মঈন আলীকে নিয়ে তসলিমা নাসরিনের টুইট, ধুয়ে দিলেন আর্চার

অনলাইন ডেস্ক

মঈন আলীকে নিয়ে তসলিমা নাসরিনের টুইট, ধুয়ে দিলেন আর্চার

(ছবি-বাঁদিক থেকে) আর্চার, তসলিমা নাসরিন, মঈন আলী

সম্প্রতি চেন্নাই সুপার কিংস (সিএসকে)- এর পক্ষে আইপিএল খেলতে ভারতে এসেছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলী। নিজের ধর্মের প্রতি বিশ্বস্ত থাকতে জার্সিতে কোনো মদের কোম্পানির বিজ্ঞাপন রাখেন না তিনি।

এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। চেন্নাইকে নিজের জার্সি থেকে মদ প্রস্তুতকারক সংস্থার লোগো সরিয়ে নিতে বলেছিলেন। তার অনুরোধ রাখাও হয়েছে। ফলে মঈন এখন মদের লোগো ছাড়া জার্সি পরতে পারবেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো এমন খবর জানালেও চেন্নাই বলছে সংবাদটি ভুল। সে যাই হোক, মদ প্রস্তুতকারক সংস্থার লোগো সরিয়ে নিতে মঈন আলী অনুরোধ করেছেন এমন খবরে গতকাল তাকে নিয়ে একটি টুইট করেন বাংলাদেশের আলোচিত-সমালোচিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

১৯৯৪ সালে দেশত্যাগ করা এই লেখিকা তার টুইটারে তিনি লিখেন, ‘মঈন আলী ক্রিকেট না খেললে সিরিয়াতে গিয়ে আইএসআইয়ের সঙ্গে যোগ দিত।’

মঈন আলীকে নিয়ে এমন মন্তব্যের পর সোশ্যাল সাইটে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।  সমালোচনায় মিছিলে দিয়েছেন ইংল্যান্ডের আরেক ক্রিকেটার জফরা আর্চার।

তসলিমার টুইটটি রিটুইট করে জোফরা আর্চার লিখেছেন, ‘আপনি কি সুস্থ? আমার মনে হয় না।’ 

তসলিমা নাসরিনের ওই টুইটটি ৮৩২বার রি–টুইট হয়, মন্তব্য পড়েছে ২ হাজারের বেশি। যার বেশির ভাগই নেতিবাচক।


মামুনুল হক সম্পর্কে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

একদিনে ঝরল আরও ৫২ প্রাণ

দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড গড়ল করোনা

দেশে ফের করোনা শনাক্তের রেকর্ড


সেই টুইটের রেশ কাটতে না কাটতেই আজ আবারো টুইট করেছেন তসলিমা নাসরিন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘নিন্দুকেরা ভালো করেই জানে, মঈন আলীকে নিয়ে করা টুইটটি ব্যঙ্গাত্মক। কিন্তু তারা এটাকে ইস্যু হিসেবে ধরে নিয়ে আমাকে অপদস্থ করছে। কারণ, আমি মুসলিম সমাজকে ধর্মনিরপেক্ষ করার চেষ্টা করি এবং ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধাচরণ করি। মানবজাতির অন্যতম মর্মান্তিক বিষয় হলো, নারীবাদের পক্ষ নেওয়া বামপন্থীরা নারীবাদের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়া ইসলামপন্থীদের সমর্থন দেয়।’

আর্চার তসলিমা নাসরিনের এই টুইটেরও জবাব দিয়েছেন জোফরা আর্চার। তিনি লিখেছেন, ‘ব্যঙ্গাত্মক? কিন্তু কেউ তো হাসছে না, এমনকি আপনিও না, এখন অন্তত যে কাজটা আপনি করতে পারেন, তা হলো টুইটটি মুছে ফেলা।’ 

news24bd.tv নাজিম

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে

জিম্বাবুয়েকে ১১ রানে হারিয়েছে পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়েকে ১১ রানে হারিয়েচে পাকিস্তান। পাকিস্তানের দেয়া ১৫০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ে থামে ১৩৮ রানে।

হারারেতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উইকেটে খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানরা। উইকেটের একপ্রান্তে চলতে থাকে বাবর আজম, ফখর জামান, হাফিজদের যাওয়া আসার মিছিল। তবে, অপরপ্রান্ত আগলে ব্যাট চালিয়ে যান ওপেনার রিজওয়ান। তার ৬১ বলে ৮২ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেটে হারিয়ে ১৪৯ রান করে পাকিস্তান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে জিম্বাবুয়েও। ক্রেগ আর্ভিানের ৩৪ রানের পর, লুক জংওয়ে ৩০ রানের ইনিংস কিছুটা জয়ের আশা দেখালেও, শেষ পর্যন্ত জয়ের বন্দরে পৌছাতে পারেনি স্বাগতিকদের তরী। নির্ধারিত ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৭ উইকেটে ১৩৮ রান করে জিম্বাবুয়ে।

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রথম টেস্টে চালকের আসনে বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

প্রথম টেস্টে  চালকের আসনে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে চালকের আসনে রয়েছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) ক্যান্ডির পাল্লেকেলেতে ম্যাচের দ্বিতীয় দিনেও দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে মুমিনুলরা। শতক হাঁকিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মুমিনুল হক। নাজমুল হোসেন ও মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে ৪ উইকেটে ৪৭৪ রান নিয়ে আজ পাল্লেকেলে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ দল। আলোক স্বল্পতায় এক ঘণ্টা আগে খেলা শেষ না হলে দলের রান এ দিনই ৫০০ ছাড়াতে পারত। কাল সকালে সেদিকেই চোখ থাকবে দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের। 

পাল্লেকেলেতে আজ দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে ডমিঙ্গো বলেছেন, ‘আমাদের কাল সকালে দ্রুত কিছু রান করতে হবে। আমরা চাই ৫২০-এর আশপাশে রান করে ওদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে চাপে ফেলতে।’

বুধবার (২১ এপ্রিল) টেস্টের প্রথম দিন শেষে শান্ত ও মুমিনুলের অবিচ্ছিন্ন জুটি ছিল ১৫০ রানের। বৃহস্পতিবার ম্যাচের দ্বিতীয় দিনও লঙ্কানদের হতাশ করে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেন তারা। দুজনে গড়েন তৃতীয় উইকেটে দেশের হয়ে রেকর্ড জুটি।

শেষ পর্যন্ত শান্তর বিদায়ে থামে এই জুটি। ১৬৩ রান করে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ফিরতি ক্যাচ দেন লাহিরু কুমারাকে। দুজনের জুটি শেষ হয় ২৪২ রানে। এরপর উইকেটে আসেন মুশফিকুর রহীম। কিন্তু মুমিনু্লের সঙ্গে তার জুটিটা জমেনি। 

চতুর্থ উইকেটে ৩০ রান যোগ হতেই সাজঘরের পথ ধরেন মুমিনুল। ধনঞ্জয়া ডি সিলভার আলগা ডেলিভারিটি শরীরের বাইরে থেকেই খেলতে চেয়েছিলেন টাইগার অধিনায়ক, বল ব্যাটে লেগে যায় চলে যায় প্রথম স্লিপে।

এরপর মুশফিকুর রহীমের সঙ্গে জুটি গড়ার চেষ্টায় নামেন লিটন দাস।

আগের দিন উইকেটে সবুজ ঘাসের আধিক্য থাকলেও, টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল। এদিন শূন্য রানে সাজঘরে ফিরে যান ডানহাতি ওপেনার সাইফ হাসান। এমন পরিস্থিতিতে বিপদ আর বাড়তে দেননি তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

লঙ্কানদের একের পর এক বোলিং আক্রমণেও ভাঙা যাচ্ছিল না জুটি। উল্টো যখনই রানের সুযোগ এসেছে তার পূর্ণ ফায়দা নিয়েছেন শান্ত ও তামিম। দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা তামিম দ্বিতীয় সেশনে কাঁটা পড়েন নড়বড়ে নব্বইয়ে পা রেখেই। ব্যাক অব লেন্থে পড়া ডেলিভারিতে কী করবেন তা ঠিক করতে পারেননি তামিম। অদ্ভুত এক অবস্থায় পড়ে ক্যাচ তুলে দেন স্লিপ কর্ডনে দাঁড়ান লাহিরু থিরিমান্নের হাতে। প্রথম দিনের শেষ সেশনে আর কোনো উইকেট হারায়নি মুমিনুলরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (দ্বিতীয় দিন শেষে)

টস : বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ৪৭৪/৪ (১৫৫ ওভার)
শান্ত ১৬৩, মুমিনুল ১২৭, তামিম ৯০, মুশফিক ৪৩*, লিটন ২৫*
বিশ্ব ৭৫/২, কুমারা ৮৮/১

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

দেড়শ ছাড়িয়ে শান্ত, মুমিনুলের সেঞ্চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেড়শ ছাড়িয়ে শান্ত, মুমিনুলের সেঞ্চুরি

বাংলাদেশের দাপট পাল্লেকেলেতে প্রথম দিন দাপট দেখায় বাংলাদেশ। ২ উইকেট হারিয়ে জমা করে ৩০২ রান। দ্বিতীয় দিনের শুরুটাও ভালো করেছেন শান্ত-মুমিনুল। ৬৪ রানে অপরাজিত থেকে দিন শুরু করেছিলেন মুমিনুল হক।

দেশের সর্বোচ্চ সেঞ্চুরিয়ান সংখ্যাটা নিয়ে গেলেন ১১ তে। ২২৪তম বলে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে নবম চার মেরে এই স্বস্তির শতক উদযাপন করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। দেশের বাইরে এটাই তার প্রথম সেঞ্চুরি।

এদিকে দ্বিতীয় দিনেও দুর্দান্ত ব্যাটিং বাংলাদেশ। প্রথম  ইনিংসে বড় সংগ্রহের দিকেই এগোচ্ছে টাইগাররা। গতকালের মতো আজও  অসাধারণ ব্যাটিং করছে নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যক্তিগত দেড়শ রানে পৌঁছে গেছেন তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

আরও পড়ুন


প্রয়াত সাংসদ আবদুল মতিন খসরুর আসন শূন্য ঘোষণা

বৈরী সময়েও ধান কাটার উৎসব, শ্রমিক ও পরিবহন সংকট

আমেরিকার রেকর্ড ভেঙে ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত

এবার কক্সবাজারে ভিপি নুরের বিরুদ্ধে মামলা


 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

কেকেআরকে হারিয়ে শীর্ষে চেন্নাই

অনলাইন ডেস্ক

কেকেআরকে হারিয়ে শীর্ষে চেন্নাই

কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) হয়ে প্রথম তিন ম্যাচে প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে না পারায় চতুর্থ ম্যাচে একাদশে জায়গা হয়নি সাকিব আল হাসানের। বাংলাদেশ সেরা এই অলরাউন্ডারের পরিবর্তে ক্যারিবীয় তারকা স্পিনার সুনীল নারিনকে খেলায় কেকেআর। কিন্তু এতেও হার এড়াদে পারলো না কেকেআর। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) এবারের আসরে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ১৮ রানে হেরেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)।

বুধবার (২১ এপ্রিল) টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ফাফ ডু প্লেসিসের ঝড়ো ব্যাটে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২২০ রানের পাহাড় গড়ে চেন্নাই সুপার কিংস।

দলের পক্ষে প্লেসিস সর্বোচ্চ ৯৫* রানের ইনিংস খেলেন। মাত্র ৪২ বলে খেলা তার ইনিংসটি ৪টি ছক্কা ও ৯টি চারে সাজানো ছিল। এছাড়া আরেক ওপেনার রুতুরাজ গুয়েকওয়াড ৪২ বলে ৪টি ছক্কা ও ৬টি চারে ৬৪ রানের ইনিংস উপহার দেন। মঈন আলী ১২ বলে ২৫ (২টি ছক্কা ও সমান চার) এবং অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনি ৮ বলে করেন ১৭ রান।

কেকেআররের পক্ষে সুনিল নারিন, আন্দ্রে রাসেল ও বরুন চক্রবর্তী প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট লাভ করেন।

জবাব দিতে নেমে সাকিব আল হাসানবিহীন কলকাতা ৩১ রানের মধ্যেই প্রথম সারির পাঁচ ব্যাটারকে হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায়। দিনেশ কার্তিক, আন্দ্রে রাসেল ও পেট কামিন্সের ব্যাটে ভর করে ২০২ রান করে কলকাতা। নির্ধারিত ২০ ওভারের ৫ বল বাকি থাকতেই অলআউট হয় কেকেআর।

কামিন্স ৩৪ বলে ৬টি ছক্কা ও ৪টি চারে ৬৬*, রাসেল ২২ বলে ৬টি ছক্কা ও ৩টি চারে ৫৪ এবং কার্তিক ২৪ বলে ২টি ছক্কা ও ৪টি চারের সাহায্যে ৪০ রানের ইনিংস খেলেন। এই ত্রয়ী ছাড়া কেকেআরের আর কোনো ব্যাটারই দুই অংকের ঘর স্পর্শ করতে পারেননি।

চেন্নাইয়ের হয়ে ডোয়াইন ব্রাভোর জায়গায় একাদশে জায়গা করে নেওয়া লুঙ্গি এনগিদি ৪ ওভারে ২৮ রান খরচায় ৩টি, দীপক চাহার ৪ ওভারে ২৯ রান দিয়ে ৪টি এবং সবচেয়ে খরুচে বোলার স্যাম কুরান ৪ ওভারে ৫৮ রান দিয়ে ১ উইকেট শিকার করেন।

চার ম্যাচ খেলে ৩টিতেই হেরেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

টেস্টে সর্বোচ্চ রানের মালিক হলেন তামিম

অনলাইন ডেস্ক

টেস্টে সর্বোচ্চ রানের মালিক হলেন তামিম

বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে সর্বোচ্চ রানের মালিক হলেন তামিম। মুশফিকুর রহিমের করা ৪ হাজার ৫৩৭ রান টপকে যেয়ে রেকর্ড গড়েন তিনি। তামিমের রান ৪ হাজার ৫৭৩।

ক্যান্ডির পাল্লেকেলেতে লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে ‘ওয়ানডে স্টাইলে’ ব্যাট করে অর্ধশতক করেছিলেন টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। 

আরও পড়ুন


স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিয়ে করলেন শামীম-সারিকা!

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা গেল ৯৫ জন

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ৪২৮০

‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম এক দিনের রিমান্ডে


ব্যাট করতে নেমে সুরঙ্গা লাকমলের প্রথম ওভারেই জোড়া বাউন্ডারি হাঁকান তামিম। ওভারের তৃতীয় ও পঞ্চম বলে অনসাইড দিয়েই বাউন্ডারি দুটি মারেন তিনি। কিন্তু বিশ্ব ফার্নান্দোর করার পরের ওভারে এর উল্টোটাই করেন সাইফ।

সঙ্গী সাইফকে হারালেও তামিম পরের ওভারে আবার হাঁকান বাউন্ডারি। এমনকি বিশ্বর ওভারেও তাকে খেলতে দেখা যায় সাবলীলভাবে। ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছিলেন সেঞ্চুরি পথে। কিন্তু লঙ্কান পেসার বিশ্ব ফার্নান্দো'র বলে ক্যাচ আউট হয়ে মাঠ ত্যাগ করেন তামিম। 

আউট হওয়ার আগে ১০১ বলে ৯০ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন তিনি। এই রান করতে ১৫টি চার মারেন তিনি।

news24bd.tv / কামরুল 

মন্তব্য

পরবর্তী খবর