বাগেরহাটে সহকর্মীর সহযোগিতায় নারী দলিল লেখককে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

বাগেরহাট প্রতিনিধি:

বাগেরহাটে সহকর্মীর সহযোগিতায় নারী 
দলিল লেখককে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

বাগেরহাটে পঁচিশ বছর বয়সী এক নারী দলিল লেখককে (মোহরার) তার সহকর্মীর সহযোগিতায় গণধর্ষণ করেছে একদল যুবক। বুধবার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। 

গত ২৬ এপ্রিল রাতে বাগেরহাট সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নের কালদিয়া গ্রামের একটি রাইস মিলে এই গনধর্ষনের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় বুধবার রাতে বাগেরহাট সদর মডেল থানায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। 

বৃহষ্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ধর্ষণের শিকার ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। জড়িত অন্য দুজনকে ধরতে পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে। ধর্ষণের শিকার নারীর বাড়ি বাগেরহাট সদর উপজেলার খানপুর গ্রামে। কয়েক বছর আগে তার বিয়ে হয়। কিছুদিন হলো তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, ধর্ষণের শিকার নারী তার সহকর্মী জমি রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক বাগেরহাট সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নের কালদিয়া গ্রামের বাসিন্দা আলমগীর হোসেন। একই গ্রামের বাসিন্দা শোভন শেখ। পলাতক দুজনের বাড়িও ওই কালদিয়া গ্রামে।

মামলার এজাহারের বরাতে বাগেরহাট মডেল থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম জানান, ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাগেরহাট জেলা রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ের দলিল লেখক আলমগীর হোসেনের সহকারি হিসেবে কাজ করতেন। পূর্ব পরিচিত হওয়ায় গত ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় দলিল লেখক ওই নারীকে বেড়ানোর কথা বলে তার গ্রামে নিয়ে যান। সেখানে যাওয়ার পরে আরও তিনজনের সাথে মেয়েটির পরিচয় হয়। 

এরপর মেয়েটির ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে একটি মিলে আটকে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। বুধবার থানায় এসে মেয়েটি অভিযোগ দিলে আমরা সঙ্গে সঙ্গে অভিযান চালিয়ে দলিল লেখক আলমগীর ও শোভনকে গ্রেপ্তার করি। এই ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেছেন। বৃহষ্পতিবার দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ধর্ষণের শিকার ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

শবে কদরের রাতে চাচাতো ভাইয়ের হাতে খুন ভাই-ভাবি

মো.বুরহান উদ্দিন সুনামগঞ্জ

শবে কদরের রাতে চাচাতো ভাইয়ের হাতে খুন ভাই-ভাবি

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে বিদ্যুতের খুঁটি বসানো নিয়ে ঝগড়া বিবাদের জের ধরে চাচাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন এক দম্পতি।

নিহতের নাম আলমগীর হোসেন (৩২) এবং তার স্ত্রীর নাম মোর্শেদা বেগম (২৮)।

উপজেলার বেহেলী ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামে রোববার (০৯ মে) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

এই দম্পতির চার সন্তান রয়েছে। বড় ছেলের বয়স ৯ বছর। নিহতদের লাশ জামালগঞ্জ থানা-পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। 

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আলীপুর গ্রামের তাহের আলীর ছেলে আলমগীর হোসেনের সঙ্গে বাড়ির পাশের জায়গা বিক্রয় নিয়ে কিছুদিন হয় চাচাতো ভাই ঝনর মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়ার দ্বন্দ্ব চলে আসছে। বিক্রয় করা জায়গায় বিদ্যুতের খুঁটি বসানো নিয়ে দুই ভাইয়ের পরিবারের মধে ২-৩ দিন হয় ঝগড়া বিবাদ চলছিল। এর জের ধরে রোববার রাত আটটায় রাসেল মিয়া আলমগীর হোসেনের ঘরে ঢুকে তাকে ছুরিকাঘাত করে। এসময় আলমগীরের স্ত্রী মোর্শেদা বেগম ফেরানোর চেষ্টা করলে তাকেও ছুরিকাঘাত করে রাসেল মিয়া। গুরুতর আহত দুইজনকে জামালগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে আসার সময় পথেই তাদের মৃত্যু হয়। রাত পৌঁনে ৯ টায় জামালগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তাররা দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।

জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম জানান, খুন হওয়া দম্পত্তির লাশ পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। খুনীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

ইফতারির সঙ্গে নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

ইফতারির সঙ্গে নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

ইফতারির সঙ্গে নেশার ওষুধ খাইয়ে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের এ ঘটনায় তিনজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। তারা হলেন- রিপন মিয়া, জসীম উদ্দিন ও ফয়সাল।

রোববার (০৯ মে) বিকেলে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের শেষে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয় । 

এদিকে, আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে ভিকটিম ওই শিক্ষার্থী। 

উল্লেখ্য, ৭ এপ্রিল রাতে উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নে ইফতারির সংগে নেশাজাতীয় ওষুধ মিশিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে রিপন মিয়া। এ ঘটনায় রিপনসহ আরও দুইজনকে আটক করে পুলিশ।

দোয়ারাবাজার থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান বলেন, ধর্ষণে অভিযুক্তসহ তিনজনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিম শিক্ষার্থী আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে। 

তিনি জানান, আটকৃতরা পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। ভিকটিমের স্বজন বাদী হয়ে দোয়ারাবাজার থানায় নারী শিশু আইনে মামলা দায়ের করেছেন বলেও জানান মনিরুজ্জামান। 

পরবর্তী খবর

ইফতারিতে নেশাদ্রব্য মিশিয়ে এতিম শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

ইফতারিতে নেশাদ্রব্য মিশিয়ে এতিম শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

এতিম দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ইফতারির সঙ্গে নেশাজাতীয় ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার (৮ মে) দিবাগত-রাতে সুনামগঞ্জে দোয়ারাবাজার উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত রিপন মিয়াসহ আরও দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নে সুরুজ মিয়ার ছেলে রিপন মিয়া একই ইউনিয়নের দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর ফুফাতো ভাই ফয়সালের (১২) মাধ্যমে নেশার ওষুধ মেশানো ইফতারি তাদের বাড়িতে পাঠায়। নেশা মেশানো ইফতারি খাওয়ার পর মেয়ে এবং দাদা অজ্ঞান হয়ে গেলে মধ্যরাতে এসে রিপন তাকে ধর্ষণ করেন। ভোরে ঘুম ভাঙলে ওই শিক্ষার্থীর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। এ সময় ওই শিক্ষার্থী সব খুলে বলে।

ভিকটিমকে উদ্ধার করে দোয়ারাবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

দশম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর মা-বাবা কেউ বেঁচে নেই। এতিম মেয়েটি একমাত্র বৃদ্ধ দাদার আশ্রয়ে থাকে। বাড়িতে তার বৃদ্ধ দাদা ছাড়া পরিবারে আর কেউ নেই।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত রিপনসহ তার ফুফাতো ভাই এবং নেশা বিক্রেতা জসিম উদ্দিনকে আটক করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষণের আলামত জামা কাপড়সহ ইফতার সামগ্রী একটি ছুরি উদ্ধার করে।

দোয়ারাবাজার থানার ওসি (তদন্ত) মনিরুজ্জামান বলেন, রিপনসহ আরও দুজনকে আটক করা হয়েছে। নেশা বিক্রেতা জসিম দীর্ঘদিন ধরে অজ্ঞান পার্টির সঙ্গে জড়িত। সে অজ্ঞান পার্টির বড়ো ধরনের হোতা। এলাকায় শিশুদের দিয়ে নেশার ওষুধ বিক্রি করে এবং চোরাকারবারের সঙ্গে জড়িত সে।  রিপনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা প্রক্রিয়াধীন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

সুনামগঞ্জে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

সুনামগঞ্জ পৌর শহরের পৌরসভার সামনে পূর্ব শত্রুতার জেরে রিক্সা চালক শুকুর আলীকে (২০) খুন করেছে তার বন্ধু শাকিল মিয়া। আজ শনিবার (০৮ মে) দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌরসভার সামনে ঐ ঘটনা ঘটে।

নিহত শুকুর আলী সুনামগঞ্জ পৌর শহরের মল্লিকপুরের এলাকার ৮ নং ওয়ার্ডের মৃত সেজলু মিয়ার ছেলে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এক সময় নিহত শুকুর ও শাকিল খুব ভালো বন্ধু ছিল কিন্তু গত ছয়মাস আগে শুকুরের সাথে শাকিলের দ্বন্দ দেখা দেয়, পরে শুকুর আর শাকিলের ঐ বন্ধুত্ব ভয়ংকর রুপে শত্রুায় পরিণিত হয়। 

প্রতিদিনের মত নিহত শুকুর আলী রিক্সা নিয়ে বাসা থেকে বের হয়। পৌরসভার সামনে গেলে পিছন থেকে ঘাতক শাকিল তাকে চুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে আঘাত করে। এতে শুকুর গুরুত্ব আহত হয়ে রিক্সা থেকে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুর রহমান বলেন, চুরিকাঘাত করে রিক্সা চালকে খুন করা হয়েছে। আমরা ঘটনাস্থলে পুলিশ পাটিয়েছি। ঘাতক শাকিল কে গ্রেপ্তারের জন্য আমরা অভিযান চালাচ্ছি।

news24bd.tv / কামরুল 

পরবর্তী খবর

বাগেরহাটে খাবার পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে সড়কে গৃহবধূ নিহত

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট

বাগেরহাটে খাবার পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে সড়কে গৃহবধূ নিহত

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে খাবার পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে ইজিবাইকের ধাক্কায় রাবেয়া বেগম (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার সকালে সাইনবোর্ড-বগি আঞ্চলিক মহাসড়কের মোরেলগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অফিসের সামনে রাবেয়া বেগম ইজিবাইকের ধাক্কা দিলে তিনি ঘটনাস্থলে নিহত হন। তিন সন্তানের মা রাবেয়া বেগম পূর্ব শরালীয়া গ্রামের মন্টু তালুকদারের স্ত্রী।

এ বিষয়ে নিহতের মেয়ে ইতি আক্তার ও সুখী বেগম বলেন, খাবার পানি সংগ্রহের জন্য কলসি নিয়ে ব্র্যাক অফিসের দিকে যাবার সময় একটি যাত্রীবাহী ইজিবাইক তার মাকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার ওপর ফেলে দেয়। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন তাকে তুলে হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক রাবেয়া বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন।

মোরেলগঞ্জ থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, খাবার পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে ইজিবাইকের ধাক্কায় রাবেয়া বেগম নামে এক গৃহবধূ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হবার খবর শুনেছি।

গাছ উপড়ে পড়ল ঘরের ওপর, গেল স্বামী-স্ত্রীর প্রাণ

ঢাবি শিক্ষক-কর্মচারীদের ঈদ কর্মস্থলেই

এরা মানুষ না, অমানুষ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর