লিঙ্গ সমতায় ১৫ ধাপ পিছিয়েও দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

লিঙ্গ সমতায় ১৫ ধাপ পিছিয়েও দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) গ্ল্যোবাল জেন্ডার গ্যাপ-২০২১ সালের প্রকাশিত প্রতিবেদনে ১৫৬টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের ৬৫তম অবস্থানে রয়েছে। নারী-পুরুষের লিঙ্গ সমতা নিশ্চিতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে বাংলাদেশ। টানা সপ্তমবারের মতো এই অবস্থান ধরে রেখেছে তারা।

গত ৩১ মার্চ প্রকাশিত এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের সামগ্রিক লিঙ্গ বৈষম্য শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ায় বৈশ্বিক স্তরে অবস্থানের অবনতি ঘটেছে। অর্থনৈতিক অংশগ্রহণ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও নারীর ক্ষমতায়ন— এই চার মাপকাঠির ভিত্তিতে প্রত্যেক বছর এ সূচক প্রকাশ করে ডব্লিউইএফ।

ডব্লিউইএফের বৈশ্বিক লিঙ্গ সমতার সূচকে শীর্ষ ১০০ দেশে দক্ষিণ এশিয়া থেকে একমাত্র বাংলাদেশই ঠাঁই পেয়েছে। যদিও দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে থাকলেও বৈশ্বিক হিসেবে গত বছরের তুলনায় বাংলাদেশের অবস্থান ২০২১ সালে ১৫ ধাপ অবনতি ঘটেছে। তবে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ প্রায় ৭১ দশমিক ৯ শতাংশ ক্ষেত্রে লিঙ্গবৈষম্য কমিয়ে এনেছে।

সর্বশেষ এই প্রতিবেদনে দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের পর দ্বিতীয় স্থানে আছে নেপাল। তবে বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে দেশটির অবস্থা ১০৬ তম। নেপাল ৬৮ দশমিক ৩ শতাংশ ক্ষেত্রে লিঙ্গবৈষম্য কমাতে সক্ষম হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


সোমবার থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ

এই সংস্কৃতিটা মামুনুল হকরা নিজে তৈরি করেছে

সৌদি যুবরাজের খেজুর খাওয়ার মতো গরীব বাংলাদেশে নেই

দল বেঁধে রিসোর্টে তাকে ঘেরাও করাকে কোনোভাবেই উৎসাহ দেয়া যায় না


এদিকে টানা ১২তম বারের মতো বিশ্ব লিঙ্গ সমতা সূচকের শীর্ষ স্থানে আছে আইসল্যান্ড। দেশটি প্রায় ৮৯ দশমিক ২ শতাংশ ক্ষেত্রে লিঙ্গবৈষম্য কমিয়ে এনেছে। এরপর ৮৬ দশমিক ১ শতাংশ লিঙ্গবৈষম্য কমিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ফিনল্যান্ড, ৮৪ দশমিক ৯ শতাংশ কমিয়ে তৃতীয় নরওয়ে, ৮৪ শতাংশ কমিয়ে নিউজিল্যান্ড চতুর্থ এবং ৮২ দশমিক ৩ শতাংশ লিঙ্গবৈষম্য হ্রাস করে এই তালিকায় সুইডেন আছে পঞ্চম স্থানে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!

অনলাইন ডেস্ক

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!

দায়িত্ব পালন না করেও ১৫ বছর ধরে বেতন নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইতালির এক হাসপাতালকর্মীর বিরুদ্ধে। স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

এই দীর্ঘ সময় কাজে না গিয়ে ওই ব্যক্তি অনুপস্থিত থাকার জাতীয় রেকর্ড ভেঙেছেন বলেও স্থানীয় মিডিয়ার খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। তার এহেন কাণ্ডে তারা তাকে ‘কিং অফ অ্যাবসেন্টস’ উপাধি দিয়েছে।

ইতালির বার্তা সংস্থা আনসা জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি ইতালির কালাব্রিয়া অঞ্চলের কাতাঞ্জারো শহরের চিয়াছিও হাসপাতালে কাজ করতেন। ২০০৫ সাল থেকে তিনি আর কাজেই যান না।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

তবে কাজে অনুপস্থিত থাকলেও দীর্ঘ সময় ধরে বেতন ঠিকই তুলে গেছেন তিনি। এসময় তিনি বেতন বাবদ ৫ লাখ ৩৮ হাজার ইউরো (প্রায় ৫ কোটি ৪৯ লাখ ২০ হাজার টাকা) তুলেছেন।

এই দীর্ঘ সময় তাকে অনুপস্থিত থাকতে সাহায্য করায় হাসপাতালের ছয়জনের ম্যানেজারের বিরুদ্ধেও তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রথম বিয়ের কথা ১৩ বছর গোপন করলেন স্ত্রী, স্বামীর ক্ষতিপূরণ মামলা

অনলাইন ডেস্ক

প্রথম বিয়ের কথা ১৩ বছর গোপন করলেন স্ত্রী, স্বামীর ক্ষতিপূরণ মামলা

প্রতীকী ছবি

১৩ বছর ধরে নিজের আগের বিয়ের কথা লুকিয়ে রেখেছিলেন স্ত্রী। এতো বছর পর জানতে পেরে স্ত্রীর কাছে লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন স্বামী!

এই ঘটনা ঘটেছে ইন্দোনেশিয়ার মাকাসসারে। সেখানকার বাসিন্দা ইউলিয়ান আপরিয়ান্টো যখন তার স্ত্রীকে বিয়ে করেন তখন তিনি জানতেন না যে, তার আগে একবার বিয়ে হয়েছিল।

কিন্তু ইউলিয়ানকে বিয়ের ১৩ বছর আগে ১৯৯৬ সালে সাইয়ি হানাফি নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল ওই নারীর।

প্রতারিত হয়েছেন দাবি করে স্ত্রীর কাছে ৪ লাখ ৬০ হাজার ইন্দোনেশিয়ান রুপিয়াহ (প্রায় ২৮ লাখ টাকা) ক্ষতিপূরণ চাইছেন ইউলিয়ান। কারণ ওই নারীকে বিয়ে করতে তার যে খরচ হয়েছে এবং স্ত্রীর মিথ্যার কারণে তাকে যে লজ্জায় পড়তে হয়েছে, এজন্য এই ক্ষতিপূরণ যথার্থ বলে মনে করেন তিনি। ইউলিয়ানের সঙ্গে বিয়ের আগে ওই নারীর পরিবার মিথ্যা কাগজপত্র দাখিল করেছিল বলেও জানান তিনি।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


বিয়ের পর স্ত্রীকে ডাক্তারি পড়াতেও খরচ করেন ইউলিয়ান। এখন সেই অর্থও ক্ষতিপূরণ হিসেবে ফেরত চান তিনি।

ইউলিয়ান বলেন, তাদের বিয়ের ৩ মাস আগে তাদের পরিচয় হয়। এই তিন মাসের মধ্যে তার স্ত্রী নিজেকে সিঙ্গেল দাবি করেন এবং নিজের প্রথম বিয়ের কথা গোপন করেন। ২০০৬ সালে বিয়ে করেন তারা।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

২১ এপ্রিল, ইতিহাসের এই দিনে

অনলাইন ডেস্ক

২১ এপ্রিল, ইতিহাসের এই দিনে

আজ ২১ এপ্রিল,  গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১১১তম (অধিবর্ষে ১১২তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৫৪ দিন বাকি রয়েছে। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

৭৫৩ - রোম নগরীর প্রতিষ্ঠা।

৮২৯ - সেক্সশান এগবার্ট ব্রিটেনের প্রথম রাজা হিসেবে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন।

১৫২৬ - পানি পথের প্রথম যুদ্ধ।

১৯৫২ - লন্ডন ও রোমের মধ্যে প্লেন চালনার মাধ্যমে বিশ্বের প্রথম জেট প্লেন চলাচল শুরু।

১৯৬২ - আলজেরিয়ায় ফরাসি সেনা বিদ্রোহ শুরু।

১৯৭৫ - ভারতের ফারাক্কা ব্যারেজ চালু।

জন্ম:

১৮২৮ - হিপোলালিটি টেইনি, প্রখ্যাত ফরাসী শিল্পী, সাহিত্যিক এবং ঐতিহাসিক।

১৮১৬ - ইংরেজ ঔপন্যাসিক ও কবি শার্লট ব্রন্টে।

১৯৪৫ - শ্রীনিবাসরাঘবন ভেঙ্কটরাঘবন, ভারতীয় ক্রিকেটার এবং আম্পায়ার।

১৯৬৬ - সঙ্গীতশিল্পী ও সুরকার মাইকেল ফ্রান্টি।


ফজিলতপূর্ণ ইবাদত তাহাজ্জুদের নামাজ

কানাডার শীর্ষ নেতাদের সবাই অস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন

বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে যা বললেন হেফাজত নেতারা

কবরের আজাব থেকে মুক্তি লাভের দোয়া


মৃত্যু:

১৯১০ - স্যামুয়েল ল্যাঙ্গহোর্ণ ক্লিমেন্স ('মার্ক টোয়েইন) একজন মার্কিন রম্য লেখক, সাহিত্যিক ও প্রভাষক।

১৯৩৮ - আল্লামা ইকবাল, পাকিস্তানের প্রখ্যাত কবি, দার্শনিক এবং রাজনীতিবিদ।

১৯৬৫ - এডওয়ার্ড ভিক্টর অ্যাপলটন, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী।

১৯৮৪ - মোহাম্মদ মোদাব্বের, সাংবাদিক, শিশুসাহিত্যিক ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক।

২০১৩ - শকুন্তলা দেবী, একজন ভারতীয় লেখক এবং মানব ক্যালকুলেটর।

২০১৫ - পূর্ণদাস বাউল, ভারতীয় বাঙালি বাউল গান শিল্পী।

২০১৫ - জানকীবল্লভ পট্টনায়ক, একজন রাজনীতিবিদ এবং ওড়িশার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

করোনায় নতুন করে দরিদ্র হয়েছে আড়াই কোটি: সমীক্ষা

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় নতুন করে দরিদ্র হয়েছে আড়াই কোটি: সমীক্ষা

করোনার প্রভাবে এবার নতুন করে আড়াই কোটি মানুষ দরিদ্র হয়েছে। বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্ন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (বিআইজিডি) এক যৌথ সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

সংক্রমণ এড়াতে লকডাউন দেওয়া হলেও এই লকডাউনে উপার্জনের পথ বন্ধ হয়েছে বহু নিম্ন আয়ের মানুষের।

করোনার প্রথম ঢেউয়ের প্রভাব কাটতে না কাটতেই শুরু হয়েছে দ্বিতীয় ঢেউ। গত বছরের ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটির ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত অনেকেই এখনও বিপর্যস্ত অবস্থা কাটিয়ে উঠতে পারেননি।

ওই সময় দেশে দারিদ্র্যের হার দ্বিগুণ হয়েছিল। নিম্ন আয়ের মানুষ যখন সেই ধাক্কা সামলে উঠে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে, তখনই শুরু হয়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাব সামাল দিতে গত ৫ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। এরপরও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে সার্বিক কার্যাবলি ও চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। যাকে বলা হচ্ছে সর্বাত্মক লকডাউন।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

রাস্তা-ঘাট থেকে শুরু করে শ্বশুড় বাড়িতেও পদ-পদবীর দাপট


এই লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সরকারের নীতিনির্ধারকরা। এতে দৈনিক আয়ের ওপর নির্ভরশীল মানুষের টিকে থাকার সংগ্রাম আরও কঠিন হতে যাচ্ছে। এ অবস্থায় অনেকেই পরিবার-পরিজন নিয়ে দুর্ভাবনায় পড়েছেন নতুন করে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

দিল্লিতে লকডাউনে ঘোষণা; মদের দোকানে দীর্ঘ লাইন

অনলাইন ডেস্ক

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার 
মদেই হবে'

ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। প্রতিদিনই গড়ছে নতুন রেকর্ড। কয়েকদিন ধরেই দেশটির দৈনিক করোনা সংক্রমণ দুই লাখ ছাড়িয়ে যাচ্ছে। একইসঙ্গে লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও।

এই পরিস্থিতি এড়াতে দিল্লিতে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। অন্যদিকে, ঘোষণার সাথে সাথেই দোকানে দোকানে বেড়েছে মদ কেনার জন্য দীর্ঘ লাইন!

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত ১০ থেকে পরের সোমবার সকাল ৫টা পর্যন্ত লকডাউন থাকবে দিল্লিতে। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে চিকিৎসা এবং খাদ্য সংক্রান্ত জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে।

কিন্তু দিল্লির খান মার্কেট, গোলে মার্কেটের মতো এলাকায় দেখা যায়, একের পর এক মদের দোকানের সামনে কয়েকশ ক্রেতার ভিড়। ক্রেতাদের করোনা বিধি ভেঙে মদ কেনার লম্বা লাইনের ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।


আরও পড়ুনঃ


বাইডেনের প্রস্তাবে রাজি পুতিন

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

একজন মিডিওকার যুবকের ১৮+ জীবনের গল্প এবং অন্যান্য

মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?


ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, মদ কিনতে আসা এক নারী সাংবাদিকদের বলেন, ‘৩৫ বছর ধরে মদ খাচ্ছি। ওষুধের প্রয়োজন হয় না। টিকায় কিছু লাভ হবে না। মদেই যা লাভ হওয়ার হবে।’

ক্যামেরার সামনে করা সেই মন্তব্য ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর