মসজিদে ২০ জন হলেই বন্ধ গেট, ক্ষোভ সাধারণ মুসল্লিদের
মসজিদে ২০ জন হলেই বন্ধ গেট, ক্ষোভ সাধারণ মুসল্লিদের

ফাইল ছবি

মসজিদে ২০ জন হলেই বন্ধ গেট, ক্ষোভ সাধারণ মুসল্লিদের

অনলাইন ডেস্ক

করোনা সংক্রণ রোধে আগামীকাল থেকে সারা দেশে শুরু হচ্ছে লকডাউন। এর মধ্যে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এমন অবস্থায় প্রতি ওয়াক্ত নামাজ ও তারাবিতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক মসজিদে ২০ জনের বেশি মানুষ একসঙ্গে নামাজ পড়তে পারবেন না।

সরকারের সেই নির্দেশনা অনুযায়ী মসজিদে নামাজ আদায়ের জন্য করা হয়েছে ২০ জন মুসল্লির তালিকা। কিন্তু মসজিদ কমিটির করা এই তালিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেক মুসল্লি। হিজরি রমজান মাসের চাঁদ দেখা  যাওয়াই আজ থেকেে শুরু হয় তারাবির নামাজ। কিন্তু অনেক মুসল্লির অভিযোগ ২০ জন হওয়া মাত্রই মসজিদের গেট বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। এতে করে অনেক মুসল্লিকে মসজিদের গেটে ও রাস্তায় নামাজ আদায় করতে দেখা গেছে।  

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) মাগরিবের নামাজের পরে রামপুরা, হাজীপাড়া, মালিবাগ, ধানমন্ডি, সোবহানবাগ সহ বেশ কয়েকটি এলাকায় ঘুরে মসজিদের সামনে মুসল্লিদের এমন অভিযোগ করতে দেখা যায়।

বেশ কয়েকজন মুসল্লি জানিয়েছেন, আমরা সরকারের নির্দেশ মেনেই মসজিদে নামাজ আদায় করতে চাই। কিন্তু মসজিদে তো মসজিদ কমিটি নিজেরাই ২০ জন মুসল্লির তালিকা তৈরি করছেন।  

৬৫ বছর বয়সি এক মুসল্লি বলেন,  একজন সাধারণ মুসল্লি হিসাবে আমি ৪০ বছর জামায়াতের সঙ্গে তারাবির নামাজ আদায় করছি। কিন্তু এখন মসজিদে গিয়ে শুনছি মসজিদ কমিটি যাদের নাম লিপিবদ্ধ করে দিয়েছে, তারাই শুধু নামাজ পড়তে পারবে। ঠিক আছে আমরা সরকারের নির্দেশনা মানবো। কিন্তু মসজিদে যে আগে প্রবেশ করবে তাকে নামাজ আদায় করতে সুযোগ দিতে হবে।

ধানমন্ডির বাসিন্দা মামুন মিতালি রোডের স্টাফ কোয়ার্টার সংলগ্ন মসজিদে গিয়ে ফেরত এসে ক্ষোভের সাথে বলেন, মসজিদে গিয়ে দেখি গেট বন্ধ।   পরে শুনি মসজিদ কমিটি তাদের পছন্দ মত ২০ জনের একটি তালিকা করেছে। শুধু সেই ২০ জনই মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারবে।

একই রকম অভিযোগ করতে দেখা যায় অনেক মুসল্লিকে।

মালিবাগের একটি মসজিদের এক খাদেম বলেন,  সরকারের নির্দেশ ২০ জনের বেশি মুসল্লি নিয়ে নামাজ আদায় করা যাবে না। তাই আমাদের এখানে ২০ জনের নাম আগেই বুকিং হয়ে গেছে।

করোনা পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজানে তারাবির নামাজে খতিব, ইমাম, হাফেজ, মুয়াজ্জিন ও খাদেমসহ সর্বোচ্চ ২০ জন মুসল্লি অংশ নিতে পারবেন বলে নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

news24bd.tv/আলী