জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শাউভিন দোষী সাব্যস্ত

অনলাইন ডেস্ক

জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শাউভিন দোষী সাব্যস্ত

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের মিনেয়াপলিসে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার দায়ে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক শভিনকে দোষী সাব্যস্ত করেছে জুরি।

মঙ্গলবার ১২ সদস্যের জুরির একটি প্যানেল মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) মামলাটির রায় ঘোষণা করে। 

বিশ্বে বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের ইতিহাসে এই রায় একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মনে করছেন অনেকে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ফ্লয়েডকে হত্যায় পুলিশ কর্মকর্তা চৌভিনের বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগই আদালতে প্রমাণ হয়েছে। ফলে ৪০ বছর কারাদণ্ডাদেশ পেতে পারেন চৌভিন।  তাঁর বিরুদ্ধে আনা তিনটি অভিযোগ হলো-সেকেন্ড ডিগ্রি অনিচ্ছাকৃত হত্যা, থার্ড ডিগ্রি হত্যা ও সেকেন্ড ডিগ্রি নরহত্যা। 

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সেকেন্ড ডিগ্রি অনিচ্ছাকৃত হত্যার জন্য সর্বাধিক ৪০ বছর, থার্ড ডিগ্রি হত্যার জন্য সর্বাধিক ২৫ বছর ও সেকেন্ড ডিগ্রি নরহত্যার জন্য সর্বাধিক ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ হতে পারে শাউভিনের। শাস্তি দেওয়ার আগ পর্যন্ত শাউভিন কারাগারে থাকবেন। আদালত জানিয়েছেন, পরবর্তী আট সপ্তাহের মধ্যে শাউভিনের কারাদণ্ডাদেশ ঘোষণা করা হবে।

মার্কিন গণমাধ্যমটি আরও বলছে, শাউভিন এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

দেশটির মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনেয়াপলিসের সড়কে গত বছর মে মাসে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে গ্রেফতার ফ্লয়েডের ঘাড়ে চৌভিন (৪৫) হাঁটু গেড়ে বসলে তার মৃত্যু হয়। ৯ মিনিটের ওই ভিডিও সাড়া বিশ্বে সমালোচনার ঝড় তুলে।

 ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে।


করোনা সচেতনতা: যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ স্টাইল

জিততে এসেছি, ইনশাআল্লাহ জয় পাব: মুমিনুল

বৈঠকতো দূরের কথা, বাবুনগরী কখনোই খালেদা জিয়াকে সামনাসামনি দেখেননি: হেফাজতে ইসলাম

কানাডার শীর্ষ নেতাদের সবাই অস্ট্রেজেনেকার ভ্যাকসিন নিচ্ছেন


নিরস্ত্র এ কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যুর মাসখানেক পর তার পরিবার শহর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করে।

অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর এ মামলায় তিন সপ্তাহের বিচার শেষে মঙ্গলবার রায় আসে।

একদিনেরও কম সময় নিয়ে এ মামলার রায় প্রকাশকে যুক্তরাষ্ট্র তথা বিশ্বের বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের ইতিহাসে মাইলফলক বলে মন্তব্য করেছেন অনেকে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

মুহূর্তেই ফিলিস্তিনিদের জন্য ৭ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ

অনলাইন ডেস্ক

মুহূর্তেই ফিলিস্তিনিদের জন্য ৭ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ

ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনি হতাহতদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেছে তুরস্কের রেড ক্রিসেন্ট। যার পরিমাণ প্রায় ৭ দশমিক ২ মিলিয়ন ডলার।

রোববার (১৬ মে) গভীর রাতে ‘ফিলিস্তিনিরা আহত হয়েছে, আপনার সমর্থন জানান’ শিরোনামে সরাসরি সম্প্রচারিত একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে এই তহবিল সংগ্রহীত হয়।

সহায়তা সংস্থা আল-কুদস হাসপাতাল ও গাজার আটটি স্বাস্থ্যসেবা, ১০ টি ভ্রাম্যমাণ অ্যাম্বুলেন্স এবং এই অঞ্চলের পাঁচটি পরিপূর্ণ অ্যাম্বুলেন্সকে ওষুধ ও চিকিত্সা সরবরাহ করবে।

প্রয়োজন অনুসারে ২২ হাজার ৫০০ খাবার প্যাকেট এবং সমপরিমাণ স্বাস্থ্যকর প্যাকেজ সরবরাহ করা হবে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইসরাইলি তেল ও গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রে সাবমেরিন ড্রোন হামলা করতে পারে হামাস

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলি তেল ও গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রে সাবমেরিন ড্রোন হামলা করতে পারে হামাস

ইসরাইলের একটি যুদ্ধজাহাজে আজ (সোমবার) হামলা চালিয়েছে ফিলিস্তিনিরা। ফিলিস্তিনের সামরিক শাখা ইয্যাদ্দিন কাস্সাম ব্রিগেডের সেনারা সাগরে ইসরাইলি যুদ্ধজাহাজ লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে বলে গাজা থেকে আল-আলম টিভি চ্যানেল জানিয়েছে।

তবে এ হামলায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

এছাড়া, ইয্যাদ্দিন কাস্সাম ব্রিগেড আজ ইহুদি উপশহর 'হার্টসলিয়া'-তে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

এর আগে হামাসের যোদ্ধারা ইসরাইলের আশকেলান উপকূলে তেল ও গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে।

এদিকে, ইসরাইলের টিভি চ্যানেল 'নাইন' জানিয়েছে, হামাসের কাছে চালক বিহীন সাবমেরিন রয়েছে এবং এসব সাবমেরিন ড্রোন ব্যবহার করে ভূমধ্যসাগরে ইসরাইলি তেল ও গ্যাস উত্তোলন কেন্দ্রে হামলার আশঙ্কা রয়েছে।

ইসরাইলি সূত্রগুলো বলছে, হামাসের কাছে যেসব সাবমেরিন ড্রোন রয়েছে সেগুলো ৫০ কেজি ওজনের বিস্ফোরক বহন করতে পারে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইসরাইলকে আরও ৭৩ কোটি ডলারের অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

অনলাইন ডেস্ক

ইসরাইলকে আরও ৭৩ কোটি ডলারের অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ফিলিস্তিনের নিরীহ জনগণের ওপর নির্বিচার হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। এ নিয়ে টানা ৮দিনের মতো দখলদার বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০০ ছাড়িয়েছে। গাজায় ইসরাইলের সর্বাত্মক সন্ত্রাসী হামলার মধ্যেই দেশটিকে আরও অস্ত্র দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে প্রায় ৭৩.৫ কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রির প্রস্তাব অনুমোদন করেছে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন। 

অন্যদিকে  ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ বন্ধে গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল হামাসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। 

অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ফিলিস্তিনের হামলা থেকে বাঁচতে ‌ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে।

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের ভয়াবহ হামলার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকা নিয়ে ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে মতবিরোধ তৈরি হয়েছে। বাইডেন মানবাধিকার রক্ষার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সেটি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন ডেমোক্র্যাটরা। 

সমালোচনা শুরু হয়েছে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে অব্যাহতভাবে সমর্থন নিয়েও। এর মধ্যেই আবার ইসরাইলকে ব্যাপক অস্ত্র-সরঞ্জাম সরবরাহ করতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। এ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন মার্কিন কংগ্রেসের বেশকিছু আইনপ্রণেতা। 

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, ইসরাইলের কাছে নতুন করে অস্ত্র বিক্রির বিষয়টি মার্কিন কংগ্রেসকে জানানো হয় চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে (৫ মে)। 

গত সপ্তাহ থেকে ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলের তীব্র বিমান হামলা শুরু হওয়ার প্রায় এক সপ্তাহের মাথায় রোববার ওই অস্ত্রবিক্রির প্রস্তাবে অনুমোদন দেয় বাইডেন প্রশাসন। 

এদিনই গাজায় হামলার বিষয়ে ইসরাইলকে সমর্থন জানিয়ে বাইডেন বলেন, ‘ইসরাইলের নিজেকে সুরক্ষার অধিকার রয়েছে।’ 

ওয়াশিংটনের এই অবস্থানকে এর আগেও মার্কিন কংগ্রেসের বেশির ভাগ আইনপ্রণেতাই সমর্থন করেছে। কিন্তু এই অব্যাহত সমর্থন নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভসের নতুন প্রজন্মের আইনপ্রণেতারা। এমনকি বেশ কয়েকজন আইনপ্রণেতা প্রস্তাবিত অস্ত্র বিক্রয় প্রস্তাব ও সময়ের ব্যাপারে আরও জানতে চাইছেন। 

টানা আট দিন ধরে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিমান ও কামান হামলা চালাচ্ছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী।  এসব হামলায় ৫৮ শিশুসহ ২০০ মানুষ নিহত হয়েছেন। 

চলমান এ সহিংসতা থামাতে রোববার (১৬ মে) জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিল বৈঠকে বসেছিল। ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের মধ্যকার সংঘাত বন্ধের আহ্বান সংবলিত ঘোষণা দেওয়ার লক্ষ্যে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের তৃতীয় বৈঠকটিও ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে রুদ্ধদ্বার দুটি বৈঠকও ব্যর্থ হয়। সর্বশেষ বৈঠকে ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় বিভিন্ন ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে মানুষকে জীবিত ও মৃত উদ্ধারে ইসরায়েলের সঙ্গে সাময়িক অনুমতির চুক্তিতেও পৌঁছাতে পারেনি নিরাপত্তা পরিষদ।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

ইসরায়েলের আশকেলন শহরে বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার ভিডিও

অনলাইন ডেস্ক

ইসরায়েলের আশকেলন শহরে বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানার ভিডিও

ইসরায়েলের আশকেলন শহরে বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন ইসলামি জিহাদের সামরিক শাখা আল-কুদস ব্রিগেড। ২৫০ কেজি বোমা বহন করতে পারে এই ক্ষেপণাস্ত্রটি।

রোববার (১৬ মে) আল-কুদস ব্রিগেড এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে বলে ইরানি সংবাদমাধ্যম পার্স টুডের খবরে বলা হয়েছে।

ভিডিওতে বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র ইসরায়েল অধিকৃত আশকেলন নগরীর বিভিন্ন অবস্থানে আঘাত হানতে দেখা যায়।

এর আগে ২০১৯ সালের ৪ ও ৫ মে প্রথম বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র প্রথম ব্যবহার করা হয়। সেসময় আশকেলন নগরীর আকাশে অন্তত চারটি বদর-৩ ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়া হয়।

ভিডিওটি দেখুন

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আবারও ইসরাইলের পক্ষ নিয়ে যা বলল মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

আবারও ইসরাইলের পক্ষ নিয়ে যা বলল মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফিলিস্তিনের নিরীহ জনগণের ওপর নির্বিচার হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল। এ নিয়ে টানা ৮দিনের মতো দখলদার বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০০ ছাড়িয়েছে। এদিকে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতে ‌‘বেসামরিক নাগরিক ও শিশুদের’ সুরক্ষায় উভয়পক্ষকে সংযত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন। একই সঙ্গে তিনি ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ বন্ধে গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল হামাসের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি। 

তিরি আবার  ফিলিস্তিনের হামলা থেকে বাঁচতে ‌‘ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে’ বলে তার অতীত মন্তব্যের ‘পুনরাবৃত্তি’ করেছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ এই কূটনীতিক ডেনমার্কের কোপেনহেগেনে এক সংবাদ সম্মেলনে বেসামরিক নাগরিকদের সুরক্ষা নিশ্চিতে সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানান। 

মার্কিন এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ক্রমবর্ধমান সহিংসতার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের অবসানে যুক্তরাষ্ট্র দৃঢ়ভাবে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে তিনি বলেন, বেসামরিক হতাহত এড়াতে যেকোনো কিছু করার ক্ষেত্রে ইসরায়েলের অতিরিক্ত বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

তিনি বলেছেন, ‘ইসরায়েলের আত্মরক্ষার অধিকার আছে।’ অতীতেও ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাতে মার্কিন এই পররাষ্ট্রমন্ত্রী একই ধরনের ধরনের মন্তব্য করেছিলেন।

চলমান এ সহিংসতা থামাতে রোববার (১৬ মে) জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিল বৈঠকে বসেছিল। ফিলিস্তিন ও ইসরায়েলের মধ্যকার সংঘাত বন্ধের আহ্বান সংবলিত ঘোষণা দেওয়ার লক্ষ্যে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের তৃতীয় বৈঠকটিও ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে রুদ্ধদ্বার দুটি বৈঠকও ব্যর্থ হয়। সর্বশেষ বৈঠকে ইসরায়েলি বিমান হামলায় গাজায় বিভিন্ন ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে মানুষকে জীবিত ও মৃত উদ্ধারে ইসরায়েলের সঙ্গে সাময়িক অনুমতির চুক্তিতেও পৌঁছাতে পারেনি নিরাপত্তা পরিষদ।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর