দেশের বিচার বিভাগ এখন সম্পূর্ণ স্বাধীন ভাবে কাজ করছে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের বিচার বিভাগ এখন সম্পূর্ণ স্বাধীন ভাবে কাজ করছে: কাদের

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শেখ হাসিনা সরকার কোন সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের উপর হস্তক্ষেপ করে না। দেশের বিচার বিভাগ এখন সম্পূর্ণ স্বাধীন ভাবে কাজ করছে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল)সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি আয়োজিত সাংবাদিক সংগঠন ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের মাঝে করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। ওবায়দুল কাদের তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

বিএনপির প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে অপরাজনীতি করে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন লকডাউন নিয়ে অপপ্রচারে নেমেছে। বিএনপির দ্বিচারিতা বক্তব্য মানুষের ঘরে অবস্থানকে নিরুৎসাহিত করতে পারে বলেও মনে করেন তিনি। 

বিএনপিকে প্রশ্ন করে ওবায়দুল কাদের জানতে চান তাহলে কী বিএনপি চায় না করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসুক?

বিএনপি নেতারা বলছেন, দেশে নাকি গণতন্ত্র নেই - এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে কী ভূমিকা পালন করেছে? পদে পদে বাধা সৃষ্টি করে অগণতান্ত্রিক চর্চা করে তারা এখন গণতন্ত্রের ফেরিওয়ালা সেজেছে। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা এবং দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলো বিএনপি। আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাওয়ার যে সংগ্রাম তা সর্বস্তরের জনগণের সহযোগিতায় সফল হবে ইনশাআল্লাহ। 

তিনি বলেন বিএনপি যতই পেছন থেকে দেশের এগিয়ে যাওয়াকে টেনে ধরে রাখতে চায় কিন্তু  সফল হবে না, কারণ জনগণ এখন উন্নয়নমুখী। জনগণ বিএনপির পশ্চাৎমুখী রাজনীতিকে প্রত্যাখ্যান করে শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও সমৃদ্ধ আগামী বির্নিমাণের রাজনীতির পক্ষে দাঁড়িয়েছে বলেও মনে করেন ওবায়দুল কাদের। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, অসহায় মানুষের জন্য ইতিমধ্যেই শেখ হাসিনা সরকার প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়ার কাজ শুরু করেছে। কারণ জনগণের জন্যই রাজনীতি করেন শেখ হাসিনা। তাই জনগণের স্বার্থে কখন কী করতে হবে তা বঙ্গবন্ধু কন্যা ভালই বোঝেন , আর এজন্যই তিনি আজ দেশের জনগণের আস্থার ঠিকানা ও নির্ভরতার বাতিঘর।

অপরদিকে বিএনপি জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে তাদের অসহায়ত্ব নিয়ে রাজনৈতিক বুলি আওড়িয়ে যাচ্ছে। তারা জনগণকে ভয় পায় বলেই জনমানুষের পাশে দাঁড়ানোর সাহস হারিয়েছে।

আরও পড়ুন


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সহিংসতা: আরও ২৪ হেফাজতকর্মী গ্রেপ্তার

আইসিইউ নিয়ে প্রশ্নের আগে মানুষকে সহস্রবার ঘরে থাকতে বলা উচিৎ

মামলা-গ্রেপ্তারে কোনঠাসা হেফাজত, সামনে আরও বড় চ্যালেঞ্জ

পাঞ্জাবির বোতাম লাগানো নিয়ে গোলাগুলি-হামলা, আহত ৪


ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, দেশকে বিএনপি শূণ্য করাই নাকি সরকারের লক্ষ্য, - বিএনপি নেতাদের এই অভিযোগ প্রকৃতপক্ষে বিএনপি শূন্য করা নয়, সরকার চায় বিএনপি সত্যিকার অর্থে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের ভূমিকা পালন করুক। তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন বিএনপি সহিংসতা, ষড়যন্ত্র আর অপরাজনীতি ছেড়ে জনমানুষের কল্যাণে ইতিবাচক রাজনৈতিক ধারায় ফিরে আসবে। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, অপরিণামদর্শী ও জনবিরোধী কর্মসূচির কারণেই বিএনপির রাজনীতি এখন গভীর সাগরে রাডারবিহীন জলযানের মত। তারা এখন পথহারা পথিক।

ধানমন্ডি প্রান্তে এসময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল,ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাক্তার রোকেয়া সুলতানা, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক সামছুন্নাহার চাঁপা, উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মজিদসহ অন্যান্য সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

