যশোরে জায়গা না থাকায় ভারত ফেরতদের পাঠানো হচ্ছে নড়াইলে

অনলাইন ডেস্ক

যশোরে জায়গা না থাকায় ভারত ফেরতদের পাঠানো হচ্ছে নড়াইলে

ভারতে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আরও ১ হাজার ২০০ জন দেশে ফিরবেন। আজ শুক্রবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত যশোরের বেনাপোল হয়ে ফিরেছেন ৭৫ জন।

সূত্র জানায়, এ নিয়ে গত ৫ দিনে ৭৭১ জন বিশেষ ব্যবস্থায় ভারত থেকে দেশে ফিরলেন।

তাঁদের ১৪ দিনের বাধ্যতামূলকভাবে আইসোলেশনে (সঙ্গনিরোধ) রাখা হয়েছে।

এদিকে যশোরের আইসোলেশন কেন্দ্রগুলো পরিপূর্ণ হয়ে উঠায় ফেরত আসা অনেককে নড়াইলে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।


খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা চলবে সোমবার পর্যন্ত

তারা গোটা কোভিডকে নিয়ে ব্যবসা করেছে: ফখরুল

আসছে তীব্র বেগে কালবৈশাখী ঝড়, বজ্র ও শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা

১৬ বছর আগের সিদ্ধান্ত বদল, ‘চির শত্রু’ চীনের সাহায্য নিচ্ছে ভারত

যশোর জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ভারতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। এ অবস্থায় ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে মানুষের যাতায়াতে নিরুৎসাহিত করতে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। ওই প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ দূতাবাসের বিশেষ অনুমতি নিয়ে ভারত থেকে দেশে ফেরার শর্ত দেওয়া হয়। এরপর ২৬ এপ্রিল থেকে গত ৫ দিনে ৭৭১ জন নাগরিক দেশে ফিরেছেন। আরও ১ হাজার ২০০ জনের ফেরার অনুমতি দিয়েছে দূতাবাস।

গত ৫ দিনে যাঁরা দেশে ফিরেছেন, তাঁদের মধ্যে করোনা ‘পজিটিভ’ ব্যক্তি আছে ১৫ জন। তাঁদের হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া আজ ও গতকাল শনিবার দুজনের লাশ দেশে এসেছে।

ভারত থেকে ফেরা করোনা ‘নেগেটিভ’ ব্যক্তিদের বেনাপোল ও যশোর শহরের আবাসিক হোটেল এবং ঝিকরগাছার গাজীর দরগা মাদ্রাসায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। যশোরে এক হাজার ব্যক্তিকে রাখার মতো ব্যবস্থা রয়েছে। যেভাবে ভারত থেকে মানুষ আসছেন, তাতে আজ সন্ধ্যার মধ্যে যশোরের সব আবাসন পূর্ণ হয়ে যাবে। এ কারণে আজ ১৫০ জনকে নড়াইলের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে পাঠানোর প্রস্তুতি নিয়েছে যশোর জেলা প্রশাসন।

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সায়েমুজ্জামান বলেন, দেশে ফেরার জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আরও ১ হাজার ২০০ জনের বিশেষ অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে আজ ৭৫ জন ফিরেছেন।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আল-আকসা মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা

অনলাইন ডেস্ক

আল-আকসা মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা

ফিলিস্তিনের আল-আকসা মসজিদে ইসরায়েলি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার (১২ মে) প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

মসজিদে ইসরায়লি হামলায় হতাহতদের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানিয়ে  মঙ্গলবার (১১ মে) ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে চিঠি পাঠান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। চিঠিতে তিনি এ ঘটনার নিন্দা প্রকাশ করেন।

এতে বলা হয়, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি ইসরায়েলি হামলায় হতাহতদের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানিয়ে ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে পত্র প্রেরণ করেছেন।’

আরও পড়ুন


বঙ্গবন্ধুকন্যা মানবিক বলেই খালেদা জিয়া জেলের বাইরে চিকিৎসা নিচ্ছেন: কাদের

চীন থেকে আরও ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে চেষ্টা চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চীনের টিকা পেতে দেরি হওয়ায় কাউকে দোষারোপ করা যাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিতু হত্যার নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার: পিবিআই


এদিকে ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি দখলদার বাহিনীর অব্যাহত হামলায় নিহতের সংখ্যা বাড়ছেই। সবশেষ মঙ্গলবার রাতভর এবং বুধবার ভোরে গাজার বেশ কয়েকটি স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে এখন পর্যন্ত ৩৬ জনের নিহতের খবর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এসেছে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

চীন থেকে আরও ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে চেষ্টা চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চীন থেকে আরও ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে চেষ্টা চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মাধ্যমে সরকার চীন থেকে আগামীতে আরও বেশি সিনোফার্ম ভ্যাকসিন নিয়ে আসতে কাজ করছে। প্রয়োজন মোতাবেক দেশের সবাইকে টিকা দেয়া চেষ্টা অব্যাহত আছে।

বুধবার (১২ মে) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় চীনা টিকা হস্তান্তর উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন ও ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং উপস্থিত ছিলেন। 

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চীন বাংলাদেশকে সিনোফার্মের পাঁচ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন উপহার হিসেবে দিয়েছে। বন্ধু রাষ্ট্র থেকে এটা অনেক বড় পাওয়া। চীন সরকার ও দেশটির সকল নাগরিকদের ধন্যবাদ জানাই। চীন থেকে পাওয়া এই ৫ লাখ ভ্যাকসিন দুই ডোজ করে আড়াই লাখ মানুষকে দেয়া হবে।

আরও পড়ুন


চীনের টিকা পেতে দেরি হওয়ায় কাউকে দোষারোপ করা যাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিতু হত্যার নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার: পিবিআই

কাশিমপুরে স্থানান্তর করা হলো মামুনুল-রফিকুলসহ ১৪ হেফাজত নেতাকে

যদি চালুই করতে হয়, তবে আজ থেকে নয় কেন?


জাহিদ মালেক বলেন, আরও বেশি ভ্যাকসিন নিয়ে আসতে চীনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা চলছে। রাষ্ট্রদূতও আশ্বস্ত করেছেন। আমরাও অনুরোধ করেছি ভ্যাকসিন কার্যক্রম চালু রাখতে প্রতি মাসেই যেন কিছু করে ভ্যাকসিন সরবরাহ করা হয়। তারা আশ্বাস দিয়েছে, এ বিষয়ে তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে। জুন-জুলাইয়ে নতুন করে ভ্যাকসিন দেয়ার চেষ্টা করবে বলেও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে ভ্যাকসিনের পাশাপাশি মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা একটি বড় বিষয়। আমরা চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি এবং মানুষ সুবিধা পাচ্ছে। আমাদের দেশে মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে আছে। যদিও আমরা দেখলাম ঈদের সময় মানুষ যেভাবে গেল বাড়িতে, তাতে আমরা খুবই মর্মাহত হলাম।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

চীনের টিকা পেতে দেরি হওয়ায় কাউকে দোষারোপ করা যাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

চীনের টিকা পেতে দেরি হওয়ায় কাউকে দোষারোপ করা যাবে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, চীন থেকে ভ্যাকসিন আসার প্রক্রিয়া বিলম্বিত হওয়ার পেছনে কাউকেই দোষারোপ করা যাবে না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সিনোফার্মের টিকা অনুমোদন দিতে দেরি করায় এমনটি হয়েছে।

বুধবার (১২ মে) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় চীনা টিকা হস্তান্তর উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক, ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন উপস্থিত ছিলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘চীনা টিকার বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদন না দেওয়ায় আমরা আনতে খুব একটা আগ্রহী ছিলাম না। আমাদের বিশেষজ্ঞরাও এ বিষয়ে এমনই নির্দেশনা দিয়েছিলেন। তবে এখন অনুমোদন দেয়ায় আমরা এ টিকা আনতে চাই। তাই টিকা আনতে দেরি হওয়ায় কাউকেই দোষারোপ করার সুযোগ নেই বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন


মিতু হত্যার নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার: পিবিআই

কাশিমপুরে স্থানান্তর করা হলো মামুনুল-রফিকুলসহ ১৪ হেফাজত নেতাকে

যদি চালুই করতে হয়, তবে আজ থেকে নয় কেন?

বিবেকবোধ বা মানবিকতায় ‘চুজ অ্যান্ড পিক’ ব্যবস্থা নেই


টিকা উপহার দেয়ায় চীন সরকারকে ধন্যবাদ জাানয়ে ড. এ কে আব্দুল মোমেন আরও জানান, চীনের এই টিকার যৌথ উৎপাদন হতে পারে। আর তা হলে উভয়পক্ষই লাভবান হবেন।

এর আগে বুধবার ভোরে ঢাকায় পৌঁছায় চীনের পাঁচ লাখ উপহারের টিকা। ভোর সাড়ে ৫টায় বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ ফ্লাইট টিকা নিয়ে বেইজিং থেকে ঢাকায় আসে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

মিতু হত্যার নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার: পিবিআই

অনলাইন ডেস্ক

মিতু হত্যার নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার: পিবিআই

পাঁচ বছর আগে ঘটে যাওয়া চট্টগ্রামে মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলার বাদী ছিলেন স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তার। এবার স্ত্রী হত্যা মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন তিনি নিজেই। নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি করা হবে স্বামী বাবুল আক্তারকে এমটিই জানিয়েছে পিবিআই।

বুধবার (১২ মে) সকালের ঢাকায় পিবিআইয়ের প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই প্রধান ও পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক বনজ কুমার মজুদার এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, পুরোনা মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদন আজই আদালতে দেয়া হবে। নতুন যে মামলাটি করা হবে তাতে বাদী হতে পারেন মিতুর বাবা।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) তদন্তে বাবুল আক্তারের বিরুদ্ধেই স্ত্রী মিতু হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার সংশ্লিষ্টতা প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে তাকে হেফাজতে নিয়েছে সংস্থাটি।

পিবিআই প্রধান বলেন, খ্যাতিমান পুলিশ অফিসার ছিলেন বাবুল আক্তার। অনেক কাজ করেছেন। তাঁর স্ত্রীকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। চাঞ্চল্যকর মামলা হিসেবে এটি পরিগণিত। বাবুল আক্তার বাদী হয়েছিলেন। পুরোনো মামলায় ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন দুজন।

আরও পড়ুন


কাশিমপুরে স্থানান্তর করা হলো মামুনুল-রফিকুলসহ ১৪ হেফাজত নেতাকে

যদি চালুই করতে হয়, তবে আজ থেকে নয় কেন?

বিবেকবোধ বা মানবিকতায় ‘চুজ অ্যান্ড পিক’ ব্যবস্থা নেই

আবারও করোনায় মৃত্যুর রেকর্ড গড়লো ভারত


বনজ কুমার বলেন, বাবুল আক্তারের সম্পৃক্ততা আসেনি। মহামান্য হাইকোর্ট জানতে চেয়েছেন, কত দিন ঝুলে থাকবে। সে উত্তর খুঁজতে গিয়ে মামলা অন্যদিকে মোড় নেয়।

বনজ কুমার বলেন, মামলার বাদীকে ইচ্ছা করলেই গ্রেপ্তার করা যায় না। বাদীকে গ্রেপ্তার করতে হলে চূড়ান্ত রিপোর্ট দিতে হবে। খুলশী থেকে ফাইনাল রিপোর্ট জমা দিতে আজই কোর্টে যাচ্ছে পুলিশ। এটি দাখিলের পর নতুন মামলা হবে। মোশাররফ হোসেন বাদী হতে পারেন। কথা বলা হয়েছে তাঁর সঙ্গে। তাঁকে পিবিআই চট্টগ্রাম নিয়ে গেছে। নতুন মামলায় এক নম্বর আসামি হবেন বাবুল আক্তার।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

কাশিমপুরে স্থানান্তর করা হলো মামুনুল-রফিকুলসহ ১৪ হেফাজত নেতাকে

অনলাইন ডেস্ক

কাশিমপুরে স্থানান্তর করা হলো মামুনুল-রফিকুলসহ ১৪ হেফাজত নেতাকে

হেফাজতে ইসলামের বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হক ও ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানীসহ গ্রেপ্তারকৃত ১৪ হেফাজত নেতাকে নেতাকে কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ মে) রাতে কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে তাদের কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর করা হয়।

গণমাধ্যমকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন, কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার দেব দুলাল। এসময় তিনি জানান, হেফাজতের সাম্প্রতিক সব তাণ্ডবের ঘটনায় গ্রেপ্তার মামুনুল হকসহ অনেকেই। তাদের কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছিল। একপর্যায়ে মঙ্গলবার রাতে পুলিশ হেফাজতে মামুনুল হক ও রফিকুল ইসলাম মাদানীসহ ১৪ জন হেফাজত ইসলামের নেতাকে কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন


যদি চালুই করতে হয়, তবে আজ থেকে নয় কেন?

বিবেকবোধ বা মানবিকতায় ‘চুজ অ্যান্ড পিক’ ব্যবস্থা নেই

আবারও করোনায় মৃত্যুর রেকর্ড গড়লো ভারত

পরিচয় পাওয়া গেছে পদ্মায় ডুবে যাওয়া সেই মাইক্রোবাস চালক ও মালিকের


গত ১৮ এপ্রিল দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসা থেকে মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগ। পরে একাধিকবার তাঁকে রিমান্ডে নেয়া হয়।

অন্যদিকে রাষ্ট্রবিরোধী উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় গত ৭ এপ্রিল রফিকুল ইসলাম মাদানীকে তার গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার পূর্বধলার লেটিরকান্দা থেকে আটক করে র‍্যাব।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর