ইসরায়েলি হামলা নিয়ে যা বললেন পোপ ফ্রান্সিস
ইসরায়েলি হামলা নিয়ে যা বললেন পোপ ফ্রান্সিস

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও পোপ ফ্রান্সিস

ইসরায়েলি হামলা নিয়ে যা বললেন পোপ ফ্রান্সিস

অনলাইন ডেস্ক

গত কয়েকদিন ধরেই চলছে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘর্ষ। গত সোমবার (১০ মে) থেকে শুরু হওয়া সংঘর্ষ আজও চলছে এবং গাজায় বিমান হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরায়েল। ইসরায়েলি বিমান বাহিনীর বোমা হামলায় রোববার (১৬ মে) ভোরে আরও ৩৩ জন ফিলিস্তনি নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে টানা সপ্তম দিনের মতো দখলদার বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮১ জনে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে ফিলিস্তিনে ইসরায়েলি হামলা নিয়ে প্রথমবারের মতো মুখ খুললেন পোপ ফ্রান্সিস। এই সংঘাত অবসানের আহ্বান জানিয়ে রোববার (১৬ মে) তিনি বলেন, গাজায় ইসরায়েলি বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ড গ্রহণযোগ্য নয়।

আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, সেন্ট পিটার্স স্কয়ারে সাপ্তাহিক ভাষণে পোপ বলেন, গাজায় সম্প্রতি ইসরায়েলের হামলায় শিশুসহ অনেক নিরীহ মানুষ মারা গেছেন, যা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আমি শান্তি বজায় রাখতে এবং অস্ত্রের ঝনঝনানির অবসান ঘটাতে এর সঙ্গে জড়িতদের কাছে আবেদন জানাচ্ছি।

পোপ আরও বলেন, ‘অনেক নিরীহ মানুষ মারা গেছে। তাদের মধ্যে শিশুও রয়েছে। এটি যেমন ভয়াবহ তেমনি অগ্রহণযোগ্য। তাদের মৃত্যু এটি প্রমাণ করে যে তারা মানুষের ভবিষ্যত গড়তে চায় না। তারা সভ্যতাকে ধ্বংস করতে চায়। ’

প্রসঙ্গত, ইসরায়েল বাহিনীর পবিত্র আল আকসা মসজিদকে অবরুদ্ধ করে রাখাকে কেন্দ্র করে ইসরায়েলে রকেট নিক্ষেপ করেছিল ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস। তারই জের ধরে গত সোমবার থেকে ফিলিস্তিনের গাজার বোমা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল।  

আল-আকসা মসজিদ মুসলমানদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। তবে ইহুদিরা জায়গাটিকে তাদের নিজেদের উপাসনালয় হিসেবে দাবি করে।   ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েলের যুদ্ধের সময় পূর্ব জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। এরপর ১৯৮০ সালে পুরো জেরুজালেম তাদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। যা এখনও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে স্বীকৃতি পায়নি।

news24bd.tv/আলী 

;