‘উই’ এর উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার উন্মুক্ত: প্রতিমন্ত্রী পলক

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘উই’ এর উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার উন্মুক্ত: প্রতিমন্ত্রী পলক

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেছেন, উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরাম (উই) এর উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারের দ্বার সব সময় উন্মুক্ত থাকবে। উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ফোরামের (উই) আয়োজনে বায়ার সেলার মিটের সমাপনী দিন শনিবার বিকেলে এ কথা বলেন তিনি।

সমাপনী এই আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এমপি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, "উই এর বিএসএম এর মত উদ্যোগগুলোর প্রাতিষ্ঠানিক রুপ আসবে ভবিষ্যতে, উই এর সদস্যদের জন্য টেকনোলজি, ট্রেনিং, ট্রেড লাইসেন্স, ট্রান্সেকশন এবং সবাইকে এক করে কাজ করাটা ভীষণভাবে জরুরী।"

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের শেখ রাসেল ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবের বিকাল চারটা থেকে ছয়টা পর্যন্ত যাতে ব্যবহার করতে পারে ‘উই’ সদস্যরা সেটা নিয়ে কাজ চলছে। দেশের ৫৫০ টি ডিজিটাল সার্ভিস এম্পলয়মেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টার হতে যাচ্ছে যার মাধ্যমে উই উদ্যোক্তারা কাজ সহজে করতে পারবেন। ৬৪ টি জেলায় আইটি ইনকিউবেশন সেন্টার, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার,  একশপ /একপে এর মাধ্যমে উই এর সদস্যরা ব্যবসায় করতে পারবেন।

আরও পড়ুন


যাদু দেখাতে পারেননি মেসি, শেষ হাসি হাসলো রিয়াল

বরেণ্য রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী মিতা হক আর নেই

ভূমিকম্পে ইন্দোনেশিয়ায় শতাধিক ভবন ধস, নিহত ৮

ইউক্রেন সীমান্তে ‘ইস্কান্দার’ ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে রাশিয়া


জুনায়েদ আহমেদ পলক এসময় উইয়ের মাধ্যমে লজিস্টিকস সেবা চালুর ঘোষণা ও সহজতর করার সম্পর্কে জানান। তিনি জানান, উই এর মাধ্যমে ২০০০ উদ্যোক্তাকে অনুদান দেয়া হচ্ছে ৫০ হাজার টাকা করে। আমি উই এর থেকে ১০০ জনের তালিকা নিবো যাদের ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত মাত্র ৪% সুদে বিশেষ বিনিয়োগ করবে আইটি ডিভিশন।

এসব ঘোষণায় উচ্ছসিত উই প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা জানান,  "আমরা কৃতজ্ঞ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের জন্য এতগুলা সুযোগ সৃষ্টি করাতে। প্রতিমন্ত্রী অভিভাবক হিসেবে যেভাবে উইকে সাপোর্ট করে যাচ্ছেন প্রথম থেকে এটা আমাদের জন্য বড় আনন্দের এক খবর। আমি ভীষণ আনন্দিত। ভবিষ্যতেও বিএসএম এর মত আয়োজন করবো প্রতিনিয়ত।"

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উই এর গ্লোবাল এডভাইজর ও সিল্কক গ্লোবাল এর সিইও সৌম্য বসু, উই এর উপদেষ্টা জাহানুর কবির সাকিব, উই এর ডিরেক্টর শেখ লিমা।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা বহাল

অনলাইন ডেস্ক

ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা বহাল

সহিংসতায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে বিগত মার্কিন নির্বাচনের সময় যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের ওপর যে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল আজ বুধবার ফেসবুকের ওভারসাইট বোর্ড সেই নিষেধাজ্ঞা বহাল করেছে। 

সাময়িকভাবে তার অ্যাকাউন্ট বন্ধ রেখে তা আবার চালু করা হবে কি না তা মূল্যায়ন করার জন্যই ফেসবুকের ওভারসাইট বোর্ড আজ বৈঠকে বসেছিল। সেই বৈঠক থেকে তারা ট্রাম্পের ওপর ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা বহালের সিদ্ধান্ত দিয়েছে। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, মার্কিন কংগ্রেস ভবনে সহিংসতার পরের দিন থেকে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ফেসবুকে নিষিদ্ধ করা ন্যায়সঙ্গত, তবে এই নিষেধাজ্ঞার কার্যকরতা কত দিন থাকবে তা পুনর্বিবেচনা করা দরকার বলে জানিয়েছে ‘ওভারসাইট বোর্ড’ বা তদারকি বোর্ড ।

