ইসরায়েল-গ্রীসের এমন প্রতিরক্ষা চুক্তি আগে হয়নি

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েল-গ্রীসের এমন প্রতিরক্ষা চুক্তি আগে হয়নি

সর্বকালের বৃহত্তম প্রতিরক্ষা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে ইসরায়েল ও গ্রিস। দুই দেশের বিমানবাহিনী যৌথ মহড়া শুরুর করায় তাদের মধ্যে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক বন্ধন শক্তিশালী হবে বলেও জানিয়েছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন, দেশটির প্রতিরক্ষা ঠিকাদার এলবিট সিস্টেমসের সঙ্গে ২২ বছর মেয়াদি ১ দশমিক ৬৫ বিলিয়নের চুক্তিও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এ ছাড়া গ্রিসের টি-৬ এয়ারক্রাফটের পরিমার্জন ও পরিচালনার জন্য সরঞ্জাম সরবরাহ করবে এলবিট। সঙ্গে থাকবে প্রশিক্ষণ, সিমুলেটর ও লজিস্টিকস সাহায্য।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ বলেছে, “আমি নিশ্চিত যে এই কর্মসূচি ইসরায়েল ও গ্রিসের অর্থনীতিকে সক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে ও শক্তিশালী করবে। এভাবে আমাদের দুই দেশের মধ্যে অংশীদারত্ব প্রতিরক্ষা, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক স্তরে আরও গভীর হবে।”


আরও পড়ুনঃ


বাইডেনের প্রস্তাবে রাজি পুতিন

গালি ভেবে গ্রামের নাম মুছে দিলো ফেসবুক

একজন মিডিওকার যুবকের ১৮+ জীবনের গল্প এবং অন্যান্য

মৃত্যুতে যারা আলহামদুলিল্লাহ বলে তারা কী মানুষ?


শুক্রবার সাইপ্রাসে সংযুক্ত আরব আমিরাত, গ্রিস, সাইপ্রাস ও ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে বৈঠক হয়। সেখানেই এই প্রতিরক্ষা চুক্তির ঘোষণা আসে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

এক বছরের বেশি সময় ঘরে থেকেও করোনা আক্রান্ত তসলিমা নাসরিন

অনলাইন ডেস্ক

এক বছরের বেশি সময় ঘরে থেকেও করোনা আক্রান্ত তসলিমা নাসরিন

এবার করোনা হানা দিয়েছে ভারতে বসবাসরত বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিনের শরীরে। আক্রান্ত হওয়ার এ খবর টুইট করে জানিয়েছেন তিনি।

কোভিড পজিটিভ হয়ে বিস্মিত প্রকাশ করেছেন তিনি।

এর কারণ এক বছর ধরে তিনি বাড়ির বাইরে পা রাখেননি। তাঁর ঘরেও আসেননি কেউ। তা সত্ত্বেও কীভাবে সংক্রমিত হলেন তা নিয়ে উদ্বিগ্ন তসলিমা। সেই সঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন তাঁর একমাত্র সঙ্গীর কথা।

এক টুইট বার্তায় তসলিমা নাসরিন বলেন, ‘এক বছরের বেশি সময় ধরে ঘরের বাইরে পা দিইনি। কাউকে ঘরে আসতেও দিইনি। ঘরের ভেতর আমার বিড়াল আর আমি ছিলাম। এরপরও আমি কোভিড-১৯–এ আক্রান্ত! যদি জানতে পারতাম, আমি কীভাবে আক্রান্ত হলাম।’

তবে ঠিক কবে থেকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বা তাঁর বর্তমান শারীরিক অবস্থা কী, সে সম্পর্কে ওই টুইট বার্তায় কিছু বলেননি তসলিমা নাসরিন।

 

i haven't stepped out of my home for more than a year. Didn't allow anyone to enter my home. i was alone with a cat. And then i caught covid-19. Wish i knew how i caught it. ☹️

— taslima nasreen (@taslimanasreen) May 9, 2021

 

গত বছর মহামারী শুরু সময় দিল্লির নিজামুদ্দিনে হওয়া তবলিগি জামাতের সম্মেলনকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার জন্য দায়ী করেছিলেন তসলিমা নাসরিন। তবলিগি জামাতকে নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছিলেন বাংলাদেশের বিতর্কিত এই লেখিকা। টুইটে তসলিমার দাবি ছিল, ‌‘তবলিগি জামাত একটি ইসলামি কট্টরপন্থীদের আন্দোলন। ১৯২৬ সালে হরিয়ানার মোয়াতে এটি শুরু হয়। উজবেকিস্তান, তাজিকিস্তান, কাজাকাস্তান তবলিঘি জামাতকে নিষিদ্ধ করেছে। এটির সঙ্গে জঙ্গিদের সংস্রব রয়েছে। তবিলিগের বেপরোয়া কাণ্ডকারখানার জন্য বহু মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, হবেনও অনেকে। প্রায় এক শতাব্দী ধরে এরা দুনিয়ায় অজ্ঞতা ও কট্টরপন্থ ছড়িয়ে আসছে। এদের নিষিদ্ধ করা উচিত।’

উল্লেখ্য, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে আন্দোলনের মুখে ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ ছেড়ে যেতে বাধ্য হন তসলিমা। তিনি সুইডেনের পাসপোর্টধারী হিসেবে দিল্লিতে বসবাস করছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

এবার নার্সের ‘নিমুরা নিমুরা’ গানের নাচের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

এবার নার্সের ‘নিমুরা নিমুরা’ গানের নাচের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

হাসপাতালের চিকিৎসক কিংবা নার্সের নাচের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার মতো ঘটনা এটাই প্রথম না। এর আগেও বিভিন্ন গানের সঙ্গে চিকিৎসকদের নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এবারের ঘটনা কলকাতার উডল্যান্ডস হাসপাতালের অজিতকুমার পট্টনায়েক নামের এক নার্সের।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, পিপিই কিট ও অ্যাপ্রোন পরে হিন্দি গানের তালে নাচছেন অজিত। তার সঙ্গে যোগ দিয়েছেন অন্য নার্সরাও। অনেকেই সেখানে দাঁড়িয়ে হাততালি উৎসাহ দিচ্ছেন। পুরুষ নার্সের উদ্যোগে হিন্দি ‘নিমুরা নিমুরা’ গানের তালে তালে এই নাচ হচ্ছিলো।  

একাধিক ওই ভিডিওতে আরও দেখা যায়, স্বাস্থ্য কর্মীদের নাচের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন রোগীরাও। কেউ আবার শয্যায় বসেই এই নাচের দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করছেন। প্রত্যেকের মুখে হাসি। হাসপাতালের বাকি কর্মীদেরও দেখা যাচ্ছে হাততালি দিয়ে অজিতকে উৎসাহ দিতে।

আরও পড়ুন


করোনার ভারতীয় ধরণ, বিপদজনক ভবিষ্যতেরই পূর্বাভাস: কাদের

৪৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার পর বদমাশ ব্যাটা পালিয়ে যায়

সেই স্পিডবোট মালিক চান মিয়া র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

সূরা বালাদের ফজিলত, আলোচিত প্রধান দু’টি বিষয়


করোনা আক্রান্তদের যে শুধু শরীর নয়, চাপ পরে মনেও। তাই এই সময় রোগীদের যতটা আনন্দে রাখতে পারা যায় ততই ভাল। তাই স্বাস্থ্যকর্মীদের উদ্যোগে রোগীদের উৎসাহ দেয়ার বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন মনোবিজ্ঞানীরা।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করে লেখা হয়েছে, কোভিড রোগীদের দ্রুত সারিয়ে তোলার জন্য চিকিৎসার পাশাপাশি তাঁদের মন ভাল রাখাও খুব প্রয়োজন। সেই চেষ্টাই করছেন হাসপাতালের কর্মীরা।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান আবারও লন্ডনের মেয়র

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান আবারও লন্ডনের মেয়র

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত লেবার পার্টির সাদিক খান আবারও লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। শনিবার (৮ মে) রাতে তিনি তার রক্ষণশীল প্রতিদ্বন্দ্বী শন বেইলিকে পরাজিত করে জয় ছিনিয়ে আনেন।

সাদিক খান ২০১৬ সালে ইউরোপের কোনো রাজধানী নগরীর প্রথম মুসলিম মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। এবারের ভোটের প্রথম রাউন্ডে কোনো প্রার্থীই সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত করতে পারেনি। দ্বিতীয় রাউন্ডে সাদিক খান ৫৫ দশমিক ২ ভাগ পপুলার ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি’র খবরে জানা যায়, সাদিক খান পুরো নির্বাচনী প্রক্রিয়াতেই এগিয়ে ছিলেন। সাদিক খান ১২ লাখ ৬ হাজার ৩৪ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ক্ষমতাসীন দল কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী শন বেইলি পেয়েছেন ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬০১ ভোট। তৃতীয় স্থানে থাকা গ্রিন পার্টির প্রার্থী সায়ান বেরির প্রাপ্ত ভোট এক লাখ ৯৭ হাজার ৯৭৬। তবে ২০১৬ সালের মতো এবার সাদিক খান রেকর্ড সৃষ্টিকারী ভোট পেতে ব্যর্থ হয়েছেন।

শনিবার ফল ঘোষণার পর সাদিক খান বলেন, আমি সবসময়ই লন্ডনবাসীর মেয়র হয়ে থাকব, নগরীর প্রত্যেকটি মানুষের জীবনমান উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাব।

আরও পড়ুন


পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় আবারও সংঘর্ষ, আহত অনেক

বাগেরহাটে টিকটকে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, স্ত্রীকে হত্যা করলো স্বামী

মা দিবসে যা বললেন সাকিব আল হাসান

মা কিংবা মন খারাপের গল্প


বেক্সিট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ব্রেক্সিটের ক্ষত এখনও শুকায়নি। একটি নিষ্ঠুর সাংস্কৃতিক যুদ্ধ আমাদেরকে আরও বিভক্ত করে ফেলছে। লন্ডনে ও দেশের বিভিন্ন প্রান্তে অর্থনৈতিক বৈষম্য বেড়েই চলেছে।'

মহামারির এই দুর্যোগ কাটিয়ে অর্থনীতিকে আরও মজবুত করে আরও ঐক্যবদ্ধ শহর ও দেশ গড়ার প্রত্যয় জানান সাদিক খান।

১৯৭০ সালের ৮ অক্টোবর সাউথ লন্ডনে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খানের জন্ম। তার বাবা আমানুল্লাহ ও মা সেরুন ১৯৬৮ সালে পাকিস্তান থেকে লন্ডনে যান। সাদিক খানের স্ত্রীর নাম সাদিয়া। তাদের দু’মেয়ে রয়েছে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় আবারও সংঘর্ষ, আহত অনেক

অনলাইন ডেস্ক

পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় আবারও সংঘর্ষ, আহত অনেক

জেরুজালেমের পবিত্র আল-আকসা মসজিদ চত্বর এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে আবারও ফিলিস্তিনীদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে বহু মানুষ আহত হয়েছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি এবং আল-জাজিরার খবরে এমনটাই জানানো হয়েছে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হচ্ছে, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়েছে বিক্ষোভকারীরা। এসময় পুরনো শহর দামেস্ক গেটের কাছে আগুন জ্বালিয়ে দেয় তারা। বিক্ষোভকারীদের রুখতে পুলিশ কর্মকর্তারা স্টান গ্রেনেড এবং জলকামান ব্যবহার করেছে বলে জানা যাচ্ছে। 

ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট সংস্থার বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, পুলিশ-ফিলিস্তিনি সংঘর্ষে অন্তত ৮০ জন ফিলিস্তিনি নাগরিক আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১৪ জনকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া ইসরায়েলি পুলিশের মুখপাত্র রয়টার্সকে জানায়, সংঘর্ষে একজন পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন


বাগেরহাটে টিকটকে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, স্ত্রীকে হত্যা করলো স্বামী

মা দিবসে যা বললেন সাকিব আল হাসান

মা কিংবা মন খারাপের গল্প

বাড়িতে যেতে চাইলে হাসবেন-ভয় দেখাবেন, এই আপনাদের বিচার!


বিবিসি জানায়, শনিবার ইসলাম ধর্মের পবিত্র রাত লাইলাতুল কদর উপলক্ষে যখন হাজার হাজার মুসলমান আল-আকসা মসজিদে নামাজ আদায় করেন ঠিক সে সময় সহিংসতার শুরু হয় জেরুজালেমের দামেস্ক গেটে। এর আগে শনিবার মসজিদ অভিমুখে নামাজিদের নিয়ে যাওয়া অনেক বাস আটকে দেয় ইসরায়েলি পুলিশ। এ ছাড়া বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনিকে গ্রেপ্তারও করা হয়।

এর আগে শুক্রবার রাতে আল-আকসা মসজিদের কাছে সহিংসতায় ২০০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি এবং অন্তত ১৭ জন ইসরায়েলি পুলিশ আহত হয়েছে বলে স্বাস্থ্যকর্মী এবং পুলিশ জানিয়েছে।

এদিকে সংঘর্ষের ওই ঘটনায় 'গভীর উদ্বেগ' জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, রাশিয়া এবং জাতিসংঘ। জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ মুসলমান ধর্মাবলম্বীদের কাছে ইসলামের অন্যতম প্রধান কেন্দ্র, কিন্তু সেটি এলাকাটি ইহুদি ধর্মাবলম্বীদেরও একটি তীর্থস্থান, যাকে টেম্পল মাউন্ট বলা হয়।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

নিয়ন্ত্রণ হারানো চীনের রকেট পড়লো ভারত মহাসাগরে

অনলাইন ডেস্ক

নিয়ন্ত্রণ হারানো চীনের রকেট পড়লো ভারত মহাসাগরে

ভারত মহাসাগরে আছড়ে পড়েছে চীনা লং মার্চ-৫বি রকেটের ধ্বংসাবশেষ এমনটাই দাবি করেছে চীন। দেশটির রাষ্ট্রয়াত্ব গণমাধ্যমের বরাতে রয়টার্স জানিয়ে রোববার চীনের সময় সকাল ১০টা ২৪ মিনিট (বাংলাদেশের সময় ৮টা ২৪ মিনিটে) ভারত ও শ্রীলঙ্কান দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলে ভেঙে পড়ে।

আরেক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ডেইলি মেইল জানিয়েছে, বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রকেটটির ধ্বংসাবশেষ মালদ্বীপের ওপর দিয়ে পৃথিবীতে পুনরায় প্রবেশ করে। এরপর সেটি ভারত সাগরে গিয়ে আছড়ে পড়ে।

এর আগে মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মাইক হাওয়ার্ড জানান, ৮ মে পৃথিবীর কক্ষপথে ফিরে আসতে পারে চীনা রকেটটি। তিনি আরও জানান,  বিষয়টি মার্কিন সামরিক বাহিনীর স্পেস কমান্ড নজরদারি করছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছিল নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডে পড়তে পারে রকেটটি। গেলো মাসেই চীনের নতুন মহাকাশ স্টেশনের প্রথম মডিউলটি নিয়ে কক্ষপথে রওনা দেয় লং মার্চ-৫বি নামে রকেটটি।

আরও পড়ুন


যাত্রীদের চাপ সামলাতে সব ফেরিঘাটে বিজিবি মোতায়েন

মার্কিন নিয়ন্ত্রিত সামরিক ঘাঁটিতে রকেট হামলায় বিমানের হ্যাঙ্গার ধ্বংস

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফয়ছল চৌধুরী স্কটিশ পার্লামেন্টে নির্বাচিত

সারা দেশে আজ ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস


তিয়ানহে মডিউল চীনের নির্মাণাধীন স্থায়ী মহাকাশ স্টেশনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। স্টেশনটির তিন ক্রুর বসবাসের কোয়ার্টার এই মডিউলটিতে করেই নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

বায়ুমণ্ডলে নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ঘুরপাক খেতে থাকা সবচেয়ে বড় বস্তু এই ধ্বংসাবশেষ।

এর আগে চীন জানায়, এতে ক্ষয়ক্ষতির ঝুঁকি একেবারেই কম। তবে যুক্তরাষ্ট্র বলেছিলো, এটি কোনো জনবহুল এলাকায় এসেও পড়তে পারে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর