যুব অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতার বাড়িতে ছাত্রলীগ নেতকর্মীদের ‘হামলা’

অনলাইন ডেস্ক

যুব অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতার বাড়িতে ছাত্রলীগ নেতকর্মীদের ‘হামলা’

বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক মো. আতাউল্লাহর বাড়িতে ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা হামলা, ভাঙচুর, বিস্ফোরণ, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের কবলাছড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় দুজন আহত হন। তারা হলেন সংগঠনটির আহ্বায়ক মো. আতাউল্লাহর দুই বড় ভাই মাসুদ হোসাইন (৩১) ও উপজেলার চর ইসলামপুর সরকারি প্রাথমিকি বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মহসিন হোসাইন (২৮)।

আতাউল্লাহ ও তাঁর পরিবারের অভিযোগ, বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম মাহবুব হোসাইনের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়েছে। তবে ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব বলছেন, ‘এটি মিথ্যা। তিনি আতাউল্লাহ ও তাঁর বাড়িঘর চেনেনই না।’

পরিবার ও স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১০টার মধ্যে ১৩ থেকে ১৫টি মোটরসাইকেলে উপজেলা ছাত্রলীগের ২৫ থেকে ৩০ জন নেতা–কর্মী ককটেল, বন্দুক, হকিস্টিক ও লাঠিসোঁটা নিয়ে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের কবলাছড়া গ্রামে আতাউল্লাহর বাড়িতে হামলা চালান।

হামলার নেতৃত্বে ছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব হোসাইন। বাড়ির প্রবেশমুখে ও ঘরের বারান্দায় তাঁরা ককটেল বিস্ফোরণ ঘটান।

পরে তাঁরা আতাউল্লাহর বাড়িতে ঢুকে দুটি ঘরের লেপ–তোশকে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এ সময় তাঁরা ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন।

এসব সহিংসতার কারণ জানতে চেয়ে বাধা দিলে ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা আতাউল্লাহর বড় ভাই স্কুলশিক্ষক মহসিন হোসাইনকে মারধর করেন।

এ সময় ছোট বোন সাবেকুন্নাহারকে (২৩) আটকে রাখা হয়। কিছুক্ষণ পর বাড়ির ছাদ থেকে নেমে আসেন আতাউল্লাহর আরকে বড় ভাই মাসুদ। ক্ষুব্ধ ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা মাসুদের মাথায় বন্দুক ধরে তাঁকে আটকে রাখেন। একপর্যায়ে মাসুদকেও মারধর করেন।

যাওয়ার সময় নগদ ১৭ হাজার টাকা এবং চারটি মুঠোফোন লুট করে নিয়ে যান তাঁরা। তবে এ সময় আতাউল্লাহ বাড়িতে ছিলেন না।


লকডাউনে শপিংমলে যেতে লাগবে মুভমেন্ট পাস

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধ হওয়ার সুযোগ

করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত কমল চট্টগ্রামে

হিরো আলম বললেন, এইটা মরুভূমি না, যমুনা নদীর চর

এ বিষয়ে আতাউল্লাহ দাবি করেন, বৃহস্পতিবার রাতে তখনো তারাবিহ নামাজ পুরোপুরি শেষ হয়নি। ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুবের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের অস্ত্রধারী নেতা–কর্মীরা তাঁদের বাড়িতে হামলা চালান। এ সময় তাঁর দুই ভাইকে মারধর করা হয়েছে। আর বোনকে আটকে রাখা হয়েছে। পেট্রল ঢেলে বাড়ির দুটি ঘরের লেপ-তোশক ও কাপড়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটানো হয়েছে ককটেল বিস্ফোরণ।

অভিযোগের বিষয়ে বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম মাহবুব হোসাইন বলেন, ‘এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। কারণ, আতাউল্লাহ নামে আমি কাউকে চিনি না এবং ওর বাড়ি কোথায় সেটিও জানি না। তবে আতাউল্লাহ নামে জামায়াত-শিবিরের এক নেতা উপজেলায় আছে বলে শুনেছি। আর এই ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না।’

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিকুর রহমান বলেন, ওই বাড়িতে হামলার খবর পেয়ে রাতে ১১টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় ঘরের এক কোণে তোশক পোড়া দেখতে পেয়েছে পুলিশ। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় এখনো কেউ অভিযোগ করতে আসেনি।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, সৌমেন আসামি করে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, সৌমেন আসামি করে মামলা

প্রকাশ্যে ৩ জনকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় এএসআই সৌমেন রায়কে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। কুষ্টিয়ায় রোববার (১৩ জুন) রাতে এ হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত শাকিল খানের বাবা মেজবার রহমান।

কুষ্টিয়া শহরের পিটিআই সড়কের মুখে নিহতরা হলেন, বরখাস্ত এএসআই সৌমেনের সাবেক স্ত্রী আসমা (২৫), তাদের ছেলে রবিন (৫) এবং শাকিল খান (২৮)।

মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাব্বিরুল আলম বলেন, ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় খুলনা রেঞ্জ থেকে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকেও ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার খায়রুল আলম জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সৌমেন রায়কে আটক করা হয়েছে। তদন্ত শেষে সৌমেনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সৌমেনকে ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ম্যাগাজিনসহ আটক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


সে রাতে উত্তরা বোট ক্লাবে পরীমনির সঙ্গে কী ঘটেছিল!

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা সম্পর্কে যা জানালেন পরীমণি

নেইমার জাদুতে কোপায় উদ্বোধনী ম্যাচে ব্রাজিলের জয়

চতুর্থ বিয়ের মধুচন্দ্রিমায় পাহাড়ে যেতে চান শ্রাবন্তী?


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

বৃদ্ধকে জঙ্গলে নিয়ে মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালাল দুর্বৃত্তরা

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

বৃদ্ধকে জঙ্গলে নিয়ে মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালাল দুর্বৃত্তরা

রাঙামাটির জুরাছড়িতে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে কারবারী (গ্রাম প্রধান) নিহত হয়েছে। নিহতের নাম-পাথর মনি চাকমা (৫০)। তিনি জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকার কারবারী অর্থাৎ গ্রাম প্রধান। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে  জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:


নিয়োগ দেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর

শুভাগত হোমকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দিয়েছে মোহামেডান

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

নিজের দাম বাড়িয়েছেন রাশি খান্না!


 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলার লুলংছড়ি এলাকায় এক দল সশস্ত্র সন্ত্রাসী হানা দেয়। এসময় ওই এলাকার প্রধান কারবারী পাথর মনি চাকমা তার নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিল। এসময় সমস্ত্র সন্ত্রাসীরা ঘরে ডুকে তাকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায়। পরে ঘর থেকে কিছুটা দূরে জঙ্গলে নিয়ে তার মাথায় ও ঘাড়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তার। পরে খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে সেনাবাহিনীর একটি বিশেষ দল। পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে লাশ পাঠানো হয়।  এঘটনার পর ওই এলাকায় চরম উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত যৌথবাহিনী টহল জোরদার করা হয়েছে।

জুরাছড়ি থানার কর্মকর্তা ওসি মো. শফিউল আজম জানান, নিহত পাথর মনির শরীরে গুলির চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের পর তার পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রাঙামাটিতে বৃদ্ধ গ্রামপ্রধানকে গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

রাঙামাটিতে বৃদ্ধ গ্রামপ্রধানকে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটির জুরাছড়িতে নিজ বাড়িতে এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পাথরমণি চাকমা (৬৩) নামের ওই ব্যক্তি জুরাছড়ি সদর ইউনিয়নের লুলাংছড়ি কার্বারি (গ্রামের প্রধান) ছিলেন।

রোববার রাতে উপজেলার ৮ কিলোমিটার দূরে লুলাংছড়ির দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:


নিয়োগ দেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর

শুভাগত হোমকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দিয়েছে মোহামেডান

তুরস্কে পাওয়া গেল ১ হাজার ৮শ বছর আগের ভাস্কর্য

নিজের দাম বাড়িয়েছেন রাশি খান্না!


রাঙামাটির পুলিশ সুপার মীর মোদ্দাছের হোসেন বলেন, পাথরমণি চাকমা সেখানকার সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কাজ করতেন বলে জানা গেছে।তিনি একটি অস্ত্র মামলার অন্যতম সাক্ষী ছিলেন।ধারণা করা হচ্ছে, তার বিরোধী দল তাকে হত্যা করেছে। যৌথ বাহিনী ঘটনাস্থলে যাচ্ছে। পুলিশের কাছে এখনো নিহতের লাশ হস্তান্তর করা হয়নি। ঘটনাটি কীভাবে ঘটেছে তা বিস্তারিত পরে জানা যাবে।

ওই এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা বলেন, জুরাছড়ির প্রায় ৮ কিলোমিটার দূরে ঘটনাটি ঘটেছে। এলাকাটি খুবই দুর্গম এলাকা।ঘটনাস্থলের কিছু দূরে সেনাবাহিনীর একটি ক্যাম্প রয়েছে।সেখানে মোবাইলের নেটওয়ার্ক সহজে পাওয়া যায় না। তাই এখনো বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় নারীসহ নিহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

কুষ্টিয়ায় প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় নারীসহ নিহত ৩

কুষ্টিয়া শহরের কাস্টমস মোড়ে প্রকাশ্যে অস্ত্রধারীর হামলায় এক নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। আজ রোববার (১৩ জুন) সকাল ১১টায় এ ঘটনা ঘটে।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গুলিবিদ্ধ তিনজনের মধ্যে এক নারী (৩৫) ও এক পুরুষ (৪০) এবং  ৪ বছর বয়সী এক শিশু মারা গেছেন। তবে কারো নাম পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আরও পড়ুন:


ইউরোপের দেশ উত্তর মেসিডোনিয়াতে ২০ বাংলাদেশি আটক

দেশে ১০ বছরে বজ্রপাতে মৃত্যু ২২৭৬

রাশিয়াকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিল বেলজিয়াম

আজ মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৬৩

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৬৩

রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবনের দায়ে ৬৩ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন থানা ও গোয়েন্দা বিভাগ। শনিবার সকাল ৬টা থেকে রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় এই অভিযান চালানো হয়।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ৩,০৩৪ পিস ইয়াবা, ৪০ গ্রাম ১১০ পুরিয়া হেরোইন, ৪৩ কেজি ৫৩৫ গ্রাম গাঁজা ও ২০ লিটার দেশি মদ জব্দ করা হয়।


আরও পড়ুন:


শিক্ষা প্রতিষ্ঠনের চলমান ছুটি বাড়ল

উপ-নির্বাচনে তিন আসনের আ.লীগের প্রার্থী ঘোষণা

১০০ কোটি টিকা দরিদ্র দেশগুলোতে দেবে বিশ্ব নেতারা

ফের ফিলিস্তিনি কিশোরকে হত্যা করল ইসরায়েল


গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪৫টি মামলা হয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর