লোহার রড ও হেমার দিয়ে পিটিয়ে যুবলীগ কর্মীকে হত্যা
লোহার রড ও হেমার দিয়ে পিটিয়ে যুবলীগ কর্মীকে হত্যা

লোহার রড ও হেমার দিয়ে পিটিয়ে যুবলীগ কর্মীকে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

জায়গা জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে নোয়াখালী পৌরসভার কাশিপুর এলাকায় মোহাম্মদ আলী মনু (৩২) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মনুর চাচা ইকবাল হোসেন তার লোকজন নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ।

সুধারাম মডেল থানার ওসি শাহেদ উদ্দিন জানান, সোমবার (২৯ মার্চ) রাত ৯টার দিকে কাশিপুর এলাকার দত্তবাড়ী মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মোহাম্মদ আলী মনু ওই এলাকার মৃত আকবর আলীর ছেলে।

সে পৌরসভা যুবলীগের একজন সক্রিয় কর্মী ছিল।


কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানকে সমর্থন তুরস্কের, ভারতের ক্ষোভ

আবারও ইকো ট্রেন চলবে ইরান-তুরস্ক-পাকিস্তানে

সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে বিজিবির অভিযান, বিপুল গোলাবারুদ উদ্ধার

দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীকে স্পর্শ করা যাবে কি না?


নিহতের ভাই আহমেদ আলী অভিযোগ করে বলেন, তার চাচা ইকবাল হোসেন ও তার সহযোগি শাহাদাত হোসেন এবং লিটন দাস’সহ কয়েকজন এশার নামাজের পর মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে লিটনের লেপ দোকানে নিয়ে আসে। এসময় তারা মনুকে আটকে রেখে লোহার রড ও হেমার দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানের এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে মনুকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসি। চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ১নং ওয়ার্ডে ভর্তি করার পর মারা যায় মনু।

নিহতের মা শাহিদা বেগম বলেন, ইকবালদের সাথে আমাদের জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এ ঘটনার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে আমার ছেলে মনুকে মসজিদ থেকে ডেকে এনে পিটিয়ে হত্যা করেছে ইকবাল ও তার সন্ত্রাসীরা। আমি ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করছি।

ওসি শাহেদ উদ্দিন জানান, নিহতের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