প্রয়োজন ছাড়া বের না হলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না: মোদি
প্রয়োজন ছাড়া বের না হলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না: মোদি

প্রয়োজন ছাড়া বের না হলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না: মোদি

অনলাইন ডেস্ক

আবারও কি লকডাউনের ঘোষণা করা হবে? প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার খবরটা ছড়ানোর পর থেকেই সেই জল্পনাই ঘুরপাক খাচ্ছিল।

তবে ১৯ মিনিটের ভাষণে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, এখনই লকডাউনের পথে হাঁটছে না দেশ। বরং ছোটো ছোটো কনটেনমেন্ট জোন, করোনাভাইরাস বিধি পালনের উপর জোর দেওয়া হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস ও দ্য ওয়াল এ খবর জানিয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে দেওয়া ভাষণে নরেন্দ্র মোদি বলেন, লকডাউন এখন কোনও বিকল্প নয়। মানুষের জীবন ও জীবিকা দুটি বিষয়ের কথাই মাথায় রাখতে হবে। লকডাউন থেকে দেশকে বাঁচাতেই হবে। রাজ্য সরকারগুলোকে বলব লকডাউনকে তারা যেন শেষ পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচনা করেন। বরং অগ্রাধিকার দিতে হবে মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জোন তৈরি করে কোভিড মোকাবিলায়।

তিনি বলেন, প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না। তাহলে লকডাউনের প্রশ্নই উঠবে না, নাইট কারফিউও জারি করতে হবে না, যদি আমরা সকলে মিলে করোনা বিধি মেনে চলি।  

জনগণকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে টিকাদান কর্মসূচি জোরদার করার পক্ষে জোর দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, বিশ্বে সবচেয়ে সস্তায় ভ্যাকসিন পাওয়া যায় ভারতেই। তাই ভারতের ভ্যাকসিনের চাহিদা বিশ্বজুড়ে। সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে টিকাদান চলবে। রাজ্যগুলোতে দ্রুততার সঙ্গে ভ্যাকসিন পাঠাতে হবে। এক্ষেত্রে কেন্দ্র-রাজ্য সমন্বয় অত্যন্ত জরুরি।


জিততে এসেছি, ইনশাআল্লাহ জয় পাব: মুমিনুল

বৈঠকতো দূরের কথা, বাবুনগরী কখনোই খালেদা জিয়াকে সামনাসামনি দেখেননি: হেফাজতে ইসলাম

কানাডার শীর্ষ নেতাদের সবাই অস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন

ফজিলতপূর্ণ ইবাদত তাহাজ্জুদের নামাজ


এছাড়া তিনি দেশের অক্সিজেনের ঘাটতি মেটানো, হাসপাতালের বেড বাড়ানো ও ওষুধ উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর জোর দেন।  

প্রসঙ্গত, আগামী ১ মে থেকে ভারতে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে। পাশাপাশি খোলা বাজারেও করোনার টিকা পাওয়া যাবে।  

news24bd.tv নাজিম

;