ফলের দোকানে শিশুকে বলাৎকার, ৩ যুবক কারাগারে

আকবর হোসেন সোহাগ, নোয়াখালী

ফলের দোকানে শিশুকে বলাৎকার, ৩ যুবক কারাগারে

নোয়াখালীর চাটখিলে ফল দোকানে এক শিশু শ্রমিককে (১৩) বলাৎকারের অভিযোগে তিন যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার (১০ এপ্রিল) দুপুর ৩টার দিকে আটক আসামিদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তাররা হলো, লক্ষ্মীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ উপজেলার মো. জামালের ছেলে মো.রাব্বি (১৯), সদর উপজেলার ১৯নং চরমটুয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মো.আবদুল্লার ছেলে মো. দিদার হোসেন (২৮), লক্ষ্মীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ উপজেলার মো.ইব্রাহীমের ছেলে মো.সুমন (২৬)।

এর আগে, মৌখিকভাবে অভিযোগ পেয়ে শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে পুলিশ উপজেলার চাটখিল বাজারে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ৩ আসামিকে আটক করে। এ ঘটনায় নির্যাতিত শিশুর বাবা বাদী হয়ে শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে চাটখিল থানায় মামলা দায়ের করেন।

চাটখিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

চাটখিল থানা পুলিশ সূত্র জানায়, শিশুটি চাটখিল বাজারে একটি ফলের দোকানে চাকরি করত। একই দোকানের ৩ শ্রমিক দ্বারা দোকানে শিশুটি বালৎকারের শিকার হয়। আসামিরা চাটখিলে ভাড়া বাসায় থেকে চাকরি করত।

মামলার এজহার সূত্রে জানাযায়, গ্রেপ্তার আসামিরা দীর্ঘদিন থেকে বেশ কয়েকবার শিশুটিকে বলাৎকার করে আসছে। এ ঘটনা কাউকে না জানাতে শিশুটিকে হুমকিও দেওয়া হয়।


দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সর্বোচ্চ মৃত্যু

মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে সোনারগাঁয়ে আরও এক মামলা

মুন্সীগঞ্জে বিস্ফোরণ: চিকিৎসাধীন মেয়রের স্ত্রীর মৃত্যু

করোনা কাউকে করে না করুণা: ওবায়দুল কাদের


ওসি আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় নির্যাতিত শিশুর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে এ বিষয়ে পুলিশকে মৌখিকভাবে অভিযোগ দিলে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিন যুবককে আটক করে কারাগারে পাঠানো হয়।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

৩ হাজার যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট ছাড়লো ফেরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩ হাজার যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট ছাড়লো ফেরি

তিন হাজার যাত্রী এবং দুইটি অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে শিমুলিয়া ঘাট ছাড়লো ফেরি যমুনা। সোমবার (১০ মে) সকাল ১০টার দিকে ২ নং ঘাট ছেড়ে যায় ফেরিটি।

শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) ফয়সাল আহম্মেদ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, রাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ ছিলো। তবে অরিরিক্ত যাত্রীর চাপে সকাল ১০টার দিকে দুইটি অ্যাম্বুলেন্স ও ৩ হাজার যাত্রী নিয়ে ফেরি যমুনা বাংলাবান্ধা ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে।

এ নিয়ে এ পর্যন্ত শিমুলিয়া থেকে আজ দুটি ফেরি ছেড়ে গেল। এর আগে সকাল সাড়ে ৬টার দিকে একই ঘাট থেকে আরেকটি ডাম্প ফেরি ছেড়ে যায়।

আজ ভোর থেকেই দক্ষিণবঙ্গগামী মানুষের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেই ভিড় বাড়তে থাকে।


পাটুরিয়া ফেরিঘাটে আজও ঘরমুখী মানুষের ঢল

শিমুলিয়া ঘাটে জনস্রোত, ফেরির অপেক্ষায় হাজারো মানুষ

মমতার মন্ত্রিসভায় শপথ নেবেন ৪৩ জন, নাম আছে ৬ মুসলিমের

সোনাহাট স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি ৬ দিন বন্ধ


গণপরিবহণ বন্ধ, রাস্তায় বিজিবি ও পুলিশের টহল থাকার পরও হাজার হাজার মানুষ বিভিন্নভাবে ঘাটে আসছে। ঘাট এলাকায় রীতিমতো তিল ধারণের ঠাঁই নেই। গত কয়েকদিন শুধু তিন নম্বর ফেরি ঘাট এলাকায় ভিড় থাকলেও আজ সবগুলো ফেরি ঘাটে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে।

শিমুলিয়া ফেরি ঘাটে দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (টিআই) হিলাল উদ্দিন বলেন, ‘বিপুল যাত্রীর চাপে কোনো পরিকল্পনাই ঠিক রাখা যাচ্ছে না। কোনোভাবে ঠেকানো যাচ্ছে না জনস্রোত।’

# শিমুলিয়া ঘাটে জনস্রোত, ফেরির অপেক্ষায় হাজারো মানুষ

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

পাটুরিয়া ফেরিঘাটে আজও ঘরমুখী মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক

পাটুরিয়া ফেরিঘাটে আজও ঘরমুখী মানুষের ঢল

ঘরমুখো মানুষের উপচেপড়া ভিড় এখন মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাটে। আজ ভোরের আলো ফুটতেই মানুষের ঢল নেমেছে। ঠাসাঠাসি করে ফেরিতে পার হচ্ছে মানুষ।

সকাল সোয়া ৮টার দিকে দুটি অ্যাম্বুলেন্স, কয়েকটি ছোট গাড়ি এবং যাত্রী নিয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে।

সকাল পৌনে নয়টার দিকে শাপলা শালুক নামে যাত্রী বোঝাই করে অনুরূপভাবে আরও একটি ফেরি ছেড়ে যায়। দৌলতদিয়া থেকেও দুটি ফেরি পাটুরিয়া ঘাটে আসতে দেখা গেছে।


ঈদের রাতের ফজিলত

মমতার মন্ত্রিসভায় শপথ নেবেন ৪৩ জন, নাম আছে ৬ মুসলিমের

সোনাহাট স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি ৬ দিন বন্ধ

জিহাদী বইসহ উল্লাপাড়া জামায়াতের আমির গ্রেপ্তার


শিবালয় থানার ওসি মোহাম্মদ ফিরোজ কবীর বলেন, ফেরি চলাচল বন্ধ থাকলেও নির্দেশনা অনুযায়ী মরদেহ ও রোগী বহনকারী গাড়ি পার করা হচ্ছে। পাশাপাশি যাত্রী ও ছোটগাড়িও পার হচ্ছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

শিমুলিয়া ঘাটে জনস্রোত, ফেরির অপেক্ষায় হাজারো মানুষ

অনলাইন ডেস্ক

শিমুলিয়া ঘাটে জনস্রোত, ফেরির অপেক্ষায় হাজারো মানুষ

দক্ষিণবঙ্গগামী মানুষের উপচে পড়া ভিড় মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে। আজ সোমবার ভোর থেকেই ঘাটে বাড়তে থাকে শিকড়ের টানে বাড়ি ফিরতে থাকা মানুষের ঢল। করোনাকালীন সময়ে এই জনস্রোত ঠেকাতে প্রশাসনের কোন পদক্ষেপই কাজে লাগছে না।

ঘাট এলাকায় রীতিমতো তিল ধারণের ঠাঁই নেই। গণপরিবহণ বন্ধ, রাস্তায় বিজিবি ও পুলিশের টহল থাকার পরও হাজার হাজার মানুষ বিভিন্নভাবে ঘাটে আসছে।

গত কয়েকদিন শুধু তিন নম্বর ফেরি ঘাট এলাকায় ভিড় থাকলেও আজ সবগুলো ফেরি ঘাটে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ করা গেছে।

সোমবার সকাল ৬টার পর কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স এবং কয়েক হাজার যাত্রী নিয়ে একটি ফেরি বাংলাবাজার ঘাটের উদ্দেশে শিমুলিয়া ছেড়ে গেছে। ঘাট এলাকায় এখনও কয়েক হাজার যাত্রী অপেক্ষামান।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহণ করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মোহাম্মদ ফয়সাল বলেন, ‘সকালে যাত্রীদের চাপ বাড়ে শিমুলিয়া ঘাটে। সকাল ৬টার কিছু পরে কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স এবং কয়েক হাজার যাত্রী নিয়ে একটি ড্যাম ফেরি বাংলাবাজার ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। ঘাট এলাকায় এখনও কয়েক হাজার যাত্রী অপেক্ষামান।’


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়াঘাট ছাড়লো ফেরি

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক

করোনা ঠেকাতে বিজেপি নেতার গোমূত্র পান, দিলেন পরামর্শও (ভিডিও)


এছাড়া ঘাট এলাকায় অপেক্ষমান রয়েছে কয়েকশ’ যানবাহন। যাদের ব্যক্তিগত গাড়ি রয়েছে তাদের অনেকেই যমুনা সেতু পাড়ি দিয়ে দক্ষিণবঙ্গের দিকে যাত্রা করছেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ইফতারি না পাঠানোয় বউ-শ্বশুরকে খাটের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইফতারি না পাঠানোয় বউ-শ্বশুরকে খাটের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

শ্বশুরবাড়ি থেকে ইফতারি না পাঠানোয় বউ ও শ্বশুরকে খাটের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে মামুন মিয়া (২৬) নামের এক জামাই ও তার পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে। সিলেট ওসমানীনগর উপজেলার সাদিপুর ইউপির চরসম্মানপুর গ্রামে গতকাল সকালে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নির্যাতিত গৃহবধূর বাবা উপজেলার সাদিপুর ইউপির দক্ষিণ কালনিচর গ্রামের মৃত কুটি মিয়ার ছেলে বৃদ্ধ আব্দুস সহিদ (৬০) বাদী হয়ে ওসমানীনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

গৃহবধূর বাবার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওসমানীনগর উপজেলার সাদিপুর ইউপির চরসম্মানপুর গ্রামের আমির আলীর ছেলে মামুন মিয়ার সঙ্গে প্রায় এক বছর আগে একই ইউপির দক্ষিণ কালনিচর গ্রামের আব্দুস সহিদের মেয়ে জায়দা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী মামুনসহ তার পরিবারের লোকজন গৃহবধূ জায়দাকে নির্যাতন করে আসছেন। এ বিষয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকে মীমাংসা হয়।

পরে রোববার (৯ মে) সকাল ৯টার দিকে শ্বশুরবাড়ির ইফতারি ও জামাকাপড় না আসায় গৃহবধূ জায়দাকে তার স্বামী মামুনসহ পরিবারের লোকজন রশি দিয়ে খাটের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতন করে।

বিষয়টি ভুক্তভোগীর বাবা আবদুস সহিদ জানতে পেরে মেয়ের বাড়ি চরসম্মানপুর যান। সেখানে আব্দুস সহিদকে বিভিন্ন ভাষায় গালমন্দ করে আব্দুস সহিদকেও চড়থাপ্পড় মারেন জামাই মামুন মিয়ার বাবা আমির আলী। এ সময় সেখান থেকে পালিয়ে এসে জায়দার বাবা আব্দুস সহিদ মেয়েকে উদ্ধারসহ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের জন্য ওসমানীনগর থানায় রোববার বিকেলে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

গৃহবধূ জায়দার ভাই আব্দুল তাহিদ বলেন, ‘আমার বোনকে তার স্বামী মামুনসহ তাদের পরিবারের লোকজন ইফতারির জন্য রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করেছে। খবর শুনে আমার পিতা বোনের বাড়িতে গেলে আমার বাবাকেও তারা মারপিট করে। এ ঘটনার আমি সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।’

সদিপুর ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য স্বপন মিয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, তার ওয়ার্ডের চরসম্মানপুর গ্রামের স্বামী ও তার পরিবার কর্তৃক ইফতারির জন্য গৃহবধূকে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে বলে জানতে পারেন।


ঈদের রাতের ফজিলত

মমতার মন্ত্রিসভায় শপথ নেবেন ৪৩ জন, নাম আছে ৬ মুসলিমের

সোনাহাট স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি ৬ দিন বন্ধ

জিহাদী বইসহ উল্লাপাড়া জামায়াতের আমির গ্রেপ্তার


ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক ইফতারির জন্য গৃহবধূ নির্যাতনের ঘটনার একটি লিখিত অভিযোগ গ্রহণের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনাটি তদন্তের জন্য একজন এসআইকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সত্যতা পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

জিহাদী বইসহ উল্লাপাড়া জামায়াতের আমির গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক

জিহাদী বইসহ উল্লাপাড়া জামায়াতের আমির গ্রেপ্তার

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া জামায়াতের আমির শাহজাহান আলী জিহাদীকে (৫৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রাত সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার বোয়ালিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার শাহজাহান আলী জিহাদী উল্লাপাড়া পৌর এলাকায় ঘোষগাঁতী মহল্লার বাসিন্দা।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসি দীপক কুমার দাশ জানান, রোববার উপজেলার বেশ কয়েকটি গ্রামে গোপন বৈঠকে অংশ নেন শাহজাহান আলী। সবশেষ গভীর রাতে উলিপুর এলাকায় বৈঠক শেষে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। খবর পেয়ে বোয়ালিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়েছে।


ঈদের রাতের ফজিলত

মমতার মন্ত্রিসভায় শপথ নেবেন ৪৩ জন, নাম আছে ৬ মুসলিমের

সোনাহাট স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি ৬ দিন বন্ধ

১০ মে, ইতিহাসের এই দিনে


তিনি বলেন, শাহজাহান আলীর বিরুদ্ধে নাশকতা ও সরকারি কাজে বাধাদানের অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর