ভারতে ৭১ বছর পর কোন নারীর ফাঁসি!

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ৭১ বছর পর কোন নারীর ফাঁসি!

১৩ বছর আগের ঘটনা। ভারতের উত্তর প্রদেশের বাওয়ানখেদি গ্রামের শবনম নামের এক গৃহবধূ পরকীয়ার জেরে প্রেমিক সেলিমকে নিয়ে পরিবারের সাত সদস্যকে খুন করে। বিচারে তারা দুজনই দোষী সাব্যস্ত হলে আদালত তাদের ফাঁসিতে ঝুলিয়ে প্রাণদণ্ডের আদেশ দেন।

তবে শবনম নিজে কখনোই এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেননি। শবনমের আইনজীবীদের যুক্তি শবনম নিজেও ওই ঘটনার শিকার।

আদালতের নথির বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সন্ধ্যায় শবনম তার পরিবারের জন্য চা বানায় এবং তাতে কড়া ডোজের ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দেয়। চা পান করার পর পুরো পরিবার অচেতন হয়ে পড়ে। তখন সে প্রেমিক সেলিমকে বাড়িতে ডেকে নেয় এবং কুঠার দিয়ে সবাইকে গলা কেটে হত্যা করে। ২০০৮ সালের ১৫ এপ্রিল এবং রায় হয় ২০১০ সালে।

হত্যাকাণ্ডের সময় শবনম ৮ সপ্তাহের অন্তঃস্বত্ত্বা ছিলেন। তার গর্ভে ছিল প্রেমিক সেলিমের সন্তান। ঘটনার আট মাস পর কারাগারেই ছেলের জন্ম দেন শবনম।

বর্তমানে তার ছেলে বিট্টুর (ছদ্মনাম) বয়স ১২ বছর। বিট্টু তার পালক পিতার কাছে বড় হচ্ছে। ভারতের প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোভিন্দের কাছে সে তার মায়ের প্রাণ ভিক্ষা চেয়ে আবেদন করবে বলে জানানো হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


বিজ্ঞানীদের সতর্কবার্তার পরও পাত্তা দেয় নি ভারত

দিনরাত জ্বলছে চিতার আগুন, দিল্লিতে আবারও লকডাউন

পিপিই পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হাসপাতালেই বিয়ে, ভিডিও ভাইরাল

মজার ছলে করোনা ছড়িয়ে বেড়ানোর দায়ে একজন গ্রেপ্তার!


২০১০ সালে ১৪ জুলাই জেলা ও দায়রা আদালত এই প্রেমিক যুগলকে মৃত্যুদণ্ড দেয়। পরে তারা প্রথমে উত্তর প্রদেশ হাই কোর্ট এবং পরে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করে।

কিন্তু উভয় আদালতেই জেলা আদালতের রায় বহাল থাকে। পরে শবনমের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করেন রাষ্ট্রপতিও।

ফলে ফাঁসির সাজা বহাল থাকায় মথুরা জেলে শবনমের প্রাণদণ্ড কার্যকরের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। যদিও ফাঁসির দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি।

এই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হলে প্রায় ৭১ বছর পর ভারতে এই প্রথম কোনো নারীর ফাঁসি হবে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

এরদোগানের দলীয় কার্যালয়ে বোমা হামলা

অনলাইন ডেস্ক

এরদোগানের দলীয় কার্যালয়ে বোমা হামলা

সিসিটিভি ফুটেজে বোমা হামলা চালিয়ে পালাতে দেখা যায় এক দুর্বৃত্তকে

তুরস্কের বর্তমানে ক্ষমতাসীন এরদোগানের দল জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির (একে পার্টি) প্রধান কার্যালয়ে দুর্বৃত্তরা ককটেল বোমা হামলা চালিয়েছে। তুরস্কের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় দিয়ারবাকির প্রদেশের হানি জেলায় কার্যালয়টি অবস্থিত।

স্থানীয় সময় শুক্রবার রাত ৯টার দিকে এই হামলার ঘটনা ঘটে। একে পার্টির প্রাদেশিক প্রধান মেহমেত সেরিফ আয়ডিনের শেয়ার করা একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, এক দুর্বৃত্ত দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের রাজনৈতিক দলের ওই কার্যালয়ে বোমা মেরে পালিয়ে যাচ্ছে।

তবে এতে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। 

আরও পড়ুন:


ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টের সংবাদ সম্মেলন কাল

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা স্থগিত

‘ড্যাব’কে অনুরোধ জানাব ফখরুলের মানসিক পরীক্ষা করাতে: তথ্যমন্ত্রী

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে একে পার্টি। এ ঘটনার একদিন আগে ইজমির প্রদেশে পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এইচডিপি) প্রধান কার্যালয়ে বোমা হামলায় দলটির এক তরুণ নেত্রী নিহত হন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

অনলাইন ডেস্ক

জম্মু-কাশ্মীরে সংঘর্ষ: লস্কর-ই-তাইয়্যেবার কমান্ডারসহ নিহত ৩

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিন গেরিলা নিহত হয়েছে। উত্তর কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোর এলাকায় গতকাল (রোববার) দিবাগত রাতে কথিত বন্দুকযুদ্ধে লস্কর-ই-তাইয়্যেবার এক শীর্ষ কমান্ডারসহ ওই তিনজন নিহত হন।

আজ (সোমবার) কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার বলেন, ‘সম্প্রতি ৩ পুলিশ সদস্য, ২ কাউন্সিলর ও ২ বেসামরিক নাগরিকের হত্যার সঙ্গে যুক্ত থাকা লস্কর-ই-তাইয়্যেবার শীর্ষ কমান্ডার মুদাচ্ছির পণ্ডিত সংঘর্ষে নিহত হয়েছে। এছাড়া আসরার ওরফে আব্দুল্লাহ নামে এক বিদেশি সন্ত্রাসীর পরিচয় জানা গেছে। পাকিস্তানের বাসিন্দা আব্দুল্লাহ ২০১৮ সাল থেকে উত্তর কাশ্মীরে সক্রিয় ছিল।’ বন্দুকযুদ্ধে নিহত অন্য একজনের পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।  

গণমাধ্যম সূত্রে প্রকাশ, সোপোরের গান্ড বার্থে গেরিলাদের তৎপরতার কথা জানতে পেরে পুলিশ, সেনাবাহিনী ও আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ জওয়ান সমন্বিত যৌথবাহিনী সংশ্লিষ্ট এলাকা ঘিরে ফেলে তল্লাশি অভিযান চালায়। এসময় গেরিলারা নিরাপত্তা বাহিনীর উপরে গুলিবর্ষণ শুরু করে। নিরাপত্তা বাহিনী পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে তিনজন নিহত হন।

এর আগে গত ১৬ জুন শ্রীনগরে একটি সংঘর্ষে একজন গেরিলা নিহত হয়েছিলেন। সোপিয়ানের বাসিন্দা নিহত ওই ওই গেরিলার নাম উজায়ের আশরাফ দার। নিরাপত্তা বাহিনী সেসময়ে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, ছয় রাউন্ড গুলি এবং দুটি গ্রেনেড উদ্ধার করেছিল। উপত্যকায় গেরিলাদের বিরুদ্ধে নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে।   

এছাড়া, গত ১০ এপ্রিল সোপোরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত হয়েছিল। এর একদিনে আগে সোপিয়ানের হাদিপোরায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৩ গেরিলা নিহত হন।

news24bd.tv / তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সৌদি আরবে মসজিদ বিধিনিষেধে পরিবর্তন

অনলাইন ডেস্ক

সৌদি আরবে মসজিদ বিধিনিষেধে পরিবর্তন

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে মসজিদে আরোপিত স্বাস্থ্যবিধিতে কিছুটা পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। সম্প্রতি দেশটিতে করোনার উন্নতি হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির ইসলাম, দাওয়াহ ও নির্দেশনা বিষয়ক মন্ত্রণালয়। 

আরব নিউজ জানায়, মসজিদের দুই কাতারের মধ্যবর্তী এক কাতার ছেড়ে দেওয়ার শর্ত বাদ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। নামাজের আগে আজান ও ইকামতের মধ্যবর্তী সময় সীমাও বাদ দেওয়া হয়েছে। এর আগে ফজর নামাজে ২৫ মিনিট ও মাগরিব নামাজে ১০ মিনিটসহ সব ফরজ নামাজে ২০ মিনিট করে সময় নির্ধারিত ছিল। এখন আর তাতে কোনো সময়সীমা থাকছে না। 

এছাড়া, জুমার নামাজে ১৫ মিনিটের সময়সীমাও রহিত করে এখন থেকে আজানের আগের এক ঘণ্টা ও পরে আধ ঘণ্টা পর্যন্ত মসজিদ খোলা যাবে।


আরও পড়ুনঃ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

হোটেলে নারী এনে জরিমানার মুখে চিলির ফুটবলাররা

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন


এছাড়াও মসজিদে পবিত্র কোরআনের কপি রাখাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদে ইসলামী স্কলারদের আলোচনা ও পাঠদানের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। মসজিদের ভেতর ঠাণ্ডা ফ্রিজের পানীয় রাখার নিষেধাজ্ঞাও তুলে নেওয়া হয়েছে। 

তবে মসজিদের ভেতর মাস্ক পরিধান, জায়নামাজ, প্রবেশ ও বের হওয়ার সময় আওয়াজ না করা ও পারষ্পরিক দেড় মিটার দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে বলে জানিয়েছে সৌদির সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ভারতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু

করোনার পাশাপাশি প্রাণঘাতি ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের বিরুদ্ধেও লড়াই করছে ভারত। এরই মধ্যে দেশটিতে দুই হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া শনাক্ত হয়েছে গ্রিন, হোয়াইট ও ইয়োলো ফাঙ্গাস, যা উদ্বেগে ফেলেছে চিকিৎসকদের।

করোনা থেকে সেরে উঠতে থাকা রোগীরা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন ব্ল্যাক ফাঙ্গাসে। এরই মধ্যে ৩১ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে এই ফাঙ্গাসে, মৃত্যুর সংখ্যাও দুই হাজার একশ’র বেশি।

এই অবস্থায় দেশটিতে ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত ইনজেকশনের চাহিদা কয়েক গুণ বেড়েছে। এরই সুযোগ নিচ্ছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। রোববার দেশটির রাজধানী নয়াদিল্লিতে এক চিকিৎসকের বাসায় অভিযান চালিয়ে কয়েক হাজার নকল ইনজেকশন জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটকও হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

এদিকে মধ্যপ্রদেশের পর এবার পাঞ্জাবে এক ব্যক্তির দেহে গ্রিন ফাঙ্গাসের সংত্রমণ ধরা পড়েছে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন

এর আগে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে হোয়াইট ও ইয়োলো ফাঙ্গাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। সাধারণত কোভিড থেকে সুস্থ হয়ে উঠা ব্যক্তিদের দেহে এসব ছত্রাকের সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে।

তবে করোনার চেয়েও এই ফাঙ্গাসে মৃত্যুহার বেশি হওয়ায় উদ্বিগ্ন দেশটির চিকিৎসকেরা।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

ভারতে করোনা সংক্রমণ তিন মাসে সর্বনিম্ন

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে করোনা সংক্রমণ তিন মাসে সর্বনিম্ন

ধীরে ধীরে ভারতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসছে। দেশটিতে প্রতিদিনই কমছে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৫৩ হাজার ২৫৬, যা গত ৮৮ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন। সোমবার (২১ জুন) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানায়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গেছেন ১ হাজার ৪২২ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় গত একদিনে মৃত্যু কমেছে দেড় শতাধিক।


আরও পড়ুনঃ


রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

তিনটি কেন্দ্রে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু

বেবি বাম্পের ছবি দিয়ে নুসরাতের লুকোচুরির ইতি

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক কুমির ‘মুজা’র জন্মদিন পালন


করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৯৯ লাখ ৩৫ হাজার ২২১ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৮৮ হাজার ১৩৫ জন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর