ছাত্রদলের সাবেক সা. সম্পাদক এখন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক!
Breaking News
ছাত্রদলের সাবেক সা. সম্পাদক এখন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক!

ছাত্রদলের সাবেক সা. সম্পাদক এখন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক!

অনলাইন ডেস্ক

কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি ও উখিয়া-টেকনাফের সাবেক এমপি শাহাজান চৌধুরীর আস্থাভাজন হ্নীলা জুমুরিয়া মাদ্রাসা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফা এখন উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক! গত ১৩ এপ্রিল রাত সাড়ে ১২টার দিকে টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন হলেও তা প্রকাশ পায় অনেক পরেই। সেখানে দেখা যায় নুরুল মোস্তফাকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ দেওয়া হয়।

কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আবু মো. মারুফ আদনান স্বাক্ষরিত টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের নব-গঠিত কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগের দুই বারের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুন্নাকে। আগামী এক বছরের জন্য এই কমিটি অনুমোদন দেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

 

কমিটি প্রকাশের প্রতিবাদে হয়েছে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ। চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা।

হ্নীলা জুমুরিয়া মাদ্রাসা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফা ছিলেন বিএনপির আন্দোলন সংগ্রামের প্রথম সারির ক্যাডার। ইতিমধ্যে অনেক ছবি ও তথ্য বহুল কাগজপত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

পাশাপাশি তার হাতে অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের অসংখ্য ছাত্রলীগ কর্মী। কিন্তু হটাৎ রাতারাতি ছাত্রদল থেকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মনোনীত হওয়ায় পুরো জেলার রাজনৈতিক অঙ্গনে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।
 
কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এসএম সাদ্দাম হোসেন বলেন, ১৩ এপ্রিল উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুন্নাকে সভাপতি ও নুরুল মোস্তফাকে সাধারণ সম্পাদক করে এক বছরের জন্য টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সেখানে সাধারণ সম্পাদক নুরুল মোস্তফা ছাত্রলীগের পূর্বের কোনো ধরনের কমিটিতে ছিল না। তবে সে ছাত্রলীগ করে।

জেলা সভাপতি দাবি করেন, রাতারাতি নয় এবং অনৈতিক উপায়েও নয়, কাউন্সিল ও সম্মেলন করে দুই মাস পর কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে যার বিরুদ্ধে এত অভিযোগ সেই নুরুল মোস্তফা সাংবাদিকদের জানান, তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ সত্য নয়।

কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদৎ হোসেন রিপন জানান, টেকনাফ ছাত্রলীগের কমিটি দেখার পর আমাদের নিজেদের মধ্যেও অনেক আলোচনা হয়েছে। কারণ নুরুল মোস্তফা হ্নীলা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সদস্য এবং হ্নীলা জুমুরিয়া মাদ্রাসা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তার আত্মীয় স্বজন সবাই বিএনপি করে। তার বড়ভাই নাছির উদ্দিন ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এছাড়া তার চাচা ও চাচাত ভাই সবাই বিএনপি রাজনীতির সঙ্গে জড়িত এটা সবাই জানে।

news24bd.tv/আলী

;