কাগজে মৃত আওয়াল ৯ বছর ঘুরেও জীবিত হতে পারেননি!

অনলাইন ডেস্ক

কাগজে মৃত আওয়াল ৯ বছর ঘুরেও জীবিত হতে পারেননি!

সাংবাদিক আব্দুল আওয়ালের বয়স এখন ৩১। কিন্ত গত ৯ বছর ধরে আব্দুল আওয়াল যে এখনও জীবিত সেটিই প্রমাণ করতে ঘুরতে হচ্ছে সরকারের এই দপ্তর থেকে ওই দপ্তরে। আব্দুল আওয়ালের জীবনের দুর্বিষহ দিনের শুরু ২০১২ সালের ভোটার তালিকা হালনাগাদ থেকে। সেই সময়ের ভোটার তালিকা হালনাগাদে আব্দুল আওয়ালকে মৃত উল্লেখ করা হয়। সেই থেকে  চাকরির আবেদনের পাশাপাশি সরকারি সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন আব্দুল আওয়াল। এমনকি জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য করোনার টিকা পর্যন্ত দিতে পারেননি তিনি। এ নিয়ে খুবই দুর্বিষহ দিন অতিবাহিত করছেন তিনি।

আব্দুল আওয়াল নেত্রকোণার মদন পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের মৃত ফজলুর রহমানের ছেলে। তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত একটি পত্রিকার প্রতিনিধি ও মদন উপজেলার করোনা বিষয়ক কমিটির সমন্বয়ক।

আওয়াল আক্ষেপ করে বলেন, নিজেকে জীবিত প্রমাণ করতে গত ৯ বছর ধরে আবেদন করে উপজেলার নির্বাচন অফিসে ঘুরছি। নির্বাচন অফিসাররা আশ্বাস দিলেও এখনও জীবিত হতে পারলাম না। আমি জানি না কবে জীবিত হতে পারব। 

২০১৪ সালে পৌরসভার মেয়রের কাছ থেকে আমি যে জীবিত আছি এ বিষয়ে একটি প্রত্যয়ন নিয়ে কোনোভাবে সাধারণ কাজ কর্ম করছি।

তিনি বলেন, আমি সরকারি আবেদনসহ কোনো ধরনের আবেদন করতে পারছি না। আমার সরকারি চাকরির বয়স শেষ হয়ে গেছে। আমার বাড়িটি খারিজ করা একান্ত প্রয়োজন। কিন্তু কিছুই করতে পারছি না। আমি আজ সমাজে জীবিত থাকলেও কাগজে মৃত আছি।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. হামিদ ইকবাল বলেন, ২০১২ সালে ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় তথ্য সংগ্রহকারী সাংবাদিক আওয়ালকে হয়তো মৃত উল্লেখ করেছেন। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এবারও বহিরাগতদের জন্য হজ বন্ধের পরিকল্পনা সৌদির

অনলাইন ডেস্ক

এবারও বহিরাগতদের জন্য হজ বন্ধের পরিকল্পনা সৌদির

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত বছর বিদেশি নাগরিকদের জন্য হজ বন্ধ করেছিলো সৌদি সরকার। তবে বিশ্বজুড়ে করোনার ঊর্ধ্বগতি এবং করোনার নতুন রূপ ছড়ানোয় টানা দ্বিতীয় বছরের মতো বহিরাগত বা বিদেশিদের জন্য হজে যাওয়া বন্ধের বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করছে সৌদি আরব।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বহিরাগতদের হজের জন্য প্রবেশে সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এই বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে পবিত্র মক্কা নগরীতে হজ করতে আগ্রহী মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত সংখ্যক হবে।

এছাড়াও এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হলে দেশটির যে সকল নাগরিক করোনার টিকা নিয়েছেন বা অন্তত ছয় মাস আগে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে তারাই কেবল হজ করার জন্য সুযোগ পাবেন।

সুত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে টিকা নেয়া কিছু বহিরাগতদের এবার হজ পালনের জন্য সুযোগ দেয়ার বিষয়ে ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু তাদের মধ্যে কে কোন টিকা নিয়েছেন, এ নিয়ে বিভ্রান্তি এবং টিকার কার্যকারিতা ও করোনার নতুন ধরণ নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। ফলে ওই পরিকল্পনা থেকেও সরে আসা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

রোজার সৌন্দর্যে ​মুগ্ধ হয়ে ভারতীয় তরুণীর ইসলাম গ্রহণ

আইপিএল নেই, বাড়ি ফিরে যা করতে চান কোহলি

এক সপ্তাহে বিশ্বে করোনা আক্রান্তের অর্ধেকই ভারতে, মৃত্যু এক-চতুর্থাংশ


উল্লেখ্য, সৌদি সরকার গত ফেব্রুয়ারি মাসে ২০ দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তবে এই নিষেধাজ্ঞা কূটনীতিক, সৌদি নাগরিক, চিকিৎসক ও তাদের পরিবারগুলোর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ছিল না। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা এখনো বহাল রয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

বিএনপির সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম আর নেই

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপির সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম আর নেই

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য দিলদার হোসেন সেলিম ইন্তেকাল করেছেন।  বুধবার (০৫ মে) রাত পৌনে ১০টার দিকে সিলেট নগরের মাউন্ড এডোরা হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। 

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

দলীয় সূত্র জানায়, ৭২ বছর বয়স্ক দিলদার হোসেন সেলিম দীর্ঘদিন ধরে প্যারালাইসিসসহ নানা রোগে আক্রান্ত ছিলেন। সম্প্রতি চিকিৎসা শেষে যুক্তরাষ্ট্র থেকে তিনি দেশে ফেরেন।

দিলদার হোসেন সেলিমের জন্ম সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট উপজেলার রাধানগর গ্রামে। সিলেট-৪ (গোয়াইনঘাট-কোম্পানীগঞ্জ) আসন থেকে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ২০০১ সালে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। এরপর ২০০৮ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে পরাজিত হন।

 দিলদার হোসেন সেলিমের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

ঈদে বন্ধ বাড়তি ছুটি

অনলাইন ডেস্ক

ঈদে বন্ধ বাড়তি ছুটি

এবারের ঈদ উল ফিতরে সরকারি ছুটি তিন দিন। এই তিন দিনের সঙ্গে কোনো প্রতিষ্ঠান নিজস্ব উদ্যোগে অতিরিক্ত ছুটি দিতে পারবে না। সিদ্ধান্তটি সরকারি ও বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে।

সোমবার (৩ মে) সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে আলোচনার পর এ সিদ্ধান্ত হয় বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

সরকারের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের এই বৈঠক সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে শুরু হয়। এতে গণভবন থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সচিবালয় থেকে অংশ নেন মন্ত্রিসভার সদস্যরা।

বৈঠকে বেশ কয়েকটি আইনের খসড়া ও নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।

বেসরকারি খাতের কোনো প্রতিষ্ঠান, শিল্পকারখানা এই তিনের বাইরে বন্ধ দিতে পারবে না। ফলে, বৃহস্পতি, শুক্র ও শনি—এ তিন দিনের বাইরে কোনো বন্ধ থাকবে না।

সরকারের এ সিদ্ধান্তের ফলে তিন দিন বন্ধ থাকবে পোশাকশিল্প খাত। তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সহসভাপতি শহিদুল্লাহ আজিম  বলেন, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকার এই উদ্যোগ নিয়েছে। এতে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আগে স্বাস্থ্য, পরে কাজ।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, সংক্রমণ রোধে চলমান বিধি-নিষেধ বহাল রাখতে হবে অন্তত ১৬ মে পর্যন্ত। এ সময় দেশে বিপণিবিতান খোলা থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করলে সেসব তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সালিশ বৈঠকে সবার সামনে দুই নারীকে মারপিট, ভিডিও ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

সালিশ বৈঠকে সবার সামনে দুই নারীকে মারপিট, ভিডিও ভাইরাল

ফেসবুক আইডি হ্যাক হওয়ার জেরে কথাকাটির এক পর্যায়ে  দুই নারীকে পেটানো হয়। ওই ঘটনায় সালিশ বৈঠকে নারীকে মারপিট করার ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে।  গত ২৪ এপ্রিল ইউপি সদস্য হেলালের সভাপতিত্বে ও সাবেক ইউপি সদস্য মো. মজিবর রহমানের পরিচলনায় বিকালে সালিশ বৈঠক বসে। সালিশে সেতাব, আমজাদ, জুয়েল, আকবর মিয়াসহ ১০-১২ জন হামলা করে। সালিশ বৈঠকে বিবাদীরা পরিকল্পিতভাবে শত শত মানুষের সামনে দুই নারীকে মারপিট করে। 

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মীরনগর গ্রামের রাজন, মামুন, হৃদয়ের সঙ্গে একই গ্রামের সফিকুল ইসলামের ছেলে আব্দুল্লার মোবাইলের ফেসবুক হ্যাক নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। গত ২২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার ফেসবুক আইডি হ্যাক করাকে কেন্দ্র করে বিবাদী রাজন, মামুন, হৃদয়সহ ১০-১২ একটি দল সফিকুলের বাড়ি গিয়ে আব্দুল্লাকে না পেয়ে নারীদের মারপিট করে।

এতে সফিকুল ইসলামের স্ত্রী আমেনা বেগম, বোন বিথী ও লিপি আহত হন। ভুক্তভোগীরা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশের সহযোগিতা চায়। তাদের চিৎকারে এলাকাবাসী ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে নাগরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় গত ২৪ এপ্রিল ইউপি সদস্য হেলালের সভাপতিত্বে ও সাবেক ইউপি সদস্য মো. মজিবর রহমানের পরিচলনায় বিকালে সালিশ বৈঠক বসে। সালিশে সেতাব, আমজাদ, জুয়েল, আকবর মিয়াসহ ১০-১২ জন হামলা করে।

সালিশ বৈঠকে বিবাদীরা পরিকল্পিতভাবে শত শত মানুষের সামনে দুই নারীকে মারপিট করে। মারপিটের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পরে।

এ ঘটনায় নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত আসামিদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ ভুক্তভোগী পরিবারের।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার ওসি আনিসুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। মেডিকেল রিপোর্ট হাতে পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সালিশ বৈঠকের সভাপতি ইউপি সদস্য হেলাল ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে ঘটনাটি ঘটেছে। সালিশ বৈঠকে তারা মারপিট করবে এটা জানলে মীমাংসায় বসতাম না।

 ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

১০ হাজার টাকায় মায়ের থেকে সন্তান কিনে আবার অন্যর কাছে বিক্রি!

অনলাইন ডেস্ক

১০ হাজার টাকায় মায়ের থেকে সন্তান কিনে আবার অন্যর কাছে বিক্রি!

মাত্র ১০ হাজার টাকা ও একটি থ্রি-পিসের বিনিময়ে নিজের সদ্যোজাত সন্তানকে বিক্রি করে দিল খোদ মা! কিন্তু যে সন্তাটি কিনে নেয় সে আবার ৬০ হাজার টাকায় সন্তানটিকে অন্য  আরেক ব্যক্তির কাছে  বিক্রি করে দেন।  অবিশ্বাস্য এই ঘটনাটি ঘটে কক্সবাজারের চকরিয়ায়।

কক্সবাজারের ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মালুমঘাট কাটাখালী এলাকার আব্দুল খালেকের স্ত্রী জান্নাত আরা বেগম ২৬ এপ্রিল সকালে ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে একটি ফুটফুটে সন্তান প্রসব করেন। পরে মাত্র ১০ হাজার টাকা ও একটি থ্রি-পিসের বিনিময়ে  শিশুসন্তানকে বিক্রি করে দেন।

ঘটনা জানাজানি হলে সবাই দোষারোপ করবে তাই ভিন্ন কাহিনী তৈরী করেন জান্নাত। সন্তান চুরি হয়ে গেছে বলে অভিনয় শুরু করেন তিনি।

শুক্রবার রাতে এ বিষয়ে চকরিয়া থানায় একটি অভিযোগও করেন জান্নাত। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্ত করে আসল ঘটনা উদঘাটন করে।

পুলিশের তদন্তে জানা গেছে, ডুলাহাজারা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সন্তান জন্মের পর ওই রাতেই ১০ হাজার টাকা ও একটি থ্রি-পিসের বিনিময়ে স্থানীয় শাহাব উদ্দিনের স্ত্রী মিনু আরার কাছে বেচে দেন মা জান্নাত আরা বেগম। পরে মিনু আরা আবার ওই শিশুকে খুটাখালীর এক ব্যক্তির কাছে ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করেন।

পুলিশকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডুলাহাজারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন।

তিনি জানান, শিশুটিকে চুরি করা হয়নি। ১০ হাজার টাকা ও একটি থ্রি-পিসের লোভে মিনু আরার কাছে বিক্রি করে দিয়েছে মা জান্নাত আরা। পরে মিনু আরা শিশুটিকে ৬০ হাজার টাকায় অন্য একজনের কাছে বিক্রি করে দিতে চাইলে কথা কাটাকাটির জেরে মিনু আরার বিরুদ্ধে সন্তান চুরির অভিযোগ করেন জান্নাত আরা।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর