রাজধানীর উত্তরায় বস্তিতে আগুন

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর উত্তরায় বস্তিতে আগুন

রাজধানীর উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরে এক বস্তিতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট কাজ করছে।

আজ দুপুরের দিকে এ আগুন লাগে।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

গাছ উপড়ে পড়ল ঘরের ওপর, গেল স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক

গাছ উপড়ে পড়ল ঘরের ওপর, গেল স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ

নীলফামারীতে গাছচাপা পড়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন- এন্তাজুল ইসলাম ওরফে ঘুটুমিয়া (৫০) ও তার স্ত্রী মমেনা বেগম (৪০)।

বৃহস্পতিবার (৬ মে) মধ্যরাতে সদর উপজেলার কন্দপুকুর ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

কুন্দপুকুর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল ওয়াহাব জানান, ঘুটুমিয়া অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তাদের তিন সন্তান রয়েছে।

তিনি আরও জানান, ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় ৪৫০ টাকা পাওয়ার তালিকায় ছিল ঘুটুমিয়া। কয়েক দিন পর এই টাকা পেতেন তিনি।

স্থানীয়রা জানান, টিন শেডের ঘরে রাতে ঘুমাচ্ছিলেন তারা। গভীর রাতে ঝড়বৃষ্টি শুরু হলে ঝড়ো হাওয়ায় একটি মেহগনি ও আমগাছ উপড়ে ঘরের ওপর পড়লে ঘটনাস্থলে মারা যান এ দম্পতি। ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা তাদের দুইজনকে উদ্ধার করে নীলফামারী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

নীলফামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউপ জানান, আম ও মেহগনি গাছবেষ্টিত ছিল ওই ঘরটি। রাতে ঝড়ে গাছ উপড়ে পড়লে ঘরটি বিধ্বস্ত হয়। এ সময় মারা যান তারা।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ঘর চাপা পড়ে স্বামী স্ত্রী, বজ্রপাতে অপর এক নারীর মৃত্যু

আব্দুর রশিদ শাহ, নীলফামারী:

ঘর চাপা পড়ে স্বামী স্ত্রী, বজ্রপাতে অপর এক নারীর মৃত্যু

গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের পর বৃষ্টিপাতের সময় আকস্মিক দমকা বাতাসে বসত ঘরের উপর গাছ চাপা পড়ে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু হয়। নীলফামারী সদর উপজেলার কুন্দুপুকুর ইউনিয়নের বারোঘরিয়া ডাঙ্গাপাড়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন, এন্তাজুল ইসলাম ওরফে ঘুটু মিয়া(৫০) ও তার স্ত্রী মোমেনা বেগম (৪৫)। এ ঘটনায় আলৌকিকভাবে বেঁচে গেছে নিহতের পাঁচ বছর বয়সী নাতি মোজাহিদ।

একই সময় অপর এক ঘটনায় সদর উপজেলার মহব্বত বাজিতপাড়ায় এক নারী বজ্রপাতে মারা যায়। 

নীলফামারী সদর উপজেলার কুন্দুুপুকুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জানান, গত বৃহস্পতিবার টিন শেডের একটি ঘরে তারা নাতিকে সাথে নিয়ে ঘুমিয়েছিলেন। এ সময় ঘরের পাশে থাকা দুইটি গাছ দমকা বাতাসে বসত ঘরের উপর পড়ে। এতে দুমড়ে মুচড়ে যায় ঘর।

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুর রউপ জানান, আম ও মেহগনিগাছ বেষ্টিতছিল ওই ঘরটি। ওই ঘরের ভিতর ঘুমিয়ে থাকা স্বামী-স্ত্রী চাপা পড়ে মারা যায়।

এদিকে একই উপজেলার কচুকাটা ইউনিয়নের মহব্বত বাজিতপাড়ায় একই সময়ে রোকেয়া বেগম নামের এক নারী বজ্রপাতে মারা যায়।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

সুন্দরবনের আগুন ৪ দিনেও নেভেনি

জ্বলছে গাছপালা ও লতাগুল্ম

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

সুন্দরবনের আগুন ৪ দিনেও নেভেনি

সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দাসের ভারনী এলাকার বনে লাগা আগুন আজ চতুর্থ দিন (বৃহস্পতিবার) বিকালেও নেভানো সম্ভব হয়নি। ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিটসহ বন বিভাগ ও সুন্দরবন সুরক্ষায় ভিটিআরসি টিমের সদস্যরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। এতে করে গত ৪দিন ধরে গাছপালা ও লতাগুল্ম জ¦লতে থাকায় সংকটে পড়েছে ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাউড (বিশ^ ঐতিহ্য) সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য।

গত ৪দিন আগে সোমবার সকাল ১১টায় বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের শারণখোরা রেঞ্জের দাসের ভারনী এলাকার বনে আগুন লাগে। মঙ্গলবার বিকালে ৩০ ঘন্টা বন বিভাগ ও ফায়ার সাভির্সের ৩ ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনের কথা জানালেও বুধবার ভোর থেকে একই স্থানে ফায়ার লাইনের মধ্যে ধোয়ার কুন্ডলী পাকিয়ে আবারও গাছপালা ও লতাগুল্মে দাউ-দাউ করে ফের আগুন জ¦লা শুরু করে। গত ৪দিন ধরে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিটসহ বন বিভাগ ও সুন্দরবন সুরক্ষায় ভিটিআরসি টিমের সদস্যরা আগুন নিয়ন্ত্রনের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে সুন্দরবন বিভাগের তথ্যমতে, সুন্দরবনে ১৬ বছরে ২৮ বার আগুন লেগে পুড়ে যায় প্রায় ৮০ একর বনভূমি। ২০১৭ সালের ২৬ মে পূর্ব সুন্দরবনে চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশনের নাংলী ফরেস্ট ক্যাম্পের আওতাধীন আবদুল্লাহর ছিলায় বড় ধরনের অগ্নিকাÐের ঘটনা ঘটে। ওই আগুনে প্রায় পাঁচ একর বনভূমির ছোট গাছপালা,লতাগুল্ম পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের সহকারী উপপরিচালক মো. সরোয়ার হোসেন জানান, চতুর্থ দিনেও আজ বৃহস্পতিবার ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটসহ বন বিভাগ ও সুন্দরবন সুরক্ষায় ভিটিআরসি টিমের সদস্যরা আগুন নিভানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। দূর্গম বনের ভেতর ফায়ার সার্ভিসের কাজ দারুন ভাবে ব্যহত হচ্ছে। পানির পাইপ টেনেও প্রয়োজনিয় পানি পাওয়া
যাচ্ছেনা। আগুন ফায়ার লাইনের মধ্যেই মধ্যেই রযেছে। থেকে-থেকে ধোয়ার কুন্ডুলী পাকিয়ে আগুন জ্বলে উঠছে।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা ও তদন্ত কমিটির প্রধান সহকারী বন সংরক্সক (এসিএফ) জয়নাল আবেদীন চতুর্থ দিনেও শরণখোলা রেঞ্জ দাসের ভারনী এলাকার বনে জ্বলতে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিটসহ বন বিভাগ ও সুন্দরবন সুরক্ষায় ভিটিআরসি টিমের সদস্যরা সুন্দরবনে আগুন নিভানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ঝিনাইদহে মাইক্রোবাস চাপায় রংমিস্ত্রী নিহত

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ :

ঝিনাইদহে মাইক্রোবাস চাপায় রংমিস্ত্রী নিহত

ঝিনাইদহ শহরের কবি সুকান্ত সড়কের স্টেডিয়ামের সামনে মাইক্রোবাস চাপায় মিলন উদ্দিন (৩৬) নামের এক রংমিস্ত্রী নিহত হয়েছে। আজ বুধবার বিকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মিলন উদ্দিন শহরের ব্যাপারীপাড়ার আব্বাস উদ্দিন সড়কের মৃত বদর উদ্দিন খাঁ’র ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ইরান মণ্ডল জানান, বিকেলে মিলন স্টেডিয়ামের পশ্চিমপাশের একটি বাড়ির প্রধান ফটকে রংয়ের কাজ করছিল। এ সময় আদর্শপাড়া থেকে শহরের এইচএসএস সড়কের দিকে যাওয়া একটি মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে সরাসরি মিলনকে চাপা দেয়। এতে সে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা গাড়িটি ভাংচুর করে।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মাইক্রোবাসটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

প্রশাসনের নাকের ডগায় চলে স্পিডবোটে যাত্রী পারাপার

মদদ যোগায় প্রভাবশালীরা

দাঁড়িয়ে থাকা বাল্কহেডে স্পিডবোটের ধাক্কায় ২৬ জন নিহতের ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে কাজ করে জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি। যাত্রীরা বলছেন, প্রশাসনের নাকের ডগায় চলাচল করে অবৈধ এসব নৌয্ন। এগুলোর পেছনে প্রভাবশালীরাই জড়িত। স্পিডবোটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে তদন্ত কমিটির সুপারিশ পর্যালোচনার আশ্বাস দিয়েছেন মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক। 

ঠিক কিভাবে একটি নোঙর করা বালুবাহী বাল্কহেডে স্পিডবোট আছড়ে পড়ে এবং ১২ জন ধারণক্ষমতার বোটে নিহতের সংখ্যা ২৬ হয়, তা তদন্তে কাজ শুরু করেছে জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি। মঙ্গলবার গঠন করা ৬ সদস্যের কমিটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বুধবার সকাল ১১টায়।

কমিটির আহ্বায়ক স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক আজাহারুল ইসলাম বলেন, এমন দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সব দিক বিবেচনায় প্রস্তাবনা দেয়া হবে।

এই পথে যাতায়াতকারিরা স্পিডবোট চালকদের দৌড়াত্মে অসহায়। অনেকে বলছেন, বাহনগুলোয় একজনের জায়গায় তিনজন যাত্রীও তোলা হয়। এসবের পেছনে প্রশাসন থেকে শুরু করে রাজনৈতিক প্রভাবশালীরাও জড়িত।

মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক তদন্ত কমিটির সুপারিশের অপেক্ষায়। তবে স্পিডবোট বন্ধের ব্যাপারে জোর দিয়েছেন তিনি।

নৌ দুর্ঘটনায় বিপুল যাত্রী নিহতের ঘটনা নতুন নয়। এসব ঘটনায় প্রতিবারই তদন্ত কমিটি গঠন হয়। তবে কমিটির সুপারিশ কতোটা বাস্তবায়ন হয় তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন থেকেই যায়।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর