মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলায় যেসব অভিযোগ করা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলায় যেসব অভিযোগ করা হয়েছে

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বায়তুল মোকাররমে তাণ্ডবের ঘটনায় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের বিরুদ্ধে পল্টন থানায় মামলা হয়েছে। সোমবার (৫ এ্প্রিল) রাতে ওয়ারী এলাকার ব্যবসায়ী খন্দকার আরিফ-উজ-জানান মামলাটি করেন। এতে আরও অজ্ঞাত পরিচয় ২-৩ হাজার ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। যাদের পরিচয়ে বলা হয়েছে, এরা হেফাজত, জামায়াত-শিবির ও বিএনপির কর্মী।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, নামাজ শেষে মসজিদ থেকে বের হয়ে বাদী উগ্র মৌলবাদী ব্যক্তিদের উচ্ছৃঙ্খল জমায়েত দেখতে পান। তাদের স্লোগান ও কথোপকথন থেকে জানতে পারেন, মামুনুল হকের নেতৃত্বে শীর্ষস্থানীয় হেফাজত, জামায়াত-শিবির ও বিএনপি নেতারা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন্ন স্থানে গোপন বৈঠক করে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠান বানচালের ষড়যন্ত্র করেছে। সেইসঙ্গে সারা দেশে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়ে নৈরাজ্য সৃষ্টির পরিকল্পনাও রয়েছে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য তারা দা, ছোরা, কুড়াল, কিরিজ, হাতুড়ি, তলোয়ার, বাঁশ, লঠি, শাবল, পাইপগান ও রিভলবার নিয়ে বাদীসহ অন্য মুসল্লিদের ওপর হামলা চালায়।

এজাহারে আরও বলা হয়েছে, আসামিরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ভাঙচুর করে ও কিশোরগঞ্জে জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুর করে। এছাড়া বায়তুল মোকাররমের টাইলস ভেঙে, বিভিন্ন হাদিস ও কুরআন শরিফসহ ধর্মীয় বইপত্র পুড়িয়ে ইসলামের অপূরণীয় ক্ষতি করেছে। তারা দেশকে অস্থিতিশীল, অকার্যকর ও মৌলবাদী রাষ্ট্রে পরিণত করার মাধ্যমে অবৈধ পথে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।


ধর্মের নাম নিয়ে অধর্ম কাজ জনগণ মেনে নেবে না: প্রধানমন্ত্রী

সমস্যা হলো কে কার বউ নিয়ে গেল তাই তো?

প্রথম বউয়ের অনুমতি ছাড়া গোপনে বিয়ে করা কি বেআইনি নয়!

মামুনুলের ঘটনা প্রমাণ করে হেফাজতের নেতৃত্ব কতটা নষ্ট ও ভন্ড: তথ্যমন্ত্রী


মামলার অপর আসামিরা হলেন-যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা লোকমান হাকিম, যুগ্ম মহাসচিব নাসির উদ্দিন মনির, নায়েবে আমির মাওলানা বাহাউদ্দিন জাকারিয়া, মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদি, নায়েবে আমির ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা মাজেদুর রহমান, লালবাগের মাওলানা হাবিবুর রহমান, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, মাওলানা জসিম উদ্দিন, মাওলানা মাসুদুল করিম, মুফতি মনির হোসাইন কাসেমী, মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী, মাওলানা ফয়সাল আহমেদ, মাওলানা মুশতাকুন্নবী, মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের, মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ তৈয়ব।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরকে ঘিরে গত ২৬ মার্চ বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ করে হেফাজত। সেখানে পুলিশ ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এর জেরে দেশে বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ হয়। সরকারি হিসেব মতে এই বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যান ১৭ জন। তবে হেফাজতের দাবি ২২ জন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাঠে নেমেছে র‌্যাব

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জমিরানা

অনলাইন ডেস্ক

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই জমিরানা

করোনার পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৮ দিনের কঠোর লকডাউন জারি করেছে সরকার। লকডাউন চলাকালে সাধারণ মানুষকে ঘরের বাইরে বের হতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। 

এই নির্দেশনা অমান্য করলে ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে অতি জরুরি প্রয়োজনে বাইরে যাওয়ার জন্য 'মুভমেন্ট পাসে'র ব্যবস্থা করেছে পুলিশ।

রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে আজ বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) র‍্যাব-৩ এর সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

আরও পড়ুন


বিশ্বে একদিনে করোনায় ১৩৫৩২ জনের মৃত্যু

হেফাজতের আরেক সহকারী মহাসচিবকে আটকের অভিযোগ

তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার নিয়ম, সময় ও রাকাআত

খালেদা জিয়াকে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও পাকিস্তান হাইকমিশনারের চিঠি


তিনি জানান, মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের নিদর্শনা অনুযায়ী যারা আদেশ অমান্য করছে তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত করা হচ্ছে। যারা বিনা কারণে বাইরে ঘোরাঘুরি করছেন, মুভমেন্ট পাস না নিয়ে বাইরে বের হচ্ছেন এবং স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না, তাদেরকে জরিমানা করা হচ্ছে।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসা কার্যক্রম স্থগিত

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশে ভারতীয় ভিসা কার্যক্রম স্থগিত

ক্রমবর্ধমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন জারি করেছে সরকার। লকডাউনে চলাচলে বিভিন্ন বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। এই পরিস্থিতিতে নিজেদের ভিসা আবেদন কেন্দ্রগুলোর কার্যক্রম সাময়িকভাবে স্থগিত করেছে ভারত।

আগামী ২১ এপ্রিল পর্যন্ত কার্যক্রম স্থগিত থাকবে বলে ভারতের হাইকমিশন তাদের ভেরিফাইড ফেইসবুক পেজে জানিয়েছে।

ইতিমধ্যে জমা দেওয়া আবেদনের বিষয়ে জানতে এবং যেকোনো জরুরি অনুরোধের জন্য [email protected] এই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


চীনে সন্তান নেয়ার প্রবণতা কমছে, কমছে জন্মহার

কাল-পরশু হয়তো লকডাউনটা আরো ‘ডাউন’ হয়ে যাবে

কুমারীত্ব পরীক্ষায় 'ফেল' করায় নববধূকে বিবাহবিচ্ছেদের নির্দেশ

বাদশাহ সালমানের নির্দেশে সৌদিতে কমছে তারাবির রাকাত সংখ্যা


গতবছরও ভারত বাংলাদেশে তাদের ভিসা কার্যক্রম স্থগিত করেছিল। পরে ৬ মাস পর সেটি আবার চালু করা হয়।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লকডাউনে মাঠে র‍্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত

অনলাইন ডেস্ক

লকডাউনে মাঠে র‍্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত

ক্রমবর্ধমান করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন জারি করেছে সরকার। লকডাউনে চলাচলে বিভিন্ন বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন করেছে সরকার। এই নির্দেশনা অমান্য করলে ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বেলা ১১টা থেকে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে র‍্যাব-৩ এর সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

তিনি বলেন, মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের নিদর্শনা অনুযায়ী যারা আদেশ অমান্য করছে তাদের বিরুদ্ধে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত করা হচ্ছে। যারা বিনা কারণে বাইরে ঘোরাঘুরি করছেন, মুভমেন্ট পাস না নিয়ে বাইরে বের হচ্ছেন এবং স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না, তাদেরকে জরিমানা করা হচ্ছে। জরিমানার পাশাপাশি জনগণকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না আসার জন্য এবং স্বাস্থ্যবিধি মানতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

জরিমানা করা র‍্যাবের উদ্দেশ নয় বলেও জানান তিনি। র‍্যাবের উদ্দেশ্য করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা এবং সরকারের সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন মানতে সচেতনতা তৈরি করা।


আরও পড়ুনঃ


চীনে সন্তান নেয়ার প্রবণতা কমছে, কমছে জন্মহার

কাল-পরশু হয়তো লকডাউনটা আরো ‘ডাউন’ হয়ে যাবে

কুমারীত্ব পরীক্ষায় 'ফেল' করায় নববধূকে বিবাহবিচ্ছেদের নির্দেশ

বাদশাহ সালমানের নির্দেশে সৌদিতে কমছে তারাবির রাকাত সংখ্যা


এর আগে, গত ৫ ও ৬ এপ্রিল রাজধানীর শাহবাগ ও মতিঝিলে স্বাস্থ্যবিধি মানতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু। সে সময় যারা বিনা কারণে বাইরে ঘোরাঘুরি ও মাস্ক পরেনি তাদের জরিমানা করে র‍্যাব। ওই দুই দিনে প্রায় অর্ধ শতাধিক মানুষকে জরিমানা করা হয়।

র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালতের এই অভিযান অব্যহত থাকবে বলে জানা গেছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বিধিনিষেধ না মানায় ১৪০ জনকে জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

বিধিনিষেধ না মানায় ১৪০ জনকে জরিমানা

সরকার ঘোষিত ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ দ্বিতীয় দিন চলছে। সরকারি নির্দেশ মেনে খাগড়াছড়িতে বন্ধ রাখা হয়েছে শপিং সেন্টার ও দোকানপাট।

বন্ধ রয়েছে সকল ধরনের গণপরিবহন। কোথাও কোথাও সরকারি বিধিনিষেধ মানছে না অনেকে। উন্মুক্ত স্থানে বাজার বসানোর নির্দেশ থাকলেও তা মানা হয়নি।

লকডাউন কার্যকরে মাঠে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনা ও জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। লকডাউনে সরকারি বিধিনিষেধ না মানায় ১৪০ জনকে ৪০ হাজার ৩১০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন


বিশ্বে একদিনে করোনায় ১৩৫৩২ জনের মৃত্যু

হেফাজতের আরেক সহকারী মহাসচিবকে আটকের অভিযোগ

তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার নিয়ম, সময় ও রাকাআত

খালেদা জিয়াকে জাপানের রাষ্ট্রদূত ও পাকিস্তান হাইকমিশনারের চিঠি


news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দ্বিতীয় দিনে ঢাকার রাস্তায় মানুষের চলাচল বেড়েছে

অনলাইন ডেস্ক

দ্বিতীয় দিনে ঢাকার রাস্তায় মানুষের চলাচল বেড়েছে

করোনার প্রকোপ বাড়ায় সারাদেশে চলছে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিন। লকডাউনের প্রথম দিন ঢাকার রাস্তায় প্রশাসনকে অনেক কঠোর অবস্থানে দেখা গেছে। অনুমোদিত যানবাহনের ছাড়া কোন যানবাহনই চলাচল করতে দেয়া হয়নি। এমনকি অনেককে জরিমানা করতেও দেখা গেছে।

তবে লকডাউনের আজ দ্বিতীয় দিন প্রথম দিনের চেয়ে অনেকটাই ঢিলেঢালা। রাস্তায় বেড়েছে মানুষের চলাচল। গতকাল মুভমেন্ট পাস ছাড়া কাউকে পুলিশ চেকপোস্ট অতিক্রম করতে দেওয়া হয়নি। কিন্তু আজ তা শিথিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকালে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়,  প্রথম দিনের চেয়ে পুলিশ চেকপোস্টগুলো দ্বিতীয় দিনে কিছুটা শিথিলতা। প্রথম দিন চেকপোস্টে প্রায় প্রতিটি গাড়ি আটকে যাত্রীদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আজ সেই চিত্র একেবারেই ভিন্ন। তবে শহরের বিভিন্ন রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে সব রাস্তায় চলাচল করা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন


আমি একদিন গাছ হবো!

সবচেয়ে বরকতময় ও মর্যাদাপূর্ণ রমজান মাস

আবদুল মতিন খসরুর সম্মানে সুপ্রিম কোর্ট বসছে না আজ

সুপ্রিম কোর্টে আবদুল মতিন খসরুর দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন


প্রথমদিন পহেলা বৈশাখের ছুটি থাকায় সবকিছু বন্ধ ছিল। ফলে মানুষ ঘর থেকে বের হয়েছিল কম। কিন্তু দ্বিতীয় দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার ব্যাংক, শেয়ারবাজার, গার্মেন্টসহ বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠান খোলা। ফলে সকাল থেকে রাস্তায় গাড়ির চলাচলও বেড়েছে কিছুটা।

সকাল ৭টা থেকে শহরের বিভিন্ন এলাকায় গার্মেন্ট শ্রমিকদের দলে দলে তাদের কর্মস্থলে যেতে দেখা গেছে। গার্মেন্ট শ্রমিকরা যেহেতু তাদের কারখানার আশপাশের এলাকায় বসবাস করেন সে জন্য তাদের পরিবহনের প্রয়োজন হয়নি।

news24bd.tv আহমেদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর