হামলা কেবল শুরু : ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

হামলা কেবল শুরু : ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

গাজা ভূ-খণ্ডে ফিলিস্তিনি এবং ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মধ্যে হামলা পাল্টা হামলা তীব্র আকার নিয়েছে। এদিকে গাজায় হামলার বিষয়ে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, এটি কেবল শুরু। আমরা তাদের এমনভাবে আঘাত করব, যা তারা স্বপ্নেও ভাবেনি।

তিনি বলেন, আমরা সামরিক অভিযানের মধ্যবর্তী অবস্থায় রয়েছি। হামাস ও ইসলামী জিহাদের বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী।

নেতানিয়াহু বলেন, ‘আমরা অরাজকতা বন্ধ করতে প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। ইসরায়েলের শহরগুলোতে প্রশাসনিক ব্যবস্থা ঠেলে সাজানো হচ্ছে। প্রয়োজনে আরও নির্মমভাবে ও নৃশংস উপায়ে সমস্ত বাহিনী দিয়ে এই অরাজকতা বন্ধ করা হবে।’

হামাস-ইসরায়েল লড়াই শুরু হওয়ার পর থেকে গাজায় ইসরায়েলের অব্যাহত বিমান হামলা চলছে। সোমবার (১০ মে) দিনগত রাত থেকে এ পর্যন্ত ১৪ শিশু ও এক নারীসহ ৫৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

হামাস মুখপাত্র ফাওয়াজ বারহুম বলেন, যতদিন পর্যন্ত আমাদের নাগরিকদের ওপর জায়নবাদীদের আগ্রাসন বন্ধ না হবে, ততদিন পর্যন্ত ফিলিস্তিনিরা, বিশেষ করে হামাস প্রতিরোধ আন্দোলন চালিয়ে যাবে। দখলদার বাহিনী গাজা, জেরুজালেম ও আল-আকসাকে তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে।-খবর আরব নিউজের

জেরুসালেমের একটি এলাকায় ইসরায়েলি পুলিশ এবং ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষের জেরে কয়েক সপ্তাহ ধরে উত্তেজনা বিরাজ করার পর এই লড়াইয়ের সূত্রপাত হয়েছে। 

আল-আকসা মসজিদ মুসলমানদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। তবে ইহুদিরা জায়গাটিকে তাদের নিজেদের উপাসনালয় হিসেবে দাবি করে।  ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েলের যুদ্ধের সময় পূর্ব জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। এরপর ১৯৮০ সালে পুরো জেরুজালেম তাদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। যা এখনও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে স্বীকৃতি পায়নি।

এদিকে গাজায় “অযৌক্তিক এবং অতিরিক্ত শক্তি” প্রয়োগ করায় ইসরায়েলের তীব্র নিন্দা করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক বিবৃতিতে বলেছে, ইসরায়েলি বাহিনী বারবার আল-আকসা মসজিদে সহিংস অভিযানের সময় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে অপরিকল্পিত এবং বেআইনিভাবে শক্তি মোতায়েন করেছে এবং শেখ জারারাহ-তে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর অকারণে হামলা চালিয়েছে।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত

যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়ার বিমানবন্দরের কাছে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে বিমান চালক নিহত হয়েছেন। বিমানটি একটি বাড়ির পেছনে বিধ্বস্ত হয়।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বার্কিংহামের দোয়েলস্টাউন বিমানবন্দরের কাছে একটি বনভূমি এলাকায় এই বিমানদুর্ঘটার ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন:


বিপদটা এখানেই

ফ্রান্সের কাছে জার্মানির হার

ওমানের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ


বাকিংহামের পুলিশের বরাতে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদ সংস্থা দ্যা এক্সপ্রেসের জানিয়েছে, সিঙ্গেল ইঞ্জিনের বিমানের পাইলট একাই বিমানটি পরিচলনা করছিলেন। হঠাৎ বিমানটি বিধ্বস্ত হলে ঘটনাস্থলে চালক মারা যান। নিহত পাইলটের নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে এই ঘটনায় কোনও বাড়িঘর বা অন্যান্য কাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।

দেশটির জাতীয় পরিবহন সুরক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, বিমানটি এক্সপেরিমেন্টাল ভ্যানের আরভি-৬, যেটি এক ধরণের গৃহনির্মিত বিমান।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মেক্সিকোতে বাস দুর্ঘটনায় নিহত ১২

অনলাইন ডেস্ক

মেক্সিকোতে বাস দুর্ঘটনায় নিহত ১২

মেক্সিকোতে যাত্রীবাস উল্টে গিয়ে কমপক্ষে ১২ জন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ১০ জন। 

দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চলের রাজ্য তামাউলিপাসে মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। 

খবরে বলা হয়, নাগরিক সুরক্ষা সমন্বয়ক পেদ্রো গ্রানাদোস সাংবাদিকদের জানান, দুর্ঘটনায় বাসের চালকসহ নয়জন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। হাসপাতালে নেয়ার পর মৃত্যু হয় আরও তিনজনের। আহতদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন:


স্বাধীনতার মূল শর্ত হচ্ছে বাক, চিন্তা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা: ফখরুল

এখনও খোঁজ মেলেনি আবু ত্ব-হা আদনানের, যা বলছে পুলিশ

রোনালদোকাণ্ডের পর এবার টেবিল থেকে বিয়ারের বোতল সরালেন পগবা


 

সীমান্তবর্তী শহর রেইনোসা থেকে পাশের রাজ্য নুয়েভো লিয়নের মনটেরির উদ্দেশ্যে বাসটি যাচ্ছিল। সেসময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

news24bd.tv নাজিম

পরবর্তী খবর

গুজরাটে দুই গাড়ির সংঘর্ষে নিহত ১০

অনলাইন ডেস্ক

গুজরাটে দুই গাড়ির সংঘর্ষে নিহত ১০

ভারতের গুজরাটের সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ জন নিহত হয়েছেন। বুধবার সকালে আনন্দ জেলার তারাপুর থানার ইন্দ্রনাজ গ্রামের কাছে এ ঘটনা ঘটে। 

তারাপুর থানার পুলিশ কর্মকর্তার বরাতে হিন্দুস্তান টাইমস ​জানিয়েছেন, আনন্দ জেলার তারাপুরকে আহমেদাবাদ জেলার ভাতামানকে সংযোগকারী একটি মহাসড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

আরও পড়ুন:


বিপদটা এখানেই

ফ্রান্সের কাছে জার্মানির হার

ওমানের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ


তিনি বলেন, গাড়িতে একটি শিশুসহ মোট ১০ জন যাত্রী ছিল, বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী ট্রাকের ধাক্কায় তারা সবাই নিহত হয়েছেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, গাড়ির ভেতর থেকে লাশগুলো বের করা হয়েছে। নিহতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সোমালিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ১৫

অনলাইন ডেস্ক

সোমালিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ১৫

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিশুতে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন। জঙ্গি গোষ্ঠী আল শাবাব এর দায় স্বীকার করেছে।

মঙ্গলবার সেনাবাহিনীর একটি শিবিরের সামনে নতুন নিয়োগকৃতদের লাইন লক্ষ্য করে হামলাটি চালানো হয়।


বিপদটা এখানেই

ফ্রান্সের কাছে জার্মানির হার

ওমানের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত বাংলাদেশ


 

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রত্যক্ষদর্শী একজন সাংবাদিক এ তথ্য জানিয়েছেন।

রয়টার্স জানিয়েছে, ওই লাশগুলো মোগাদিশুর জেনারেল দেগাবান সামরিক প্রশিক্ষণ শিবিরের বাইরে একটি চেকপয়েন্টে চালানো হামলায় যারা নিহত হয়েছেন, তাদের বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালটিতে থাকা কর্মকর্তারা।

আল শাবাবের রেডিও আল আনদালুসে বলা হয়েছে, জঙ্গি গোষ্ঠীটির যোদ্ধারা হামলাটি চালিয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

সেই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি সরকার

অনলাইন ডেস্ক

সেই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি সরকার

ছয় বছর আগে রাজতন্ত্রবিরোধী আন্দোলনের দায়ে সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় কাতিফ শহরে আটক এক কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে দেশটির সরকার। এই কিশোরের বিরুদ্ধে উসকানি সৃষ্টি এবং শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে অংশ নেয়ার অভিযোগ এনেছিল রিয়াদ।

এছাড়া, তার বিরুদ্ধে আরো ভিত্তিহীন নানা অভিযোগ এনেছিল সৌদি সরকার। কাতিফ হচ্ছে সৌদি আরবের শিয়া মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ একটি অঞ্চল।

গতকাল মঙ্গলবার সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার ব্যাপারে একটি বিবৃতি দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, মুস্তাফা বিন হাশেম বিন ঈসা আল-দারভিশ নামে এই কিশোরের মৃত্যুদণ্ডের শাস্তি কার্যকর করা হয়েছে। সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় দাম্মাম প্রদেশে তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

আরও পড়ুন


এখনও খোঁজ মেলেনি আবু ত্ব-হা আদনানের, যা বলছে পুলিশ

দেশের নদীবন্দরে সতর্কতা

সংসদে এমপি চুন্নু বললেন, নাসির ‘ভালো লোক’

বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সর্বশেষ তথ্য


সৌদি সরকার অভিযোগ করেছিল যে, মুস্তাফা দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে অস্ত্র হাতে তুলে নিয়েছিল, জাতীয় নিরাপত্তা হুমকির মুখে ফেলেছিল, সৌদি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের হত্যার জন্য একটি সন্ত্রাসী চক্র গড়ে তুলেছিল এবং উসকানি দিয়ে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টির চেষ্টা করেছে। সৌদি সরকারের এ সমস্ত অভিযোগ মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রত্যাখ্যান করে কিশোর মোস্তফার বিরুদ্ধে দেয়া মৃত্যুদণ্ডের আদেশ প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছিল। কিন্তু সৌদি সরকার এসব আহ্বানকে উপেক্ষা করে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে।

২০১৫ সালে কাতিফ শহর থেকে মুস্তাফাকে আটক করা হয়। তখন তার বয়স ছিল ১৭ বছর। সূত্র: পার্সটুডে।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর