‘শিশু বক্তা’ কে মুক্তি না দিলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি হেফাজতের

অনলাইন ডেস্ক

‘শিশু বক্তা’ কে মুক্তি না দিলে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি হেফাজতের

‘শিশু বক্তা’ রফিকুল মাদানীকে দ্রুত মুক্তি না দেওয়া হলে কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

রফিকুল ইসলাম মাদানীকে আটকের প্রতিবাদে আজ বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে নেত্রকোনা শহরের মোক্তারপাড়া এলাকায় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি দেন হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশ নেত্রকোনা শাখা।

গতকাল মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার লেটিরকান্দা থেকে আটক করা হয় ‘শিশু বক্তা’ হিসেবে আলোচিত রফিকুল ইসলাম মাদানীকে (২৭)।

নেত্রকোনার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. আকবর আলী মুন্সী বলেন, আটক রফিকুল বর্তমানে র‌্যাব হেফাজতে আছেন। তাঁকে কেন আটক করা হয়েছে, তা তাঁর জানা নেই বলে তিনি জানান।


নিষ্কৃতি দেওয়ায় আমি সত্যিই আনন্দিত

হেফাজত নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট: ছাত্রলীগ নেতাকে হাতকড়া পরিয়ে থানায় নিয়ে সাদা কাগজে সই

একই সময়ে পাঁচজনকে ছুরিকাঘাত, গেল দুই প্রাণ


র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক আ. ন. ম. ইমরান খান বলেন, রাষ্ট্রবিরোধী উসকানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য প্রদান এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে আটক করা হয়েছে। 

রফিকুল ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে হেফাজন নেতারা বলেন, রফিকুল ইসলাম মাদানী এখন কোথায় আছেন, তা তাঁদের জানা নেই। তাঁকে কেন আটক করা হয়েছে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তা বলছে না। তাঁকে দ্রুত মুক্তি না দেওয়া হলে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে রফিকুল ইসলাম মাদানীর বড় ভাই রমজান মিয়া বলেন, তাঁর ভাই গতকাল মঙ্গলবার রাতে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে ধর্মীয় সভা করে নিজের বাড়িতে আসেন। রাতের খাবার শেষে সবাই ঘুমিয়ে যান। রাত আড়াইটার দিকে র‌্যাব পরিচয়ে কিছু লোক প্রায় ১৯টি গাড়ি নিয়ে তাঁদের বাড়ি ঘেরাও করে। পরে রফিকুল ইসলাম মাদানী, তাঁর বড় ভাই বকুল মিয়া (৩৭) ও তাঁর দূর সম্পর্কের ভাতিজা এনামুল হককে (২৮) তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে বকুল মিয়াকে রাতেই ছেড়ে দেওয়া হলেও অন্য দুজনের খোঁজ তাদের জানা নেই। তাঁর দাবি, রফিকুল ইসলাম মাদানীর ব্যবহৃত দুটি মুঠোফোনসহ তাঁদের পরিবারের ছয়টি মুঠোফোন জব্দ করে নিয়ে যায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজত নেতারা নষ্ট এবং ভণ্ড : তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজত নেতারা নষ্ট এবং ভণ্ড : তথ্যমন্ত্রী

হেফাজত নেতারা যে নষ্ট এবং ভণ্ড, সেটি আজ প্রমাণিত বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী  ও সম্প্রচার মন্ত্রী  এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। মামুনুলের অনৈতিক, অনৈসলামিক কাণ্ডকে তারা যেভাবে তড়িঘড়ি করে বসে ইসলামের আলোকে বৈধতা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে, নাউজুবিল্লাহ, সেটিই তার প্রমাণ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর মিন্টু রোডের বাসভবন থেকে ওয়েবিনা বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। 

এসময় মন্ত্রী হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবের কথা বলে আরও বলেন, ‘সূর্য পূর্বদিকে ওঠে তা যেমন সত্য, হেফাজত যে এসব করেছে, সেই দিবালোকের মতো সত্যকেও তারা অস্বীকার করেছে। সুতরাং এই মিথ্যাবাদী, নষ্ট ও ভণ্ড নেতৃত্বের পক্ষ নিয়ে যারা বিবৃতি দেয়, তারাও সেই পর্যায়েই পড়ে।’

সাংবাদিকরা এসময় করোনাকালে আওয়ামী লীগের মানুষের পাশে থাকার বিষয়ে প্রশ্ন করলে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত একবছর ধরে করোনাকালে আওয়ামী লীগ মানুষের পাশে আছে এবং থাকবে। দলের পক্ষ থেকে প্রথম দফায় ১ কোটি ২৫ লাখ মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এবং কোটি কোটি টাকা বিতরণ করা হয়েছে।’

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

হেফাজতের সঙ্গে সম্পৃক্ত তো আপনারা, আওয়ামী লীগকে ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক

হেফাজতের সঙ্গে সম্পৃক্ত তো আপনারা, আওয়ামী লীগকে ফখরুল

বিএনপি নয়, হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে সরকারই সম্পৃক্ত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘২৬ মার্চের পর থেকে গত কয়েক দিনে বোধ হয় কয়েক হাজার গ্রেপ্তার করে ফেলেছে এবং শুনলে অবাক হবেন আমাদের চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ঢাকায় দলের (বিএনপি) কর্মীরা রাতে বাসায় থাকতে পারে না। ব্লক রেইড করছে, কেরানীগঞ্জে ব্লক রেইড করে আমাদের নেতাকর্মীদের অ্যারেস্ট করছে। কিছু বলতে গেলেই তারা বলে যে হেফাজতের সঙ্গে সম্পৃক্ত আছে।’


মুহাম্মাদ (স.) এর জীবনের ঘটনাগুলো আমাকে আলোড়িত করে 

সকাল থেকে মার্কেট খুলেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

অনেকে মনে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ৫/৬ বছরের গ্যাপ ভালো

৪ দিনের পর আবারও ৭ দিনের রিমান্ডে রফিকুল মাদানী


সরকার ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘আরে হেফাজতের সঙ্গে সম্পৃক্ত তো আপনারা। আপনারা বসেন, প্রধানমন্ত্রীর বাসায় বসে মিটিং করে তাদের (হেফাজতে ইসলাম) সঙ্গে চুক্তি করেছেন এবং প্রধানমন্ত্রীকে কওমি মাতা হিসেবে উপাধি দেওয়া হয়েছে। আমরা হেফাজতের সঙ্গে সম্পৃক্ত হলাম না আপনারা।’

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

এক সপ্তাহের মধ্যে লকডাউনে বাড়িতে খাবার পৌঁছে না দিলে বিদ্রোহ: জাফরুল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক

এক সপ্তাহের মধ্যে লকডাউনে বাড়িতে খাবার পৌঁছে না দিলে বিদ্রোহ: জাফরুল্লাহ

এক সপ্তাহের মধ্যে লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িতে বাড়িতে খাবার পৌঁছে না দিলে, সবার চিকিৎসার ব্যবস্থা নিশ্চিত না করলে বিদ্রোহ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

করোনা মোকাবিলায় সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, এক সপ্তাহের মধ্যে লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িতে বাড়িতে খাবার পৌঁছে না দিলে, সবার চিকিৎসার ব্যবস্থা নিশ্চিত না করলে বিদ্রোহ শুরু হবে।


মুহাম্মাদ (স.) এর জীবনের ঘটনাগুলো আমাকে আলোড়িত করে

সকাল থেকে মার্কেট খুলেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা

অনেকে মনে করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ৫/৬ বছরের গ্যাপ ভালো

৪ দিনের পর আবারও ৭ দিনের রিমান্ডে রফিকুল মাদানী


বৃহস্পতিবার রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘লকডাউনে মানুষের হাহাকার বন্ধে ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছাও’ শীর্ষক নাগরিক প্রতীকী অবস্থান থেকে এ আহ্বান জানান তিনি।

খাবার না পেলে, স্বাস্থ্যসেবা না পেলে জনগণ ট্যাক্স দেওয়া বন্ধ করে দেবে। তখন দেশে অরাজকতা সৃষ্টি  হবে, বলেন জাফরুল্লাহ।

তিনি বলেন, করোনায় বাংলাদেশে নতুন করে সোয়া দুই কোটি মানুষ দরিদ্র হয়েছেন বলে খবরে এসেছে। আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাড়ে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করে জনগণের সঙ্গে মশকরা করেছেন। সমাজের ধনীদের সহায়তার হাত নিয়ে এগিয়ে আসার অনুরোধ করে তিনি বলেন, আপনারা এ দুর্যোগে এগিয়ে না এলে জাতি আপনাদের ক্ষমা করবে না।

news24bd.tv তৌহিদ

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

না ফেরার দেশে বিএনপি নেতা এন আই খান

অনলাইন ডেস্ক

না ফেরার দেশে  বিএনপি নেতা এন আই খান

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য, সাবেক আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এন আই খান মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বলে নিশ্চিত করেছেন তার ক্যালিফোর্নিয়া নিবাসী ছেলে সাদিকুল ইসলাম খান।

মৃত্যুকালে এন আই খানের বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। বার্ধ্যক্যজনিত কারণে তিনি মারা গেছেন।

বিএনপির এই নেতার বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে। সাত সন্তানের জনক এন আই খান বাংলাদেশ পেপার মার্চেন্ট এসোসিয়েশন এর সভাপতি, এফবিসিসিআই এর সদস্য, ঢাকা ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ সহ অনেক সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন।

 তাকে তার স্ত্রীর কবরের পাশে আজিমপুর কবরস্থানে বৃহস্পতিবারই দাফন করা হবে বলে সাদিকুল জানিয়েছেন।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তরা খাবার না পেলে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি হবে : ডা. জাফরুল্লাহ

অনলাইন ডেস্ক

লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তরা খাবার না পেলে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি  হবে : ডা. জাফরুল্লাহ

এক সপ্তাহের লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তরা খাবার না পেলে, স্বাস্থ্যসেবা না পেলে জনগণ ট্যাক্স দেওয়া বন্ধ করে দেবে। তখন দেশে অরাজকতা সৃষ্টি  হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘লকডাউনে মানুষের হাহাকার বন্ধে ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছাও’ শীর্ষক নাগরিক প্রতীকী অবস্থান থেকে তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন,  এক সপ্তাহের মধ্যে লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িতে বাড়িতে খাবার পৌঁছে না দিলে, সবার চিকিৎসার ব্যবস্থা নিশ্চিত না করলে বিদ্রোহ শুরু হবে। তিনি সরকারকে করোনা মোকাবিলায় সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, করোনায় বাংলাদেশে নতুন করে সোয়া দুই কোটি মানুষ দরিদ্র হয়েছেন বলে খবরে এসেছে। আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সাড়ে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করে জনগণের সঙ্গে মশকরা করেছেন।
এসময় আগামী সোমবার থেকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্যোগে ঢাকা শহরে বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনার চিকিৎসা দেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না  বলেন, সাড়ে ১০ কোটি টাকার ঘোষণায় প্রধানমন্ত্রীর লজ্জা করা উচিত। গত বছর ৫০ লাখ পরিবারকে আড়াই হাজার টাকা করে দেবার কথা ছিল। তার বেশির ভাগই প্রকৃত ভুক্তভোগীদের কাছে পৌঁছেনি।

সরকারের চলমান দমন-পীড়নের সমালোচনা করে তিনি বলেন, যারা দিনের ভোট রাতে করেন, তাদের আবার কীসের ইমোশন, কিসের মূল্যবোধ?

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন গণসংহতি আন্দোলনের সদস্য জুলহাসনাইন বাবু। আরও বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম জাহাঙ্গীর, সাদেক খান, ইশতিয়াক আজিজ উলফাত, গোলাম মাওলা চৌধুরী, নৃবিজ্ঞানী রেহনুমা আহমেদ, অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, আলোকচিত্রী শহিদুল আলম, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকী, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য রাখাল রাহা, গণফোরামের মুস্তাক আহমেদ প্রমুখ।

news24bd.tv/আলী

মন্তব্য

পরবর্তী খবর