এর আগে, গত ৭ জানুয়ারি ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রাম ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট ব্যান করে। এ বিষয়ে নিজেদের অবস্থানও পরিষ্কার করে ফেসবুক। তারা বলেন, ‘আমাদের বিশ্বাস এ সিদ্ধান্ত ছিল প্রয়োজনীয় এবং যথার্থ। এখন বোর্ডের সিদ্ধান্তটা জানা গুরুত্বপূর্ণ। বোর্ডের সিদ্ধান্ত আসার আগ পর্যন্ত তার আইডি ব্যান থাকবে।

রয়টার্স জানায়, ওভারসাইট বোর্ড কী সিদ্ধান্ত দেয় তা দেখার অপেক্ষায় ছিলেন অনেকেই, কারণ ভবিষ্যতে রাষ্ট্রনেতারা নিয়ম ভাঙলে ফেসবুক কেমন পদক্ষেপ নেবে, বোর্ডের সিদ্ধান্তেই তার ইঙ্গিত মিলবে। 

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

ঈদের সালামি নিয়ে বিকাশের ভিন্ন আয়োজন

অনলাইন ডেস্ক

ঈদের সালামি নিয়ে বিকাশের ভিন্ন আয়োজন

মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ উপলক্ষে সালামির প্রচলন সেই প্রাচীন কাল থেকেই। প্রযুক্তির সহায়তায় সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে সেই সালামিতে ভিন্ন মাত্রা এনেছে বিকাশ। বিকাশ অ্যাপের ডিজিটাল গ্রিটিংস কার্ডের মাধ্যমে সেন্ডমানির সাথে প্রিয়জনকে জানানো যাবে শুভকামনা, অনুভূতি, স্নেহ-ভালবাসার অভিব্যক্তি। গ্রাহক চাইলে এই ‘গ্রিটিংস কার্ড’ টিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করে নিজেদের বিশেষ মুহূর্তগুলোকে আরো স্মরণীয় ও আনন্দময় করে নিতে পারেন।

গ্রিটিংস কার্ড সহ সালামি পাঠাতে বিকাশ অ্যাপ থেকে যে নম্বরে সেন্ড মানি করা হবে তা নির্বাচন করার পরপরই নিচের অংশে ‘আপনার উদ্দেশ্য সিলেক্ট করুন’ ট্যাবটি দেখতে পাবেন গ্রাহক। সেখানে থাকা ঈদ সালামি অথবা ঈদ মোবারক অপশনগুলো থেকে যে কোন একটি নির্বাচন করা যাবে।

এরপর টাকার অংক লিখে পরের ধাপে গেলে রেফারেন্স অংশের নিচে ‘কার্ডের ম্যাসেজ আপডেট করুন’ ট্যাব দেখা যাবে। গ্রাহক চাইলে বিকাশ অ্যাপে সংযুক্ত “ঈদের আনন্দ ঘরে ঘরে, সালামি দিলাম বিকাশ করে” অথবা ‘এই ঈদ আপনার জীবনে নিয়ে আসুক শান্তি ও সমৃদ্ধি। ঈদ মোবারক।’ এই ম্যাসেজ দুটি রাখতে পারেন অথবা নিজের পছন্দমত নতুন ম্যাসেজ লিখে দিতে পারেন। বাংলা ও ইংরেজি উভয় ভাষাতেই ম্যাসেজ লেখার সুযোগ রয়েছে। স্বাক্ষরের অংশে নিজের নাম বা সম্পর্কের পরিচয় যেমন মা, চাচা, মামা, ভাই, বোন ইত্যাদি লিখে দিতে পারবেন। পরের ধাপে বিকাশ পিন দিলেই গ্রিটিংস কার্ড সহ সেন্ড মানি করা হয়ে যাবে।

যে গ্রাহক, ঈদ মোবারক বা ঈদ সালামি গ্রিটিংস কার্ড সহ পেয়েছেন, তিনি তার ডিভাইসের নোটিফিকেশনে একটি গিফট বক্স দেখতে পাবেন। বক্সে ক্লিক করে বিকাশ অ্যাপে ঢুকলেই উপহারের পরিমান এবং ম্যাসেজ দেখতে পাবেন। তিনি চাইলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ বিভিন্ন মাধ্যমে কার্ডটি শেয়ার করতে পারবেন যেখানে টাকার অংক দেখা যাবে না কেবল ম্যাসেজটি দেখা যাবে।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

প্রথমবারের মত রাতে নামবে নাসার মহাকাশযান

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমবারের মত রাতে নামবে নাসার মহাকাশযান

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন (আইএসএস) থেকে নাসা ও জাপান স্পেস এজেন্সির ৪ মহাকাশচারীকে নিয়ে রাতে (যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময়) এই প্রথম পৃথিবীতে অবতরণ করতে চলেছে কোন মহাকাশযান।

এই ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার মহাকাশ অভিযানের ৫৩ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম।

নাসা জানিয়েছে, ভারতীয় সময় রবিবার বিকেলের দিকে স্পেস স্টেশনে থাকা ৪ মহাকাশচারীকে পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনবে এলন মাস্কের সংস্থা স্পেস-এক্স-এর ড্রাগন রকেট। ১৯৬৮ সালে নাসা মহাকাশ অভিযান শুরু করার পর এই প্রথম রাতে মহাকাশচারীদের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে পৃথিবীতে।


আরও পড়ুনঃ


ফেলে রাখা ট্রাকে মিললো ২ লাখ ৪০ হাজার টিকা

শপিংয়ে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে পরদিন কিনলেন নতুন গাড়ি

ভারত থেকে অস্ট্রেলিয়া প্রবেশ সাময়িকভাবে অবৈধ, জেল-জরিমানার বিধান

উত্তর কোরিয়ায় সস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়: কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডসহ তিন প্রজন্মের শাস্তি


নাসার যে ৩ মহাকাশচারীকে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে তাদের নাম ভিক্টর গ্লোভার, মাইক হপকিন্স, শ্যানন ওয়াকার। এদের সঙ্গে রয়েছেন ‘জাপান স্পেস এজেন্সি (জাক্সা)’-র মহাকাশচারী সইচি নোগুচিও।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

করোনাকাল অ্যামাজনের ‘স্বর্ণযুগ’

অনলাইন ডেস্ক

করোনাকাল অ্যামাজনের ‘স্বর্ণযুগ’

সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন, বিভিন্ন বিধিনিষেধ ও সংক্রমণের আশঙ্কায় অনেক মানুষই দোকানপাট কিংবা শপিংমলে না গিয়ে অনলাইনের মাধ্যমেই পণ্য কেনাকাটা করে আসছে। আর এতেই  এ বছরের প্রথম তিন মাসেই অ্যামাজন বিপুল পণ্য বিক্রি করেছে। এ ছাড়া লাভ হয়েছে তিনগুণ। 

অ্যামাজনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে আগামী কয়েক মাসও তাদের পণ্য বিক্রির এই ধারা অব্যাহত থাকবে। বিশ্লেষকেরা বলছেন, করোনা মহামারি অ্যামাজনের জন্য ‘স্বর্ণযুগ’ হিসেবে দেখা দিতে পারে।

এদিকে, বর্তমানে অটোমেটেড গ্রোসারি স্টোর, অনলাইন স্বাস্থ্যসেবার প্রচার করে যাচ্ছে অ্যামাজন। তবে তাদের মূল পরিষেবা—হোম ডেলিভারি, মিডিয়া স্ট্রিমিং, ক্লাউডভিত্তিক ওয়েব পরিষেবাগুলোর মাধ্যমে এক বছরে তাদের লাভের অঙ্ক বিপুল বেড়েছে।

গত বছর ৭৫ বিলিয়ন ডলার থেকে মার্চের শেষে রাজস্ব বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৮ বিলিয়ন ডলারে। এ ছাড়া বছরের মধ্যেই লাভ ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ দশমিক ১ বিলিয়ন ডলারে।

১৯৯৪ সালে নিজের গ্যারাজে আমাজন প্রতিষ্ঠা করেন জেফ বেজোস। অনলাইনে পণ্য বিক্রয়ের পাশাপাশি বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ সংস্থা অ্যামাজনের টিভি ও মিউজিক স্ট্রিমিং, দৈনন্দিন জিনিসপত্র, ক্লাউড কম্পিউটিং, রোবোটিক্‌স, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসহ বিভিন্ন ব্যবসা বেড়েছে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য মেধা ও সৃজনশীলতার খুবই প্রয়োজন : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য মেধা ও সৃজনশীলতার খুবই প্রয়োজন : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী

সারা দুনিয়া এগিয়ে যাওয়ার বাহন হচ্ছে শিক্ষা। শিক্ষার বদৌলতে সভ্যতার বিবর্তন হয়েছে। এখন শিক্ষাকে সভ্যতার বিবর্তনের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। ডিজিটাল সভ্যতা বা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য ডিজিটাল শিক্ষায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে হবে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার ।

মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল শিক্ষা প্রসারে সুযোগের প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। আজকের ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার জাদুটি হচ্ছে ২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১২ বছরে বাংলাদেশ ডিজিটাইজেসনসহ সকল ক্ষেত্রে পৃথিবীর অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে সক্ষম হয়েছে।

শনিবার ঢাকায় ময়মনসিংহ জেলা প্রতিষ্ঠার ২৩৩তম বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বৃহ্ত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি জনাব মোস্তাফা জব্বার বৃহত্তর ময়মনসিংহের ইতিহাস ঐতিহ্য এবং ২৩৩ বছর আগে জেলা প্রতিষ্ঠার ঘটনা প্রবাহ তুলে ধরে বলেন, বৃহত্তর ময়মনসিংহ পলিমাটি দিয়ে গড়া, এটি একটি বৃহৎ শস্য ও মৎস্যসহ অন্যান্য সম্পদ সমৃদ্ধ জনপদ। 

তিনি বৃহ্ত্তর ময়মনসিংহের সব জেলাতে শিক্ষা বিস্তারে বিশেষ করে ডিজিটাল শিক্ষার প্রসারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরে বলেন, আমার গ্রামে স্বাধীনতার পর ৭২ সালে বিশেষ করে হাওরে প্রাথমিক শিক্ষার পর হাইস্কুলে পড়ারও সুযোগ ছিল না, সেই হাওরের মানুষ এখন সেখানে মাস্টার ডিগ্রি পড়ার সুযোগ পাচ্ছে। হাওরের প্রতিটি গ্রামের পাশ দিয়ে এখন সাব মার্জেবল রাস্তা হয়েছে। ডিজিটাল সুপার হাইওয়ে তৈরি হয়েছে। হাওর এলাকায় আছে টেলিটক নেটওয়ার্ক। গড়ে ওঠছে ১২ হাজার ওয়াইফাই জোন। 

নেত্রকোনায় আইটি ট্রেনিং সেন্টার, বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিক্যাল কলেজ, জামালপুর, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইলে হাইটেক পার্ক ও জেলায় জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হচ্ছে। বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম গর্ব করে যে ত্রিশালের কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছিল যেখানে এখন সাড়ে সাত হাজার ছেলে মেয়ে পড়াশোনা করে। 

মন্ত্রী মেধা ও সৃজনশীলতার দিক থেকে ময়মনসিংহের মানুষদের ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য মেধা ও সৃজনশীলতার খুবই প্রয়োজন। মন্ত্রী পরিকল্পিত উপায়ে আড়াই হাজার বর্গমাইলের  বিস্তীর্ণ হাওরে পরিকল্পিত উপায়ে দেশি মাছের চাষ করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। 

তিনি বলেন , শস্য সম্পদের মতো হাওরের মৎস্য সম্পদ দেশের মাছের চাহিদা মিটিয়েও রপ্তানিতে ভূমিকা রাখতে পারে।

উল্লেখ্য, ১৭৮৭ সালে ১ মে ময়মনসিংহ জেলা সৃষ্টি হয়। এই জেলার আকার সময়ে পরিবর্তিত হয়েছে। ১৯৬৯ সালে ময়মনসিংহ জেলা থেকে টাঙ্গাইল মহকুমাকে এবং ১৯৭৮ সালে জামালপুর মহুকুমাকে পৃথক করে জেলায় উন্নীত করা হয়। ১৯৮৪ সালে ময়মনসিংহ জেলা থেকে শেরপুর, নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ মহকুমাকে পৃথক পৃথক জেলায় উন্নীত করা হয়।

বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী  আশরাফ আলী খান খসরু, সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, অধ্যাপক যতীন সরকার, বৃহত্তর ময়মনসিংহ কর্মজীবী সমিতির সভাপতি সাজ্জাদুল হাসান, বস্ত্র ও পাট সচিব মো. আবদুল মান্নান, আইএমইডি সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী বৃহত্তর ময়মনসিংহ সমন্বয় পরিষদের সমন্বয়ক আবদুস সামাদ এবং সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ প্রমূখ বক্তৃতা করেন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান শেলী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর