করোনার প্রভাবে সাদা সোনাখ্যাত চিংড়ি শিল্পে ভয়াবহ বিপর্যয়

করোনার প্রভাবে সাদা সোনাখ্যাত চিংড়ি শিল্পে ভয়াবহ বিপর্যয়

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে ভয়াবহ বিপর্যের মুখে পড়েছে দক্ষিণাঞ্চলের চিংড়ি শিল্প। একদিকে, রপ্তানি বন্ধ থাকায় চাষিরা পাচ্ছেন না চিংড়ির ন্যায্য দাম, অন্যদিকে রেনু পোনা সংকটের কারণে পোনা ছাড়াও ব্যাহত হচ্ছে। এ অবস্থায় গেল বছরের মত এবারও, আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন চাষিরা।

বাগেরহাটে ৭১ হাজার ৮৮৬ হেক্টর জমিতে চাষ হয় বাগদা ও গলদা চিংড়ি।

লক ডাউনের কারনে এসব চিংড়ির রপ্তানি বন্ধ থাকায় বিক্রয়যোগ্য চিংড়ির দাম কমেছে। ফলে, চাষিরা বঞ্চিত হচ্ছে ন্যায্য মূল্য থেকে।

এদিকে, গত ১৪ এপ্রিল থেকে চলমান লকডাউনে পরিবহণ ব্যবস্থা অচল থাকায় রেনুু  পোনার চরম সংকট  দেখা দিয়েছে। এতে, মৌসুমের শুরুতে চাহিদা অনুযায়ী ঘেরে পোনা ছাড়তে পারছেন না চাষিরা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন,  রপ্তানি বন্ধ থাকায় গত এক বছরে বাগেরহাটের চিংড়ি শিল্পে ক্ষতির পরিমান দাঁড়িয়েছে প্রায় ২৫০ কোটি টাকা।


চট্টগ্রামে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

ইসরায়েলে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পদদলিত হয়ে নিহত ৩৮

কে এই মুফতি হারুন ইজহার?

ঐতিহাসিক বদর দিবস আজ


করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত চিংড়ি শিল্পে জড়িত চাষি ও ব্যবসায়ীদের আর্থিক প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে বলে জানালেন সংশ্লিষ্টরা।

চাষিদের দাবি, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের চিংড়ি শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে প্রয়োজন সরকারি সহয়তা।

news24bd.tv নাজিম