ময়মনসিংহে পুলিশ-ছাত্রদল সংঘর্ষ

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা শ্যামলসহ পাঁচ’শ নেতাকর্মীর নামে ২ মামলা

সৈয়দ নোমান, ময়মনসিংহ

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা শ্যামলসহ পাঁচ’শ নেতাকর্মীর নামে ২ মামলা

ময়মনসিংহে ছাত্রদলের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংর্ঘষের ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ ৩৮ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করা হয়েছে। এছাড়াও অজ্ঞাত আরো পাঁচ’শ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে কোতেয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মানিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ওই মামলা দুইটি দায়ের করেন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বিস্ফোরক আইনে এবং পুলিশের কাজে বাঁধা ও পুলিশের ওপর হামলা করায় ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। ইতিমধ্যে আটক ছাত্রদলের আট নেতাকর্মীকে ওই দুই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে জব্দ করা ২০টি মোটরসাইকেল নিয়ে ট্রাফিক আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন:


ইসরাইলি ড্রোন মাটিতে নামাল ফিলিস্তিনিরা

প্রাণঘাতী করোনায় ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যু

ময়মনসিংহে ছাত্রদলের সভা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া


উল্লেখ, গত বৃহস্পতিবার জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ময়মনসিংহের শম্ভুগঞ্জের দক্ষিণ চরকালিবাড়ী দাখিল মাদরাসা মাঠে ময়মনসিংহ উত্তর ও দক্ষিণ জেলা, মহানগর, কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাকৃবি ছাত্রদলের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভাকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের সময় ইট-পাটকেল নিক্ষেপ, পুলিশের গুলিবর্ষণ ও লাঠিচার্জের ঘটনা ঘটে। এতে ছয় পুলিশসহ আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সরকার স্বৈরাচারী কায়দায় দেশ চালাচ্ছে: মান্না

নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকার স্বৈরাচারী কায়দায় দেশ চালাচ্ছে: মান্না

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, একটা সুন্দর দেশের স্বপ্ন দেখে মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম। কিন্তু আমাদের সব আশা আকাঙ্খাকে হত্যা করে এ সরকার স্বৈরাচারী কায়দায় দেশ চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই করতে হবে।

আজ দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে নাগরিক অধিকার আন্দোলন আয়োজিত এক মানববন্ধনে এ কথা বলেন তিনি।

মান্না বলেন, দেশে লকাডাউন চলছে। সবকিছু খোলা, কিন্তু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু নেই। ১৪ মাস ধরে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও খোলা নেই। শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ ভেবে দেশের সব নাগরিক উদ্বিগ্ন। সবাই জানেন যে ইন্টারনেটের কারণে আমাদের কিশোররা বিপদগামী হচ্ছে। অথচ শিক্ষামন্ত্রী বলেন, তার ওপরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নাকি কোনো চাপ নেই। এরা সেই ধরনের মন্ত্রী?

খালেদা জিয়ার মামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মিথ্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ১৭ বছরের জেল দেওয়া হয়েছে। প্রতিবছর আমাদের দেশ থেকে কোটি কোটি টাকা পাচার হয়। তাদের বিরুদ্ধে সরকার কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি। অর্থমন্ত্রী সংসদে দাঁড়িয়ে বলেন, অর্থপাচার হয় নাকি? কারা করে আমাকে লিস্ট দেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। অথচ সবাই জানে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছুদিন আগে বলেছেন, বিদেশে কারা কারা বাড়ি বানায়, কারা বেগম পাড়ায় বাড়ি বানায়, কারা সেকেন্ড হোক করে, কারা লাখ কোটি টাকা বিদেশে ব্যাংকে জমা রাখে আমরা তাদের চিনি।

আরও পড়ুন:


ইসলামী বক্তা আবু ত্বহার খোঁজ মিলেছে

শনিবার থেকে সিনোফার্মের টিকাদান কার্যক্রম শুরু

ব্রাজিলের কাছে পাত্তাই পেল না পেরু

আবারও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী


মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, বিলকিস ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন, কৃষক দল নেতা এসএম সরোয়ার জাহান, মুসা ফরাজী প্রমুখ।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশকে নিয়ে একটা খেলা চলছে: আলাল

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশকে নিয়ে একটা খেলা চলছে: আলাল

একদিকে পরীমণি আরেক দিকে পুলিশের সোনামনি, এরা মিলে দেশে একটা সার্কাস তৈরি করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

তিনি বলেন,বাংলাদেশে এত সমস্যা। চুরি হচ্ছে, ডাকাতি হচ্ছে, অর্থপাচার, স্বাস্থ্যখাতে দুর্নীতি; জাতীয় সংসদে এসব নিয়ে আলোচনা হয় না। আলোচনা হয় জাদুমনি, সোনামনি, পরীমণিকে নিয়ে। যেসব সমাজের কোনো উপকারে আসে না, জাতির প্রয়োজনে আসে না।

আলাল বলেন, বাংলাদেশকে নিয়ে একটা খেলা চলছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, আমাদের কাছ থেকে এনআইডির দায়িত্ব নিয়ে কেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে দেয়া হল? নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, এনআইডির দায়িত্ব স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দিয়ে নির্বাচন কমিশনের কফিনে শেষ পেরেক মারা হয়েছে। তার মানে কি? জীবিত মানুষের তো কফিন হয় না। কফিন তো হয় মৃত মানুষের। নির্বাচন কমিশন যে একটা কফিন, অনেক আগেই মারা গেছে, সেটাই নির্বাচন কমিশন স্বীকার করেছে।’

আরও পড়ুন:


ইসলামী বক্তা আবু ত্বহার খোঁজ মিলেছে

শনিবার থেকে সিনোফার্মের টিকাদান কার্যক্রম শুরু

ব্রাজিলের কাছে পাত্তাই পেল না পেরু

আবারও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী


তিনি বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তির সাথে দেশের রোগমুক্তি অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িত। এ দুটো আলাদা করে দেখার কোনো উপায় নেই। বেগম খালেদা জিয়ার যেমন রোগমুক্তি দরকার, তেমনি দেশের একটা রোগ আছে, গণতন্ত্রহীনতা, সেই রোগ মুক্তিরও দরকার।’

সভায় অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ আয়োজক সংগঠনের নেতাকর্মীরা বক্তৃতা করেন।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

বিএনপির রাজনীতি ভাইরাসের চেয়েও ভয়ংকর: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপির রাজনীতি ভাইরাসের চেয়েও ভয়ংকর: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রতিশোধপ্রবণ বিএনপি ক্ষমতা পেলে দেশে রক্তের বন্যা বইয়ে দেবে। সাম্প্রদায়িক ও সহিংসতার পৃষ্ঠপোষক বিএনপির হাতে এদেশ ও দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। তাদের রাজনীতি ভাইরাসের চেয়েও ভয়ংকর। 

আজ শুক্রবার (১৮ জুন) সকালে নিজের সরকারি বাসভবনে তিনি নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন।

বিএনপির হত্যা, খুন ও সন্ত্রাসের রাজনীতি দেশকে পিছিয়ে দিয়েছিল উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ শান্তি ও সমৃদ্ধির পথে অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। বৈশ্বিক শান্তি সূচকে বাংলাদেশ গতবারের চেয়ে সাত ধাপ এগিয়েছে অথচ বিএনপি নেতাদের বক্তব্য শুনলে মনে হয় বাংলাদেশের মানুষ নরক যন্ত্রণার মধ্যে আছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'বিএনপির হাতে ক্ষমতা গেলে দেশ আবার অন্ধকারে তলিয়ে যাবে, আবারও লাশের পাহাড় হবে। প্রতিশোধপ্রবণ বিএনপি ক্ষমতা পেলে দেশে রক্তের বন্যা বইয়ে দেবে। সাম্প্রদায়িক ও সহিংসতার পৃষ্ঠপোষক বিএনপির হাতে এদেশ ও দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। বিএনপির রাজনীতি ভাইরাসের চেয়েও ভয়ংকর।'

আওয়ামী লীগের সামনে চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'আওয়ামী লীগকে এখন দুটি চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে। প্রথমটি করোনা, দ্বিতীয়টি উগ্র সাম্প্রদায়িকতা। করোনা প্রতিরোধের পাশাপাশি উগ্র সাম্প্রদায়িকতাকেও মোকাবেলা করতে হবে।'

আগামী ২৩ জুন আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের পক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের। কর্মসূচি অনুযায়ী, ২৩ জুন সূর্যোদয় ক্ষণে কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ দেশের সব কার্যালয়ে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তেলন করা হবে। একইদিন সকাল ৯টায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন। বিকেল ৩টায় ২৩ বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আলোচনাসভা। সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় দৈনিক পত্রিকাগুলোতে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে।

এছাড়া আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সিআরআই'র পক্ষ থেকে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা চালানো হবে এবং বিশেষ ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সারা দেশে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনুরূপ কর্মসূচি গ্রহণের মাধ্যমে দিবসটি পালনের আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

ওই নারী যত উপরে পা তুলে আঘাত করল, শতকরা ৯৮ জনই এটা পারে না: টিপু

অনলাইন ডেস্ক

ওই নারী যত উপরে পা তুলে আঘাত করল, শতকরা ৯৮ জনই এটা পারে না: টিপু

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে চিত্রনায়িকা পরীমনির দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার নাসির উদ্দিন মাহমুদের মুক্তি দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে নাসির উদ্দিনকে ওই অভিযোগ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়ার দাবি করেন তিনি।

আবাসন ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত নাসির উদ্দিন মাহমুদ জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য। উত্তরা ক্লাবের এই সাবেক সভাপতি ঢাকা বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। পরীমনির মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর তাকে বোট ক্লাব থেকে বহিষ্কার করা হয়।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাংসদ টিপু সংসদ অধিবেশনে বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে একজন চিত্রনায়িকা ও আমাদের প্রেসিডিয়াম সদস্যকে নিয়ে ঘটনা দেখছি। নাসির উদ্দিনকে আমি প্রায় ৩৫ বছর ধরে চিনি। প্রায় ছাত্র অবস্থা থেকে। সে একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী এবং সরকারকে খাজনা দেয়।’

আরও পড়ুন:


পরীমনি কেনো এতো রাতে বোট ক্লাবে যাবে: সোহান (ভিডিও)

যে কষ্টে আছেন পরীমনি

অনেক দিন পর মুক্তি পেলাম: পরীমনি

যে কারণে গাজার ‘আগুনে বেলুন’কে এত ভয় ইসরাইলের

ঠাকুরগাঁওয়ে ঋণের চাপে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

মালয়েশিয়ায় করোনায় প্রবাসীর মৃত্যু


তিনি আরও বলেন, ‘ওই ক্লাবে যে নায়িকা গিয়েছিলেন, তারাতো অভিনয় করতে জানেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখলাম তাকে কোলে করে একটা গাড়িতে তোলা হচ্ছে। তাদের এই সমস্ত দিকে লক্ষ্য রেখে আমি সরকারের কাছে আবেদন রাখব, আইন আইনের মতো চলবে। অবিলম্বে নাসির মাহমুদকে যাতে এই ইসের থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। আইন চলবে, তাকে যেন মুক্তি দেওয়া হয়।’

পরীমনির অভিযোগে বলা হয়, গত ৮ জুন উত্তরার কাছের বিরুলিয়ায় ঢাকা বোট ক্লাবে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন নাসির। তখন তাকে মারধরও করা হয়। এই অভিযোগ অস্বীকার করে নাসির বলেন, ‘ক্লাবে সেদিন পরীমনি জোর করে দামি মদ নিতে গেলে বাধা দিয়েছিলেন তিনি, তাতে এই অভিনেত্রী উত্তেজিত হয়ে তাকে আক্রমণ করেন। পরে নিরাপত্তা রক্ষীরা এসে তাকে বের করে দেয়।’

বিষয়টি নিয়ে গত সোমবার জাতীয় সংসদে বিএনপির এমপি হারুনুর রশীদ দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তোলেন। পরেরদিন মঙ্গলবার জাতীয় পার্টির জ্যেষ্ঠ সংসদ সদস্য চুন্নুও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন। আজ বৃহস্পতিবার ক্লাব ও মদ নিয়ে অনির্ধারিত আলোচনায় হঠাৎ কিছু সময়ের জন্য উত্তপ্ত হয়ে ওঠে জাতীয় সংসদ। সকালে বৈঠকের শুরুতে এই অনির্ধারিত আলোচনায় আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, বিএনপি ও তরিকত ফেডারেশনের পাঁচ সাংসদের বক্তব্যর পরিপ্রেক্ষিতে এ পরিস্থিতি তৈরি হয়।

জাতীয় পার্টির সাংসদ টিপু সংসদে বলেন, ‘আপনারা জানেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখলাম, ওই নায়িকা গুলশানে একটি ক্লাবে কতগুলি চেয়ার ভাঙছে, প্লেট ভাঙছে, পেপার ওয়েট ভাঙছে। ছবিতে দেখলাম সে যত উপরে পা তুলে একজনকে আঘাত করল! বঙ্গ ললনা নারীরা শতকরা ৯৮ জনই এটা করতে পারবে না। এই ব্যাপারটা অত্যন্ত স্পর্শকাতর। সরকারের কাছে আশা করব যাতে ব্যাপারটা ঠিকমত দেখে।’

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর