খুলনায় কৃষককে ধান কাটা মেশিন সহায়তা দিলো মহানগর যুবলীগ

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনায় কৃষককে ধান কাটা মেশিন সহায়তা দিলো মহানগর যুবলীগ

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় খুলনার তেরোখাদায় কৃষকের ধান কাটা সহায়তায় ‘পাওয়ার রিপার’ মেশিন কিনে দিয়েছে মহানগর যুবলীগের নেতৃবৃন্দ। এই মেশিনে প্রতি ঘন্টায় এক থেকে দেড় বিঘা জমির ধান কাটা যায়। এতে খরচও অনেক কম।

মঙ্গলবার দুপুরে মহানগর যুবলীগ নেতৃবৃন্দ খুলনার তেরোখাদার পুটিমারী বিলের কৃষকদের কাছে এই মেশিন হস্তান্তর করেন। এসময় মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ, যুগ্ম আহবায়ক শাহাজালাল হোসেন সুজন ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন


বাংলাদেশের নারী দলও খেলতে পারবে কমনওয়েলথ গেমসে, তবে...

হেফাজতের অর্থের যোগান দিতো ৩১৩ জন: ডিবি

খোঁজ নেই মামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রীর, উদ্ধারে বাবার জিডি

মাদারীপুরে অপহরণের শিকার স্কুলছাত্রী, ৩ দিনেও মেলেনি সন্ধান


কৃষকরা জানান, এক বিঘা জমির ধান কাটতে যেখানে ৫ থেকে ৬ জন শ্রমিকের জন্য ব্যয় হয় ৩ হাজার টাকা। সেখানে এই মেশিনে কম সময়ে মাত্র ১০০ টাকার পেট্রোল ব্যবহার করে ওই ধান কাটা সম্ভব।

মহানগর যুবলীগের আহবায়ক সফিকুর রহমান পলাশ বলেন, এই মেশিন দিয়ে ধান কাটার একজন শ্রমিক নিয়োগ ও মেশিনের জন্য প্রয়োজনীয় তেলের বিলও বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, পরবর্তীতে কৃষকদের সহায়তায় ধান মাড়াই মেশিনও দেওয়া হচ্ছে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

আম কুড়াতে গিয়ে নারীর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক

আম কুড়াতে গিয়ে নারীর মৃত্যু

রাজশাহীর চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে আম কুড়াতে গিয়ে সাপের কামড়ে সেফালী বেগম (৪০) নামে এক নারীরমৃত্যু হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত সেফালী উপজেলার ওই ইউনিয়নের চামাভান্ডার গ্রামের সরিকুল ইসলামের স্ত্রী।

সরিকুল ইসলাম বলেন, সেফালী ভোরে আম কুড়াতে গেছিলেন। এ সময় একটি বিষাক্ত সাপে তাকে কামড় দিলে স্বজনরা কবিরাজের কাছে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার আরও গুরুতর হলে শিবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

news24bd.tv/এমিজান্নাত

পরবর্তী খবর

প্রতি উপজেলায় মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি

অনলাইন ডেস্ক

প্রতি উপজেলায় মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি

দেশের প্রতিটি উপজেলায় মডেল মসজিদের মতো প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মাণের দাবি জানিয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট। শনিবার (১৯ জুন) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) সংবাদ সম্মেলন করে এমন দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, ‘২০২১-২২ অর্থবছরে হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য জনসংখ্যা অনুপাতে ২ হাজার ২৫৮ কোটি ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ করতে হবে এবং অতিরিক্ত ৫ হাজার কোটি টাকার থোক বরাদ্দ দিতে হবে, যা দিয়ে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে মডেল মন্দির নির্মাণ করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জন্য চলমান প্রকল্প ও অন্যান্য খাতে ১৫ হাজার ৫৪ কোটি ৩ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। যার মধ্যে সংখ্যালঘুদের জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে মাত্র ২৯০ কোটি ৮ লাখ টাকা, যা মোট প্রকল্প বরাদ্দের ১ দশমিক ৯৩ শতাংশ। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী বাংলাদেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাস দেখানো হয়েছে ১১ দশমিক ৮ শতাংশ। সেই হিসাবে বরাদ্দ থাকার কথা ছিল ১ হাজার ৭৭৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।’

অন্যান্য দাবির পাশাপাশি জাতীয় হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক বলেন, রথযাত্রায় এক দিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা করতে হবে। এছাড়া, হিন্দু ধর্মীয় বিধিবিধানের কোনো ধরনের পরিবর্তন করা যাবে না, করতে দেয়া হবেও না।

সংবাদ সম্মেলনে ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন’ ও ‘বাঁচতে শেখা’ নামে দুটি এনজিওকে হিন্দু ধর্ম ও সমাজবিরোধী আখ্যা দিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও দাবি তোলা হয়।


আরও পড়ুনঃ

চীনের রাস্তায়-গলিতে সরকারদলীয় প্রচারণামূলক বিলবোর্ড

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’

বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগ মূহুর্তে যে কারণে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন সালমান

চুরির দায়ে জেলে গেলেন ‘ক্রাইম পেট্রলের’ ২ অভিনেত্রী


এছাড়া, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে জাতীয় সংসদে ৬০টি সংরক্ষিত আসন ও পৃথক নির্বাচন ব্যবস্থা পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। সংবাদ সম্মেলনে একটি সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা এবং সংখ্যালঘু সম্প্রদায় থেকে একজনকে পূর্ণ মন্ত্রী নিয়োগের দাবি জানানো হয়।

আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে এসব দাবি বাস্তবায়নের সুস্পষ্ট ঘোষণা না দিলে হিন্দু সম্প্রদায় সারাদেশের প্রত্যেক জেলা-উপজেলায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও ঘোষণা দেন সংগঠনটির মহাসচিব।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

খুলনায় এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন

অনলাইন ডেস্ক

খুলনায় এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন

খুলনা জেলা ও মহানগরীতে আগামী মঙ্গলবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা দিয়েছে জেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি। শনিবার দুপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভা শেষে কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. হেলাল হোসেন জানান, সম্প্রতি করোনা সংক্রমণের হার ব্যাপকভাবে বেড়ে যাওয়ায় এ লকডাউন দেওয়া হয়েছে। লকডাউন চলাকালে নিম্নআয়ের মানুষকে প্রয়োজন অনুযায়ী সহযোগিতা করা হবে।

সভায় প্রশাসনের কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর

কুষ্টিয়া করোনা পরিস্থিতির অবনতি, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪

জাহিদুজ্জামান, কুষ্টিয়া:

কুষ্টিয়া করোনা পরিস্থিতির অবনতি, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪

কুষ্টিয়ায় ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে করোনা পরিস্থিতি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৮৮ নমুনায় রেকর্ডসংখ্যক ১৫৬ জনে করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনার বিপরীতে শনাক্তের হার ৪০ শতাংশ। এই ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের।

করোনা নিয়ন্ত্রণে লকডাউনের আদলে কুষ্টিয়া পৌর এলাকা ও মিরপুর পৌর এলাকায় কঠোর বিধি নিষেধ রয়েছে। কিন্তু মানুষের মধ্যে তা মানার প্রবণতা নেই, প্রশাসনেরও মাণ্য করানোর তৎপরতাও ঢিলেঢালা। কুষ্টিয়ার মানুষ এ ব্যাপারে আরও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান। 

আরও পড়ুন:


দুর্লভ আবাসিক পাখি ‘জল ময়ূর’

কাপুরুষোচিত হামলা চালিয়ে ইসরাইলি সেনাদের মনোবল চাঙ্গা হবে না: হামাস

বিবস্ত্র করা ছবি তুলে ফাঁদে ফেলে প্রবাসীর স্ত্রী, মামলায় আ.লীগ নেতাও আসামি

‘নিখিলকে আগেই বলেছিলাম, নুসরাত তোমাকে ঠকাবে’


news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

কিছুটা নিয়ন্ত্রণে নাটোরের করোনা পরিস্থিতি

নাটোর প্রতিনিধি

কিছুটা নিয়ন্ত্রণে নাটোরের করোনা পরিস্থিতি

কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে নাটোরের করোনা আক্রান্তের হার। করোনার উপসর্গ নিয়ে সদর হাসপাতালে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে গত আক্রান্তের হার ২৩ দশমিক ৫৫ ভাগ। গত ২৪ ঘন্টায় ২৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন ৬৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। 

নাটোর সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে নতুন করে ভর্তি হয়েছে আরো ১২জন রোগী। এ নিয়ে সেখানে ৪২ জন করোনা রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে। এছাড়া উপসর্গ নিয়ে নাটোর সদর হাসপাতালের ইয়োলো জোনে চিকিৎসাধীন ২২ জনের মধ্যে ২ জন গতরাতে মারা গেছেন। 

দ্বিতীয় দফায় ৭ দিনের বিশেষ লকডাউনের তৃতীয় দিনে বৈরী আবহাওয়ার মাঝেও মানুষের অপ্রয়োজনিয় চলাচল নিয়ন্ত্রণে নাটোর ও সিংড়া পৌর এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে দায়িত্ব পালন করছে পুলিশ।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর