মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?
মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?

মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?

Other

মানুষের মৃত্যুতে যারা খুশি হয়, যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী করে ধার্মিক হয়? আমি তো বলবো তারা অমানুষ। এই যে দেখেন গতকাল সকালে সন্তান জন্ম দিয়ে বিকেলেই মারা গিয়েছেন একাত্তর টিভির সহযোগী প্রযোজক রিফাত সুলতানা। তাঁর আরও দুটি জমজ সন্তান রয়েছে। একজন মায়ের এমন করুণ মৃত্যুর খবরের নিচে বহু মানুষ আলহামদুলিল্লাহ লিখেছে, বলেছে গজব।

ভীষণ অবাক হই। মানুষের মৃত্যুতে ইন্নালিল্লাহ না বলে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে, যারা অভিশাপ দেয় ধার্মিক তো পরের কথা, তারা কী করে মানুষ হয়? শুধু একজন মায়ের মৃত্যু নয়, প্রায়ই দেখি মুক্তিযোদ্ধা থেকে শুরু করে যে কোন গুণী মানুষ মারা গেলেই এরা একই কাণ্ড করে! শুধু মানুষের মৃত্যু নয়, কথায় কথায় এরা মানুষকে গালি দেয়, উল্লাস প্রকাশ করে। নিজেদের আবার এরা ধর্মের হেফাজতকারী মনে করে!

আপনারা যারা নিজেদের মুসলমান দাবি করে এই কাজ করেন তাদের বলি, মৃত ব্যক্তির দোষ চর্চা বা তার ওপর প্রতিহিংসা চরিতার্থ পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হ্যা, আইয়ামে জাহিলিয়াতের যুগে মৃত ব্যক্তির নামে নিন্দা চর্চা এমনকি তার ওপর প্রতিহিংসাপরায়ণতার চর্চা ছিল।


আরও পড়ুনঃ


২৮ হাজার লিটার দুধ নিয়ে নদীতে ট্যাঙ্কার!

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

ভারতে যেতে আর বাধা নেই পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের

করোনায় কাজ না থাকলেও কর্মীদের পুরো বেতন দিচ্ছেন নেইমার


কিন্তু রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ ঘৃণ্য চর্চার অবসান ঘটান। হজরত আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত যে রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, মৃত ব্যক্তিদের গালমন্দ কর না। কারণ তারা যা করেছে তার প্রতিফল পাওয়ার স্থানে পৌঁছে গেছে। (বুখারি)।

ভীষণ দুঃখ লাগে। মানুষকে কষ্ট দিয়ে, অসম্মান করে, গালিগালাজ করে কোনদিন ধর্ম হতে পারে না। কোনদিন না। দোয়া করি মহান আল্লাহ তাদের রহম করুন। তাদের বোধ দিক। তারা মানুষ হোক। কারণ, মানুষ না হলে যে বাকি সবই বৃথা!

news24bd.tv / নকিব

;