মহামারি রোধে উন্নত বিশ্বের ভূমিকা জোরদারের আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক

মহামারি রোধে উন্নত বিশ্বের ভূমিকা জোরদারের আহ্বান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সোমবার জাতিসংঘ-এসকেপের ৭৭তম অধিবেশনে চার দফা প্রস্তাব পেশ করে কোভিড-১৯ মহামারি থেকে দ্রুত পুনরুদ্ধারে উন্নত বিশ্ব ও উন্নয়ন অংশীদারদের ভূমিকা জোরদারের আহ্বান জানিয়েছেন।

৭৭তম বার্ষিক জাতিসংঘ-এসকেপ অধিবেশনে প্রচারিত তার ধারণকৃত বিবৃতিতে প্রধানমন্ত্রী একইসঙ্গে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে সার্বজনীন জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন পন্থা, দক্ষ নীতি এবং কৌশল নেওয়ার আহ্বান জানান।

এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনৈতিক ও সামাজিক কমিশনের (এসকেপ) তিন দিনের ৭৭তম অধিবেশন আজ-‘এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে আঞ্চলিক সহযোগিতার মাধ্যমে সংকট থেকে আরও ভালোভাবে উত্তোরণ’ শীর্ষক প্রতিপাদ্যের ওপর ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে শুরু হয়েছে।

শেখ হাসিনা তার বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জোর পূর্বক বাস্তুচ্যুত ১১ লক্ষ রোহিঙ্গাকে টেকসই প্রত্যাবাসনের দিকে মনোনিবেশ এবং যৌথ সমৃদ্ধির জন্য আঞ্চলিক সহযোগিতার প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি তার প্রথম প্রস্তাবে বলেন, উন্নত বিশ্ব, উন্নয়ন অংশীদার এবং আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর (আইএফএস) কোভিড মহামারী থেকে দ্রুত পুনরুদ্ধারে এগিয়ে আসা উচিত।

দ্বিতীয়ত, প্রধানমন্ত্রী বলেন, উন্নয়ন পদ্ধতি হওয়া উচিত যে কোনও সংকট থেকে আরও ভালোভাবে উত্তেরণের জন্য আরও অন্তর্ভুক্তিমূলক, স্থিতিস্থাপক এবং পরিবেশ বান্ধব।

শেখ হাসিনা তার তৃতীয় প্রস্তাবে বলেন, এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উচিত একটি শক্তিশালী ও সার্বজনীন জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্য দক্ষ নীতি ও কৌশল গ্রহণ করা।

চতুর্থ ও চূড়ান্ত প্রস্তাবে তিনি বলেন, বাণিজ্য, পরিবহন, জ্বালানি ও আইসিটি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আমাদের নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ স্থাপন করতে হবে।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, মিয়ানমার থেকে ১১ লক্ষেরও বেশি জোরপূর্বক বাস্তচ্যূত রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়েছে। আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে টেকসই প্রত্যাবাসনের মাধ্যমে একটি কার্যকর সমাধানের জন্য এই বিষয়ে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, কোভিড-১৯ মহামারী সারা বিশ্বের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ও অর্থনীতিকে বিধ্বস্ত করেছে। প্রায় ২ দশমিক ৯৫ মিলিয়ন মানুষ মারা গেছে এবং প্রতিদিন আরও হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন মহামারী অনেক মানুষকে আরও দরিদ্র করে তুলেছে এবং আরও অনেকে দারিদ্র্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

কোভিড-১৯ এর আক্রমণ মোকাবিলায় তার সরকারের পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সামাজিক সুরক্ষা বৃদ্ধি, চাকরি ধরে রাখা এবং অর্থনীতিকে শক্তিশালী করার জন্য আমাদের জিডিপির প্রায় ৪ দশমিক ৪৪ শতাংশ প্রায় ১৪ দশমিক ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আঞ্চলিক সহযোগিতাকে পারস্পারিক সমৃদ্ধি অর্জনে সর্বাধিক টেকসই উপায় বলে মনে করে। আমরা সার্ক (সাউথ এশিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর রিজিওনাল কোঅপারেশন), বিমসটেক (বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টি-সেক্টরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনোমিক কোঅপারেশন), বিবিআইএন (বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, নেপাল), বিসিআইএম-ইসি (বাংলাদেশ, চায়না, ইন্ডিয়া ও মিয়ানমার ইকোনোমিক কোরিডোর) এবং ট্রিলেটারেল হাইওয়ের সাথে আমরা যুক্ত আছি।
শেখ হাসিনা আরো বলেন, ‘সাউথ-সাউথ নেটওয়ার্ক ফর পাবলিক সার্ভিস ইনোভেশন’ বাংলাদেশকে অন্যান্য দেশের সাথে অংশিদারিত্বের মাধ্যমে সহায়তা করছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ক্রমবর্ধমান যোগাযোগ এবং এশিয়ান হাইওয়ে ও ট্রান্স-এশিয়ান রেলওয়ের ইএসসিএপি-এর উদ্যোগের একনিষ্ঠ সমর্থক।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা গ্লোবাল কম্প্যাক্ট ফর সেফ, অর্ডারলি অ্যান্ড রেগুলার মাইগ্রেশন অর্জনে অঙ্গীকারাবন্ধ।’

এর আগে উদ্বোধনী অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন- জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতারেস, থাইল্যা-ের প্রধানমন্ত্রী জেনারেল প্রায়উত চ্যান-উ-চা (অবঃ), জাতিসংঘের আন্ডার-সেক্রেটারি-জেনারেল ও ইএসসিএপি’র নির্বাহী সচিব আর্মিদা সালসিয়াহ আলিসজাহবানা, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৫তম অধিবেশনের সভাপতি ভলকান বোজকির, ইকোনোমিক অ্যান্ড সোশাল কাউন্সিলের সভাপতি মুনির আকরাম।

উদ্বোধনী অধিবেশনে ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং, কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী সামদেক আক্কা মহা সেনা পাদেই টেকো হুন সেন, ফিজি’র প্রধানমন্ত্রী জোসাইয়া ভোরেক বাইনিমারামারা, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মহিন্দ রাজাপাকসে এবং উজবেকস্তানের প্রধানমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আরিপোভ ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখবেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ভারত-বাংলাদেশ ফ্লাইট চালুর চিন্তা করছে সরকার

অনলাইন ডেস্ক

ভারত-বাংলাদেশ ফ্লাইট চালুর চিন্তা করছে সরকার

‘এয়ার বাবল’ চুক্তির অধীনে ভারতের সঙ্গে আগস্ট থেকে সীমিত পরিসরে ফ্লাইট চালুর চিন্তা করছে সরকার। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট সকলের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা চলছে।

আজ মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন তার দফতরে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

পররাষ্ট্রসচিব বলেন, ‘এয়ার বাবল চালুর বিষয়ে আমরা ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্ট যারা আছেন তাদের সঙ্গে কথাবার্তা বলছি। সেজন্য আমরা সীমিত আকারে ফ্লাইট চালুর প্রস্তাব রেখেছি। এই সিদ্ধান্তটা নিলে বাস্তবায়ন হতে সময় লাগবে। সুতরাং আমরা আগস্টের কোনো একটা সুবিধাজনক সময়ে এটা শুরু করার ব্যাপারে আশা রাখি। এ নিয়ে আমরা সংশ্লিষ্ট সকলের সঙ্গে আলাপ শুরু করেছি।’

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ বিক্রেতা আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে গাঁজাসহ ৩ বিক্রেতা আটক

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৪৪ কেজি গাঁজাসহ ৩ মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে র‌্যাব-১০।

আজ ভোরে যাত্রাবাড়ীর রায়েরবাগ বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি পিকআপসহ তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- কবির (৩২), সাইফুদ্দিন (৩০) ও কাউছার (২৮)। এসময় তাদের কাছ থেকে ৩টি মোবাইল ফোন ও নগদ ১৪ হাজার ৬০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-১০ এর সহকারী পরিচালক এএসপি এনায়েত কবীর সোয়েব জানান, রায়েরবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি পিকআপের পেছনে রাখা ক্যারট থেকে ৪৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এসময় তিনজন মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়।

আরও পড়ুন:


কক্সবাজারের উখিয়ায় পাহাড় ধসে ৫ রোহিঙ্গা নিহত

৫ অতিরিক্ত সচিবকে বদলি 

ভারত সফর বাতিল করলেন আফগান সেনাপ্রধান

একজন আইনজীবির মৃত্যু ও আমাদের জন্য বার্তা


তিনি আরও জানান, আটকরা পেশাদার মাদক বিক্রেতা। তারা বেশ কিছুদিন ধরে যাত্রাবাড়ীসহ ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় গাঁজাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

জ্বরে আক্রান্তদের করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষারও পরামর্শ

অনলাইন ডেস্ক

জ্বরে আক্রান্তদের করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষারও পরামর্শ

জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু পরীক্ষার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বর্তমানে মানুষ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হচ্ছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরেও জ্বর থাকে। তাই জ্বরে আক্রান্ত রোগীদের করোনা পরীক্ষার সাথে সাথে ডেঙ্গু পরীক্ষাও করতে হবে।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি আরও বলেন, করোনা পরীক্ষা ও  ডেঙ্গু পরীক্ষাপ্রাপ্ত ফলাফলের ওপর ভিত্তি করেই রোগীর পরবর্তী চিকিৎসাসেবা প্রদান করতে হয়। বিএসএমএমইউয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের পাশাপাশি ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীদেরও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পুরুষ ও নারীদের জন্য মেডিসিন বিভাগে ২৬ শয্যার এবং শিশুদের জন্য শিশু বিভাগে ১২ শয্যার ডেঙ্গু কর্নার চালু করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সারাদেশে মৃত্যুর এক-তৃতীয়াংশ ঢাকায়

অনলাইন ডেস্ক

সারাদেশে মৃত্যুর এক-তৃতীয়াংশ ঢাকায়

মহামারি ভাইরাস করোনায় দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগটিতে মারা গেছেন ৮৪ জন। যা একদিনে সর্বোচ্চ।

এর আগে, গত ১৭ জুলাই ঢাকায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়। সেদিন ৮২ জনের মৃত্যুর খবর জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

এদিকে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২ হাজার ৪৭৮টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৯২৫ জনের। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ লাখ ৯৪ হাজার ৭৫২ জন। আজ মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন:


বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে মৃত্যুর তথ্য

গার্মেন্টস খোলার ব্যাপারে যা জানালেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কখন লকডাউন বাড়ানো লাগবে না জানালেন তথ্যমন্ত্রী

ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ‍মৃত্যুর রেকর্ড


 news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

দক্ষিণ সিটি করপোরেশন

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বোম্বে সুইটসসহ ২৩ ভবনকে জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে  বোম্বে সুইটসসহ ২৩ ভবনকে জরিমানা

এডিস নিয়ন্ত্রণে দক্ষিণ সিটির ১১ ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বোম্বে সুইটসসহ ২৩ ভবনকে ৩ লক্ষ ৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

আজ মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের মধ্যে অঞ্চল-১ এর সিদ্ধেশ্বরীতে মাহফুজুল আলম মাসুম, অঞ্চল-২ এর খিঁলগাওয়ে মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন, অঞ্চল-৩ এর আজিমপুরে তৌহিদুজ্জামান পাভেল, অঞ্চল-৫ এর মানিকনগরে মুহাম্মদ হাসানাত মোর্শেদ ভূঁইয়া, অঞ্চল-৬ এর ইমামবাগ ও জোরভিটায় শাহীন রেজা, অঞ্চল-৮ এর ডগাইর পশ্চিম পাড়ায় কাজী হাফিজুল আমিন, অঞ্চল-৯ এর মাতুয়াইলে বিকাশ বিশ্বাস এবং আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদের মধ্যে অঞ্চল-১ এর এলিফ্যান্ট রোডে মেরীনা নাজনীন, অঞ্চল-৪ এর ইমামগঞ্জে মো. হায়দার আলী এবং অঞ্চল-১০ এর কদমতলি এলাকায় মো. মামুন মিয়া এসব ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতসমূহ এ সময় ৩৯৪টি নির্মাণাধীন ভবন বাসাবাড়ি প্রতিষ্ঠান অভিযান পরিচালনা করেন এবং বম্বে সুইটসসহ মোট ২৩টি প্রতিষ্ঠান, নির্মাণাধীন ভবন ও বাসাবাড়িতে মশার লার্ভা পাওয়ায় ২৩টি মামলা দায়েরের মাধ্যমে সর্বমোট ৩ লক্ষ ৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। 

অভিযান প্রসঙ্গে অঞ্চল-১০ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন মিয়া বলেন, আজকের অভিযানে আমরা বোম্বে সুইটসের কারখানার বেজমেন্টে মশার লার্ভা পেয়েছি। তাদেরকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ


দ. কোরিয়ার কোন গালিও দেয়া চলবে না উত্তর কোরিয়ায়

তালেবানের হাত থেকে ২৪ জেলা পুনরুদ্ধারের দাবি


আগামীকালও ডিএসসিসির ১০টি অঞ্চলে একযোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হবে। 

অভিযানের পাশাপাশি করপোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। 

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর