ীর নামে দেয়া হয়েছে নারী নির্যাতনের মামলা । বর্তমানে পুলিশ প্রহরায় হ্যান্ডকাফ পরিহিত অবস্থায় পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নির্যাতিত আল আমীনের চিকিৎসা চলছে। নির্যাতিত আল আমীন ওই গ্রামের মোঃ আলী আকবার এর ছেলে। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আলী আমীন জানায়, রবিবার রাতে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় মাহফিল শুনে স্থানীয় এক যুবকের সাথে বাড়ি ফিরছেলেন। এ সময় পত্তাশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন হাওলাদারের সমর্থিত ১০-১২ জন তার উপর অতর্কিত হামলা করে। এরপর আরও ১৫-২০ জন তাদের সাথে যোগ দেয়। এসময় সন্ত্রাসীরা তাকে মাটিতে ফেলে হাত পা বেঁধে নির্মমভাবে তাকে মারধর করে। এ সময় ওই ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় চৌকিদার মোঃ রিয়াজ ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকলেও সে নিরব ভূমিকা পালন করে। 

আল আমীনের অভিযোগ সে পূর্বে ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম এর সমর্থক থাকলেও, বর্তমানে তার সাথে দূরত্ব রয়েছে। এজন্যই তার উপর ক্ষিপ্ত রয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান। এজন্যই চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার উপর বর্বরোচিত এ নির্যাতন করা হয়েছে। 

নির্যাতনের এক পর্যায়ে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। ঘটনার পরে ইন্দুরকানী থানা পুলিশ খবর দিলে আল আমীনকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর সেখান থেকে তাকে পুলিশ প্রহরায় পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে হাতকড়া পড়া অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে আল আমীন। আল আমীনের বিরুদ্ধে আজ সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের হওয়ায় তাকে পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে মারধোরের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়া এবং তাকে ফাঁসানোর জন্য এ মামলা দেওয়া হয়েছে বলে দাবি নির্যাতিত আল আমীনের। 

চৌকিদার রিয়াজ জানান, আল আমীনকে ব্যাপকভাবে মারধোর করা হয়নি ।


ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে সরকারি স্থাপনায় আগুন,প্রেসক্লাবে হামলা

পল্টন মোড়ে লাঠিসোটা নিয়ে হেফাজত নেতাকর্মীদের অবস্থান

হরতালকে ঘিরে কঠোর অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

সাইনবোর্ডে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে হরতাল সমর্থকদের সংঘর্ষে আহত ৩


এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম জানান,আল আমীনকে মারধরের খবর শুনে স্থানীয় চৌকিদার রিয়াজকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছিলাম উদ্ধার করতে । এরপর বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে ইন্দুরকানী থানায় জানানো হয়। তবে এ ঘটনায় তার কোন লোক জড়িত কিনা তা তার জানা নেই বলেও দাবি করেন তিনি। 

এ ব্যাপারে ইন্দুরকানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ হুমায়ুন কবির জানান, একটি মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ স্থানীয়রা আল আমীনকে আটকের পর মারাত্মকভাবে মারধোর করেছে এবং এ ঘটনায় ইন্দুরকানী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের হয়েছে । 

উল্লেখ্য, এর আগে গত বছরের ৪ নভেম্বর একটি কর্মী সভায় ইউপি চেয়ারম্যান মোয়োজ্জেম হোসেন হাওলাদার এর সমালোচনা করায় রঞ্জন কুমার মজুমদার নামে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক সাধারণ সম্পাদককে পিটিয়ে পা ভেঙে দেয় তার সমর্থকেরা। আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বীদের দমনের জন্য বিভিন্নভাবে নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

বৃদ্ধকে জঙ্গলে নিয়ে মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালাল দুর্বৃত্তরা

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

বৃদ্ধকে জঙ্গলে নিয়ে মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালাল দুর্বৃত্তরা

রাঙামাটির জুরাছড়িতে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে কারবারী (গ্রাম প্রধান) নিহত হয়েছে। নিহতের নাম-পাথর মনি চাকমা (৫০)। তিনি জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকার কারবারী অর্থাৎ গ্রাম প্রধান। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে  জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:


নিয়োগ দেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর

শুভাগত হোমকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দিয়েছে মোহামেডান

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

নিজের দাম বাড়িয়েছেন রাশি খান্না!


