লিচুগাছে ধরা সেই আম ছিঁড়ে পালাল মোটরসাইকেলে আসা ৩ তরুণ

অনলাইন ডেস্ক

লিচুগাছে ধরা সেই আম ছিঁড়ে পালাল মোটরসাইকেলে আসা ৩ তরুণ

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার লিচুগাছে ধরা আমের খবরটি গোটা দেশে সাড়া ফেলেছে। কিন্তু আজ মঙ্গলবার ছিঁড়ে ফেলেছেন একদল তরুণ।

বিচিত্র এই ঘটনা দেখতে গিয়ে ঝামেলা ও বিতণ্ডার জের ধরে একদল তরুণ আমটি ছিঁড়ে পালিয়ে যান বলে অভিযোগ করেন সিঙ্গিয়া কলোনিপাড়া গ্রামের ওই গাছের মালিক আবদুর রহমান।

ফলে এই ঘটনার বিজ্ঞানভিত্তিক ব্যাখ্যা পাওয়ার কোনো সুযোগ থাকল না।

গাছের মালিক আবদুর রহমানের অভিযোগ, লিচুর থোকায় একটি আম ধরেছে—এই খবরে বহু মানুষ তা দেখতে আবদুর রহমানের বাড়িতে ভিড় জমান। আজ বেলা ১১টার দিকে মোটরসাইকেলে করে তিন তরুণ সেখানে গিয়ে আমটি ছিঁড়ে পালিয়ে যান।

আবদুর রহমান বলেন, গত শনিবার গাছে লিচুর থোকার পাশে আম দেখতে পাওয়ার কথাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এরপর লিচুগাছটি পাহারা দিতে শুরু করেন তিনি। আজ সকালেও লিচুগাছটি দেখতে এলাকায় ভিড় করেন অনেকে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য সফিকুল ইসলামের ভাতিজা সোহেল রানা মোটরসাইকেলে করে আমটি দেখতে যান। ফেরার পথে আরেকটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে সোহেল রানার মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। এতে সোহেল রানা আঘাত পান।

আবদুর রহমানের ভাষ্য, ঘটনাটি ইউপি সদস্য সফিকুল ইসলাম জানার পর তিনি তাঁর (আবদুর রহমান) বোনকে ডেকে বলেন, এই আমের কারণে এখানে সমস্যা হচ্ছে। আমটি তিনি ছিঁড়ে ফেলবেন। এর ঘণ্টাখানেক পর তাঁর বাড়িতে আসেন সফিকুল ইসলাম। তাঁর পেছনে একটি মোটরসাইকেলে করে তিন তরুণও আসেন। লোকসমাগম ও লিচুগাছটি পাহারা নিয়ে সফিকুলের সঙ্গে আবদুর রহমানের বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তরুণেরা গাছ থেকে আমটি ছিঁড়ে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যান। লোকজন তরুণদের পেছনে ধাওয়া করেও তাঁদের ধরতে পারেননি।

বালিয়া ইউপির সদস্য সফিকুল ইসলামের ভাষ্য, ‘আমি সেখানে গিয়ে আবদুর রহমানকে বলেছি, এখন করোনার প্রকোপ বেশি। এখানে যাতে লোকজনের ভিড় কম হয়। এ কথা শুনে তিনি পাল্টা বলেন, আপনারা মেম্বার-চেয়ারম্যানরা কী করেন? এসব আপনারা সামলাতে পারেন না? এ নিয়ে তাঁর সঙ্গে তর্ক হওয়ার একপর্যায়ে কে আমটি ছিঁড়েছে, আমি তা বলতে পারছি না।’ তাঁর পেছনে মোটরসাইকেল নিয়ে আসা তরুণদের তিনি চেনেন না বলে দাবি করেন।

পরবর্তী খবর

নাটোরে কৃষকের কাছ থেকে ধান-চাল কেনা শুরু

নাটোর প্রতিনিধি:

নাটোরে কৃষকের কাছ থেকে ধান-চাল কেনা শুরু

চলতি বোরো মৌসুমে নাটোর জেলায় সরকারিভাবে কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান ও চাল কেনা শুরু হয়েছে। রোববার সকালে নাটোর শহরের বড়গাছা খাদ্য গোডাউনে এই ধান ও চাল কেনার উদ্বোধন করেন নাটোর-২ আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা খাদ্য কর্মকর্তা রবীন্দ্র লাল চাকমা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা রেজাউল করিম প্রমুখ।

জেলা খাদ্য কর্মকর্তা জানান, চলতি বোরো মৌসুমে নাটোর জেলায় সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ২৭ টাকা কেজি দরে ৬ হাজার ৫৮ মেট্রিক টন ধান, মিলারদের কাছ থেকে ৪০টাকা কেজি দরে ১৩ হাজার ৩৭০ মেট্রিক টন সেদ্ধ চাল কেনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সংগ্রহ কার্যক্রম চলবে আাগামী ১৬ আগস্ট পর্যন্ত।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সুনামগঞ্জে অর্থ সহায়তা প্রদান

মো.বুরহান উদ্দিন সুনামগঞ্জ

প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সুনামগঞ্জে অর্থ সহায়তা প্রদান

আসন্ন রমজানের ঈদকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণ তহবিল থেকে সুনামগঞ্জ পৌরসভার উপকারভোগী ৪ হাজার ৬২১ জনের প্রত্যেককে ৪৫০টাকা করে মোট ২০ লাখ টাকা নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে পৌরচত্বরে এ নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন- সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন ও পৌরসভার মেয়র নাদের বখত।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,পৌর সচিব ইসহাক ভূইয়া,পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন,প্যানেল মেয়র আহমদ নুর,কাউন্সিলর সৈয়দা জাহানারা বেগম,পৌর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক লিটন সরকার প্রমুখ।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

২৫০ টাকার জন্য বন্ধুকে হত্যা, ঘাতক শাকিল গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

২৫০ টাকার জন্য বন্ধুকে হত্যা, ঘাতক শাকিল গ্রেপ্তার

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের পৌরসভার কার্যালয়ের সামনের প্রধান রাস্তায় ২৫০ টাকার জের ধরে নির্মমভাবে খুন হওয়া রিকশা চালক শুকুর আলী (২০) এর খুনি তারই বন্ধু শাকিল মিয়া (২৩) কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

আজ রোববার (০৯) ভোর রাতে শহরের বনানীপাড়া এলাকা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত শাকিল নিহত শুকুর আলীর পুরনো বন্ধু। শাকিল মিয়া সদর উপজেলার বিরামপুর গ্রামের সালাউর মিয়ার ছেলে। বর্তমাসে সে শহরের বর্নানী পাড়া এলাকায় বসবাস করে। তার বিরুদ্ধে একাধিক চুরি ও নারী নির্যাতন মামলা আদালতে বিচারাধীন আছে বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুর রহমান। 

ঘাতক শাকিলকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে থানার ওসি বলেন,‘ রিকশা চালক শুকুর আলীকে চুরিকাঘাত করে খুন করা হয়েছে বলে পুলিশের কাছে প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে শাকিল মিয়া। ’ 

প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জ পৌর শহরের ৮ নং ওয়ার্ডের মল্লিকপুর এলাকার মৃত সেজুল মিয়ার ছেলে রিকশা চালক শুকুর ও শাকিল মিয়া একসময় একে অপরের বন্ধু ছিল। কিন্তু গত ছয়মাস আগে ২৫০ টাকা পয়না লেনদেন নিয়ে শুকুরের সাথে শাকিলের দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। 

এর জের ধরে শনিবার সুনামগঞ্জ পৌরসভার সামনে ডি.এস রোডে রিকশা চালক শুকুর আলীকে এলাপাতারি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় শাকিল মিয়া। শুকুর আলীকে গুরত্বর আহত অবস্থায় সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় শাকিল মিয়ার বিরুদ্ধে শনিবার রাতে সদর মডেল থানায় খুনের মামলা দায়ের করেন নিহত শুকুর আলীর মা জাইরুন নেচ্ছ।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর

গাজীপুরে দুস্থদের বসুন্ধরার ঈদ উপহার

শেখ সফিউদ্দিন জিন্নাহ্, গাজীপুর:

গাজীপুরে দুস্থদের বসুন্ধরার ঈদ উপহার

অসহায় দুস্থদের ঈদ উপহার দিয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপ। গাজীপুরের শ্রীপুরের সাতখামাইর এলাকায় আজ রোববার দুপরে সাতখামাইর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত শত শত অসহায় মানুষের মাঝে এ ঈদ উপহার দেয়া হয়।

এ সময় ঈদ উপহার পেয়ে সাধারণ মানুষরা খুশিতে আবেগে আপ্লুত হয়ে পরেন। তারা বসুন্ধরা গ্রুপরের চেয়ারম্যান, এমডির জন্য দোয়া করেন।

ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমাম হোসেন, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেখ আব্দুল লতিফ, শ্রীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি এফএম মাহমুল হাসান হান্নান, সাতখামাইর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লিয়াত আলী দুলাল, গাজীপুর জেলা যুবলীগ নেতা মাজহারুল ইসলাম হিরন, গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগ নেতা মাহবুব হাসান, কালেরকণ্ঠের গাজীপুর আঞ্চলিক প্রতিনিধি শাহীন আকন্দ প্রমুখ। এ সময় বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান, এমডি সাহেবের দীর্ঘায়ু কামনা করে এক দোয়া করা হয়।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর

বালিয়াডাঙ্গীতে ঈদে নতুন কাপড় না দেওয়া আত্মহত্যা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

বালিয়াডাঙ্গীতে ঈদে নতুন কাপড় না দেওয়া আত্মহত্যা

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে ঈদের নতুন কাপড় কিনে না দেওয়ায় মায়ের উপর অভিমান করে আলমগীর (১৫) নামে এক কিশোর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের বোয়ালধার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আলমগীর ওই গ্রামের মোখলেসুর রহমানের ছেলে।

আলমগীরের মা জাহানারা বেগম জানান, ঈদের নতুন কাপড় চোপড় কিনে চেয়েছিল। আমি কিছুদিন পরে কাপড় কিনে দিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ওহ এখনি কাপড় কিনে দিতে লাগবে জেদ করে। পরে চোখেঁড় আড়ালে কখন যে ঘরের দরজা বন্ধ করে গামছা দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়েছে আমরা জানি না। আমার ছোট মেয়ে ঘটনা দেখে চিৎকার করলে তার ফাঁস কেটে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাই।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ অনিদ্য পাল জানান, হাসপাতালে পৌছানোর পূর্বেই আলমগীর মারা গেছে। বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর