বাংলাদেশ থেকে উত্থাপিত প্রথম রেজুলেশন জাতিসংঘে গৃহীত

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ থেকে উত্থাপিত প্রথম রেজুলেশন জাতিসংঘে গৃহীত

পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধবিষয়ক বাংলাদেশ থেকে উত্থাপিত প্রথম রেজুলেশন জাতিসংঘে সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়েছে। সে হিসেবে বিশ্ব পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধ দিবস ২৫ জুলাই ঘোষণা করেছে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) জাতিসংঘের বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। জাতিসংঘের ৭৫ বছরের ইতিহাসে এ ধরনের রেজুলেশন এটাই প্রথম।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধবিষয়ক ঐতিহাসিক এক রেজুলেশন সর্বসম্মতিক্রমে গ্রহণ করেছে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ। প্রথমবারের মতো জাতিসংঘে গৃহীত এই রেজুলেশনটি উত্থাপন করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। রেজুলেশনটিতে পানিতে ডুবে মৃত্যুকে একটি নীরব মহামারি হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, পানিতে ডুবে মৃত্যু বিশ্বের প্রতিটি জাতিকেই ক্ষতিগ্রস্ত করছে। পাশাপাশি অগ্রহণযোগ্য উচ্চহারের এই মৃত্যু প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য একটি কর্ম-কাঠামোও ঠিক করা হয়েছে।

রেজুলেশনে বলা হয়, পানিতে ডুবে মৃত্যুর মতো প্রতিরোধযোগ্য কারণেও বিভিন্ন দেশে শিশু ও কিশোর-কিশোরীরা অকালে প্রাণ হারাচ্ছে। পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টি, জাতীয় পদক্ষেপকে উৎসাহিত করা ও এ বিষয়ক সর্বোত্তম সমাধানগুলো পারস্পরিকভাবে ভাগ করে নেওয়ার লক্ষ্যে ২৫ জুলাইকে বিশ্ব ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে সাধারণ পরিষদ।

বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন জানায়, রেজুলেশনটিতে পানিতে ডুবে মৃত্যু রোধ পদক্ষেপটির সঙ্গে টেকসই উন্নয়ন, জলবায়ু পরিবর্তন ও দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস সম্পর্কিত বৈশ্বিক কাঠামোগুলোর সংযোগের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

রেজুলেশনে আরও বলা হয়েছে, জাতিসংঘ গৃহীত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার বেশ কয়েকটির অর্জনকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য এটি তাৎপর্যপূর্ণ সুযোগ সৃষ্টি করেছে।

রেজুলেশনটির অপারেটিভ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধে জাতীয় ফোকাল পয়েন্ট নিয়োগ, জাতীয় প্রতিরোধ পরিকল্পনা ও কর্মসূচি উন্নয়ন, জাতীয় পর্যায়ে আইন প্রণয়ন, সচেতনতা তৈরি করা, আন্তর্জাতিক পদক্ষেপকে সহযোগিতা করা এবং এ বিষয়ক গবেষণা ও উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে সদস্য দেশসগুলোকে উৎসাহিত করা হয়েছে।

জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন ২০১৮ সাল থেকে এ রেজুলেশন আন্তর্জাতিক প্লাটফর্মে নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশের পাশাপাশি রেজুলেশনটিতে সহ-নেতৃত্ব দেয় আয়ারল্যান্ড। আর এতে সহপৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করে ৮১টি দেশ।

আরও পড়ুন


এই খবরই প্রমাণ করে বাংলাদেশের নারীরা বিজ্ঞান গবেষণায়ও পিছিয়ে নেই

১০০ মিটারের ওপর ছক্কা হাঁকালে ১২ রান দেয়ার প্রস্তাব!

সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকলো চোর, একা পেয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

পাওনা টাকা না দেয়ায় করোনা আক্রান্ত স্ত্রীকে দিয়ে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়


রেজুলেশনটি উত্থাপনকালে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, পানিতে ডুবে মৃত্যু প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণে বৃহত্তর বৈশ্বিক রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি আদায়ের লক্ষ্যে একটি জাতিসংঘ রেজুলেশন গ্রহণের তাগিদ অনুভব করেছিল বাংলাদেশ। আর সে কারণেই এই প্রচেষ্টায় জাতিসংঘে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিতে পেরে সম্মানিত বোধ করছে।

এশিয়াতে পানিতে ডুবে মৃত্যুবরণের মতো ঘটনার ৯০ ভাগ দরিদ্র পরিবারগুলোতে সংঘটিত হচ্ছে উল্লেখ করে ফাতিমা বলেন, পানিতে ডুবে মৃত্যু কেবল দুর্ঘটনা নয়, এটি একটি বৈষম্য।

বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, যেহেতু পানিতে ডুবে মৃত্যুর ঘটনাগুলো দরিদ্র পরিবারকে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত করছে। তাই এটি প্রতিরোধে গৃহীত পদক্ষেপ এসডিজি-১ সহ আরও কয়েকটি এসডিজি অর্জনেও ভূমিকা রাখতে পারে।

বাংলাদেশে প্রতিবছর প্রায় ১৮ হাজার মানুষ পানিতে ডুবে মারা যায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আর যাতে কোনো মূল্যবান জীবন পানিতে ডুবে মৃত্যু না হয় সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে শেখ হাসিনা সরকার। ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে শিক্ষা, নারী ও শিশু, সমাজকল্যাণ, যুব ও ক্রীড়া এবং ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সসহ ১২টি মন্ত্রণালয়/বিভাগের সমন্বয়ে গঠিত একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। এই টাস্কফোর্স পানিতে ডুবে মৃত্যু হ্রাস সংক্রান্ত জাতীয় কৌশল প্রণয়ণে কাজ করে যাচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বে প্রতিবছর ২ লাখ ৩৫ হাজার মানুষ পানিতে ডুবে মৃত্যুবরণ করে। বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে পানিতে ডুবে মৃত্যু শিশুমৃত্যু বিশেষ করে ৫ বছরের কম বয়সী শিশুমৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

খালেদা জিয়ার বিষয় আইনের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

খালেদা জিয়ার বিষয় আইনের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, বিএনপি আবেদন করতেই পারে কিন্তু আইনের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই।

খালেদা জিয়া বিদেশ যেতে পারবেন না। আইন মন্ত্রনালয় থেকে স্পষ্ট জানানো হয়েছে ৪০১ ধারায় সাজা স্থগিত করে তাকে একবার শর্ত সাপেক্ষে, যে সুযোগ দেয়া হয়েছে সেখানে পুনরায় দেয়ার সুযোগ নেই।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ১৩৮৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ১৩৮৬

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৩৮৬ জন। মোট শনাক্তের সংখ্যা হলো ৭ লাখ ৭৩ হাজার ৫১৩ জনে। 

একই সময়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরও ৫৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ হাজার ৯৩৪ জনে।

আজ রোববার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এ তথ্য।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

দেশে করোনায় ভাইরাসে আরও ৫৬ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশে করোনায় ভাইরাসে আরও ৫৬ জনের মৃত্যু

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরও ৫৬ জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ হাজার ৯৩৪ জনে।

একই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৩৮৬ জন। মোট শনাক্তের সংখ্যা হলো ৭ লাখ ৭৩ হাজার ৫১৩ জনে। 

আজ রোববার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে এ তথ্য।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

যে যেখানে আছে, সেখানে থেকেই ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

যে যেখানে আছে, সেখানে থেকেই ঈদ উদযাপনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সরকারি বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে ভাইরাস বহন না করে, যে যেখানে আছে, সেখানে থেকেই ঈদ উদযাপনের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে বঙ্গবন্ধুর আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে যোগ দিয়ে পূর্বাঞ্চল নতুন শহর প্রকল্পে মূল অধিবাসী এবং ক্ষতিগ্রস্ত এক হাজার ৪৪০ জনের মধ্যে প্লট বরাদ্দ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তার পক্ষ থেকে প্লটপ্রাপ্ত তিনজনের হাতে বরাদ্দের কাগজ তুলে দেন গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘একটা ঈদে বাড়ি না গেলে কী হয়!’ এ সময় জীবন ও জীবিকা বাঁচাতে সবাইকে সরকারী বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যসুরক্ষাবিধি মেনে চলারও আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্লট বরাদ্দ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শহরের মতো গ্রামেও পরিকল্পিত আবাসন ব্যবস্থা গড়ে তোলা হবে। ধনীদের দৌরাত্ম মোকাবিলা করেই সরকার প্রকৃত দাবিদারদের অধিকার নিশ্চিত করবে।’

আরও পড়ুন


এবার নার্সের ‘নিমুরা নিমুরা’ গানের নাচের ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

করোনার ভারতীয় ধরণ, বিপদজনক ভবিষ্যতেরই পূর্বাভাস: কাদের

৪৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার পর বদমাশ ব্যাটা পালিয়ে যায়

সেই স্পিডবোট মালিক চান মিয়া র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার


প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, ‘শহর অথবা গ্রাম, বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের জন্য আবাসন নিশ্চিত করা ও জনগণের মৌলিক চাহিদা পূরণ করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, শহরের সব আধুনিক সুবিধা গ্রামে পৌঁছে দেয়ার অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করবে সরকার।

এ সময় প্লটের চাহিদা নিয়ে তিনি বলেন, যাদের এত বিশাল বিশাল অট্টালিকা, বাড়িঘর ফ্ল্যাট সবই আছে, তাদের আরো লাগবে কেন? মরলে তো সবাইকে যেতে হবে সেই কবরে, মাত্র সাড়ে তিন হাত জায়গায়। এই ধনসম্পদ কেউ সাথে নিয়ে যেতে পারবে না। এই কথাটা মানুষ কেন ভুলে যায়, আমি জানি না।

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্র প্রান্তে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমদ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোশাররফ হোসেন, মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লাহ খন্দকার, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) চেয়ারম্যান এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

সেই স্পিডবোট মালিক চান মিয়া র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

সেই স্পিডবোট মালিক চান মিয়া র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার

সম্প্রতি মাদারীপুরের শিবচরে ভয়াবহ স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ২৬ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় স্পিডবোট মালিক চান মিয়া ওরফে চান্দুকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রোববার (৯ মে) র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইং পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এসময় কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘সম্প্রতি স্পিডবোট দুর্ঘটনায় ২৬ জনের মৃত্যু হয়। এতে সারাদেশে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এরপর র‌্যাব আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করে। এক পর্যায়ে রোববার (৯ মে) ভোররাতে মামলার এজহারনামীয় আসামি স্পিডবোট মালিক চান মিয়া ওরফে চান্দুকে কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।’

আরও পড়ুন


সূরা বালাদের ফজিলত, আলোচিত প্রধান দু’টি বিষয়

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান আবারও লন্ডনের মেয়র

পবিত্র মসজিদ আল-আকসায় আবারও সংঘর্ষ, আহত অনেক

বাগেরহাটে টিকটকে আপত্তিকর ছবি পোস্ট, স্ত্রীকে হত্যা করলো স্বামী


এ বিষয়ে আজ বিকেলে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

গত ৩ মে ভোরে ঘাটে নোঙর করে রাখা বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে শিমুলিয়া থেকে আসা একটি দ্রুতগতির স্পিডবোটের ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলে ২৬ জনের মৃত্যু হয়।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর