কবরীর পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে বুঝতে আরও দু’দিন লাগবে বলছেন চিকিৎসকরা

অনলাইন ডেস্ক

কবরীর পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে বুঝতে আরও দু’দিন লাগবে বলছেন চিকিৎসকরা

ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে রাজধানীর মহাখালীর একটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন আছেন বরেণ্য অভিনয়শিল্পী ও সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরী। তবে তার শারীরিক পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে তা বুঝতে সময় লাগবে আরও দুই দিন। শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ফারুক আহমেদ এমনটিই জানিয়েছেন।

এসময় তিনি আরও জানান, ফুসফুসে সংক্রামণ ছাড়া কবরী ম্যাডামের অন্য সমস্যা নেই। তবে হাসপাতালে ভর্তির সময় তিনি যে অবস্থায় ছিলেন এখনও সে অবস্থাতেই আছেন। কিন্তু আগের চেয়ে একটু বেশি অক্সিজেন প্রয়োজন হচ্ছে।

আরও পড়ুন


ঝিনাইদহে ২৫০ শয্যা হাসপাতালের উদ্বোধন

লালমনিরহাটে আ.লীগ নেতার বোনের বাড়িতে হামলা, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

শাল্লায় হামলা-লুটপাট: আরও এক এজাহারভূক্ত আসামী গ্রেপ্তার

মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে সোনারগাঁয়ে আরও এক মামলা


অধ্যাপক ফারুক আহমেদ বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিয়ে আজ শনিবার সকালে একটি মেডিকেল বোর্ড বসেছিল। উনার ফুসফুসের সংক্রমণটাই একটু বেশি। পরিস্থিতি কোন দিকে যাচ্ছে, এটা বুঝতে আমাদের আরও দুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

এর আগে গত ৫ এপ্রিল কবরীর করোনা টেস্টের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপর আর দেরি না করে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

আমি যা করি তাই ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়: ভাবনা

অনলাইন ডেস্ক

আমি যা করি তাই ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়: ভাবনা

নানা বিষয়ে আলোচনা-সমালোচনায় থাকেন আশনা হাবীব ভাবনা ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তাকে নিয়ে বেশ চর্চা হয়। 

আপনাকে নিয়েই কেন এত চর্চা? উত্তরে এ অভিনেত্রী বলেন, নিজেও এর উত্তর জানি না। আমি যা করি তাই ভাইরাল হয়। কিছু দিন আগে কেন স্লিভলেস ব্লাউজ পরেছি এটা নিয়ে সবাই বলেছেন। যদি বোরকা পরি সেটা নিয়েও বলতে ছাড়বে না। ফেসবুকে কোনো ছবি পোস্ট করলে সেটা নিয়েও অনেকে সমালোচনা করেন।

ভালো কাজ করলেও সেটার সমালোচনা করেন কেউ কেউ। এদিকে ঈদের একটি টেলিছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন অভিনেত্রী। আগামীকাল মাসুদ সেজানের ‘প্রেমিকা আবশ্যক’ শিরোনামের এ টেলিছবির শুটিং শেষ করবেন তিনি। এরপর ঈদের আগে আর কোনো শুটিং করবেন না। 

এর আগে ঈদের জন্য অনিমেষ আইচের ‘আলিবাবা চালিচার’ শিরোনামের একটি ওয়েব ফিল্মের কাজ শেষ করেছেন তিনি। করোনা ও লকডাউনের এই সময়ে শুটিং অনেকটা ঝুঁকিপূর্ণ। কোন বিষয়টি ভেবে এই সময়ে ভাবনা শুটিং করছেন?

তার ভাষ্য, আমি প্রতিদিন শুটিং করিনি। মাত্র দুটি কাজ করেছি। চেষ্টা করেছি সব মেনে শুটিং করতে। যে দুটি কাজ করেছি দুটির টিম সব ধরনের সুরক্ষা বজায় রেখে কাজ করেছেন। ঈদের সময় কম-বেশি সবার কেনাকাটার আগ্রহ থাকে। কিন্তু করোনায় এবার পরিস্থিতি প্রতিকূলে। 

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর

আমি ৭৪ সন্তানের গর্বিত মা: ঋতাভরী চক্রবর্তী

অনলাইন ডেস্ক

আমি ৭৪ সন্তানের গর্বিত মা: ঋতাভরী চক্রবর্তী

আন্তর্জাতিক মাতৃদিবসে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্ট করলেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে ভারতীয় এই অভিনেত্রী লেখেন, '৭৪ জন শিশুর গর্বিত মা আমি'।

ঋতাভরী ও তার মা শতরূপা সান্যাল ' একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চালান। তার সঙ্গে সল্টলেকের 'আইডিয়াল স্কুল ফর দ্য ডেফ' নামে একটি স্কুলের সঙ্গে অনেকদিনের সম্পর্ক তার।

এই স্কুলে যেসব শিশুরা আছেন, তারা বিশেষভাবে সক্ষম। তাদের নিয়ে সারা বছর নানা কাজ করে থাকেন ঋতাভরী। ৭৪ জন বিশেষভাবে সক্ষম এই ছাত্র-ছাত্রীর যাবতীয় দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন পশ্চিমবাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

এই ছাত্রছাত্রীদের জন্য লাইব্রেরির ব্যবস্থা করেছেন, বড়দিনে সান্তা ক্লজ সেজে উপহার দিয়েছেন। নানাভাবে যুক্ত থেকেছেন বিশেষভাবে সক্ষম এই ৭৪ জন শিশুর সঙ্গে। করোনার পরিস্থিতিতে প্রায় এক বছর এদের সঙ্গে দেখা করতে পারেন নি। পুরনো একটা ভিডিও শেয়ার করে মনখারাপের কথা জানিয়েছেন তিনি।


আরও পড়ুনঃ


বিক্ষোভে বাড়ল ঈদের ছুটি

ফ্রান্সের ইকুইহেন বিচ: উল্টানো নৌকার নিচে বসবাস

ইফতারি না পাঠানোয় বউ-শ্বশুরকে খাটের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

ভারতে শ্মশান থেকে মৃতদের কাপড় চুরি, আটক ৭


এদিকে ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের সাথে অনলাইন আলাপে এই অভিনেত্রী জানিয়েছেন, এই বছরের বিয়ে করতে পারেন তিনি। এক ভক্তের প্রশ্নের জবাবে তেমন ইঙ্গিতই দেন ঋতাভরী।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

মা হওয়া বাধ্যতামূলক নয়, ভেবে সিদ্ধান্ত নেবেন: মিথিলা

অনলাইন ডেস্ক

মা হওয়া বাধ্যতামূলক নয়, ভেবে সিদ্ধান্ত নেবেন: মিথিলা

আজ বিশ্ব মা দিবস। সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে অনেকই মা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তবে দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা একটি ভিডিও বার্তায় অন্যদের চেয়ে খানিকটা ভিন্ন কথা বলেছেন।

মিথিলা বলেন, ‘মা হওয়া বাধ্যতামূলক নয়। একজন নারী নিজে সিদ্ধান্ত নেবেন, তিনি আদৌ মা হতে চান কি না। কারো ওপর সেটা চাপিয়ে দেয়া উচিত নয়। একজন মায়ের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন না তুলে তার দায়িত্ব ভাগ করে নেওয়া উচিত। একই সঙ্গে মাতৃত্বকে উচ্চ স্থানে বসিয়ে মায়েদের উপরে মানসিক চাপ দেওয়াও ঠিক নয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘মায়েদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া দরকার। মানসিক ও শারীরিক সহায়তার প্রয়োজন তাদের। আর এ দায়িত্ব নেয়া উচিত বাবাদের। শুধু তাই নয়, সমাজের কাছ থেকেও ভরসা দরকার মায়েদের। তাদের সুখে রাখতে হবে। তাহলেই পরবর্তী প্রজন্মকে তারা সেই অনুভূতির দিকে ঠেলে দিতে পারবেন। সন্তানদের মধ্যে দায়িত্ববোধ, মূল্যবোধ, সহানুভূতির বীজ বপন হবে এভাবেই।

প্রসঙ্গত, অনন্য মামুন পরিচালিত 'অমানুষ' সিনেমার মাধ্যমে বড় পর্দায় পা রেখেছেন মিথিলা। এতে তার সঙ্গী হয়েছেন চিত্রনায়ক নিরব। সম্প্রতি সিনেমাটির 'ফার্স্ট লুক' প্রকাশিত হয়েছে। এতে বেশ রহস্য জমাট বেঁধেছে। সেই রহস্যের জট খুললেই আসল অমানুষের পরিচয় সামনে আসবে।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর

আসছে নতুন ‘যমজ’

অনলাইন ডেস্ক

আসছে নতুন ‘যমজ’

দর্শকপ্রিয় নাটকগুলোর একটি ‘যমজ’। নাটকটিতে একাই তিনটি চরিত্রে অভিনয় করেছেননন্দিত অভিনেতা মোশাররফ করিম। জনপ্রিয়তা বিবেচনা করে একে একে নির্মিত হয়েছে ১৩টি সিক্যুয়েল। কিন্তু করোনার কারণে গত ঈদে নাটকটির কোন সিক্যুয়েল নির্মিত হয়নি। তবে এবারের ঈদে থাকছে ‘যমজ ১৪’। আগের নাটকগুলোতে তিন চরিত্রে দেখা গেলেও এবারের পর্বে চারটি চরিত্রে পর্দায় হাজির হবেন এই অভিনেতা।

‘যমজ ১৪’ রচনা করেছেন অভিনেতা-নির্মাতা কচি খন্দকার। এতে অভিনয়ও করছেন তিনি। বরাবরের মতো এবারও নাটকটি নির্মাণ করছেন আজাদ কালাম। 

‘যমজ ১৪’ নাটকে যুক্ত হয়েছেন অভিনেত্রী সারিকা। এতে তাকে জবা চরিত্রে দেখা যাবে। 

ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৮টা ৩০ মিনিটে আরটিভিতে দেখা যাবে নাটকটি।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এবার ঈদে প্রীতমের কন্ঠে "গুপ্তচর মন"

অনলাইন ডেস্ক

এবার ঈদে প্রীতমের কন্ঠে

প্রীতমের লেখা ও সুর করা সব গানের একটা আর্কাইভ করবে। প্রতিটি গীতিকবি, সুরস্রষ্টা ও তাদের পরিবারের একটা বড় দায়িত্ব। সৃষ্টিশীল মানুষের প্রতি এই যত্নটুকু নেই বলেই " সর্বত মঙ্গল রাঁধে" বা "আইলারে নয়া দামান" এর মত গানের মূল মালিক কে সেটা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। 

তিনি বলেন, আমার বিগত ২১ বছরের সংগীত জীবনে অন্যতম একটি গান "গুপ্তচর মন"। এই গানটি এখন " আমার দুঃখ সারি সারি" হিসেবেই বেশি জনপ্রিয়। গানটি ২০০৩ সালে গেয়েছিলেন গায়ক আসিফ আকবর, আর অডিও, সিডি, ভিসিডি প্রকাশ করেছিলেন সাউন্ডটেক। 
 
তিনি আরও বলেন, গানটি প্রকাশের পর ডিজিটাল মাধ্যমে অনেক যায়গাতেই গীতিকার হিসেবে আমার নাম নেই। অনেক যায়গায় অন্য গীতিকার, সুরকারের নাম লেখা রয়েছে। আমি আশা করি করি গানটি নতুন ভাবে প্রকাশিত হলে এই সংশয় দুর হবে। 

উল্লেখ্য, প্রথম গানটি প্রকাশের ক্ষেত্রে সাউন্ডটেক এর অর্থ বিনিয়োগ ছিল। গানটির জন্য মৌখিক চুক্তি হলেও আমার সাথে সাউন্ডটেক বা কোন শিল্পীর কোন লিখিত চুক্তি হয়নি। তবুও ওই গানটির সাউন্ডটেক এর ব্যানারে অডিও সিডি, ভিসিডি, মাধ্যমে প্রচার বা বিক্রির ক্ষেত্রে আমার কোন আপত্তি নেই।

তবে ডিজিটাল মাধ্যমে প্রচারের জন্য বা অন্য কোন শিল্পীকে দিয়ে নতুন করে গাওয়ানোর জন্য সাঊন্ডটেক চাইলে আমার সাথে নতুন চুক্তি করে নিতে পারেন।

যারা আমার কন্ঠে গানটি শুনতে চাইতেন তারা এবার ঈদে Spotify, Apple music, Amazon সহ প্রায় ১৫০টি ডিজিটাল মাধ্যমে প্রকাশ করা হচ্ছে। 

আপনারা এই অ্যাপ গুলোতে গিয়ে Pritom Ahmed লিখে সার্চ করলেই শুনতে পারবেন। লেখাটির শেষে Spotify ও Apple Music এর লিঙ্ক দেয়া হোল।  

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর