উত্তর কোরিয়ায় সস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়: কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডসহ তিন প্রজন্মের শাস্তি
উত্তর কোরিয়ায় সস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়: কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডসহ তিন প্রজন্মের শাস্তি

উত্তর কোরিয়ায় সস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম ক্রয়: কর্মকর্তার মৃত্যুদণ্ডসহ তিন প্রজন্মের শাস্তি

অনলাইন ডেস্ক

সস্তায় চিকিৎসা সরঞ্জাম কেনায় উত্তর কোরিয়ার এক কর্মকর্তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন।

জানা গেছে, উত্তর কোরিয়ার ৫০ বছর বয়সী ওই কর্মকর্তা ডেপুটি ডিরেক্টর পদমর্যাদার। তিনি ইউরোপ থেকে চিকিৎসা সরঞ্জাম আনার বদলে চীন থেকে সস্তায় অর্ডার দিয়েছিলেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদমাধ্যম ডেইলি এনকে জানায়, যে হাসপাতালের জন্যে চিকিৎসা সরঞ্জাম কেনা হচ্ছিল তার কাজ গত বছর শুরু হলেও এখনও উদ্বোধন করা যায়নি।

কিমের নির্দেশ ছিল গত অক্টোবরের ভেতরে সব কাজ শেষ করতে হবে।  

এই নিষেধাজ্ঞা পরিস্থিতিতে প্রায় বাধ্য হয়ে সস্তায় চীন থেকে চিকিৎসা সরঞ্জাম অর্ডার দেন উত্তর কোরিয়ার দায়িত্বপ্রাপ্ত ওই কর্মকর্তা। পরে বিষয়টি জানতে পেরে এই অর্ডার বাতিল করে কঠিন এক আইনে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেন কিম জং উন।  কর্মকর্তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা হয় নি।


আরও পড়ুনঃ


নির্জনতা কখনো আমাদের শূন্য হাতে ফেরায় না

৩ লাখ ছাড়ানোর নয় দিনের মাথায় ৪ লাখ সংক্রমণে ভারত!

শপিংয়ে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে পরদিন কিনলেন নতুন গাড়ি

ভারত থেকে অস্ট্রেলিয়া প্রবেশ সাময়িকভাবে অবৈধ, জেল-জরিমানার বিধান


ডেইলি এনকে আরও জানায়, উত্তর কোরিয়ার এই আইন এতটাই কড়া যে 'অপরাধী' হিসেবে শাস্তি দেয়া ওই কর্মকর্তার পরের তিন প্রজন্মকেও শাস্তি ভোগ করতে হতে পারে।

১৯৮০ সালের দিকে ‘অপরাধীর বীজ’ নির্মূলের লক্ষ্যে এই নিয়ম চালু হয় দেশটিতে।

news24bd.tv / নকিব