মোবাইল চুরির অভিযোগে কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্মম নির্যাতন
মোবাইল চুরির অভিযোগে কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্মম নির্যাতন

মোবাইল চুরির অভিযোগে কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্মম নির্যাতন

Other

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় মোবাইল চুরির অভিযোগে এক কিশোরকে হাত-পা বেঁধে নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতিত ইয়াকুব (১৩) ওই উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের মেরাসানী গ্রামের মৃত মজলু ভূইয়ার ছেলে।

গতকাল রোববার ওই কিশোরকে নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন যুবক মিলে ওই কিশোরকে হাত-পা বেঁধে মাটিতে ফেলে নির্যাতন করছে।

এ সময় সে চিৎকার করলেও কেউ কর্ণপাত করেনি।

নির্যাতিত কিশোরের পরিবারের লোকজন জানায়, গত চারদিন আগে স্থানীয় মিরাসানী গ্রামের রুবেলের ভগ্নিপতির বাড়িতে মোবাইল চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গত শনিবার সন্দেহজনকভাবে কিশোর ইয়াকুবকে কৌশলে ডেকে রুবেলের বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে মোবাইল চুরির অভিযোগে রুবেলসহ বাবু, মান্না ও আরো কয়েকজন মিলে তার হাত-পা বেঁধে বেধড়ক পেটাতে থাকে। পরে ইয়াকুবের কান্নার শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন তার পরিবারে খবর দিলে তাকে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন

  করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে সেখানেও দুর্নীতি করেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

  নারদকাণ্ডে মমতার তৃণমূলের ৪ হেভিওয়েট নেতা গ্রেপ্তার

  করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি কবি জয় গোস্বামী

  ফিলিস্তিনিদের বাঁচাতে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান বাংলাদেশের

 

নির্যাতনের শিকার কিশোর ইয়াকুব জানান, তাকে চেয়ারের সাথে বেঁধে মারধর করা করা হয়েছে এবং ইলেকট্রিক শক দেয়া হয়েছে। পরে তার পরিবারের লোকজন এসে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতিকুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

news24bd.tv আহমেদ

;