বিশুদ্ধ পানির অভাব

শরণখোলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ, শতাধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বাগেরহাট প্রতিনিধি:

শরণখোলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ, শতাধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বঙ্গোপসার উপকূলে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় চারিদিকে অথৈই পানি থাকলেও বিশুদ্ধ পানির অভাবে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ। গত ১ এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে শরণখোলা হাসপাতালে শতাধিক রোগী ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে শনিবার দুপুর পর্যন্ত শিশুসহ ৬২ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। বাকিরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে, আক্রান্ত’র সংখ্যা প্রতিদিন বেড়েই চলেছে। 

এই হাসপাতালটিতে ডাইরিয়া ইউনিটে শয্যা সংখ্যা কম থাকায় রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে মেঝেতে রেখে। হাসপাতালে ভর্তির চেয়ে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেশী। অনেকে হাসপাতালে বেড না পেয়ে বাড়িতে থেকে পল্লী চিকিৎসকদের কাছ থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে হঠাৎ করে রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। 

হাসপাতালের চিকিৎসক ও স্থানীয়রা জানান, সুন্দরবন সংলগ্ন উপজেলা শরণখোলায় নেই একটিও গভীর নলকূপ।  যার কারনে নদী ও পুকুরের পানি পান করে তৃষ্ণা মেটাতে হয় এখানকার মানুষদের। আর এজন্যই পানিবাহিত ডায়রিয়া প্রকোপ বেড়েছে। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মধ্যে অধিকাংশই উপজেলা সদরের রায়েন্দা বাজার, কদমতলা, ঝিলবুনিয়া, পূর্ব খাদা, আমরাগাছিয়া,রাজাপুর ও খোন্তাকাটা এলাকার। এসব এলাকায় বর্তমানে তীব্র বিশুদ্ধ পানির সংকট চলছে। প্রায় ২ লাখ লোকের জন্য সরকারী ৫০ শয্যা শরণখোলা হাসপাতালে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে বেডের সংখ্যা ১০টি। 

আরও পড়ুন


ইতিহাসের সত্য না বলা অপরাধ: মির্জা ফখরুল

দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সর্বোচ্চ মৃত্যু

মাওলানা মামুনুলের বিরুদ্ধে সোনারগাঁয়ে আরও এক মামলা


গত ১০ দিনে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে শুধু হাসপাতালে শতাধিক রোগী ভর্তি হলেও বর্তমানে চিকিৎসাধিন আছে ৬২ জন। হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা কম থাকায় অন্যান্য রোগী নিয়ে প্রায় তিনশত রোগী ভর্তি রয়েছে। যার মধ্যে অনেক রোগীর থাকতে হচ্ছে হাসপাতালের মেঝেতে। এর ফলে বিছানাসহ প্রয়োজনীয় জিনিপত্রের আভাবে নানা দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে রোগী ও তাদের স্বজনদের। গত এক সপ্তাহ ধরে প্রতিদিনই হাসপাতালে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। 

রায়েন্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন জানান, পানি সংকট সমাধানে কিছু পুকুর খনন ও পন্ড স্যান্ড ফিল্টার (পিএসএফ) স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তবে উপকূলীয় এই এলাকার বিশুদ্ধ পানির সমাধানের জন্য টেকসই উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান তিনি।
শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদা ইয়াছমিন জানান, শরণখোলা এমনিতেই লবনাক্ত এলাকা। 

এর মধ্যে চৈত্র-বৈশাখ মাসে পুকুরগুলোর পানি তলানিতে নেমে যায়। যে কারণে বাধ্য হয়ে মানুষ ওই দুষিত পানি পান করছে। ডায়রিয়া যেহেতু পানিবাহিত একটি রোগ, তাই এলাকার মানুষ বিশুদ্ধ পানি না পাওয়ায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে গেছে। হাসপাতালে ডাইরিয়া রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। 

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরদার মোস্তফা শাহিন জানান, বিশুদ্ধ পানির সংকট সমাধানে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া ডায়রিয়ায় আক্রান্তদের চিকিৎসা ও প্রকোপ বৃদ্ধি পেতে না পারে সে ব্যপারে পদক্ষেপ নেয়া চচ্ছে বলে তিনি জানান।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

নরসিংদীতে অসহায় দিনমুজুরদের মাঝে খাবার বিতরণ

মো. হৃদয় খান, নরসিংদী:

নরসিংদীতে অসহায় দিনমুজুরদের মাঝে খাবার বিতরণ
বিশ্ব মহামারী করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকার লকডাউন ঘোষণার ফলে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় দিনমুজুরদের মাঝে খাবার বিতরণ করেছে নরসিংদী সদর থানা ছাত্রলীগ।
 
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্যরে নির্দেশে নরসিংদী সদর থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সারোয়ার শোয়েব ব্যক্তিগত ব্যবস্থাপনায় এই খাবার বিতরণ করেন।
 
আজ বিকেলে সদর উপজেলার শেখেরচর বাবুরহাটে ৬০০ অসহায় দিনমুজুর ও ভ্যানচালকদের খাবার বিতরণ করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
 
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, মাধবদী শহর ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রানা, শিলমান্দি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিন আলম, নরসিংদী তাঁতবোর্ড ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কৌশিক, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক খোরশেদ আলম, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদসহ সদর থানা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
 
সদর থানা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সারোয়ার শোয়েব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অতন্ত্র প্রহরী হিসেবে অসহায় মানুষের পাশে আছে এবং থাকবে। তারই ধারাবাহিকতায় এই খাবার বিতরণ কার্যক্রম অব্যহত থাকবে।
 
news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

সাতক্ষীরায় ভাসমান যুবকের মরদেহ উদ্ধার

শাকিলা ইসলাম জুই, সাতক্ষীরা:

সাতক্ষীরায় ভাসমান যুবকের মরদেহ উদ্ধার

নিখোঁজের নয় ঘন্টা পর সাতক্ষীরা শহরতলির বকচরায় একটি মৎস্য ঘের থেকে আলমগীর হোসেন (২২) নামের এক যুবকের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

শুক্রবার সকালে লাশটি দেখতে পেয়ে ঘের মালিক আফসার আলী পুলিশে খবর দেয়। নিহত যুবকের গলায় বিদ্যুৎ এর তারের ফাঁস লাগানো ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। আলমগীর সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পশ্চিম বকচরা গ্রামের বাসিন্দা নজরুল ইসলামের ছেলে। 

সদর থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন নিহত যুবকের মা সুফিয়া খাতুনের বরাত দিয়ে জানান, আলমগীর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চা খাবার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এরপর থেকে সে নিখোঁজ ছিল। 

তিরি আরও জানান, ভোরে তার লাশ দেখতে পেয়ে ঘেরমালিক পুলিশে খবর দেয়। একটি পরকীয়ার জেরে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। লাশটি সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

নাটোরে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার

নাটোরের একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে ওহাব আলী মিয়াজী (৭০) নামে এক বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলার আগদিঘা কাঁটাখালি গ্রামের একটি ভুট্টার ক্ষেত থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ওহাব আলী মিয়াজী একই এলাকার মৃত কেরামত আলী মিয়াজীর ছেলে।

নাটোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল মতিন ও নিহতের পরিবারের সদস্য জানান, প্রতিদিনের মত গতকাল বৃহস্পতিবারও সকাল ১০ টার দিকে ওহাব আলী মিয়াজী বাড়ি থেকে বের হয় তার জমির ফসল দেখতে। কিন্তু সে আর সন্ধ্যায় ফিরে আসেনা। 

এরপর পরিবারের লোকজন তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি শুরু করেন। অনেক খোঁজাখুজির পরও তার সন্ধ্যান পাওয়া যায় না। রাতেই তার সন্ধ্যান চেয়ে এলাকায় মাইকিং করে পরিবারের সদস্যরা। 

আজ বেলা ১১টার দিকে নিহতের ছোট ছেলের বৌ জমির দিকে গেলে সেখানে একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দেয়। এ সময় আশেপাশের জমিতে কাজ করা কৃষকরা এগিয়ে এসে মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করেন। 

প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধাণিা জমি থেকে ফিরে আসার পথে অসুস্থতাজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। নিহতের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

ভারত ফেরত ১০ ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি

অনলাইন ডেস্ক

ভারত ফেরত ১০ ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ভারত ফেরত ১০ ব্যক্তিকে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে তাঁদের হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। তাঁদের মধ্যে তিনজনের করোনা উপসর্গ রয়েছে।       

যশোরের বেনাপোল হয়ে গত বুধবার তারা বাংলাদেশে আসেন। তাদের প্রথমে যশোর বক্ষব্যাধি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হয়।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক শীলাব্রত বড়ুয়া জানান, ভারত ফেরত ১০ ব্যক্তিদের সাতজনকে কর্তব্যরত চিকিৎসক ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের কেবিনে এবং বাকি তিনজনের শারীরিক অসুস্থতা থাকায় ১৬ নম্বর মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করেছেন।

ওই ব্যক্তিরা ভারতে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন। এখন ভারতে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সবার মেডিকেল পরীক্ষা ও কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

যশোরে কমিউনিটি পুলিশের খাদ্য সহায়তা প্রদান

যশোর প্রতিনিধি:

যশোরে কমিউনিটি পুলিশের খাদ্য সহায়তা প্রদান

যশোরে দুস্থদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টায় কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম যশোরের উদ্যোগে কোতোয়ালী মডেল থানা চত্ত্বরে এ খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। 

কোতোয়ালী থানার ওসি মো. তাজুল ইসলাম দুইশতাধিক দুস্থ ও গরীবদের হাতে খাদ্য সহায়তা তুলে দেন। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল সেমাই, চিনি, তেল, দুধ ও আটা।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি হারুন-অর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চৌধুরীসহ পুলিশ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর