২০ এপ্রিল, ইতিহাসে আজকের এই দিনে

অনলাইন ডেস্ক

২০ এপ্রিল, ইতিহাসে আজকের এই দিনে

২০ এপ্রিল, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১১০তম (অধিবর্ষে ১১১তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৫৫ দিন বাকি রয়েছে।

একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

১৫২৬ -  পানিপথের যুদ্ধে মোগলরা আফগানদের পরাভূত করে।
১৭৭০ -  ব্লাক নিউ সাউথ ওয়েলস আবিষ্কার করেন।
১৭৭০ -  আজকের এই দিনে ক্যাপ্টেন কুক অস্ট্রেলিয়া আবিস্কার করেন।
১৮৮৯ - ফরাসী বিপ্লবের শতবর্ষ পূর্তিতে স্মারকস্তম্ভ ৯৮৫ ফুট উঁচু আইফেল টাওয়ার নির্মাণের কাজ শেষ হয়।
১৯০২ -  কিউবা থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়।
১৯১৯ -  মন্টিনিগ্রোর রাজা নিকোলাস সিংহাসনচ্যুত।
১৯৪০ -  দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশ ব্রিগেডের ফ্রান্সে পদার্পণ।
১৯৪৫ -  ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর বার্লিনে প্রবেশ।
১৯৫৯ -  নদার্ন রোডেশিয়ায় নির্বাচনে ইউনাইটেড ফেডারেল পার্টির জয়।
১৯৬৪ -  লাওসে সামরিক অভ্যুত্থান ব্যর্থ।
১৯৭২ -  যুক্তরাষ্ট্রের এ্যাপোলো-১৬’র নভোচারীরা নিরাপদে চাঁদে অবতরণে সফল।
১৯৭৬ -  জেরুজালেমে ইসরাইল বিরোধী দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে।
১৯৮৬ -  শ্রীলংকায় একটি বিশাল সেচ মজুদাগারে ফাটল ধরে বিরাট এলাকা জুড়ে প্লাবন । দুশতাধিক প্রাণহানি। ২০ হাজার পরিবার গৃহহীন।
১৯৯৮ -  ইকুয়েডরের যাত্রীবাহী বিমান কলম্বিয়ার পার্বত্যাঞ্চলে বিধ্বস্ত হয়ে ৫৩ আরোহীর সবাই নিহত।
২০১২ - পাকিস্তানের ইসলামাবাদের কাছে বেনজির ভুট্টো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর-এর সন্নিকটে আবাসিক এলাকায় বিমান বিদ্ধস্ত হয়ে ১২৭ জন নিহত হয়।
২০১৩ - চীনের সিচুয়ান প্রদেশে ৬.৬ মাত্রার ভূমিকম্পে ১৫০ জনেরও বেশি নিহত হয়।

জন্ম:
১৪৯২ -   পিয়েট্রো আরেটিনো, তিনি ছিলেন ইতালীয় লেখক, নাট্যকার ও কবি।
১৮০৮ -   তৃতীয় নেপোলিয়ন, তিনি ছিলেন ফরাসি রাজনীতিবিদ ও ১ম প্রেসিডেন্ট।
১৮৮৯ -   আডলফ হিটলার, তিনি ছিলেন জার্মান রাজনীতিবিদ ও চ্যান্সেলর।
১৮৯৩ -   হ্যারল্ড লয়েড, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা, কৌতুকাভিনেতা ও প্রযোজক।
১৮৯৩ -   জোয়ান মিরো, তিনি ছিলেন স্প্যানিশ চিত্রশিল্পী ও ভাস্কর।
১৯১৮ -   শওকত আলী, তিনি ছিলেন রাজনীতিবিদ ও বাংলা ভাষা আন্দোলনের একজন অন্যতম নেতা।
১৯১৮ -   কাই মানে বোরিয়ে জিগবান, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইডিশ পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯২৭ -   কার্ল আলেকজান্ডার মুলার, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সুইস পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৩৭ -   জর্জ টাকেই, তিনি আমেরিকান অভিনেতা।
১৯৩৯ -   গ্রো হারলেম ব্রুন্ডটল্যান্ড, তিনি নরওয়েজিয়ান চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ ও ২২ তম প্রধানমন্ত্রী।
১৯৪৯ -   মাসিমো দালেমা, তিনি ইতালীয় সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও ৭৬ তম প্রধানমন্ত্রী।
১৯৪৯ -   জেসিকা ফিলিস ল্যাং, তিনি আমেরিকান অভিনেত্রী।
১৯৬৪ -   অ্যান্ডি সেরকিস, তিনি ইংরেজ অভিনেতা ও পরিচালক।
১৯৭২ -   কারমেন ইলেকট্রা, তিনি আমেরিকান মডেল ও অভিনেত্রী।
১৯৭২ -   যেলজক জক্সিমভিক, তিনি সার্বীয় গায়ক, গীতিকার ও প্রযোজক।
১৯৮৩ -   মিরান্ডা মে কের, তিনি অস্ট্রেলিয়ান মডেল।

মৃত্যু:
১৯১২ -  আব্রাহাম ব্রাম স্টোকার, তিনি ছিলেন আইরিশ বংশোদ্ভূত ইংরেজ লেখক ও ড্রাকুলারে স্রষ্টা।
১৯১৮ -  কার্ল ফার্দিনান্দ ব্রাউন, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান বংশোদ্ভূত আমেরিকান পদার্থবিদ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৩২ -  গিউসেপে পেয়ানো, তিনি ছিলেন ইতালীয় গণিতবিদ ও দার্শনিক।
১৯৫২ -  সুধীরলাল চক্রবর্তী, তিনি ছিলেন বাংলা ভাষার সুরকার ও সঙ্গীতজ্ঞ ও সুগায়ক।
১৯৬০ -  পান্নালাল ঘোষ, ছিলেন একজন ভারতীয় বাঙালী বংশীবাদক।
১৯৯১ -  ডোনাল্ড সিজেল, তিনি ছিলেন আমেরিকান পরিচালক ও প্রযোজক।
১৯৯২ -  বেনি হিল, তিনি ছিলেন ইংরেজ কৌতুকাভিনেতা, অভিনেতা ও চিত্রনাট্যকার।
১৯৯৩ -  কান্টিনফ্লাস, তিনি ছিলেন মেক্সিক্যান অভিনেতা, প্রযোজক ও চিত্রনাট্যকার।
২০০৩ -  বার্ণার্ড কাটজ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান বংশোদ্ভূত ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ।
২০১১ -  জেরার্ড স্মিথ, তিনি ছিলেন আমেরিকান গিটারিস্ট।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

পরকীয়া করায় জুতার মালা পরিয়ে ঘোরানো হল এক নারীকে, লজ্জায় আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

পরকীয়া করায় জুতার মালা পরিয়ে ঘোরানো হল এক নারীকে, লজ্জায় আত্মহত্যা

ঘটনা ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের। পরকীয়ার অভিযোগে এক গৃহবধূকে নির্যাতনে পর নগ্ন করে গলায় জুতার মালা পরিয়ে পুরো গ্রাম ঘোরানো হয়। এই অপমান সইতে না আত্মহত্যা করেছেন ওই গৃহবধূ।

মঙ্গলবার দক্ষিণ ত্রিপুরার সাবরুমের বেতাগা গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। রোববার এক গ্রাম্য সালিশে ওই গৃহবধূর পরকীয়ার একটি ভিডিও বড় স্ক্রিনে দেখানো হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউ জানায়, ওই ঘটনার একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার পর ত্রিপুরা হাইকোর্ট স্বপ্রণোদিত হয়ে পদক্ষেপ নেয়। কিন্তু আদালত পদক্ষেপ নেয়ার পরের দিনই আত্মহত্যা করেন ওই গৃহবধূ।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও যাত্রী নিয়ে শিমুলিয়াঘাট ছাড়লো ফেরি

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক

করোনা ঠেকাতে বিজেপি নেতার গোমূত্র পান, দিলেন পরামর্শও (ভিডিও)


খবরে বলা হয়েছে, ওই ভিডিও সামনে আসার পরই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন ওই গৃহবধূ। জানা গেছে, ওই ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর স্থানীয়রা ওই নারীর বাড়ির বাইরে জুতার মালা নিয়ে হাজির হয়। এরপর ওই নারীর চুল কেটে গলায় জুতার মালা পরিয়ে নগ্ন ঘোরানো হয় ওই নারীকে।

ওই নারীর পরিবার আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এ ঘটনায় পুলিশ সাতজনকে গ্রেফতার করেছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

করোনা ঠেকাতে বিজেপি নেতার গোমূত্র পান, দিলেন পরামর্শও (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক

করোনা ঠেকাতে বিজেপি নেতার গোমূত্র পান, দিলেন পরামর্শও (ভিডিও)

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকেই ভারতের বিভিন্ন জায়গা থেকে রাজনৈতিক নেতারা উদ্ভট সব ‘প্রতিষেধক’-এর কথা বলে আসছেন, যার অধিকাংশই গোমূত্র ও গোবর সংক্রান্ত।

এবার এ তালিকায় যুক্ত হল আরও একটি নাম। উত্তরপ্রদেশের এই বিজেপি নেতা শুধু পরামর্শ দিয়েই ক্ষান্ত হননি, কখন-কীভাবে পান করতে হবে সে উপায়ও বলে দিয়েছেন তিনি।

উত্তরপ্রদেশের বালিয়া জেলার বইরিয়ার বিজেপি নেতা সুরেন্দ্র সিং। শুক্রবার (৭ মে) তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওতে ওই নেতাকে গোমূত্র পান করতে দেখা গিয়েছে। বাতলে দিয়েছেন, সুস্থ থাকতে কীভাবে গোমূত্র পান করতে হবে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই নেতার দাবি, করোনা ঠেকানোর অব্যর্থ ওষুধ গোমূত্র। শুধু করোনাই ঠেকাবে না, শরীরকেও চাঙ্গা রাখবে ওই টোটকা।

সুরেন্দ্রের কথায়, গোমূত্র কোভিড-১৯ সংক্রমণ রুখতে সক্ষম। দিনে ১৮ ঘণ্টা কাজ করার পরও তিনি নাকি ওই গোমূত্র পান করেই সুস্থ রয়েছেন বলে দাবি তার।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

আইপিএল নেই, বাড়ি ফিরে যা করতে চান কোহলি

ইসরাইলের বিরুদ্ধে লড়াই করা মুসলিম উম্মাহর ধর্মীয় দায়িত্ব: হুথি নেতা

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক


ভিডিওতে সুরেন্দ্রকে বলতে শোনা গিয়েছে, সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে গোমূত্র সেবন করতে হবে। দু-তিন চামচ গোমূত্র এক গ্লাস জলে মেশাতে হবে। তারপর এক ঢোকে সেই জল উদরস্থ করতে হবে। তবে এই টোটকা সেবন করার ক্ষেত্রে একটি বিশেষ নিয়মের কথা বলেছেন ওই নেতা।

সুরেন্দ্রর কথায়, বিজ্ঞানে বিশ্বাস করুন আর না করুন, গোমূত্র করোনা রুখতে সক্ষম। তবে গোমূত্র পানের আধঘন্টার মধ্যে অন্য কোনকিছু খাওয়া বা পান করা যাবে না।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ত্রিপুরায় বৃষ্টি আনতে ব্যাঙের বিয়ে!

অনলাইন ডেস্ক

ত্রিপুরায় বৃষ্টি আনতে ব্যাঙের বিয়ে!

লৌকিকতা এবং বিশ্বাস অনেক সময় কোন যুক্তি মানে না। অনেক সময় সময়ের আবর্তনে তা হয়ে ওঠে প্রথা। ঠিক এমনই একটি প্রথা হল ব্যাঙের বিয়ে। বিশ্বাস করা হয়ে থাকে, ব্যাঙের ডাকের সাথে বৃষ্টির সংযোগ রয়েছে। তাই অনেক জায়গাতেই খরার সময় প্রথা অনুযায়ী বৃষ্টির জন্য ব্যাঙের বিয়ে দেয়ার প্রচলন রয়েছে।

সম্প্রতি ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে এমন একটি ঘটনা ঘটে। বৃষ্টির জন্য চা বাগানের কর্মীরা দুটি ব্যাঙের বিয়ের আয়োজন করে।

স্থানীয় লোকদের বিশ্বাস দুটি ব্যাঙের বিয়ে দেয়া হলে বৃষ্টির দেবতা ইন্দ্র খুশি হবেন এবং বৃষ্টি নামবেন।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

মিষ্টি বিতরণে পুলিশের বাঁধা, ২০ কেজি রসগোল্লা জব্দ

ইসরাইলের বিরুদ্ধে লড়াই করা মুসলিম উম্মাহর ধর্মীয় দায়িত্ব: হুথি নেতা

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক


ওই বিয়ের ছোট একটি ভিডিও ক্লিপ টুইটারে শেয়ার করেছে বার্তা সংস্থা এএনআই। সেখানে দুটি ব্যাঙকে পুকুরে গোসল করিয়ে, মালা বদল ও সিঁদুর পরিয়ে বিয়ে দিতে দেখা যায়। এমনকি এসময় তাদের রঙ বেরঙের পোশাকও পরানো হয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক

অনলাইন ডেস্ক

শত বছরের পুরনো বিয়ের রীতি ভাঙলেন ‘হার্ডকোর ফেমিনিস্ট’ যুবক

শত শত বছরের যে ভারতীয় বিবাহের রীতি রয়েছে তা পিতৃতান্ত্রিক। রীতি মেনে স্ত্রীর গলায় মঙ্গলসুত্র পরিয়ে দেন স্বামী। কিন্তু, শুধু নারীকেই কেন মঙ্গলসূত্র পরতে হবে?

তাই ভিন্ন এক বিয়ের পরিকল্পনা করেন তনুজা পাটিল এবং শার্দুল কদম। যে বিয়েতে তারা দুজনেই একে অপরের গলায় পরিয়ে দেবেন মঙ্গলসূত্র।

শার্দুলই প্রথম অভিনব এই প্রস্তাব দেন। এই প্রস্তাবে শার্দুলের পরিবারও অবাক হয়ে যায়।

কিন্তু নাছোড়াবান্দা শার্দুল ঠিকই মঙ্গলসূত্র পরে বিয়ে করেন। আর বিয়ের পরও সেই মঙ্গলসূত্র গলায় ঝুলিয়ে দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন!

শার্দুল নিজেকে ‘হার্ডকোর ফেমেনিস্ট’ বলে দাবি করেন। তার ভাষায়, একপাক্ষিক এই রীতির ‘কোনও অর্থ নেই’। চার বছর প্রেম করার পর ২০২০ সালের ডিসেম্বরে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মুম্বাইয়ের এই জুটি।

তিনি বলেন, সাতপাক হওয়ার পর তনুজা এবং আমি একে অপরের গলায় মঙ্গলসূত্র বাঁধি। তখন আমার খুব আনন্দ হচ্ছিল।

কিন্তু শার্দুলের এমন কাজের কারণে অনেকের সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাকে। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক বকাঝকা এবং ট্রোলের শিকার হতে হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

রোজার সৌন্দর্যে ​মুগ্ধ হয়ে ভারতীয় তরুণীর ইসলাম গ্রহণ

আইপিএল নেই, বাড়ি ফিরে যা করতে চান কোহলি

এক সপ্তাহে বিশ্বে করোনা আক্রান্তের অর্ধেকই ভারতে, মৃত্যু এক-চতুর্থাংশ


শুধু তাই নয়, প্রথা ভাঙায় উদারপন্থী হিসেবে পরিচিতরাও তাদেরকে কথা শোনাতে ছাড়েন নি। তাদের ভাষায়, লিঙ্গ সমতাকে সমর্থন করার পথ নয় এটা।

কিন্তু আত্মীয়স্বজন এবং সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের ট্রোলের পরও নিজের সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন শার্দুল।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

৭ মে, ইতিহাসে আজকের এইদিনে

অনলাইন ডেস্ক

৭ মে, ইতিহাসে আজকের এইদিনে

আজ ৭ মে, গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ১২৭তম (অধিবর্ষে ১২৮তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ২৩৮ দিন বাকি রয়েছে। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:
১৮০৮ - স্পেনের জনগণ নেপোলিয়ন বোনাপার্টের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে সংগ্রাম শুরু করে।
১৮৩২ - গ্রিসকে স্বাধীন রাজ্য ঘোষণা করা হয়।
১৯১৫ - প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানরা আমেরিকায় ‘লুসিতানিয়া’ জাহাজ ডুবিয়ে দেয়।
১৯২৩ - অমৃতরে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা শুরু।
১৯২৯ - লাহোরে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় বহু হতাহত হয়।
১৯৪১ - মিত্রশক্তির কাছে জার্মানি নিঃশর্ত আত্মসমর্পণ করে।
১৯৪৮ - জাতিসংঘের বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিষ্ঠা।
১৯৫৪ - দিয়েন বিয়েন ফু-র পতনের ফলে ভিয়েতনাম ফরাসি শাসন থেকে মুক্ত হয়।

জন্ম:
১৭৭০ - উইলিয়াম ওয়ার্ডসওয়ার্থ, ইংরেজ কবি।
১৮১২ - রবার্ট ব্রাউনিং, ইংরেজ কবি।
১৮৪০ - পিওৎর চাইকোভস্কি, রুশ সঙ্গীতজ্ঞ।
১৮৬১ - মতিলাল নেহরু, আইনজীবী ও জাতীয়তাবাদী নেতা।
১৮৬৭ - ভাদিস্লাভ স্ট্যানিশস্লাভ রেইমন্ট, পোলিশ কথাসাহিত্যিক।
১৮৮১ - উইলিয়ামস পিয়ারসন, রবীন্দ্র সাহিত্যের অনুবাদক।
১৮৮৯ - গ্যাব্রিলা মিস্ত্রাল, লেখক।
১৮৯২ - মার্শাল জোসিপ ব্রজ টিটো, যুগোশ্লাভিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও রাষ্ট্রপ্রধান।
১৮৯৩ - ফিরোজ খান নুন, পাকিস্তানি রাজনীতিবিদ, পাকিস্তানের ৭ম প্রধানমন্ত্রী।
১৯৩১ - সিদ্দিকা কবীর, বাংলাদেশী পুষ্টিবিশেষজ্ঞ ও শিক্ষাবিদ।
১৯৪৩ - পিটার কেরি - অস্ট্রেলীয় ঔপন্যাসিক ও ছোটগল্পকার।


জুমাতুল বিদাকে ‘আল-কুদস দিবস’ বলা হয় কেন?

মধ্যরাতে হেফাজতের নেতা শাহীনুর পাশা গ্রেপ্তার

পবিত্র জুমাতুল বিদা আজ

কোভিড সার্টিফিকেট জাল, ধ্যাত তাও কি হয় নাকি!


মৃত্যু:

১৯০৯ - হের্মান অস্ট্‌হফ, জার্মান ভাষাবিজ্ঞানী।
১৯৪১ - স্যার জেমস ফ্রেজার, স্কটিশ নৃতাত্ত্বিক ও শিক্ষাবিদ (জ. ১৮৫৪)।
১৯৭১ - রণদাপ্রসাদ সাহা, বাংলাদেশের বিখ্যাত সমাজসেবক এবং দানবীর ছিলেন।
১৯৯৩ - অজিতকৃষ্ণ বসু, সঙ্গীতজ্ঞ ও ব্যঙ্গ সাহিত্যস্রষ্টা।
 
দিবস:
বিশ্ব হাঁপানি দিবস
ইঞ্জিনিয়ার্স ডে

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর