কওমি মাদ্রাসা সরকারের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি ইসলামী ফ্রন্টের

অনলাইন ডেস্ক

কওমি মাদ্রাসা সরকারের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি ইসলামী ফ্রন্টের

কওমি মাদ্রাসা সরকারি স্বীকৃতি ভোগ করে সরকারি নিয়ন্ত্রণের বাইরে কাজ করছে। তারা অতিমাত্রায় সরকারি সুবিধা গ্রহণের ফলে উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা গ্রহণে উৎসাহী হয়েছে। অনতিবিলম্বে তাদেরকে একই সিলেবাসভুক্ত করে সরকারি নিয়ন্ত্রণে পরিচালিত করার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নেতারা।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির নেতারা এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে দলটির নেতারা দেশের এমপিওভুক্ত ও স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব মাদ্রাসা পরিচালনার জন্য মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর ও শিক্ষা নীতিমালা তৈরি করা হলেও কওমি মাদ্রাসাগুলোর এর আওতায় না থাকার কথা তুলে ধরেন।

হেফাজতে ইসলামকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব স. ম আবদু সামাদ বলেন, নৈতিক স্খলন জঙ্গিবাদে কর্মকাণ্ডে যুক্ত হেফাজতকে অবশ্যই নিষিদ্ধ করতে হবে। তাদের কমিটি বিলুপ্ত বা নতুন করে কমিটি করে ইতোপূর্বে সংগঠিত জঙ্গিবাদ অপরাধকে মার্জনা করা যাবে না।

আর ইসলামি শিক্ষাব্যবস্থাকে একই স্রোতে আনার পাশাপাশি কওমি সনদ বাতিলের দাবি জানিয়ে বাংলাদেশ ইসলামি ফ্রন্টের মহাসচিব মাওলানা এম এ মতিন জঙ্গিবাদের অভিযোগও তোলেন হেফাজতের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, এ দেশের মধ্যে একটা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হতে পারে, মুসলমানদের মধ্যে বিভক্তি হতে পারে, যে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। এ কারণে আমরা মনে করছি, একটা দেশের মধ্যে দুই ধরনের ইসলামি শিক্ষাব্যবস্থা থাকতে পারে না।

ইসলামী ফ্রন্টের নেতারা আরও বলেন, সম্প্রতি কওমি মাদ্রাসা বোর্ড হতে তাদের নিয়ন্ত্রিত মাদ্রাসাগুলোতে রাজনীতি নিষিদ্ধের নামে যে ঘোষণা এসেছে, তা অনেকটা জাতির সঙ্গে প্রতারণার শামিল। যতদিন এ ধারার মাদ্রাসাগুলো রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আসবে না ততদিন তারা একের পর এক ভিন্ন নামে, ভিন্ন কর্মসূচিকে সামনে এনে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে যাবে। তাই কওমি মাদ্রাসাকে অডিটের মধ্যে এনে অবিলম্বে সরকারি নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান এমএ মান্নান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ স উ ম আবদুস সামাদ, সৈয়দ মছিহুদ্দৌলা, অধ্যক্ষ আহমদ হোসাইন আল কাদেরী, অধ্যক্ষ শাহ খলিলুর রহমান নিজামী, শাইখ আবু সুফিয়ান খান আবেদী, রেজাউল করিম তালুকদার, ইঞ্জিনিয়ার নুর হোসাইন, মাস্টার মুহাম্মদ আবুল হোসাইন, ওবাইদুল মুস্তফা কদমরসুলী, আব্দুন নবী আল কাদেরী, মাওলানা ফেরদৌসুল আলম খান, মাওলানা আবদুল খালেক, অধ্যক্ষ হাফেজ আহমদ কাদেরী, নাসির উদ্দীন মাহমুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

news24bd.tv/আলী

 

পরবর্তী খবর

রাজধানীতে যুবলীগের চেয়ারম্যানের পক্ষে ইফতার বিতরণ

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীতে যুবলীগের চেয়ারম্যানের পক্ষে ইফতার বিতরণ

যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের নির্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের মাসব্যাপি ইফতার বিতরণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানীর আজিমপুর এলাকায় ছিন্নমূল ভাসমান পথচারী ও দিনমজুর মানুষদের মাঝে ইফতার বিতরণ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় রমজানের শুরু থেকেই এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সংগঠনটি। 

শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের পক্ষ থেকে অসহায়, কর্মহীন ও দুঃস্থদের মাঝে ইফতারের জন্য রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়। 

রাজধানীর আজিমপুর ও এর আশেপাশের এলাকার ৫ শতাধিক মানুষের মাঝে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের পক্ষে ইফতার বিতরণ করেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ নেতা সাব্বির হোসেন।

যুবলীগ চেয়ারম্যানের পক্ষে সাব্বির হোসেন বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন যুবলীগের মানবিক চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। তার নির্দেশে কমলাপুর ও এর আশেপাশের এলাকায় কর্মহীন মানুষ রিক্সাচালক পথচারীদের মাঝে খাবার বিতরণ করেছি। পুরো রমজান জুড়েই এই কর্মসূচি চলমান থাকবে। 

শুধু কোন দল বা সংগঠনের পক্ষে সকলের কাছে সাহায্য পৌঁছানো সম্ভব নয় তাই এই কঠিন সময়ে সমাজের বিত্তবানদের অসহায় ও দরিদ্রদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

পবিত্র জুমাতুল বিদা আজ

অনলাইন ডেস্ক

পবিত্র জুমাতুল বিদা আজ

আজ পবিত্র জুমাতুল বিদা বা মাহে রমজানের শেষ শুক্রবার। দিনটি মুসলিম বিশ্বের কাছে জুমাতুল বিদা নামে পরিচিত। এ দিনটি আল-কুদস দিবস হিসেবেও পালিত হয়। মূলত জুমাতুল বিদার মধ্য দিয়ে মাহে রমজানকে বিদায় সম্ভাষণ জানানো হয়। 

মহিমান্বিত এই দিনটি ইবাদত-বন্দেগি ও জিকির-আসকারের মাধ্যমে পালন করেন। এ দিন জুমার নামাজে আল্লাহর দরবারে ক্ষমা ও রহমত কামনা করেন মুসল্লিরা।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের আগের বছরগুলোতে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে জুমাতুল বিদার দিনে সোয়া এক লাখ থেকে দেড় লাখ মুসল্লির নামাজের ব্যবস্থা করা হতো। কিন্তু করোনার কারণে গত বছরের মতো এবারও বিশেষ কোনো কর্মসূচি নেই। আজ সব মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করা হবে সামাজিক দূরত্ব মেনে।

এবার করোনার কারণে বড় ধরনের জমায়েত এড়িয়ে চলা হচ্ছে। তবে করোনা মহামারি থেকে মানবজাতির মুক্তির জন্য আজ জুমার নামাজের পর সারাদেশে মসজিদে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। 

গতকাল ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব থেকে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বের মানুষের সুরক্ষা, অসুস্থদের দ্রুত আরোগ্য লাভ, মহামারি পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি এবং দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণ কামনা করে শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে বিশেষ দোয়ার আয়োজন করা হবে।


কোভিড সার্টিফিকেট জাল, ধ্যাত তাও কি হয় নাকি!

খালেদা জিয়াকে যে দেশে নেওয়ার প্রস্তুতি

জাতীয় অধ্যাপক হলেন তিন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ

যে কারণে হেলমেট ও বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট পরে পার্লামেন্টে এমপি


এ জন্য দেশের সব মসজিদের খতিব, ইমাম, মুসল্লি ও মসজিদ কমিটিকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে। এ ছাড়া দেশের অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে নিজ নিজ ধর্ম মতে সুবিধাজনক সময়ে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্নিষ্টদের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বঙ্গবন্ধু পরিষদের ইফতার বিতরণ

পিরোজপুর প্রতিনিধি

নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বঙ্গবন্ধু পরিষদের ইফতার বিতরণ

পিরোজপুরে নিম্ন ও মধ্য আয়ের ৪শত মানুষের মাঝে রুপালী ব্যাংকের সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে ইফতার বিতরণ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিকালে পিরোজপুর শহরের শিল্পকলা একাডেমির সামনে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান,রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের পিরোজপুর জোনাল ম্যানেজার ফরহাদ হোসেন খান, হুলারহাট শাখার ম্যানেজার ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের পিরোজপুর অঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান সুমন, পুটিয়াখালি শাখার ম্যানেজার ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ আরিফ হোসেনসহ আরো অনেকে।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

ঢাকা দক্ষিণ সিটির সিইও হলেন ফরিদ আহাম্মদ

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা দক্ষিণ সিটির সিইও হলেন ফরিদ আহাম্মদ

সামরিক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদফতরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ফরিদ আহাম্মদকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সরকারি এক আদেশে সদ্য সাবেক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদফতরের কর্মকর্তাকে ঢাকা দক্ষিণ সিটির সিইও হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।

ফরিদ আহাম্মদ বিসিএস ১১তম ব্যাচের সদস্য (প্রশাসন) ক্যাডার এবং ১৯৯৩ সালে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি মে, ২০১২ হতে জুন, ২০১৫ সাল পর্যন্ত ৩ বৎসর এর অধিক সময় পর্যন্ত রংপুর জেলার জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

২০১৮ সালে যুগ্মসচিব হিসেবে সামরিক ভূমি ও ক্যান্টনমেন্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ২৬ আক্টোবর ২০২০ তিনি সরকারের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে পদোন্নতি প্রাপ্ত হয়ে পুনরায় মহাপরিচালক এর দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। তিনি ২৭ বছর এর অধিক সময় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সচিবালয় এবং মাঠ প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে যুগ্মসচিব, উপসচিব, জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা দুর্নীতি দমন অফিসার, ক্যান্টনমেন্ট এক্সিকিউটিভ অফিসার, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের একান্ত সচিব, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং সহকারী কমিশনার ও ১ম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি নরসিংদী জেলার সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। দুই পুত্র সন্তানের জনক। তাঁর সহধর্মিনী একজন বিএসসি সিভিল ইঞ্জিনিয়ার।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হতে কৃষিতে ১ম শ্রেণীর স্নাতক সম্মান ও স্নাতকোত্তর কৃষি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গাজীপুর হতে এনটমলজিতে ১ম শ্রেণীতে এম, এস ডিগ্রী লাভ করেন। পরবর্তীতে ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি থেকে ১ম শ্রেণীতে এম.বি.এ(ফাইনান্স) ডিগ্রি লাভ করেন।

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ে লিডারশিপ কোর্স, যুক্তরাজ্যের ওলভার হাম্পটন বিশ্ববিদ্যালয়ে সুপারম্যাট, অস্ট্রেলিয়ার ম্যাককুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসডিজি বিষয়ক প্রশিক্ষণসহ সিংগাপুর সিভিল সার্ভিস একাডেমি, ভিয়েতনামের ন্যাশনাল একাডেমি ফর পাবলিক এডমিনিসট্রেশন, ভারতের এনআইআইটিতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন।

আন্তর্জাতিক সম্মেলন, সেমিনার, প্রশিক্ষণ ও কর্মশালায় অংশগ্রহণসহ তিনি সরকারি দায়িত্বপালনের অংশ হিসেবে বিভিন্ন সময় ৩২টি দেশ ভ্রমন করেন।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

এবারও বহিরাগতদের জন্য হজ বন্ধের পরিকল্পনা সৌদির

অনলাইন ডেস্ক

এবারও বহিরাগতদের জন্য হজ বন্ধের পরিকল্পনা সৌদির

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত বছর বিদেশি নাগরিকদের জন্য হজ বন্ধ করেছিলো সৌদি সরকার। তবে বিশ্বজুড়ে করোনার ঊর্ধ্বগতি এবং করোনার নতুন রূপ ছড়ানোয় টানা দ্বিতীয় বছরের মতো বহিরাগত বা বিদেশিদের জন্য হজে যাওয়া বন্ধের বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করছে সৌদি আরব।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বহিরাগতদের হজের জন্য প্রবেশে সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এই বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে পবিত্র মক্কা নগরীতে হজ করতে আগ্রহী মুসল্লিদের উপস্থিতি সীমিত সংখ্যক হবে।

এছাড়াও এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হলে দেশটির যে সকল নাগরিক করোনার টিকা নিয়েছেন বা অন্তত ছয় মাস আগে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে তারাই কেবল হজ করার জন্য সুযোগ পাবেন।

সুত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে টিকা নেয়া কিছু বহিরাগতদের এবার হজ পালনের জন্য সুযোগ দেয়ার বিষয়ে ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু তাদের মধ্যে কে কোন টিকা নিয়েছেন, এ নিয়ে বিভ্রান্তি এবং টিকার কার্যকারিতা ও করোনার নতুন ধরণ নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। ফলে ওই পরিকল্পনা থেকেও সরে আসা হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


ট্রিও মান্ডিলি: এক আধুনিক রূপকথার গল্প

রোজার সৌন্দর্যে ​মুগ্ধ হয়ে ভারতীয় তরুণীর ইসলাম গ্রহণ

আইপিএল নেই, বাড়ি ফিরে যা করতে চান কোহলি

এক সপ্তাহে বিশ্বে করোনা আক্রান্তের অর্ধেকই ভারতে, মৃত্যু এক-চতুর্থাংশ


উল্লেখ্য, সৌদি সরকার গত ফেব্রুয়ারি মাসে ২০ দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তবে এই নিষেধাজ্ঞা কূটনীতিক, সৌদি নাগরিক, চিকিৎসক ও তাদের পরিবারগুলোর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ছিল না। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা এখনো বহাল রয়েছে।

news24bd.tv / নকিব

পরবর্তী খবর