প্রকাশক সৎ না হলে পাবে ঘোড়ার আন্ডা
প্রকাশক সৎ না হলে পাবে ঘোড়ার আন্ডা

প্রকাশক সৎ না হলে পাবে ঘোড়ার আন্ডা

Other

বাংলাদেশে লেখালেখি করে কেউ জীবন চালাতে পারবে না। ফলে ডেডিকেইটেড লেখক, ফুল-টাইম লেখক, প্রফেশনাল লেখক, গবেষক ও অনুবাদক উঠে আসার সম্ভাবনা ক্ষীণ। এর জন‍্য দায়ী প্রকাশক ও পাঠক।

বাংলাদেশের বেশিরভাগ প্রকাশক নৈতিকতাহীন।

দুষ্ট। অসৎ।

লেখকদেরকে বইয়ের হিসেব দেয় না। রয়ালটি দেয় না। —এইসব অভিযোগ তো বহু পুরানো। কিন্তু ওরা এরচেয়ে আরো অনেক বেশি খারাপ!
কতোভাগ প্রকাশক ভালো? —ত্রিশ ভাগ? বড়ো জোড় চল্লিশ ভাগ!

পত্রিকাগুলোও নোংরা। তারা উপার্জন করবে প্রচুর কিন্তু লেখকদের টাকা দিবে ফকিরের মতো। এগুলো নিয়ে আলোচনা হওয়া উচিত। কথা বলা উচিত।

এখন পাঠকের কথা যদি বলি, তাহলে পাঠক বই কিনতে অনাগ্রহী। পাঁচশ টাকা চায়ের বিল দিবে কিন্তু বইয়ের দাম দুইশ টাকা হলেই আর পেরে ওঠে না। আঠারো কোটি মানুষের দেশে আঠারো লক্ষ পাঠক নেই যারা নিয়মিত বই কেনে। শখ করে বই কেনে। বই উপহার দেয়। আর এ যুগে এসে বই বের না হতেই পিডিএফ চাওয়া শুরু করে। আদতে সেসব পিডিএফ কোনোদিন খুলেও দেখে না। তবুও চাইবে।

কোন বইয়ের গায়ের ম‍ূল‍্য যদি দুইশত টাকা হয়, সে বই থেকে লেখক পায় ১৫-২০ টাকা। কিংবা আরো কম! তাহলে সে বই যদি মাসে এক হাজার কপিও বিক্রি হয়, লেখক পাবে সবোর্চ্চ বিশ হাজার টাকা। যদি প্রকাশক সৎ হয়। প্রকাশক সৎ না হলে পাবে ঘোড়ার আন্ডা।

তাহলে কেউ যদি মাসে পঞ্চাশ-ষাট হাজার টাকা উপার্জন করতে চায়, তাহলে তার বই বিক্রি হতে হবে মাসে অন্তত তিন-চার হাজার কপি! বছরে প্রায় চল্লিশ-পঞ্চাশ হাজার! এই সময়ে এসে এটা প্রায় অসম্ভব ব‍্যাপার! তাহলে জীবিকা হিসেবে লেখালেখিকে বেছে নিবে কেন?

নব্বইয়ের দশকেও দেশে প্রবাসী লেখকের সংখ‍্যা তেমন ছিলো না। এখন অনেক। এই সংখ‍্যা আরো বাড়বে। প্রাবাসী লেখকরা টাকার জন‍্য লেখে না। লিখতে হয় না। দেশে বই বিক্রির টাকা দিয়ে প্রবাসে গাড়ির তেল খরচও উঠবে না। ফলে দিন দিন প্রবাসী লেখকের সংখ‍্যা বাড়বে। দেশে ধর্মীয় বইয়ের লেখকও বাড়বে। কারণ ধর্মীয় বই মানুষ কেনে বেশি। প্রকাশকরাও ছাপাতে আগ্রহী!

দেশে বসে যারা লেখে, তারা অর্থ-কষ্টে থাকে। তাদের অনেকেই লেখক হয়ে ওঠে কিন্তু জীবনযুদ্ধে জর্জরিত। তাদেরকে দেখার কেউ নেই! শুধু মরার পর বেঁচে থাকার এক ইলুশন, মিথ‍্যা মোহ নিয়ে সবাই লেখক হয়ে ওঠে না।

আমাদের দেশে অনেক তালিকা হয়। এখন সময় হয়েছে অসৎ ও নৈতিকতাহীন প্রকাশকদের একটা তালিকা প্রকাশ করা। এই তালিকা প্রকাশ করলে কিছু লেখক দেশে বসেও খেয়ে-পড়ে বাঁচতে পারবে বলে আমার মনে হয়।

news24bd.tv তৌহিদ

;