 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকায় এক দল সশস্ত্র সন্ত্রাসী হানা দেয়। এসময় ওই এলাকার প্রধান কারবারী পাথর মনি চাকমা তার নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিল। এসময় সমস্ত্র সন্ত্রাসীরা ঘরে ডুকে তাকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায়। পরে ঘর থেকে কিছুটা দূরে জঙ্গলে নিয়ে তার মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তার। পরে খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ দল। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে লাশ পাঠানো হয়।  এঘটনার পর ওই এলাকায় চরম উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত যৌথবাহিনী টহল জোরদার করা হয়েছে।

জুরাছড়ি থানার কর্মকর্তা ওসি মো. শফিউল আজম জানান, নিহত পাথর মনির শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের পর তার পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রাঙামাটিতে বৃদ্ধ গ্রামপ্রধানকে গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

রাঙামাটিতে বৃদ্ধ গ্রামপ্রধানকে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটির জুরাছড়িতে নিজ বাড়িতে এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পাথরমণি চাকমা (৬৩) নামের ওই ব্যক্তি জুরাছড়ি সদর ইউনিয়নের লুলাংছড়ি কার্বারি (গ্রামের প্রধান) ছিলেন।

রোববার রাতে উপজেলার ৮ কিলোমিটার দূরে লুলাংছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:


নিয়োগ দেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর

শুভাগত হোমকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দিয়েছে মোহামেডান

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

নিজের দাম বাড়িয়েছেন রাশি খান্না!


রাঙামাটির পুলিশ সুপার মীর মোদ্দাছের হোসেন বলেন, পাথরমণি চাকমা সেখানকার সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কাজ করতেন বলে জানা গেছে।তিনি একটি অস্ত্র মামলার অন্যতম সাক্ষী ছিলেন।ধারণা করা হচ্ছে, তার বিরোধী দল তাকে হত্যা করেছে। যৌথ বাহিনী ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। পুলিশের কাছে এখনো নিহতের লাশ হস্তান্তর করা হয়নি। ঘটনাটি কীভাবে ঘটেছে তা বিস্তারিত পরে জানা যাবে।

ওই এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা বলেন, জুরাছড়ির প্রায় ৮ কিলোমিটার দূরে ঘটনাটি ঘটেছে। এলাকাটি খুবই দুর্গম এলাকা।ঘটনাস্থলের কিছু দূরে সেনাবাহিনীর একটি ক্যাম্প রয়েছে।সেখানে মোবাইলের নেটওয়ার্ক সহজে পাওয়া যায় না। তাই এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় নারীসহ নিহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় নারীসহ নিহত ৩

কুষ্টিয়া শহরের কাস্টমস মোড়ে প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় এক নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। আজ রোববার (১৩ জুন) সকাল ১১টায় এ ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গুলিবিদ্ধ তিনজনের মধ্যে এক নারী (৩৫) ও এক পুরুষ (৪০) এবং  ৪ বছর বয়সী এক শিশু মারা গেছেন। তবে কারো নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৬৩

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৬৩

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবনের দায়ে ৬৩ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ। শনিবার সকাল ৬টা থেকে রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ৩,০৩৪ পিস ইয়াবা, ৪০ গ্রাম ১১০ পুরিয়া হেরোইন, ৪৩ কেজি ৫৩৫ গ্রাম গাঁজা ও ২০ লিটার দেশি মদ জব্দ করা হয়।


আরও পড়ুন:


শিক্ষা প্রতিষ্ঠনের চলমান ছুটি বাড়ল

উপ-নির্বাচনে তিন আসনের আ.লীগের প্রার্থী ঘোষণা

১০০ কোটি টিকা দরিদ্র দেশগুলোতে দেবে বিশ্ব নেতারা

ফের ফিলিস্তিনি কিশোরকে হত্যা করল ইসরায়েল


গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪৫টি মামলা হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

রাজধানীর চকবাজারে কারখানা থেকে ৫ মণ নকল ঘি জব্দ

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর চকবাজারে কারখানা থেকে ৫ মণ নকল ঘি জব্দ

রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজারের বেগমবাজার এলাকায় নকল ঘি তৈরির একটি কারখানায় অভিযান চালিয়ে অন্তত ৫ মণ নকল ঘি জব্দ করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় কারখানাটির মালিক ও তিন কারিগরকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শনিবার বিকলে ডিবি এই অভিযান চালায়।

গ্রেপ্তার তিনজন হলেন- আব্দুল সামাদ (৭৫), রবিউল ইসলাম (৪৩), মো. শাহজাহান (২৪) এবং সোহাগ হোসেন (৩১)। তাদের মধ্যে সামাদ নকল কারখানাটির মালিক।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া 

ডিবির লালবাগ বিভাগের সহকারী কমিশনার ফজলুর রহমান জানান, দীর্ঘ নজরদারীর পর শনিবার তারা নকল ঘি তৈরির কারখনায় অভিযান চালান। এই কারখানা থেকে নিম্নমানের নানা উপাদান দিয়ে ঘি তৈরি করা হতো। এরপর এগুলো বাজারে প্রচলিত ও প্রতিষ্ঠিত নানা কোম্পানির মোড়ক ও কৌটা নকল করে নকল ঘি ভরে বাজারজাত করা হতো। অন্তত ৮ বছর ধরে সামাদ তার কর্মচারীদের নিয়ে এই অপকর্ম করে আসছিলেন।

ডিবির এই কর্মকর্তা বলেন, নকল এসব ঘি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন বাজারে সরবরাহ করা হতো। ঘি নামে সাধারণ মানুষ মূলত নানা রাসায়নিক কিনে প্রতারিত হচ্ছিলেন।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর