ভয়াবহ অক্সিজেন সংকটে ভারতের হাসপাতালগুলো
Breaking News
ভয়াবহ অক্সিজেন সংকটে ভারতের হাসপাতালগুলো

ভয়াবহ অক্সিজেন সংকটে ভারতের হাসপাতালগুলো

অনলাইন ডেস্ক

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অন্যান্য দেশের মতো বেসামাল পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতও। প্রতিদিনই আক্রান্ত ও মৃত্যু দু’দিক থেকেই রেকর্ড গড়ছেন তারা। এমনকি ২৪ ঘণ্টা শ্মশানে মরদেহ পুরিয়েও শেষ করতে পারছে না তারা। এদিকে দেশটির বড় বড় হাসপাতালও হিমশিম খাচ্ছে চিকিৎসা সেবা দিতে।

করোনা রোগীদের জন্য সবচেয়ে জরুরী অক্সিজেন সরবরাহ দিতে পারছে না হাসপাতালগুলো। এতে করে চরম সংকট দেখা দিয়েছে। প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ করা না গেলে আরও খারাপ পরিস্থিতির সম্মুক্ষিণ হতে হবে দেশটিকে। এমন অবস্থায় রাজ্য সরকাররা সবাই দ্বারস্থ হয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারের। খবর আরব নিউজের।

দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া বলছেন, দিল্লির বড় বড় সরকারি হাসপাতালগুলোর যা অক্সিজেন মজুদ আছে তা দিয়ে ৮ ঘণ্টা থেকে সর্বোচ্চ ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত সেবা দেয়া যাবে। আর বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে যে পরিমাণ অক্সিজেন আছে তা দিয়ে মাত্র ৪ থেকে ৫ ঘণ্টা চলতে পারে। বৃহস্পতিবার সকালের মধ্যে পর্যাপ্ত সরবরাহ না পেলে বড় ধরনের বিপর্যয় ঘটতে পারে বলেও মনে করেন তিনি।

আরও পড়ুন


দুবাইয়ের রাজকুমারী লতিফার মুক্তির দাবি জাতিসংঘের

আল্লামা বাবুনগরীর বক্তব্য দেখে হতাশ মাওলানা মামুনুল

লকডাউনেও ঢাকায় রাস্তায় যানজট, চলাচল বেড়েছে মানুষের

দরিদ্রদের সহায়তায় প্রধানমন্ত্রীর সাড়ে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ


দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, করোনাভাইরাস ‘ঝড়ের’ কবলে পড়েছে দেশ, যা স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাকে নাকাল করে ফেলেছে। কোভিড ১৯-এর প্রবল দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকার সাধ্যমতো কাজ করে যাচ্ছে। হাসপাতালের শয্যা, অক্সিজেন ও ওষুধ পর্যাপ্ত পরিমাণে সরবরাহ নিশ্চিত করতে কেন্দ্র থেকে স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

 
টেলিভিশনে প্রচারিত ভাষণে মোদি বলেন, কয়েক সপ্তাহ আগেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেই ছিল। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ একটি ঝড়ের মতো আছড়ে পড়েছে। ভারতের কাছে ইতিহাসের ভয়াবহতম এ জরুরি অবস্থার মধ্যে সবাইকে ঘরে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

news24bd.tv আহমেদ

;